সেই ওসি ও তার স্ত্রীর বিরুদ্ধে দুদকের মামলা

অনলাইন ডেস্ক

সেই ওসি ও তার স্ত্রীর বিরুদ্ধে দুদকের মামলা

মেহেরপুরের গাংনী থানার সাবেক ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) হরেন্দ্র নাথ সরকার ও তার স্ত্রী কৃষ্ণা রানী অধিকারীর বিরুদ্ধে তিন কোটি টাকার অবৈধ সম্পদ অর্জনের অভিযোগ এনে পৃথক দুটি মামলা করেছে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)। 

ওসি হরেন্দ্র নাথ সরকার ও তার স্ত্রী কৃষ্ণারানী অধিকারীর বাড়ি সাতক্ষীরার আশাশুনি বাশীরামপুর গ্রামে। সাবেক ওসি হরেন্দ্র বর্তমানে রাঙামাটি পুলিশের বিশেষ প্রশিক্ষণ কেন্দ্রের (পিএসটিএস) পরিদর্শক।

কুষ্টিয়া দুদক সমন্বিত জেলা কার্যালয়ের উপ-সহকারী পরিচালক মো. নাছরুল্লাহ হোসাইন বাদী হয়ে মামলা দুটি দায়ের করেন।

মামলার এজাহারে বলা হয়, ওসি হরেন্দ্র নাথ সরকার অবৈধ ভাবে ২ কোটি ৮৭ লাখ ৫৭ হাজার ৭৮৪ টাকা আয় করেছেন। এই টাকার কোনো ব্যাখ্যা তিনি দিতে পারেননি। একই ভাবে তার স্ত্রী কৃষ্ণারানী অধিকারী ৩২ লাখ ৮০ হাজার ৭০৪ টাকার কোনো ব্যাখ্যা দিতে পারেননি। ২০০৪ সালের দুর্নীতি দমন কমিশন আইনের ২৬(২) ও ২৭(১) ধারা এবং ২০১২ সালের ৪(২) ও ৪(৩) এর মানি লন্ডারিং প্রতিরোধ আইনের মামলা দুটি রজু হয়।


চট্টগ্রামে আওয়ামী লীগ বিএনপি সংঘর্ষ; আহত ৭


মামলার বাদী কুষ্টিয়া দুদক সমন্বিত জেলা কার্যালয়ের উপ-সহকারী পরিচালক মো. নাছরুল্লাহ হোসাইন বলেন, আইন মোতাবেক আসামিদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

এ বিষয়ে গাংনী থানার সাবেক ওসি এবং বর্তমানে রাঙামাটি জেলার পুলিশের বিশেষ প্রশিক্ষণ কেন্দ্রে (পিএসটিএস) কর্মরত পুলিশ পরিদর্শক হরেন্দ্রনাথ সরকারের সাথে মুঠোফোনে কথা হয়। তিনি জানান, হ্যাঁ, এর আগে দুদক একটা তদন্ত করেছিলো। তবে মামলা হয়েছে সেটা আমার জানা নাই। প্লিজ দয়া করে বিষয়টি নিউজ টিউজে আইনেন না। উনারা তো আমার ফাইলপত্রও ঠিকভাবে দেখে নাই। আমাকে আত্মপক্ষ সমর্থনের সুযোগও দেই নাই। উনারা আন্দাজে কীভাবে কী করলেন আমি বুঝলাম না।

মন্তব্য

পরবর্তী খবর

মেয়েকে বিক্রি করে ঋণ পরিশোধ, বাকি টাকায় ভ্যান কিনলেন বাবা

নিজস্ব প্রতিবেদক

মেয়েকে বিক্রি করে ঋণ পরিশোধ, বাকি টাকায় ভ্যান কিনলেন বাবা

নাটোরের বড়াইগ্রাম উপজেলার কয়েন গ্রামে রেজাউল করিম নামের এক ব্যক্তি ঋণ পরিশোধে তার ২২ দিনের মেয়েকে বিক্রি করে দিয়েছেন বলে খবর পাওয়া গেছে। অভিযুক্ত রেজাউল করিম পেশায় একজন ভ্যানচালক। 

জানা গেছে, রোববার মেয়েকে বিক্রি করে ১ লাখ ১০ হাজার পান রেজাউল। সেই টাকা দিয়ে ঋণের ৮২ হাজার টাকা পরিশোধ করেন তিনি। এরপর বাকি ২৮ হাজার টাকা দিয়ে সোমবার একটি ভ্যান কেনেন তিনি। সেই ভ্যান নিয়ে আজ বাড়িতে ফিরলে শিশু চাঁদনীকে বিক্রি করে দেওয়ার বিষয়টি জানাজানি হয়। আশপাশের লোকজন তার বাড়িতে আসেন ঘটনাটি জানার জন্য। খবর পেয়ে পুলিশ এসে রেজাউল করিম এবং দুই দাদন ব্যবসায়ী আবদুস সামাদ ও সানোয়ার হোসেনকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য থানায় নিয়ে গেছে।

