ইন্টার-অপারেবল ডিজিটাল লেনদেন চালু হবে: আইসিটি প্রতিমন্ত্রী পলক

নিজস্ব প্রতিবেদক

ইন্টার-অপারেবল ডিজিটাল লেনদেন চালু হবে: আইসিটি প্রতিমন্ত্রী পলক

তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি (আইসিটি) প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক বলেছেন, আর্থিক লেনদেনে খরচ ও হয়রানি রোধে ইন্টার-অপারেবল ডিজিটাল ট্রানজেকশন প্ল্যাটফর্ম চালু করা হবে। 

প্রশাসনিক ব্যবস্থায় স্বচ্ছতা ও জবাবদিহিতা নিশ্চিত করতে দেশের জনগণকে ডিজিটাল সেবা দেওয়ার মাধ্যমে ‘ইনলাইন’ থেকে ‘অনলাইনে’ নিয়ে আসা হবে বলেও জানান তিনি।

আজ রাজধানীর আগারগাঁওয়ের আইসিটি টাওয়ারে এক অনুষ্ঠানে এসব কথা বলেন পলক।  

সরকারি প্রতিষ্ঠানের দক্ষতা ও দায়বদ্ধতা বাড়ানোর লক্ষ্যে প্রবর্তিত ‘বার্ষিক কর্মসম্পাদনে’ সব মন্ত্রণালয় ও বিভাগের মধ্যে জনসেবায় আইসিটি বিভাগ সেরা নির্বাচিত হওয়ায় এপিএ উদ্যাপনে অনুষ্ঠানটির আয়োজন করা হয়।

তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিভাগের সিনিয়র সচিব এন এম জিয়াউল আলম অনুষ্ঠানের মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন।  

অনুষ্ঠানে অন্যান্যোর মধ্যে উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ হাই-টেক পার্ক কর্তৃপক্ষের ব্যবস্থাপনা পরিচালক হোসনে আরা বেগম, বাংলাদেশ কম্পিউটার কাউন্সিলের নির্বাহী পরিচালক পার্থপ্রতিম দেব, তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি অধিদপ্তরের মহাপরিচালক এ বি এম আরশাদ হোসেনসহ বিভাগ ও এর অধীন বিভিন্ন দপ্তরের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা।  

আইসিটি প্রতিমন্ত্রী বলেন, তথ্য-প্রযুক্তির সর্বোত্তম ব্যবহারের মাধ্যমে সব সরকারি সেবা জনগণের দৌরগোড়ায় পৌঁছে দেওয়া ডিজিটাল বাংলাদেশের মূল দর্শন। বার্ষিক কর্মসম্পাদনে জনসেবায় আইসিটি বিভাগের এ অর্জন আগামীদিনে ডিজিটাল বাংলাদেশ বিনির্মাণের লক্ষ্য অর্জনে আরও বেশি কাজ করতে অনুপ্রেরণা জোগাবে। প্রযুক্তির সুফল জনগণের কল্যাণে সঠিকভাবে কাজে লাগাতে হবে। দেশের প্রযুক্তি খাতের সার্বিক উন্নয়ন ও তরুণ প্রজন্মকে তথ্য-প্রযুক্তিতে দক্ষ করে গড়ে তুলতে মানবসম্পদ উন্নয়ন, ইন্ড্রাস্টি প্রমোশন, ই-গভর্নমেন্ট ও তৃণমূল পর্যন্ত কানেক্টিভিটি এ চারটি স্তম্ভ নিয়ে কাজ করছে সরকার।

নেচে অন্তর্জালে তুফান উঠালেন ক্যাটরিনা (ভিডিও)

জয়ী হয়েই প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থীদের বাসায় গেলেন কাদের মির্জা

