অবস্থান কর্মসূচিতে অনড় খুবি’র সেই দুই শিক্ষার্থী

সামছুজ্জামান শাহীন, খুলনা

অবস্থান কর্মসূচিতে অনড় খুবি’র সেই দুই শিক্ষার্থী

বহিস্কারাদেশ প্রত্যাহার না হওয়ায় খুলনা বিশ্ববিদ্যালয়ের (খুবি) সেই দুই শিক্ষার্থী এখনও অবস্থান কর্মসূচিতে অনড় রয়েছেন। আগামীকাল (মঙ্গলবার) সন্ধ্যা ৭টার মধ্যে বহিস্কারাদেশ প্রত্যাহার না হলে একই স্থানে তারা আমরণ অনশন কর্মসূচি শুরু করবেন। 

এর আগে রবিবার সন্ধ্যায় তারা প্রশাসনিক ভবনের সামনে ৪৮ ঘন্টার আল্টিমেটাম দিয়ে আমরণ অবস্থান-অনশন কর্মসূচি শুরু করেন।

এদিকে আজ (সোমবার) দুপুর ও বিকালে দুইবার প্রশাসনিক ভবনের সামনে এসে বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. মোহাম্মদ ফায়েকউজ্জামান শিক্ষকদের কাছে ক্ষমা চাওয়া অথবা বিধি মেনে আত্মপক্ষ সমর্থন করে কর্মসূচি বন্ধের অনুরোধ জানান। কিন্তু শিক্ষার্থীরা তাদের বহিস্কারাদেশ তুলে না নেওয়া পর্যন্ত কর্মসূচি চালিয়ে যাওয়ার ঘোষণা দেন।

শিক্ষার্থীরা হচ্ছে- বাংলা ডিসিপ্লিনের মোহাম্মদ মোবারক হোসেন নোমান (’১৮ ব্যাচ) এবং ইতিহাস ও সভ্যতা ডিসিপ্লিনের ইমামুল ইসলাম।

ক্যারাম খেলা নিয়ে বিরোধে বাবা-ছেলেকে পিটিয়ে জখম

জানা যায়, ২০২০ সালের ১৬ ফেব্রæয়ারি ক্যাম্পাসে দু’জন অধ্যাপকের পথ আটকানো ও গুরুতর অসদাচরন এর অভিযোগে তাদেরকে বিভিন্ন মেয়াদে বহিষ্কার করা হয়েছে। তবে আন্দোলনরত শিক্ষার্থীরা জানায়, শিক্ষার্থীদের পাঁচ দফা আন্দোলনে যুক্ত থাকার কারণে তাদেরকে অন্যায্যভাবে বহিস্কার করা হয়েছে। পাঁচ দফা দাবির মধ্যে ছিল বেতন কমানো, আবাসন ব্যবস্থা নিশ্চিতকরণ, চিকিৎসা ব্যবস্থা উন্নত করা, অগ্রাধিকারের ভিত্তিতে অবকাঠামো নির্মাণ ও ছাত্রবিষয়ক সিদ্ধান্ত গ্রহণে শিক্ষার্থীদের অংশগ্রহণ নিশ্চিত করা।

দাবির বিষয়ে কোনো সমাধান না পেয়ে ২০২০ সালের জানুয়ারিতে শান্তিপূর্ণ আন্দোলনে নামে শিক্ষার্থীরা। ১৬ ফেব্রæয়ারি ক্যাম্পাসে আন্দোলন চলাকালে ওই দুই অধ্যাপকের পথ আটকানোর অভিযোগ ওঠে।

