বিল পাস হলে এইচএসসির ফলাফল প্রকাশ: শিক্ষামন্ত্রী

নিজস্ব প্রতিবেদক

বিল পাস হলে এইচএসসির ফলাফল প্রকাশ: শিক্ষামন্ত্রী

শিক্ষামন্ত্রী দীপু মনি বলেছেন, করোনা মহামারির মতো বিশেষ পরিস্থিতিতে পরীক্ষা ছাড়াই এসএসসি, এইচএসসি এবং সমমানের ফল প্রকাশে পৃথক তিনটি আইন সংশোধনের লক্ষ্যে সংসদে বিল উত্থাপন করা হয়েছে। বিল তিনটি পাস হলে এইচএসসির ফলাফল প্রকাশ করা হবে।

আজ জাতীয় সংসদে স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরীর সভাপতিত্বে শুরু হওয়া জাতীয় সংসদ অধিবেশনে ইন্টারমিডিয়েট অ্যান্ড সেকেন্ডারি এডুকেশন (অ্যামেন্ডমেন্ট) বিল-২০২১, বাংলাদেশ কারিগরি শিক্ষা বোর্ড (সংশোধন) বিল-২০২১, বাংলাদেশ মাদরাসা শিক্ষা বোর্ড (সংশোধন) বিল-২০২১ সংসদে উত্থাপন করেন শিক্ষামন্ত্রী। 

পরে বিল তিনটি পরীক্ষা-নিরীক্ষা করে সংসদে প্রতিবেদন দেওয়ার জন্য শিক্ষা মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটিতে পাঠানো হয়।

বিল তিনটির উদ্দেশ্য ও কারণ সম্পর্কে বলা হয়েছে, প্রস্তাবিত আইনে বিশেষ পরিস্থিতে অতিমারি, মহামারি, দৈব-দুর্বিপাকের কারণে বা সরকার কর্তৃক সময় নির্ধারিত কোনো অনিবার্য পরিস্থিতিতে পরীক্ষা গ্রহণ, ফল প্রকাশ এবং সনদ করা সম্ভব না হলে সরকার, সরকারি গেজেটে প্রজ্ঞাপিত আদেশ দ্বারা কোনো বিশেষ বছরে শিক্ষার্থীদের জন্য পরীক্ষা ছাড়াই বা সংক্ষিপ্ত সিলেবাসে পরীক্ষা গ্রহণ করে উক্ত প্রজ্ঞাপনে উল্লিখিত পদ্ধতিতে মূল্যায়ন এবং সনদ প্রদানের জন্য নির্দেশাবলি জারি করার বিষয় উল্লেখ রয়েছে। 

আওয়ামী লীগের মহিলা বিষয়ক উপকমিটিতে সুইটি

বিএনপি শীতনিন্দ্রায় রয়েছে: কাদের

পাসপোর্টের উপ-পরিচালককে দুদকের জিজ্ঞাসাবাদ

স্মার্টফোনের নিরাপদ মেসেজিং অ্যাপ

ইন্টারমিডিয়েট অ্যান্ড সেকেন্ডারি এডুকেশন (অ্যামেন্ডমেন্ট) বিল-২০২১ উত্থাপন নিয়ে সংসদে আপত্তি জানান জাতীয় পার্টির সিনিয়র সংসদ সদস্য মো. ফখরুল ইমাম। নিয়ম অনুযায়ী সংসদে উত্থাপনের আগে নোটিশ না পাওয়ায় তিনি আপত্তি জানান। একই সঙ্গে মন্ত্রিসভার বৈঠকের পর মন্ত্রিপরিষদসচিবের বক্তব্য নিয়েও আপত্তি জানান তিনি। কিন্তু তার আপত্তি কণ্ঠভোটে নাকচ হয়ে যায়। পরে বিলটি উত্থাপন করেন মন্ত্রী।