বসুরহাট নির্বাচন থেকে শিক্ষা নিন: হানিফকে কাদের মির্জা

পলক বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে এবং প্রধানমন্ত্রীর আইসিটি বিষয়ক উপদেষ্টা সজীব ওয়াজেদের সঠিক দিক-নির্দেশনা ও তত্ত্বাবধানের কারণেই এ সফলতা অর্জন সম্ভব হয়েছে। পৃথিবীর অনেক দেশ থেকে বাংলাদেশ তথ্য-প্রযুক্তিতে এগিয়ে আছে। বিগত ১২ বছরে দেশে তথ্য-প্রযুক্তিখাতের যথাযথ অবকাঠামো গড়ে ওঠার কারণে কোভিড-১৯ মহামারিতেও শিক্ষা, স্বাস্থ্য, কৃষি, আদালত ও সরবরাহ ব্যবস্থা সচল রাখা সম্ভব হয়েছে।

২০১৯-২০ অর্থবছরের বার্ষিক কর্মসম্পাদনে ৫১টি মন্ত্রণালয় ও বিভাগের মধ্যে সর্বোচ্চ ৯৪.৯৭ নম্বর পেয়ে প্রথম স্থান অর্জন করেছে তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিভাগ।

news24bd.tv নাজিম

মন্তব্য

পরবর্তী খবর

বিকাশে প্রিয় নাম্বারে টাকা পাঠান খরচ ছাড়াই

অনলাইন ডেস্ক

বিকাশে প্রিয় নাম্বারে টাকা পাঠান খরচ ছাড়াই

এখন থেকে পাঁচটি প্রিয় বিকাশ নম্বরে কোনো খরচ ছাড়াই টাকা পাঠাতে পারবেন বিকাশ গ্রাহকরা। বাংলাদেশের এক নম্বর মোবাইল ফিনান্সিয়াল সার্ভিসটি এই প্রথম এ ধরনের কোনো সেবা নিয়ে এলো। বিকাশ অ্যাপ ও *২৪৭# নম্বরে ডায়াল করে মাসে ২৫ হাজার টাকা পর্যন্ত কোনো রখমের খরচ ছাড়াই ‘সেন্ড মানি’ করা যাবে বলে ডিজিটাল আর্থিক সেবার এই কোম্পানি জানিয়েছে। 

বিকাশের এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, প্রান্তিক জনগোষ্ঠী যাতে আরও সহজে তাদের সেবা পায়, সেজন্যই এ উদ্যোগ।

বিকাশ জানিয়েছে যে, প্রতি মাসে পাঁচটি প্রিয় নম্বরে কোনো রকম অতিরিক্ত ফি ছাড়াই সর্বোচ্চ ২৫ হাজার টাকা পর্যন্ত “সেন্ড মানি” করা যাবে।

বিকাশ বলছে, প্রান্তিক জনগোষ্ঠির কাছে যাতে মোবাইল আর্থিক সেবা আরো সহজে পৌঁছে দেওয়া যায়, তা নিশ্চিত করতে তারা এই উদ্যোগটি নিয়েছে। বাজারে যে কটি মোবাইল আর্থিক সেবাদাতা প্রতিষ্ঠান আছে, বিকাশ তাদের মধ্যে শীর্ষে অবস্থান করছে।


ঋণ থেকে মুক্তির দু’টি দোয়া

মেসি ম্যাজিকে সহজেই জিতল বার্সা

দোয়া কবুলের উত্তম সময়

প্রবাসী স্বামীকে তালাক দিয়ে প্রেমিকের বাড়িতে প্রেমিকার অনশন!