অনশনে থাকা শিক্ষার্থী ইমামুল ইসলাম জানায়, ‘আমরা তো কোন অন্যায় করেনি। অন্যায্যভাবে দেওয়া বহিস্কারাদেশ তুলে নেওয়া হলেই শিক্ষকদের কাছে ক্ষমা চাইবো।’

news24bd.tv তৌহিদ

মন্তব্য

পরবর্তী খবর

১০ হাজার টাকা অনুদান পওয়ার গুজবে যা করলো শিক্ষার্থীরা

অনলাইন ডেস্ক

১০ হাজার টাকা অনুদান পওয়ার গুজবে যা করলো শিক্ষার্থীরা

কোভিড-১৯ এর কারণে শিক্ষার্থীদের ১০ হাজার টাকা সরকারি অনুদান দেওয়ার গুজব ছড়িয়ে পড়ে গাইবান্ধার গোবিন্দগঞ্জে।

এই গুজব বিশ্বাস করে শনিবার থেকে শিক্ষার্থী ও অভিভাবকদের ঢল নেমেছে প্রতিষ্ঠানে। তাছাড়া ফটোকপি ও অনলাইন সার্ভিসের দোকানগুলোতে ছিল উপচেপড়া ভিড়।

প্রতিষ্ঠানপ্রধানদের প্রত্যয়ন নিতে শহর এবং প্রত্যন্ত গ্রামঞ্চলের স্কুল, কলেজ ও মাদরাসায় যাচ্ছে শিক্ষার্থী ও অভিভাবকরা। এমনকি শহরে অবস্থান না করা শিক্ষার্থীরাও আবেদনের জন্য ফিরে এসেছে।

কয়েকটি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের প্রধানশিক্ষক জানান, গত বছরের মতো এ বছরও শিক্ষা মন্ত্রণালয় থেকে বিশেষ অনুদানের জন্য আবেদন চাওয়া হয়েছে। দুরারোগ্য ব্যাধি ও দুর্ঘটনার শিকার শিক্ষক-কর্মচারী এবং শিক্ষার্থীরা এই অনুদানের জন্য আবেদন করতে পারবেন। দুঃস্থ, প্রতিবন্ধী, গরিব ও অনগ্রসর ছাত্র-ছাত্রীরা এতে অগ্রাধিকার পাবেন বলে চিঠিতে উল্লেখ করা হয়। এছাড়া সংস্কার, আসবাবপত্র, খেলার সামগ্রী এবং পাঠাগার উন্নয়নের জন্য বেসরকারি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান আবেদন করতে পারবে। ৭ই মার্চ আবেদনের শেষ সময় বেঁধে দেওয়া হয়। তবে এটি করোনা প্রণোদনা বা স্টুডেন্ট ভাতা না।

গোবিন্দগঞ্জ মহিলা ডিগ্রি কলেজের শিক্ষার্থী যুথি খাতুন ও লাবন্য খাতুন জানান, করোনাকালীন স্টুডেন্ট ভাতা হিসেবে ১০ হাজার টাকা পাওয়ার কথা শুনে তারা প্রতিষ্ঠানপ্রধানের কাছ থেকে প্রত্যয়ন নিয়ে অনলাইনে আবেদনের জন্য ভিড় করেছেন। কিন্তু নির্ধারিত ওয়েবসাইটে ঢোকা যাচ্ছে না। এছাড়া কোনো কোনো প্রতিষ্ঠান বিনামূল্যে প্রত্যয়ন দিলেও অনেক প্রতিষ্ঠানের সংশ্লিষ্টরা টাকা নিয়েছেন।


পশ্চিমবঙ্গের কাছে পর্যাপ্ত পানি থাকবে তখন তিস্তা চুক্তি: মমতা

যে দোয়া পড়লে বিশ্ব নবীর সঙ্গে জান্নাতে যাওয়া যাবে!