বিলটি উত্থাপনকালে শিক্ষামন্ত্রী দীপু মনি বলেন, এইচএসসি ও সমমানের পরীক্ষার ফলাফল প্রস্তুত রয়েছে। বিদ্যমান আইনে পরীক্ষাপূর্বক ফলাফল প্রকাশ করার বিধান রয়েছে। কিন্তু বৈশ্বিক মহামারির কারণে আমরা এবার পরীক্ষা নিতে পারিনি। তাই বিশেষ পদ্ধতিতে ফলাফল দিতে চাচ্ছি। এ জন্য আইনটি সংশোধন প্রয়োজন। সংসদ থেকে আইনটি পাস করে দিলেই দ্রুততার সঙ্গে ফলাফল প্রকাশ করা হবে।

news24bd.tv নাজিম

মন্তব্য

পরবর্তী খবর

স্নাতক প্রথম বর্ষের ভর্তি আবেদক শুরু ৮ জুন

অনলাইন ডেস্ক

স্নাতক প্রথম বর্ষের ভর্তি আবেদক শুরু ৮ জুন

২০২০-২১ শিক্ষাবর্ষে স্নাতক প্রথম বর্ষে জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি আবেদন আগামী ৮ই জুন থেকে শুরু হবে। ২২শে জুন পর্যন্ত ভর্তি আবেদন চলবে। আগামী ২৮শে জুলাই থেকে প্রথম বর্ষের ক্লাস শুরু হবে। আজ শুক্রবার জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের ভর্তি কমিটির সভায় এই সিদ্ধান্ত নেয়া হয়।

অনলাইনের মাধ্যমে ভর্তিচ্ছু শিক্ষার্থীদের আবেদন করতে হবে। এছাড়া ১ম বর্ষ প্রফেশনাল কোর্সের অনলাইন আবেদন ফরম বিতরণ চলবে ২৩শে জুন থেকে ১১ই জুলাই পর্যন্ত। আর প্রফেশনাল কোর্সের ক্লাস শুরু হবে ১২ই আগস্ট থেকে।

এছাড়াও সভায় করোনাকালীন ১০ মাসের সেশনজট কমিয়ে আনার বিষয়ে দ্রুত বিশেষ একাডেমিক ক্যালেন্ডার প্রণয়নের ব্যাপারে সিদ্ধান্ত গ্রহীত হয়।


 ফেঁসে যাচ্ছেন নাসিরের স্ত্রী তামিমা!

অস্ত্রের মুখে জিম্মি করে ৬ষ্ঠ শ্রেণির ছাত্রীকে ধর্ষণ

দেশে ২৪ ঘণ্টায় করোনায় মৃত্যু- শনাক্তের সর্বশেষ তথ্য

মুরগির দাম বেড়েছে কেজিতে ১০ টাকা


news24bd.tv / কামরুল 

মন্তব্য

পরবর্তী খবর

ঢাবি ভর্তি পরীক্ষায় থাকছে ৭ নির্দেশনা

অনলাইন ডেস্ক

ঢাবি ভর্তি পরীক্ষায় থাকছে ৭ নির্দেশনা

করোনা পরিস্থিতিতে স্বাভাবিক সময়ের প্রায় ৬ মাস পর শুরু হচ্ছে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় (ঢাবি) ভর্তি পরীক্ষা। সোমবার (৮ মার্চ) থেকে শুরু হচ্ছে ২০২০-২১ শিক্ষাবর্ষের ১ম বর্ষ স্নাতক (সম্মান) শ্রেণিতে ভর্তির আবেদন প্রক্রিয়া।  শুক্রবার (৫ মার্চ) বিশ্ববিদ্যালয়ের ওয়েবসাইটে এই তথ‌্য প্রকাশ করা হয়। 

৮ মার্চ বিকেল ৪টা থেকে বিশ্ববিদ্যালয়ের ভর্তির নিজস্ব ওয়েবসাইটে গিয়ে এই আবেদন করা যাবে। আর আবেদন চলবে ৩১ মার্চ রাত ১১টা ৫৯ মিনিট পর্যন্ত।

এছাড়া, ভর্তির ওয়েবসাইটে আবেদনকারীদের জন্য ৭টি জরুরি নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে।

১। ভর্তির আবেদনের জন্য শিক্ষার্থীর উচ্চমাধ্যমিক ও মাধ্যমিকের তথ্য, বর্তমান ঠিকানা ও মোবাইলফোন নম্বর, মা-বাবার জাতীয় পরিচয়পত্র নম্বর (ঐচ্ছিক) দিতে হবে। 