একটি বিশ্লেষণে দেখা গেছে, বিকাশের ৯০ শতাংশ গ্রাহক পাঁচটি নম্বরে বেশি টাকা পাঠান। ফলে গ্রাহকদের সুবিধার কথা বিবেচনা করে পাঁচটি প্রিয় নম্বর সেট করার সুযোগ দিচ্ছে বিকাশ, এবং এই নম্বরগুলোতে সর্বোচ্চ ২৫ হাজার টাকা পর্যন্ত পাঠানো যাবে কোনো বাড়তি খরচ ছাড়াই।

ক্যালেন্ডার মাস অনুযায়ী একজন বিকাশ গ্রাহক সর্বোচ্চ পাঁচটি গ্রাহক অ্যাকাউন্ট ‘প্রিয়’ হিসেবে সংযোজন করে নিতে পারবেন। একবার সংযোজনের পর ক্যালেন্ডার মাস শেষ হলে প্রিয় নম্বর পরিবর্তনও করা যাবে। বিকাশের ওয়েবসাইট থেকে এ বিষয়ে বিস্তারিত জানা যাবে।

বিকাশ একটি পূর্ণাঙ্গ  মোবাইল ফিনান্সিয়াল সার্ভিস প্রদানকারী প্রতিষ্ঠান যার মাধ্যমে  টাকা আদান প্রদান ছাড়াও মোবাইল ব্যাল্যান্স রিচার্জ, বেতন প্রদান করার পাশাপাশি জমা টাকার উপর ইন্টারেস্ট প্রদান করা হয়।

২০১১ সালে কার্যক্রম শুরু করা বিকাশ ব্র্যাক ব্যাংক, ইউএস ভিত্তিক মানি ইন মোশন, ইন্টারন্যাশনাল ফিনান্স কর্পোরেশন এবং বিল অ্যান্ড মেলিন্ডা গেটস ফাউন্ডেশনের মালিকানাধীন একটি প্রতিষ্ঠান। বিকাশ-এর বর্তমান গ্রাহক সংখ্যা ২০ মিলিয়ন। বিকাশ-এর ১ লাখেরও বেশী এজেন্ট রয়েছেন যারা গ্রাহকদের বিনামূল্যে একাউন্ট খোলা, ক্যাশ ইন এবং ক্যাশ আউট সেবা দিয়ে যাচ্ছে।   

news24bd.tv/আলী

মন্তব্য

পরবর্তী খবর

এ মাসেই আসছে ওয়ান প্লাসের নতুন ডিভাইস

অনলাইন ডেস্ক

এ মাসেই আসছে ওয়ান প্লাসের নতুন ডিভাইস

ওয়ান প্লাস ৯ ও ৯ প্রো সহ মার্চেই অন্তত চারটি ডিভাইস বাজারে আসছে ওয়ান প্লাস। এমন খবরই ভেসে বেড়াচ্ছে টেক দুনিয়ায়।

এ মাসেই স্মার্টওয়াচ উন্মোচন করতে পারে ওয়ানপ্লাস। তবে এই তথ্যের সত্যতা নিশ্চিত করেনি প্রতিষ্ঠানটি।

ওয়ানপ্লাসের ৯আর নামেও একটি নতুন ডিভাইস আসছে। এটি তাদের প্রচলিত ফ্ল্যাগশিপ ও বাজেট ফোন নর্ড এন সিরিজের মধ্যকার শূন্যস্থান পূরণ করবেই দাবি করছে বিভিন্ন সূত্র। এতে হয়তো দেখা মিলবে আরও র‌্যাম ও ব্যাটারি সক্ষমতার। তবে, ৬.৫ ইঞ্চি ৯০ হার্টজ পর্দা ও স্ন্যাপড্রাগন ৬৯০ চিপের বেশি কোনো স্পেসিফিকেশন পাওয়া যাবে না।


আমাকে ‘বলির পাঁঠা’ বানানো হয়েছে: সামিয়া রহমান

পরবর্তী নির্বাচনে আবারও অংশ নিবেন ডোনাল্ড ট্রাম্প

ইরানের সমঝোতা প্রস্তাব প্রত্যাখ্যানে হতাশ যুক্তরাষ্ট্র

খাশোগি হত্যাকান্ড: রহস্যজনকভাবে বদলে গেল প্রতিবেদনে অভিযুক্তের নাম


উল্লেখ্য, নর্ড এন১০ স্মার্টফোনে ছয় গিগাবাইট র‌্যাম এবং চার হাজার তিনশ’ মিলিঅ্যাম্প আওয়ার ক্ষমতাসম্পন্ন ব্যাটারি রয়েছে।