খুলনায় সওজ কার্যালয় ঘেরাও কর্মসূচি, ক্ষোভ

৭ই মার্চের অনুষ্ঠান থেকে বেড়িয়ে গেলেন অথিতিরা


উপজেলার পিয়ারাপুর আইজিএম স্কুল অ্যান্ড কলেজের শিক্ষার্থী মো. ফিরোজ ও আব্দুর রউফ জানায়, প্রত্যয়নপত্র বাবদ প্রত্যেক শিক্ষার্থীদের কাছ থেকে প্রতিষ্ঠানের ক্লার্ক ৫০ টাকা করে নিচ্ছেন।

গোবিন্দগঞ্জ মহিলা ডিগ্রি কলেজের শিক্ষার্থী শ্যামলী খাতুন ও ফেরদাউসি খাতুন জানান, প্রত্যয়নপত্র নিতে ক্লার্ক ১২০ টাকা নিয়েছেন। 

এছাড়া আরো কয়েকজন শিক্ষার্থী অভিযোগ করে, তাদের কাছে প্রতিষ্ঠানের সংশ্লিষ্টরা ১৫০ টাকা চেয়েছেন।

এবিষয়ে গোবিন্দগঞ্জ মহিলা ডিগ্রি কলেজের অধ্যক্ষ এএইচএম আহসান হাবিব বলেন, আমরা শিক্ষার্থীদের অনেক বুঝিয়েও মানাতে পারছি না। তারা প্রত্যয়নপত্র নিতে কলেজে এসেছে। তাই তাদের আমরা প্রত্যয়নপত্র দিচ্ছি। 

শিক্ষার্থীদের অভিযোগের বিষয়টি স্বীকার করে তিনি বলেন, কর্মচারীসহ আনুষাঙ্গিক খরচ বাবদ প্রত্যয়নপত্রের টাকা নেওয়া হচ্ছে। তথ্যসূত্র: সমকাল

news24bd.tv / কামরুল 

মন্তব্য

পরবর্তী খবর

হল খুলে দেয়ার দাবিতে সাত কলেজের শিক্ষার্থীদের মানববন্ধন

নিজস্ব প্রতিবেদক

এবার হল খুলে দেয়ার দাবিতে মানববন্ধন করেছেন সাত কলেজের কয়েকজন শিক্ষার্থী। তারা বলেছেন, স্থগিত পরীক্ষা দিতে গেলে হল খোলা ছাড়া উপায় নাই।

শনিবার সকালে নীলক্ষেত মোড়ে তারা মানববন্ধন করেন। এসময় বিশৃঙ্খলা ঠেকাতে অনেক পুলিশ সদস্য মোতায়েন করা হয়। 


মশা মারতে গিয়ে পুড়ে গেলেন মা ও দুই মেয়ে

ভাসানচর পুরোপুরি নিরাপদ ও বাসযোগ্য এক দ্বীপ

মশা মারতে গিয়ে পুড়ে গেলেন মা ও দুই মেয়ে

আস্থা ভোটে জিতলেন প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান

চিকিৎসাপত্র ছাড়াই ওষুধ কিনছেন ক্রেতারা, রোগী দেখছেন ফার্মেসি মালিকরা


শিক্ষার্থীরা বলেন, বিশ্ববিদ্যালয় না খুলে স্কুল-কলেজ খোলার সিদ্ধান্ত অযৌক্তিক। আন্দোলনকারীরা বলেন, বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের জন্য আবাসিক ব্যবস্থা না করে পরীক্ষা দেয়া কঠিন ও ব্যয়বহুল। যা সব শিক্ষার্থীর পক্ষে বহন করা প্রায় অসম্ভব।

news24bd.tv নাজিম

মন্তব্য

পরবর্তী খবর

শাবিপ্রবি ছাত্রী মেসে গোসলের ভিডিও ধারণের অভিযোগ

অনলাইন ডেস্ক

শাবিপ্রবি ছাত্রী মেসে গোসলের ভিডিও ধারণের অভিযোগ

এক ছাত্রীর গোসলের ভিডিও ধারণ কারার অভিযোগ পাওয়া গেছে শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে। শুক্রবার রাত সাড়ে ১১টার দিকে সিলেট নগরীর একটি মেসে এ ঘটনা ঘটেছে।

