ইরান সবচেয়ে বড় সামরিক জাহাজ প্রকাশ্যে আনলো

অনলাইন ডেস্ক

ইরান সবচেয়ে বড় সামরিক জাহাজ প্রকাশ্যে আনলো

সংগৃহীত

ইরানের নৌবাহিনী আনুষ্ঠানিকভাবে দেশটির সবচেয়ে বড় সামরিক জাহাজ প্রকাশ করেছে। যুক্তরাষ্ট্রের সঙ্গে পরমাণু কর্মসূচি নিয়ে চলমান উত্তেজনার মধ্যেই একটি নৌ সামরিক মহড়ার সময় ওই জাহাজটির আত্মপ্রকাশ করে ইরান। খবর আল জাজিরার।

স্থানীয়ভাবে তৈরি করা এই রণতরীর নাম আইআরআইএস মাকরান। এই যুদ্ধজাহাজটি একসঙ্গে পাঁচটি হেলিকপ্টার বহন করতে সক্ষম। সামরিক মহড়ার সময় মিসাইল নিক্ষেপে সক্ষম আরেকটি জাহাজের সঙ্গে এটিও যোগ দেয়।

২২৮ মিটার দীর্ঘ যুদ্ধজাহাজটি আগে একটি তেল ট্যাংকার ছিল। তবে অনুসন্ধান ও উদ্ধার মিশন পরিচালনা, বিশেষ বাহিনী মোতায়েন, পরিবহনের প্রয়োজনীয় জিনিস সরবরাহ, চিকিৎসা সহায়তা এবং দ্রুতগামী নৌকাগুলোর ঘাঁটি হিসেবে কাজ করার জন্য লজিস্টিক সহায়তা দিতে এটার সংস্কার করা হয়।


জামালপুরে ৭ বছরের শিশুকন্যা ধর্ষণের শিকার

কক্সবাজার সমুদ্র সৈকতে বালুর ওপর বসে সুনেরা

খুলনায় ভাড়া না পেয়ে ভাড়াটিয়াকে তালাবদ্ধ, শিশু সন্তানের মৃত্যু


ওমান সাগরে দুইদিনের এই সামরিক মহড়ায় সমুদ্রে সারফেস-টু-সারফেস ক্রুজ মিসাইল, সাবমেরিন থেকে মিসাইল ছোঁড়ার পাশাপাশি বিশেষ অভিযান পরিচালনা এবং মনুষ্যবিহীন বিমানের পরীক্ষা চালানো হবে।

ভারত মহাসাগরের উত্তরাঞ্চলে এডেন উপসাগরের বাবেল মান্দেব এবং লোহিত সাগরের মতো এলাকায় ইরানের সামরিক বাহিনীর অভিযানের সময় এই জাহাজ লজিস্টিক সাপোর্ট দেবে। এ ধরনের জাহাজকে ভ্রাম্যমাণ বন্দর বলা হয় এবং এমন সামুদ্রিক অভিযানের সময় জাহাজ গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখে থাকে।

জাহাজটির ডেকে হেলিকপ্টার, গানশিপ এবং ড্রোন ওঠানামা করতে পারবে। এছাড়া, নৌবাহিনীর জন্য হোভারক্রাফট থেকে শুরু করে বিভিন্ন ধরনের নৌযান বহন করতে পারবে। উত্তাল সমুদ্রের মারাত্মক প্রতিকূল অবস্থার ভেতরেও এ জাহাজ তার মিশন চালাতে পারবে।

news24bd.tv / কামরুল 

মন্তব্য

পরবর্তী খবর

মিয়ানমারে ‘জাতীয় ঐক্য সরকার’ গঠন

অনলাইন ডেস্ক

মিয়ানমারে ‘জাতীয় ঐক্য সরকার’ গঠন

‘জাতীয় ঐক্য সরকার’ গঠনের ঘোষণা দিয়েছেন মিয়ানমারের ক্ষমতাচ্যুত বেসামরিক নেতা অং সান সু চির সমর্থকেরা।

ফিন্যানসিয়াল টাইমস ও আলজাজিরার এমন খবর দিয়েছে।

দক্ষিণপূর্ব এশীয় দেশটির পার্লামেন্ট ফিডোংসু লুট্টোর প্রতিনিধিত্বকারী কমিটি শুক্রবার (১৬ এপ্রিল) এমন ঘোষণা দিয়েছে।

ক্ষমতাচ্যুত দল ন্যাশনাল লিগ ফর ডেমোক্রেসি পার্টির এমপিরা এই কমিটি গঠন করেন।

পহেলা ফেব্রুয়ারি জেনারেল মিন অং হ্লাইং ক্ষমতা দখলের পর তারা নির্বাসনে ও আত্মগোপনে আছেন।