অন্যদিকে, ৯ এবং ৯ প্রো দুটি ডিভাইসেই আরও মসৃণ ১২০ হার্টজ পর্দার দেখা মিলবে বলে ধারণা করা হচ্ছে। দেখা মিলতে পারে স্ন্যাপড্রাগন ৮৮৮ চিপের এবং আপগ্রেডেড ক্যামেরা প্রযুক্তির।

news24bd.tv / নকিব

মন্তব্য

পরবর্তী খবর

অপো নতুন ফোনে থাকছে ১২ জিবি র‌্যাম

অনলাইন ডেস্ক

অপো নতুন ফোনে থাকছে ১২ জিবি র‌্যাম

৫০ মেগাপিক্সেল ক্যামেরার ফোন আনছে অপো। মডেল অপো ফাইন্ড এক্স ৩। ফোনটিতে কোয়ালকমের স্ন্যাপড্রাগন ৮৮৮ মডেলের প্রসেসর দেয়া হয়েছে। এতে আছে ১২ জিবি র‌্যাম।

অপো ফাইন্ড এক্স ৩ মডেলে ৫০ মেগাপিক্সেলের সনি আইএমএক্স ৭৬৬ সেন্সরযুক্ত ক্যামেরা দেয়া হয়েছে। আরো আছে ১৩ মেগাপিক্সেলের টেলিফটো লেন্স, ৩ মেগাপিক্সেলের ম্যাক্সো সেন্সর। যা ২৫ এক্স জুম সাপোর্ট করে।


ঋণ থেকে মুক্তির দু’টি দোয়া

মেসি ম্যাজিকে সহজেই জিতল বার্সা

দোয়া কবুলের উত্তম সময়

প্রবাসী স্বামীকে তালাক দিয়ে প্রেমিকের বাড়িতে প্রেমিকার অনশন!


 

এই স্মার্টফোনে একটি ৬.৬৭ ইঞ্চির কিউএইচডি প্লাস ডিসপ্লে থাকছে। ফোনের ব্যাটারি ব্যাকআপ ৪৫০০ মিলিঅ্যাম্পিয়ারের। এই ফোনে ৬৫ ওয়াটের ফাস্ট চার্জিং সাপোর্ট করবে।

news24bd.tv/আলী

মন্তব্য

পরবর্তী খবর

সাধ্যের মধ্যে টেকনো স্পার্ক পাওয়ার ৩ এয়ার

অনলাইন ডেস্ক

সাধ্যের মধ্যে টেকনো স্পার্ক পাওয়ার ৩ এয়ার

বড় ডিসপ্লের ফোন আনছে টেকনো। স্মার্টফোন বিশ্বে টেকনো লঞ্চ করতে যাচ্ছে টেকনো স্পার্ক পাওয়ার ৩ এয়ার। আসুন জেনে নিই ১২হাজার টাকার মধ্যে এই ফোনে কি কি থাকছে।

নেটওয়ার্ক: এতে জিএসএম,এইচ এস পি এ  এবং এল টি ই টেকনোলজি ব্যবহার করা হয়েছে ।

 কালার:  ফোনটি পাওয়া যাবে দুইটি কালার ভেরিয়েন্ট এ। একটি হল মিষ্টি  গ্রে এবং আরেকটি হল ফ্যাসিনেটিং  পার্পল।

ডিসপ্লে: এতে থাকছে ৭ ইঞ্চি ফুল এইচডি প্লাস রেজুলেশনের একটি আইপিএস এলসিডি প্যানেলের ডিসপ্লে।যার পিপিআই ডেনসিটি হল২৫৬। ডিসপ্লে রেজুলেশন হলো ৭২০*১৬৪০ পিক্সেল ।


ঋণ থেকে মুক্তির দু’টি দোয়া

মেসি ম্যাজিকে সহজেই জিতল বার্সা

দোয়া কবুলের উত্তম সময়

প্রবাসী স্বামীকে তালাক দিয়ে প্রেমিকের বাড়িতে প্রেমিকার অনশন!


