নানা রংয়ের কয়েক হাজার অন্তর্বাস ঝুলছে এই তারকাঁটায়
নানা রংয়ের কয়েক হাজার অন্তর্বাস ঝুলছে এই তারকাঁটায়

নানা রংয়ের কয়েক হাজার অন্তর্বাস ঝুলছে এই তারকাঁটায়

অনলাইন ডেস্ক

অন্তর্বাস কখনও কখনও অন্তরের বাসা হয়েও দাঁড়ায়, জানেন কি? হ্যাঁ, এমনই এক জায়গার খবর আপনাকে দেব, যেখানে নানা রংয়ের অন্তর্বাস ঝুলছে। তা দেখার জন্য ভিড় জমাচ্ছেন পর্যটকরা। এমনকী প্রয়োজন হলে নিজের অন্তর্বাসখানি খুলে সেই বেড়ায় ঝুলিয়েও দিচ্ছেন তাঁরা।

নিউ জিল্যান্ডের সেন্ট্রাল ওটাগোয় কয়েক কিলোমটার জুড়ে একটি তারের বেড়া রয়েছে।

যেটি কারড্রোনা ব্রা ফেন্স নামে পরিচিত।

রঙিন অন্তর্বাস পরে স্কুলে গিয়ে মন্তব্যের শিকার রাধিকা

‘পুরুষরা বুকের দিকে না তাকালে মেয়েদের অন্তর্বাস পরতে হবে না’

করোনা থেকে বাঁচতে অন্তর্বাস ও স্যানিটারি ন্যাপকিন মুখে

অন্তর্বাস পোড়ানোর সেই আন্দোলনের সত্য-মিথ্যা

আদালতে অন্তর্বাস প্রদর্শন!

কিন্তু হঠাত্ এমন অদ্ভুত ধরনের বেড়া তৈরি কারণ কী? কথিত আছে, ১৯৯৯ সালে চার নারী নিজেদের অন্তর্বাস খুলে ওই বেড়ায় ঝুলিয়ে দিয়েছিলেন। নিছকই নববর্ষ পালনের উল্লাসে এমনই কাজ করেছিলেন বলে জানা যায়।

কার্ড্রোনা হোটেলে নববর্ষ উদযাপন করে তাঁরা ঠিক করেন, ব্রা খুলে অবাধ স্বাধীনতা ঘোষণা করবেন। এরপর সময় যত গড়িয়েছে ওই বেড়ায় ব্রায়ের সংখ্যা বেড়েছে...

প্রতিদিন কোনও না কোনও নারী নিজেদের অন্তর্বাস ঝুলিয়ে দিয়ে যান এখানে। কালক্রমে সংখ্যাটা কয়েক হাজার হয়ে দাঁড়িয়েছে এখন। এমনকী পর্যটকদের মনও কাড়তে শুরু করেছে এই জায়গা।

অনেকে একে দৃশ্যদূষণ বলে সমালোচনা করলেও, ওই জায়গার জনপ্রিয়তায় কখনও ভাঁটা পড়েনি।

news24bd.tv তৌহিদ