২।  শিক্ষার্থীকে ৮ বিভাগীয় শহরের যেকোনো ১টিকে তার ভর্তি কেন্দ্র হিসেবে নির্বাচন করতে হবে।

৩। স্ক্যান করা একটি ছবির (Format: jpg, Size: 30–200KB, Width: 360-540px, Height: 540-720px) প্রয়োজন পড়বে।

৪। এসএমএস করার জন্য শিক্ষার্থীর কাজে টেলিটক, রবি, এয়ারটেল অথবা বাংলালিংক অপারেটরের মধ‌্যে যেকোনো একটির মোবাইলফোন নম্বর থাকতে হবে।

৫। ভর্তির আবেদন ফি তাৎক্ষণিক অনলাইনে (VISA /Mastercard/ American Express ডেবিট অথবা ক্রেডিট কার্ড, মোবাইল ব্যাংকিং, ইন্টারনেট ব্যাংকিং) বা চারটি রাষ্ট্রায়ত্ত ব্যাংকে (সোনালী, জনতা, অগ্রণী ও রূপালী) নির্ধারিত সময়সীমার মধ্যে জমা দেওয়া যাবে।

আরও পড়ুন:


তুরস্কে হেলিকপ্টার বিধ্বস্ত, ১১ সৈন্য নিহত

সাতক্ষীরায় প্রশিক্ষণের প্রাইভেটকার নদীতে, নিহত ২

দীঘির সিনেমার ট্রেইলার প্রকাশ, হতাশ সিনেমা প্রেমিরা (ভিডিও)

স্বস্তি ফিরেছে নিউজিল্যান্ডে, ১৩ ঘণ্টা পর সুনামি সতর্কতা প্রত্যাহার


৬। এ-লেভেল/ও-লেভেল/সমমান বিদেশি পাঠ্যক্রমে বা উন্মুক্ত বিশ্ববিদ্যালয় থেকে উত্তীর্ণ শিক্ষার্থীদের সমতা নিরূপণের জন্য admission.eis.du.ac.bd ওয়েবসাইটে গিয়ে ‘সমমান আবেদন’ বা  Equivalence Application মেনুতে আবেদন করে তাৎক্ষণিকভাবে অনলাইনে নির্ধারিত ফি জমা দিতে হবে।

৭। সমতা নিরূপণের পর প্রাপ্ত Equivalence ID ব্যবহার করে সাধারণ শিক্ষার্থীদের মতো তারা একই ওয়েবসাইটে লগইন করে ভর্তি পরীক্ষার জন্য আবেদন করতে পারবেন।

উল্লেখ‌্য, এর আগে, গত ১৮ ফেব্রুয়ারি ঢাবির  ২০২০-২০২১ শিক্ষাবর্ষের স্নাতক (সম্মান) প্রথম বর্ষের ভর্তি পরীক্ষার সময়সূচি প্রকাশিত হয়। সময়সূচি অনুযায়ী ২১ মে থেকে ৫ জুন পর্যন্ত পাঁচটি ইউনিটের অধীনে এই পরীক্ষা নেওয়া হবে।

news24bd.tv আহমেদ

মন্তব্য

পরবর্তী খবর

মাদ্রাসায় জাতীয় পতাকা ও জাতীয় সঙ্গীত ‘বাধ্যতামূলক হচ্ছে’

অনলাইন ডেস্ক

মাদ্রাসায় জাতীয় পতাকা ও জাতীয় সঙ্গীত ‘বাধ্যতামূলক হচ্ছে’

মাদরাসা প্রতিষ্ঠার আগে বাংলাদেশ মাদরাসা শিক্ষা বোর্ডের অনুমোদন নেওয়া বাধ্যতামূলক করার কথা বলেছে সংসদীয় কমিটি।

সেই সঙ্গে মাদরাসার প্রতিদিনের কাজ শুরুর আগে জাতীয় পতাকা উত্তোলন এবং জাতীয় সঙ্গীত পরিবেশন বাধ্যতামূলক করার সুপারিশ করা হয়েছে।

বৃহস্পতিবার সংসদ ভবনে অনুষ্ঠিত ‘সরকারি প্রতিষ্ঠান সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির বৈঠকে এসব সুপারিশ করা হয়।