ব্যাটারি এবং চার্জার: এতে থাকছে ৬০০০  মিলি এম্পিয়ারের একটি হিউজ ব্যাটারি এবং ৩৩ ওয়াটের একটি সুপার ফাস্ট চার্জার।

অপারেটিং সিস্টেম: অপারেটিং সিস্টেম হিসেবে থাকছে অ্যান্ড্রয়েড১০যা রান করবে  হাওস৬.১ এর সাথে। চিপসেট হিসেবে থাকছে মিডিয়াটেক  এমটি৬৭৬১  হেলিও যা ১২ন্যানোমিটার আর্কিটেকচারে তৈরি করা একটি অক্টা কোর

প্রসেসর। আর জিপিইউ হিসেবে থাকছে  পাওয়ার  ভিয়ার  জি ই ৮৩২০।

 দাম: বাংলাদেশের বাজারে ফোনটির দাম হতে পারে ১২০০০ টাকার মতো।

মেমোরি: ফোনটি পাওয়া যাবে মাত্র একটি ভেরিয়েন্ট এই। তা হল ৩জিবি রেম এর সাথে ৬৪ জিবি  ইন্টারনাল স্টোরেজ। সাথে থাকছে   মাইক্রো  এস ডি এক্স ডেডিকেটেড  স্লোট ।

ক্যামেরা: এর ব্যাক সাইডে থাকছে ১৩ মেগাপিক্সেল এর একটি মেইন সেনসর ক্যামেরা,৫ মেগাপিক্সেল এর একটি আল্ট্রা ওয়াইড অ্যাঙ্গেল ক্যামেরা,২ মেগাপিক্সেল এর একটি ডেপথ সেনসর ক্যামেরা।  আর সেলফি ক্যামেরা হিসেবে থাকছে  ৮ মেগা পিক্সেল  একটি ক্যামেরা।

সাউন্ড সিস্টেম:  এতে লাউড স্পিকার এর পাশাপাশি থাকছে ৩.৫৫ এমএম হেডফোন জাক।

সিকিউরিটি সিস্টেম: সিকিউরিটি সিস্টেম হিসেবে  ফেস আনলক এর পাশাপাশি  থাকছে সাইড মাইন্টেনড ফিঙ্গারপ্রিন্ট স্ক্যানার।

news24bd.tv/আলী

মন্তব্য

পরবর্তী খবর

যে ভুল করবেন না স্মার্টফোন ব্যবহারে

অনলাইন ডেস্ক

যে ভুল করবেন না স্মার্টফোন ব্যবহারে

বর্তমান বিশ্বে মোবাইল ফোন ও মানুষ এখন একে অপরের সঙ্গে ঘনিষ্ঠভাবে জড়িত। কিন্তু আমাদের বর্তমান জীবনের এই অনুসঙ্গকে ব্যবহারে  খুব বেশি সচেতন নই। কিন্তু একটু সচেতন ব্যবহারই আপনার প্রিয়ে মোবাইল ফোনের আয়ু বাড়িয়ে ফেলতে পারে কয়েকগুণ। 

প্লাগ ইন
অনেকেরই অভিযোগ, ফোনের চার্জার কয়েক মাসের বেশি টেকে না। আসলে চার্জে দেওয়ার সময় পোর্টে বার বার ঘষা লাগলে চার্জার দ্রুত নষ্ট হয়। তাই প্লাগ ইন করার সময় তাড়াহুড়া করা যাবে না।

পেছনের পকেটে ফোন
ফোন রাখার জন্য প্যান্টের পেছনের পকেট মোটেও ভালো কোনো জায়গা নয়। পকেটমারের খপ্পরে পরার ভয় তো থাকেই সেই সাথে ভুল করে ফোনের উপর বসে পরারও আশংকা থাকে।