এই সামন্তরাল সরকারে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখতে নৃতাত্ত্বিক সংখ্যালঘু গোষ্ঠীগুলোর প্রতিনিধিদের অন্তর্ভুক্ত করা হয়েছে।

ঐক্য সরকারের আন্তর্জাতিক সহযোগিতা বিষয়ক মন্ত্রী সাসা বলেন, নেতা হিসেবে আমরা ধর্ম, বর্ণ, সম্প্রদায়ের উৎস কিংবা পেশাগত জীবন বিবেচনা না করেই সবাইকে ভাই ও বোন হিসেবে মর্যাদা এবং সেবা দিয়ে যাব।

তিনি বলেন, এই খুনি সামরিক জান্তার নিপীড়ন থেকে আমাদের জাতির মুক্তির জন্য সবাইকে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখতে হবে। মিয়ানমারের নাগরিক হিসেবে সবাইকে সমানাধিকার দেওয়া হবে।


আল্লাহ ফেরআউনকেও সুযোগ দিয়েছিলেন ছেড়ে দেননি: বাবুনগরী

ইফতারের আগে দোয়া কবুলের জন্য যে আমল করা উচিত

কখন রোজা ভাঙলে গোনাহ হবে না

আল্লাহ ছাড় দেন, ছেড়ে দেন না


সামরিক বাহিনীর হাতে আটক স্টেট কাউন্সিলর অং সান সু চি ও প্রেসিডেন্ট উইন মিন্ট জাতীয় ঐক্য সরকারে নিজেদের বর্তমান ভূমিকায় থাকবেন।

এতে ভারপ্রাপ্ত প্রেসিডেন্ট হিসেবে দায়িত্ব পালন করবেন কাচিন সংখ্যালঘু সম্প্রদায় থেকে উঠে আসা দাওয়া লাশি লা। আর ছায়া সরকারের প্রধানমন্ত্রীর দায়িত্বে থাকবেন পার্লামেন্টের উচ্চকক্ষে সাবেক স্পিকার নতৃাত্ত্বিক কারেন মাহন উইন খাইং থান।

সাসা বলেন, আমাদের রোহিঙ্গা ভাই, বোনসহ সবার প্রতি ন্যায়বিচার প্রতিষ্ঠা করা হবে। মিয়ানমারের ইতিহাসে এটিই প্রথম কোনো ঐক্য সরকার বলে তিনি জানান।

মিয়ানমার সেনাবাহিনী দেশটির ক্ষমতা দখলের পর থেকে সেখানে চরম বিশৃঙ্খলা বিরাজ করছে।

news24bd.tv তৌহিদ

মন্তব্য

পরবর্তী খবর

মাস্ক না পরলে জরিমানা ১০ হাজার টাকা

অনলাইন ডেস্ক

মাস্ক না পরলে জরিমানা ১০ হাজার টাকা

করোনাভাইরাসের সংক্রমণ বৃদ্ধিতে আগামী রবিবার (১৮ এপ্রিল) থেকে লকডাউন ঘোষণা করেছে ভারতের উত্তরপ্রদেশ সরকার। শনিবার (১৭ এপ্রিল) থেকে শুরু হয়ে লকডাউন চলবে সোমবার (১৯ এপ্রিল) পর্যন্ত।

এসময়ে বন্ধ থাকবে জরুরি পরিষেবা ব্যতিত সব দোকানপাট ও অফিস। একইসঙ্গে বলা হয়েছে, প্রথমবার মাস্ক ছাড়া ধরা পড়লে ১০০০ হাজার টাকা আর একই ভুল করে পরেরবার ধরা পড়লে ১০ হাজার টাকা জরিমানা দিতে হবে।


আরও পড়ুনঃ


চীনে সন্তান নেয়ার প্রবণতা কমছে, কমছে জন্মহার

গালি ভেবে গ্রামের নাম মুছে দিলো ফেসবুক

‘রোমিও অ্যান্ড জুলিয়েট’ ধারা রেখে ফ্রান্সে ধর্ষণের নতুন আইন

প্রকৃত কোন মুসলমান আওয়ামী লীগ করতে পারে না: ভিপি নুর


বৃহস্পতিবার (১৫ এপ্রিল) এক টুইট বার্তায় রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথ জানান, উত্তরপ্রদেশের লখনৌ, প্রয়াগরাজ, বারাণসী, কানপুর নগর, গৌতম বুদ্ধ নগর, গাজিয়াবাজ, মেরঠ ও গোরখপুরের মতো ১০টি জেলায় করোনা আক্রান্তের সংখ্যা ২ হাজারের বেশি।