জানা যায়, রাত সাড়ে ১১টার দিকে ওই ছাত্রী গোসলের উদ্দেশ্যে বাথরুমে প্রবেশ করে। এ সময় অজ্ঞাতনামা এক যুবক বাথরুমের জানালার ভেন্টিলেটরের ফাঁক দিয়ে তার গোসলের ভিডিও ধারণ করতে থাকে। হঠাৎ বাথরুমের ভেন্টিলেটরের দিকে ফোনের ফ্লাশ লাইটের আলো জ্বলতে দেখলে ওই ছাত্রী চিৎকার দেন। এ সময় অজ্ঞাতনামা ওই যুবক দ্রুত পালিয়ে যায়।


কুমিরের পেট থেকে বের করা হচ্ছে আস্ত মানুষ (ভিডিও)

প্রেমের বিয়ের ৪ মাসের মাথায় নববধূর ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার

বাক্‌স্বাধীনতা সুরক্ষিত রাখতে মানবাধিকার সংস্থাগুলোর আহ্বান

চুম্বনের দৃশ্যের আগে ফালতু কথা বলতো ইমরান : বিদ্যা


পরবর্তীতে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টরিয়াল বডিকে বিষয়টি অবগত করলে তারা ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়। এ সময় পুলিশি সহায়তায় সন্দেহভাজন কয়েকজনকে জেরা করলেও কাউকে গ্রেপ্তার করা যায়নি।

বিশ্ববিদ্যালয় প্রক্টর আবু হেনা পহিল দেশ জানান, বিষয়টি জানার পর দ্রুত ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়। এমনকি ওই বাসার বেশ কিছু ফোন চেক করি। পরে পুলিশকে ফোনগুলো দিয়ে দেওয়া হয়েছে। পুলিশ পরবর্তী সিদ্ধান্ত নিবে।

এ বিষয়ে জালালাবাদ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) নাজমুল হুদা খান দেশ বলেন, ঘটনাটি শোনার পর তাৎক্ষণিক আমরা পুলিশ ফোর্স পাঠায় সেখানে। ওই বাসার বেশ কয়েকজনের ফোনের ভিডিও আমরা চেক করেছি। তবে এখন পর্যন্ত এ ঘটনায় বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন ও ভিকটিমের তরফ থেকে কোন অভিযোগ দায়ের করা হয়নি। অভিযোগ দিলে আমরা যথাযথ ব্যবস্থা গ্রহণ করব।

news24bd.tv / কামরুল 

মন্তব্য

পরবর্তী খবর

চট্টগ্রামের ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিসি ও প্রো ভিসিসহ ৪ কর্মকর্তাকে শোকজ

নিজস্ব প্রতিবেদক

 চট্টগ্রামের ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিসি ও প্রো ভিসিসহ ৪ কর্মকর্তাকে শোকজ

নব গঠিত ট্রাস্টিবোর্ডকে অসহায়তার অভিযোগে চট্টগ্রামের আন্তর্জাতিক ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিসি ও প্রো ভিসিসহ ৪ কর্মকর্তাকে শোকজ করেছে নতুন ট্রাস্টিবোর্ড। এক সপ্তাহের মধ্যে কারণ দর্শানোর নির্দেশ।

বিস্তারিত আসছে...

news24bd.tv আহমেদ

মন্তব্য

পরবর্তী খবর

ক্যাম্পাসে আগুন জ্বালিয়ে বিক্ষোভ করছে রংপুর নর্দান মেডিকেলের শিক্ষার্থীরা

অনলাইন ডেস্ক

ক্যাম্পাসে আগুন জ্বালিয়ে বিক্ষোভ করছে রংপুর নর্দান মেডিকেলের শিক্ষার্থীরা

ক্যাম্পাসে আগুন জ্বালিয়ে বিক্ষোভ করছে রংপুর নর্দান প্রাইভেট মেডিকেল কলেজের আন্দোলনরত শিক্ষার্থীরা

বিস্তারিত আসছে...

news24bd.tv/আয়শা

মন্তব্য

পরবর্তী খবর