সফটওয়্যার আপডেট
ফোনে আপডেটের নোটিফিকেশন আসলে তা এড়ানো ঠিক নয়। অ্যাপ আপডেট করলে অনেক বাগ ঠিক হয়, নিত্য নতুন ফিচারও পাওয়া যায়। স্টোরেজ দখল করলেও অ্যাপ আপডেট করার কোনো ক্ষতিকর দিক নেই।

ঘাড় ব্যথা
ফোনের দিকে তাকালে ঘাড় বাঁকাতে হয়। দীর্ঘক্ষণ ফোনের দিকে ঝুঁকে থাকার কারণে শুরু হয় মাথা ব্যথা। এ সমস্যা এড়াতে চোখ বরাবর ফোন ধরা উচিত। এতে ঘাড়ের উপর চাপ পরবে না।


ঋণ থেকে মুক্তির দু’টি দোয়া

মেসি ম্যাজিকে সহজেই জিতল বার্সা

দোয়া কবুলের উত্তম সময়

রোনালদোর গোলেও হোঁচট খেল জুভেন্টাস


ভাইব্রেশন

সারাক্ষণ ফোন ভাইব্রেশনে দিয়ে রাখলে ব্যাটারি দ্রুত খরচ হয়। ফোনের আয়ু কমে যায়। তাই প্রয়োজন হলে ফোন সাইলেন্ট রাখা ভালো।

সূর্যের আলো
রোদ পোহালে শরীরে ভিটামিন ডি পাওয়া যায়। তবে ফোনের জন্য সূর্যের আলো মোটেও উপকারি নয়। দীর্ঘক্ষণ ফোন রোদে থাকলে তা গরম হয়ে যায়। বেশি উত্তপ্ত হলে ফোনের সার্কিট বোর্ড গলে যাওয়া, স্ক্রিন ফেটে যাওয়া ও ব্যাটারি বিষস্ফোরণের মতো সমস্যা দেখা দিতে পারে।

ঘুমানোর সময়
ফোনঘুমানোর সময় মাথার পাশে ফোন না রাখাই ভালো। কারণ ফোন আসলে ছোট আকারের একটি ইলেক্ট্রম্যাগনেটিক ট্রান্সমিটার ও রিসিভার। তাই ফোন থেকে রেডিও ওয়েভ নির্গত হয়। এই রেডিও ওয়েভের কারণে আমাদের ব্রেইনের কি ক্ষতি হচ্ছে তা নিয়ে বিজ্ঞানিরা এখনো গবেষণা চালিয়ে যাচ্ছেন।

ত্বকের সংস্পর্শ
কথা বলার সময় ফোন আমাদের ত্বকের সংস্পর্শে আসে এবং উত্তপ্ত হতে শুরু করে। এই তাপের কিছুটা আমাদের দেহ শুষে নেয়। এছাড়াও, রেডিও ওয়েভে শারীরিক ক্ষতি হওয়ার ভয় তো আছেই। তাই ফোন সরাসরি কানে না ধরে হেডফোন বা স্পিকার ফোন ব্যবহার করা ভালো। 

বজ্রপাতের সময় 
ফোন চার্জ বজ্রপাত হলে পাওয়ার কর্ড দিয়ে বিদ্যুৎ ফোনে ঢুকতে পারে। তাই বজ্রপাতের সময় ফোন চার্জে না দিয়ে অপেক্ষা করতে হবে

লো সিগনালসিগনাল
দুর্বল থাকলে ফোন থেকে রেডিও ওয়েব বেশি নির্গত হয়। এ কারণে ফোন গরমও বেশি হয়। এ সময় তাই হেডফোন ব্যবহার করা ভালো।

আপনার প্রিয় স্মার্টফোনটি আপনার জীবনকে আরও সহজ ও আনন্দময় করার জন্য। তাই নিজের স্বাস্থ্য ও স্মার্টফোনটির যত্ন নিলে আপনারই লাভ।

news24bd.tv/আলী

মন্তব্য

পরবর্তী খবর