এই জেলাগুলোতে রাত ৮ থেকে সকাল ৭টা পর্যন্ত নৈশ কারফিউ জারি থাকবে বলেও জানান তিনি।

news24bd.tv / নকিব

মন্তব্য

পরবর্তী খবর

‘রোমিও অ্যান্ড জুলিয়েট’ ধারা রেখে ফ্রান্সে ধর্ষণের নতুন আইন

অনলাইন ডেস্ক

‘রোমিও অ্যান্ড জুলিয়েট’ ধারা রেখে ফ্রান্সে ধর্ষণের নতুন আইন

ধর্ষণের নতুন আইন করেছে ফ্রান্স সরকার। এই আইনে ১৫ বছর বয়সের কারো সঙ্গে যৌন সম্পর্ক করলে তা ধর্ষণ বলে গণ্য হবে। এই আইন ভাঙলে পেতে হবে কড়া শাস্তি।

এক প্রতিবেদনে জার্মান সংবাদমাধ্যম ডয়চে ভেলে জানায়, আগে ফ্লান্সে ‘এজ অফ কনসেন্ট’ বা যৌন সংসর্গের ক্ষেত্রে সম্মতির ন্যূনতম বয়স ছিল ১৫। তার নিচে কারো সঙ্গে যৌন সম্পর্কে জড়িত থাকার অভিযোগ এলে আইনজীবীদের প্রমাণ করতে হতো, সম্মতি ছাড়া সেই সম্পর্ক হয়েছে। তা হলেই তা ধর্ষণ বলে স্বীকৃত হতো।

এবার আইন আরও কড়া হলো। এখন থেকে ১৫ বছর বয়সীদের নিচে যৌন সম্পর্ক মানেই ধর্ষণ বলে চিহ্নিত হবে। বিলটি সর্বসম্মতিতে দেশটির সংসদে পাস হয়েছে। এর আগে তা উচ্চকক্ষেও অনুমোদিত হয়েছিল।

দেশটির বিচারমন্ত্রী বলেন, “আমাদের বাচ্চাদের জন্য ঐতিহাসিক আইন হলো। কোনো প্রাপ্তকবয়স্ক আর সম্মতির ভিত্তিতে ১৫ বছরের কম বয়সীদের সঙ্গে যৌন সম্পর্কে জড়াতে পারবে না।”


আরও পড়ুনঃ


চীনে সন্তান নেয়ার প্রবণতা কমছে, কমছে জন্মহার

পাঁচ দেশের সঙ্গে বিশেষ ফ্লাইট শুরুর ঘোষণা

এ বছর ৩৬ লাখেরও বেশি দরিদ্র পরিবার পাবে প্রধানমন্ত্রীর ঈদ উপহার

প্রকৃত কোন মুসলমান আওয়ামী লীগ করতে পারে না: ভিপি নুর


অন্যদিকে সংসদের কিছু সদস্য বলেন, যদি ১৫ বছরের কম বয়সীদের সঙ্গে যৌন সম্পর্ককে ধর্ষণ বলা হয়, তা হলে অপ্রাপ্তবয়স্কের সঙ্গে বয়সে কয়েক বছরের বড় কেউ সম্পর্ক স্থাপন করলেই শাস্তি পাবে। এতে সমাজে বিরূপ প্রভাব দেখা দিতে পারে।

তবে আইনে একটি ‘রোমিও অ্যান্ড জুলিয়েট’ ধারা রাখা হয়েছে। সেখানে বলা হয়েছে, অপ্রাপ্তবয়স্কদের সঙ্গে পাঁচ বছর পর্যন্ত বড়রা সম্মতির ভিত্তিতে যৌন সম্পর্ক গড়ে তুললে তাকে ধর্ষণ বলা হবে না। কিন্তু যৌন নিগ্রহ করলে শাস্তি পেতে হবে।

news24bd.tv / নকিব

মন্তব্য

পরবর্তী খবর

যুক্তরাষ্ট্রে ৮ জনকে হত্যা করে বন্দুকধারীর আত্মহত্যা

অনলাইন ডেস্ক

যুক্তরাষ্ট্রে ৮ জনকে হত্যা করে বন্দুকধারীর আত্মহত্যা

যুক্তরাষ্ট্রে ইন্ডিয়ানাপোলিস শহরে এক বন্দুকধারীর হামলায় অন্তত ৮ জন নিহত ও বেশ কয়েকজন আহত হয়েছে। এরপর বন্দুকধারী আত্মহত্যা করেন বলে জানিয়েছে পুলিশ।