তবে ওই নবজাতককে বিক্রি করে দেওয়ার অভিযোগ অস্বীকার করেছেন রেজাউল করিম। তিনি বলছেন, তিনি তার মেয়েকে দত্তক দিয়েছেন।

বড়াইগ্রাম থানা, রেজাউলের পরিবার ও এলাকাবাসী সূত্রে জানা গেছে, কয়েক বছর আগে কয়েন গ্রামের ভ্যানচালক রেজাউল করিম দাদন ব্যবসায়ী আবদুস সামাদ, সানোয়ার হোসেন ও কালাম হোসেনের কাছ থেকে চড়া সুদে ৩০ হাজার টাকা ঋণ নেন। কিছু টাকা পরিশোধ করলেও বর্তমানে তা সুদ-আসলে ৮০ হাজার টাকায় দাঁড়ায়। এ টাকা পরিশোধের জন্য দাদন ব্যবসায়ীরা তাকে চাপ দিতে থাকেন। টাকা দিতে না পারায় দাদন ব্যবসায়ী কামাল হোসেন তার ভ্যানটিও কেড়ে নিয়ে যান।

আরও জানা যায়, দাদন ব্যবসায়ীদের চাপে সম্প্রতি রেজাউল তার স্ত্রী ফুলজান বেগমকে তার মেয়েকে বিক্রি করে ঋণ পরিশোধের প্রস্তাব দেন। কিন্তু তার স্ত্রী এ প্রস্তাবে রাজি হননি। এতে রেজাউল মানসিক ভারসাম্যহীন হয়ে হাঁসুয়া দিয়ে নিজের পা ও ঘরের বেড়া কোপান। বাধ্য হয়ে তার স্ত্রী সন্তান বিক্রিতে রাজি হন। সে অনুযায়ী রোববার দাদন ব্যবসায়ী আবদুস সামাদের মাধ্যমে তিনি তার মেয়ে চাঁদনীকে পাবনার ঈশ্বরদী উপজেলার সরাইকান্দি গ্রামের রফিকুল ইসলামের কাছে বিক্রি করে দেন।

চাঁদনীকে বিক্রি করে দেওয়ার বিষয়ে রেজাউলের স্ত্রী ফুলজান বেগমের কাছে জানতে চাইলে তিনি শুধু কাঁদতে থাকেন। তবে রেজাউল করিম তার মেয়েকে অন্যের কাছে দত্তক দেওয়ার কথা স্বীকার করেছেন। দাদন ব্যবসায়ী আবদুস সামাদ তাদের দেনা পরিশোধের জন্য শিশুসন্তান বিক্রির বিষয়টি সত্য নয় বলে দাবি করেছেন। তিনি জানান, রেজাউল স্বেচ্ছায় তার মেয়েকে অন্যের কাছে দত্তক রেখেছেন।


রাজশাহীতে চলছে বিএনপির মহাসমাবেশ

করোনায় দেশে আরও ৭ জনের মৃত্যু

বিমানের মধ্যেই মৃত্যু, পাকিস্তানে ভারতীয় বিমানের জরুরি অবতরণ

কুয়েতে দিনার ছিটিয়ে ‘অশ্লীল নাচ’, ৪ বাংলাদেশিকে খুঁজছে দূতাবাস


বড়াইগ্রাম থানার পরিদর্শক (তদন্ত) আবদুর রহিম বলেন, ‘আমরা ঘটনাটি তদন্ত করে দেখছি। কয়েকজনকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়েছে। প্রাথমিকভাবে রেজাউল করিমের বিরুদ্ধে তার শিশুসন্তানকে অন্যের কাছে দত্তক রাখার বিষয়টি প্রমাণিত হয়েছে। তবে সুদের টাকা পরিশোধের জন্য তিনি শিশুসন্তানকে টাকার বিনিময়ে দত্তক দিয়েছেন কি না, তা জানা যায়নি।’ 

news24bd.tv নাজিম

মন্তব্য

পরবর্তী খবর

গুরুদাসপুরে স্মার্টকার্ড বিতরণ ও ভোটার কার্যক্রম উদ্বোধন

নাসিম উদ্দীন নাসিম, নাটোর

গুরুদাসপুরে স্মার্টকার্ড বিতরণ ও ভোটার কার্যক্রম উদ্বোধন

নাটোরের গুরুদাসপুরে সাত হাজার দুইশত নারী পুরুষকে জাতীয় স্মার্টকার্ড দেওয়া হয়েছে। তৃতীয় জাতীয় ভোটার দিবস উদযাপন অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথি স্থানীয় সংসদ সদস্য মো. আব্দুল কুদ্দুস এ স্মার্টকার্ড বিতরণ করেন। 