বৈঠকে সভাপতিত্ব করেন কমিটির সভাপতি আ স ম ফিরোজ। 

কমিটির সদস্য মোস্তাফিজুর রহমান, নারায়ন চন্দ্র চন্দ, মো. মাহবুব উল আলম হানিফ, মুহিবুর রহমান মানিক এবং নাহিদ ইজাহার খান বৈঠকে অংশগ্রহণ করেন। 

এছাড়াও মাদ্রাসা শিক্ষা বোর্ডের দাখিল পরীক্ষার বাংলা, গণিত ও ইংরেজি বিষয়ে পরীক্ষার খাতা অন্য বোর্ডের শিক্ষকদের দিয়ে মূল্যায়ন করানোর সুপারিশ করেছে কমিটি।


আবাসিক হোটেলে অনৈতিক কর্মকাণ্ড, ধরা ২০ নারী

চুমু দিয়ে নারীদের সব রোগ সারিয়ে দেন ‘চুমুবাবা’

বুবলিকে ধাক্কা দেওয়া গাড়িটি ছিল ব্ল্যাক পেপারে মোড়ানো, ছিল না নম্বর প্লেট

অস্ত্রের মুখে ছাত্রীকে বিবস্ত্র করে ভিডিও ধারণের পর দফায় দফায় ধর্ষণ

মেয়েকে তুলে নিয়ে মাকে রাত কাটানোর প্রস্তাব অপহরণকারীর

নাসির বিয়ে করেছেন আপনার খারাপ লাগে কেন?


বৈঠক শেষে কমিটির সভাপতি আ স ম ফিরোজ সাংবাদিকদের বলেন, মাদ্রাসা শিক্ষার জন্য সরকার অনেক টাকা খরচ করে কিন্তু কাঙ্খিত ফলাফল আমরা দেখতে পাই না। তাদের শিক্ষার গুণগতমান প্রত্যাশিত মাত্রায়  অর্জিত হয় না। আলিয়া মাধ্যম থেকে পাস করা শিক্ষার্থীদের আমরা গুরুত্বপূর্ণ খাতে ভূমিকা রাখতে দেখি না। এ কারণেই আমরা মাদ্রাসা শিক্ষা বোর্ডের দাখিল শ্রেণির বাংলা, ইংরেজি ও গণিত বিষয়র খাতা অন্য কোনো মাধ্যমের শিক্ষকদের মূল্যায়ন করার সুপারিশ করেছি। এটা করা গেলে শিক্ষার্থীদের মধ্যে একটা চাপ থাকবে এবং তারা নিজেদের গুণগত মান উন্নত করার চেষ্টা করবে। 

তিনি আরো বলেন, মাদ্রাসার অনেক শিক্ষকদের মধ্যে নিজেদের চাকরির স্বার্থে শিক্ষার্থীদের পাস করানোর প্রবণতা দেখা যায়। এটা হলে এই সুযোগ তারা পাবে না।

সংসদের গণসংযোগ বিভাগ জানায়, বৈঠকে প্রশাসনের স্বচ্ছতা ও জবাবদিহিতা নিশ্চিতকরণে সকল প্রাতিষ্ঠানিক অনিয়ম ও দুর্নীতি বন্ধে কঠোর ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য কমিটি সুপারিশ করে। বৈঠকে জাতীয় শিক্ষানীতির আলোকে মাদ্রাসার সিলেবাস ও কারিকুলাম আধুনিকায়ণে গৃহীত পদক্ষেপ; মাদ্রাসার পরীক্ষা পদ্ধতির আধুনিকায়ণ ও নকল প্রতিরোধে গৃহীত ব্যবস্থাসমূহ; উগ্রসাম্প্রদায়িকতা প্রতিরোধ ও প্রতিকারে মাদ্রাসা শিক্ষক-ছাত্রছাত্রীদের সচেতনতা বৃদ্ধিতে গৃহীত পদক্ষেপ; মাদ্রাসার ম্যানেজিং কমিটি, গভর্নিং বডি, নির্বাহী কমিটি, এডহক কমিটি গঠন প্রক্রিয়া ও কমিটি সংক্রান্ত উদ্ভূত জটিলতা নিরসন; মাদ্রাসার অধ্যক্ষসহ শিক্ষক/কর্মচারী নিয়োগ পদ্ধতি; প্রাতিষ্ঠানিক অনিয়ম ও দুর্নীতির অভিযোগ বিষয়ে বিস্তারিত আলোচনা করা হয়।