পুলিশের মুখপাত্র জিনে কুক বলেছেন, আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরের কাছে ফেডেক্সের একটি ভবনের কাছে ওই ব্যক্তিদের মৃতদেহ পড়ে থাকতে দেখা যায়। বৃহস্পতিবার রাতে এখানেই বন্দুক হামলার ঘটনা ঘটেছিল।

স্থানীয় সম্প্রচার মাধ্যম উইশ-টিভিকে একজন প্রত্যক্ষদর্শী জানিয়েছেন, হঠাৎ করেই গুলি করতে শুরু করে ওই হামলাকারী। ১০টির বেশি গুলির শব্দ শুনতে পেয়েছেন বলেও জানান ওই ব্যক্তি।


আরও পড়ুনঃ


চীনে সন্তান নেয়ার প্রবণতা কমছে, কমছে জন্মহার

পাঁচ দেশের সঙ্গে বিশেষ ফ্লাইট শুরুর ঘোষণা

এ বছর ৩৬ লাখেরও বেশি দরিদ্র পরিবার পাবে প্রধানমন্ত্রীর ঈদ উপহার

প্রকৃত কোন মুসলমান আওয়ামী লীগ করতে পারে না: ভিপি নুর


এক বিবৃতিতে ফেডেক্স জানিয়েছে, ইন্ডিয়ানাপোলিস বিমানবন্দরের কাছে আমাদের ভবনে মর্মান্তিক এই গুলির ঘটনা সম্পর্কে আমরা অবগত। নিরাপত্তা আমাদের কাছে অগ্রাধিকার। ভুক্তভোগীদের প্রতি সমবেদনা জানাই।

news24bd.tv / নকিব

মন্তব্য

পরবর্তী খবর

প্রথম কোয়ার্টারে রেকর্ড

১৮ দশমিক ৩ শতাংশ প্রবৃদ্ধি চীনের অর্থনীতিতে

অনলাইন ডেস্ক

১৮ দশমিক ৩ শতাংশ প্রবৃদ্ধি  চীনের অর্থনীতিতে

চীনের অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধিতে উল্লম্ফন ঘটেছে করোনা পরবর্তী সময়ে। গত বছরের একই সময়ের তুলনায় চলতি বছরের প্রথম কোয়ার্টারে রেকর্ড ১৮ দশমিক ৩ শতাংশ প্রবৃদ্ধি হয়েছে এই অর্থনীতি জায়ান্টের।

বিবিসি জানায়, ১৯৯২ সাল থেকে কোয়ার্টার (তিন মাস) হিসাব রাখার পর এই প্রথম মোট দেশজ উৎপাদনে (জিডিপি) এমন উল্লম্ফন দেখলো চীন।

অবশ্য শুক্রবার প্রকাশিত এই পরিসংখ্যান প্রত্যাশার চেয়ে কিছুটা কম। রয়টার্স পোল অব ইকনোমিস্টস ১৯ শতাংশ প্রবৃদ্ধির পূর্বাভাস দিয়েছিল।

আরও পড়ুন


ডেডিকেশন নিয়ে সংসার করেছি, কাজের জায়গাতেও একই রকম

জলবায়ু পরিবর্তন আইন করতে যাচ্ছে নিউজিল্যান্ড

ধর্মীয় একটি রাজনৈতিক দলকে নিষিদ্ধ করছে পাকিস্তান

পাঁচ দেশের সঙ্গে বিশেষ ফ্লাইট শুরুর ঘোষণা


গত বছরের একই সময়ের তুলনায় মার্চে শিল্পোৎপাদন ১৪ দশমিক ১ শতাংশ বেড়েছে। খুচরা বিক্রি বেড়েছে ৩৪ দশমিক ২ শতাংশ।

করোনা ভাইরাসের কারণে গত বছরের একই সময়ে ব্যাপক অর্থনৈতিক সংকোচনের তুলনায় এবার তির্যক শক্তিশালী প্রবৃদ্ধি হয়েছে।

গত ২০২০ সালের প্রথম কোয়ার্টারকে ভিত্তি ধরে এই পরিসংখ্যান প্রকাশ করা হয়। ওই সময় চীনে করোনা সংক্রমণ চূড়ায় ওঠায় সারাদেশে লকডাউন দেওয়া হলে অর্থনীতি ৬ দশমিক ৮ শতাংশ সংকুচিত হয়।

চীনের পরিসংখ্যান বিভাগ থেকে প্রকাশিত অন্যান্য খাতের হিসাবেও ঘুরে দাঁড়ানোর প্রবণতা অব্যাহত রয়েছে। গত বছরের দুর্বল সংখ্যার সঙ্গে তুলনা করায় প্রবৃদ্ধি অস্বাভাবিক শক্তিশালী দেখাচ্ছে।

news24bd.tv / কামরুল 

মন্তব্য

পরবর্তী খবর