২০১৯ সালে যারা ভোটার হয়েছেন শুধু তারাই এই স্মার্টকার্ড পেলেন। সেই সাথে নতুন ভোটার অন্তর্ভুক্তকরণ, ভোটার স্থানান্তর ও সংশোধন বিষয়ক কার্যক্রমের উদ্বোধন করেন প্রধান অতিথি।

আজ ১২টায় উপজেলা পরিষদ মিলনায়তনে এ অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। পরে সেখানে 
‘বয়স যদি আঠারো হয় ভোটার হতে দেরি নয়’ শীর্ষক এক আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। এতে সভাপতিত্ব করেন ইউএনও মো. তমাল হোসেন। 


রাজশাহীতে চলছে বিএনপির মহাসমাবেশ

করোনায় দেশে আরও ৭ জনের মৃত্যু

বিমানের মধ্যেই মৃত্যু, পাকিস্তানে ভারতীয় বিমানের জরুরি অবতরণ

কুয়েতে দিনার ছিটিয়ে ‘অশ্লীল নাচ’, ৪ বাংলাদেশিকে খুঁজছে দূতাবাস


অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছাড়াও উপজেলা চেয়ারম্যান মো. আনোয়ার হোসেন ও মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান রোকসানা আক্তার লিপি এবং উপজেলা নির্বাচন কর্মকর্তা মো. আমিনুল ইসলাম বক্তব্য রাখেন।

news24bd.tv নাজিম

মন্তব্য

পরবর্তী খবর

ঠাকুরগাঁওয়ে সাংবাদিকদের কলম বিরতি

আব্দুল লতিফ লিটু, ঠাকুরগাঁও

ঠাকুরগাঁওয়ে সাংবাদিকদের কলম বিরতি

সারাদেশে সাংবাদিক নির্যাতন, হত্যা, মিথ্যা মামলা ও হয়রানীর প্রতিবাদে ঠাকুরগাঁওয়ে কলম বিরতি পালন করেছে গণমাধ্যমকর্মীরা। 

মঙ্গলবার ঠাকুরগাঁও রিপোর্টার্স ইউনিটির উদ্যোগে জেলা শহরের চৌরাস্তায় সকাল ৮টা থেকে ২টা পর্যন্ত এ কর্মসূচি পালন করা হয়।
 
সাংবাদিকরা বলেন, বাংলাদেশ এখন উন্নয়নশীল দেশে পরিনত হয়েছে। কিন্তু সাংবাদকর্মীদের ক্ষেত্রে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন করে কোনঠাসা অবস্থায় রাখা হয়েছে। তবুও সাহসী সংবাদকর্মীরা দেশ ও দশের কথাগুলো তুলে ধরছে। আর তা করতে গিয়ে নির্যাতন, হত্যা, মিথ্যা মামলা ও হয়রানীর শিকার হচ্ছে। যা কাম্য নয়। অবিলম্বে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন বাতিলসহ সাংবাদিকদের অধিকার বাস্তবায়ন, নির্যাতন, হত্যা, মিথ্যা মামলা ও হয়রানি বন্ধের দাবি জানাচ্ছি। 


রাজশাহীতে চলছে বিএনপির মহাসমাবেশ

করোনায় দেশে আরও ৭ জনের মৃত্যু

বিমানের মধ্যেই মৃত্যু, পাকিস্তানে ভারতীয় বিমানের জরুরি অবতরণ

কুয়েতে দিনার ছিটিয়ে ‘অশ্লীল নাচ’, ৪ বাংলাদেশিকে খুঁজছে দূতাবাস


কর্মসূচিতে রিপোর্টার্স ইউনিটির সভাপতি এমদাদুল ইসলাম ভুট্টো, সাধারণ সম্পাদক আব্দুল লতিফ লিটু, নবনির্বাচিত পৌর মেয়র আঞ্জুমান আরা বন্যা, প্রেসক্লাবের সাবেক সভাপতি আবু তোরাব মানিক প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

news24bd.tv নাজিম

মন্তব্য

পরবর্তী খবর

মশার যন্ত্রণায় অতিষ্ঠ সিলেটেবাসী

সৈয়দ রাসেল

মশার যন্ত্রণায় অতিষ্ঠ সিলেটেবাসী। স্থানীয়দের অভিযোগ, সিটি কর্পোরেশন থেকে মশা নিধনে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ না নেয়ায় বেড়েই চলেছে মশার উপদ্রব। 

অবশ্য সংশ্লিষ্টরা বলছেন, গেল এক বছরে সিসিক কোটি টাকার মশার ঔষধ ছিটিয়েছে। আর  তৃতীয় ধাপের ঔষধ ছিটালে উপদ্রব কমে আসবে 

