ধর্ষণের পর মা-মেয়ের মাথা ন্যাড়া করে দেওয়া সেই ‌‘শ্রমিক লীগ নেতার’ জামিন
ধর্ষণের পর মা-মেয়ের মাথা ন্যাড়া করে দেওয়া সেই ‌‘শ্রমিক লীগ নেতার’ জামিন

ধর্ষণের পর মা-মেয়ের মাথা ন্যাড়া করে দেওয়া সেই ‌‘শ্রমিক লীগ নেতার’ জামিন

অনলাইন ডেস্ক

বগুড়ায় কিশোরীকে ধর্ষণ এবং কিশোরী ও তার মাকে নির্যাতনের পর মাথা ন্যাড়া করে দেওয়ার মামলায় আলোচিত প্রধান আসামি বহিষ্কৃত শ্রমিক লীগ নেতা তুফান সরকারকে জামিন দিয়েছেন আদালত।

বগুড়ার প্রথম নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালের স্পেশাল পিপি নরেশ মুখার্জি বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

রোববার (১৭ জানুয়ারি) সাক্ষ্যগ্রহণের ধার্য তারিখে ভিকটিম ও মামলার বাদী তার মা প্রথম নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালে তুফান সরকারের পক্ষে কথা বলেন।

সিরাজুল আলম খানের অবস্থা উন্নতির দিকে

পরে বিচারক একেএম ফজলুল হক তার জামিন আবেদন মঞ্জুর করেন।

তুফান দীর্ঘ পৌনে ৪ বছর জেলে আছেন।

২০১৭ সালের ১৭ জুলাই কলেজে ভর্তি করিয়ে দেওয়ার কথা বলে তুফান সরকার বাসায় ডেকে নিয়ে এক কিশোরীকে ধর্ষণ করে।  

পরে তুফানের স্ত্রী ও তার বড় বোন বগুড়া পৌরসভার সংরক্ষিত আসনের নারী কাউন্সিলর মারজিয়া হাসান রুমকি এবং তার মা রুমী বেগম ওই কিশোরী ও তার মায়ের ওপর নির্যাতন চালায় এবং এক পর্যায়ে দুইজনের মাথা ন্যাড়া করে দেয়।

বিষয়টি সামাজিক মাধ্যম ও সংবাদমাধ্যমে ব্যাপক আলোচনা হলে তুফান সরকারকে গ্রেপ্তার ও পরে মামলা করা হয়।

পরে তুফান সরকারের এক ভাই বন্দুকযুদ্ধে নিহত হয়।

news24bd.tv তৌহিদ

সম্পর্কিত খবর

;