বৈঠকে কারিগরি ও মাদ্রাসা শিক্ষা বিভাগের সচিব, বাংলাদেশ মাদ্রাসা শিক্ষা বোর্ডের চেয়ারম্যান, বিভিন্ন সংস্থাপ্রধানসহ সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

news24bd.tv তৌহিদ

মন্তব্য

পরবর্তী খবর

বেরোবি ভিসির মন্তব্যের প্রতিবাদে মশাল মিছিল, কুশপুত্তলিকা দাহ

রেজাউল করিম মানিক, রংপুর

বেরোবি ভিসির মন্তব্যের প্রতিবাদে মশাল মিছিল, কুশপুত্তলিকা দাহ

বেগম রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের (বেরোবি) উপাচার্য নাজমুল আহসান কলিমউল্লাহর অনিয়ম দুর্নীতি ও ঢাকায় বসে মিথ্যাচার, শিক্ষামন্ত্রীসহ রাষ্ট্রের গুরুত্বপূর্ণ ব্যাক্তিবর্গকে নিয়ে কুরুচিপূর্ণ মন্তব্যের প্রতিবাদে মশাল মিছিল ও তার কুশপুত্তলিকা দাহ করেছে বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগ।

বৃহস্পতিবার (৪ মার্চ) সন্ধায় বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসে মশাল মিছিল শেষে উপাচার্যের কুশপুত্তলিকা দাহ করা হয়।

এসময় তাকে ক্যাম্পাসে অবাঞ্চিত ঘোষণা করা হয়।


আবাসিক হোটেলে অনৈতিক কর্মকাণ্ড, ধরা ২০ নারী

চুমু দিয়ে নারীদের সব রোগ সারিয়ে দেন ‘চুমুবাবা’

বুবলিকে ধাক্কা দেওয়া গাড়িটি ছিল ব্ল্যাক পেপারে মোড়ানো, ছিল না নম্বর প্লেট

অস্ত্রের মুখে ছাত্রীকে বিবস্ত্র করে ভিডিও ধারণের পর দফায় দফায় ধর্ষণ

মেয়েকে তুলে নিয়ে মাকে রাত কাটানোর প্রস্তাব অপহরণকারীর

নাসির বিয়ে করেছেন আপনার খারাপ লাগে কেন?


দাহ শেষে বিক্ষোভ সমাবেশে বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগ সভাপতি তুষার কিবরিয়া অতিসত্তর উপাচার্যের  অনিয়ম দুর্নীতির শাস্তি দাবি করে বলেন, তার দুর্নীতির তদন্ত করায় শিক্ষামন্ত্রীসহ ইউজিসির বিরুদ্ধে ঢাকায় বসে কুরুচিপূর্ণ বক্তব্য দিচ্ছেন। মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর বিশেষ প্রকল্পে তিনি অনিয়ম করেছেন উল্টো তিনি সরকারের বিভিন্ন মহলের বিরুদ্ধে বিষাদগার করছেন। আমরা চাই অতিসত্তর তাকে বিশ্ববিদ্যালয় থেকে প্রত্যাহার করা হোক।

বিশ্ববিদ্যালয় বঙ্গবন্ধু হল শাখা ছাত্রলীগের সভাপতি পোমেল বড়ুয়া বলেন, বর্তমান উপাচার্য দিনের দিনের পর ঢাকায় থেকে লিয়াজো অফিসের নামে অনিয়ম দুর্নীতি করে যাচ্ছেন। এর প্রতিবাদ করলেই হামলা মামলা দিয়ে যাচ্ছেন। আজ তিনি সরকার মহলের দিকে আঙ্গুল তুলেছেন। আমরা এর তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়ে তার শাস্তির দাবি জানাচ্ছি। তাকে জাতির উদ্দেশ্যে ক্ষমা চাইতে হবে নইলে কঠোর আন্দোলন ঘোষণা করা হবে।