শীতের মৌসুম শেষে  প্রতিবছরই ঢাকঢোল পিটিয়ে মশা নিধন কর্মসূচি শুরু করে সিলেট সিটি কর্পোরেশন। স্থানীয়দের অভিযোগ, দু'একদিনের কর্মসূচি পালন করেই শেষ হয় তাদের কার্যক্রম।এমন বাস্তবতায় বাসাবাড়ি, অফিস-আদালত সর্বত্রই এখন মশার উপদ্রব। মশার যন্ত্রণায় অতিষ্ঠ জনজীবন।

অবশ্য সংশ্লিষ্টরা বলছেন, গেল এক বছরে সিসিক কোটি টাকার মশার ঔষধ ছিটিয়েছে তৃতীয় ধাপের ঔষধ ছিটালে উপদ্রব কমে আসবে।


রাজশাহীতে চলছে বিএনপির মহাসমাবেশ

করোনায় দেশে আরও ৭ জনের মৃত্যু

বিমানের মধ্যেই মৃত্যু, পাকিস্তানে ভারতীয় বিমানের জরুরি অবতরণ

কুয়েতে দিনার ছিটিয়ে ‘অশ্লীল নাচ’, ৪ বাংলাদেশিকে খুঁজছে দূতাবাস


এদিকে মশাবাহিত রোগের কারণে স্বাস্থ্যঝুঁকিতে রয়েছে সাধারণ মানুষ। এ অবস্থায় সংশ্লিষ্টদের আরও সচেতন হওয়া আহবান এই চিকিৎসকের।

মশা নিধনে সিসিক কার্যকর পদক্ষেপ  নেবে এমন দাবি সাধারণ মানুষের।

news24bd.tv নাজিম

মন্তব্য

পরবর্তী খবর

চমেকে ছাত্রলীগের দু’পক্ষের সংঘর্ষ, ভাঙচুর

নিজস্ব প্রতিবেদক

চমেকে ছাত্রলীগের দু’পক্ষের সংঘর্ষ, ভাঙচুর

আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে চট্টগ্রাম মেডিক্যাল কলেজের হাসপাতালের প্রধান ছাত্রাবাসে ছাত্রলীগের দুই গ্রুপের মধ্যে সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে। এর আগে দুই পক্ষই ছাত্রাবাসের বেশ কয়েকটি রুম ভাংচুর করে।ঘটনার পর পরই পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনার চেষ্টা চালাচ্ছে পুলিশ।

বিকাল তিনটায় মেডিক্যাল কলেজের প্রধান ছাত্রবাসে ছাত্রলীগের দুটি পক্ষ সংঘর্ষে লিপ্ত হয়।এ সময় দেশীয় অস্ত্র নিয়ে ছাত্রাবাসের ভিতরে মারামারিতে লিপ্ত হয় তারা। সংঘর্ষ চলাকালীন অবস্থায় ছাত্রাবাসের বেশ কয়েকটি কক্ষ ও ভাংচুর করা হয়।

এর আগে আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে শিক্ষা উপমন্ত্রী মহিবুল হাসান চৌধুরী নওফেলের অনুসারী ও সাবেক মেয়র আ জ ম নাছিরের অনুসারীরা এক অপরের বেশ কয়েকটি রুম ভাংচুর করে। ছাত্রাবাসের জিনিসপত্র, বই, চেয়ার বাইরে পরে থাকতে দেখা যায়। এছাড়া দুটি পক্ষই পাল্টাপাল্টি শ্লোগান দিতে থাকে। এ সময় একে-অপরের বিরুদ্ধে দোষারোপ করেন দুটি পক্ষই। 

এ সময় চট্টগ্রাম মেডিক্যাল কলেজ ছাত্রাবাসের তত্ত্বাবধায়ক এসে দুটি পক্ষের সাথে কথা বলে নিবৃত্ত করার চেষ্টা করলে ও শেষ পর্যন্ত কোন পক্ষই সমাধানে আসেনি।


রাজশাহীতে চলছে বিএনপির মহাসমাবেশ

করোনায় দেশে আরও ৭ জনের মৃত্যু

বিমানের মধ্যেই মৃত্যু, পাকিস্তানে ভারতীয় বিমানের জরুরি অবতরণ

কুয়েতে দিনার ছিটিয়ে ‘অশ্লীল নাচ’, ৪ বাংলাদেশিকে খুঁজছে দূতাবাস


যারা আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি অবনতির চেষ্টা করবে তাদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া  হবে বলে জানিয়েছেন পুলিশ।

ঘটনার পর পরই পুলিশ এসে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনের চেষ্টা করে।পুরো ছাত্রাবাস,  এলাকা জুড়ে থমথমে পরিস্থিতি বিরাজ করছে।

news24bd.tv নাজিম

মন্তব্য

পরবর্তী খবর