বিক্ষোভ মিছিলে উপাচার্যকে কটাক্ষ করে বিভিন্ন শ্লোগান দেওয়া হয়।

এসময় বঙ্গবন্ধু হল শাখা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক মাহবুব আলম, ছাত্রলীগ কর্মী তানভীর, বায়েজিদ আহমেদ সহ বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভিন্ন বিভাগের সাধারণ শিক্ষার্থীরা অংশগ্রহণ করেন।

news24bd.tv তৌহিদ

মন্তব্য

পরবর্তী খবর

কলিমুল্লাহ ক্যাম্পাসে আসুক আমরা চাই না: বঙ্গবন্ধু পরিষদ

অনলাইন ডেস্ক

কলিমুল্লাহ ক্যাম্পাসে আসুক আমরা চাই না: বঙ্গবন্ধু পরিষদ

ঢাকায় বসে মিথ্যাচার ও শিক্ষামন্ত্রীসহ রাষ্ট্রের গুরুত্বপূর্ণ ব্যক্তিদের নিয়ে বিরূপ মন্তব্য করার অভিযোগ এনে বেগম রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য নাজমুল আহসান কলিমউল্লাহকে ক্যাম্পাসে অবাঞ্ছিত ঘোষণা করা হয়েছে।

শিক্ষকদের সংগঠন বঙ্গবন্ধু পরিষদ বৃহস্পতিবার তাকে অবাঞ্ছিত ঘোষণা করেন।

বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরি কমিশন (ইউজিসি) নাজমুল আহসান কলিমউল্লাহর অনিয়ম, দুর্নীতি ও স্বেচ্ছাচারিতার ৪৫টি অভিযোগ তদন্তের উদ্যোগ নিয়েছে। 

জানা গেছে, সম্প্রতি একই বিশ্ববিদ্যালয়ের দুটি ১০তলা ভবন ও একটি স্মৃতিস্তম্ভের নির্মাণকাজে উপাচার্যের অনিয়মের সত্যতা পেয়েছে ইউজিসির আরেকটি সরেজমিন তদন্ত কমিটি। এ ব্যাপারে উপাচার্যসহ সংশ্লিষ্ট ব্যক্তিদের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়ার সুপারিশ করা হয়েছে।

এসব অভিযোগ ও তদন্ত কমিটির সুপারিশ নিয়ে বৃহস্পতিবার সকালে রাজধানীর সেগুনবাগিচায় ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটিতে সংবাদ সম্মেলন করেন উপাচার্য নাজমুল আহসান কলিমউল্লাহ।

সেখানে উপাচার্য অভিযোগ করেন, এসব অভিযোগ ও ইউজিসির এমন তদন্ত শিক্ষামন্ত্রী দীপু মনির আশ্রয়, প্রশ্রয় ও আশকারায় হয়েছে।

উপাচার্যের ঢাকার সংবাদ সম্মেলনের পর রংপুরে তাৎক্ষণিক এক সংবাদ সম্মেলন করে শিক্ষকদের সংগঠন বঙ্গবন্ধু পরিষদ।

সংবাদ সম্মেলনে সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক গণিত বিভাগের সহকারী অধ্যাপক মশিউর রহমান উপাচার্যের বিরুদ্ধে নানা অভিযোগ তোলেন।

তিনি বলেন, গত ২৫ ফেব্রুয়ারি তাঁর বিরুদ্ধে ওঠা দুর্নীতির অভিযোগের বিষয়ে ইউজিসির তদন্ত প্রতিবেদনে তাঁকে অভিযুক্ত করে প্রতিবেদন দেওয়ায় তিনি ঢাকায় বসে মিথ্যাচার করেছেন। সংবাদ সম্মেলনে শিক্ষামন্ত্রীকে আক্রমণ করে কথা বলেছেন উপাচার্য৷ ইউজিসি নিয়ে বাজে মন্তব্য করেছেন। সরকারের উন্নয়নসহ সব বিষয়েই তিনি বিভ্রান্তিমূলক মন্তব্য করেছেন। তাই তাঁকে বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসে অবাঞ্ছিত ঘোষণা করা হলো। অতিসত্বর এসব মন্তব্যের জন্য ক্ষমা না চাইলে তাঁর বিরুদ্ধে আন্দোলনসহ আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

news24bd.tv তৌহিদ

মন্তব্য

পরবর্তী খবর