ফায়দাভিত্তিক রাজনীতি নিরপেক্ষ নির্বাচনের বাধা
" title="news24bd.tv video player" frameborder="0" allow="accelerometer; autoplay; clipboard-write; encrypted-media; gyroscope; picture-in-picture" allowfullscreen>

ফায়দাভিত্তিক রাজনীতি নিরপেক্ষ নির্বাচনের বাধা

Other

স্থানীয় সরকার নির্বাচন নিরপেক্ষ হওয়ার ক্ষেত্রে ফায়দাভিত্তিক রাজনীতিকেই অন্যতম বাধা হিসেবে দেখছেন বিশ্লেষকরা। একইসঙ্গে-সরকার ও নির্বাচন কমিশনের সদিচ্ছার অভাবকেও দায়ি করছেন তারা। মূলত এই দুই কারণেই নির্বাচনে এখনও সহিংসতা হচ্ছে বলে মত তাদের। এক্ষেত্রে- স্থানীয় সরকার নির্বাচন দলীয় না নির্দলীয় হওয়া উচিৎ, তা নিয়ে দ্বিমত আছে পর্য বেক্ষকদের।

সবচেয়ে দুর্বল যেসব পাসওয়ার্ড

শীর্ষে ম্যানইউ

ইউনিয়ন, উপজেলা, জেলা, পৌরসভা, সিটি কর্পোরেশন – এই পাঁচ ধাপে বিভক্ত  দেশের স্থাণীয় সরকার ব্যবস্থা। আগে স্থাণীয়  সরকার নির্বাচন নির্দলীয় হলেও- আইন পরিবর্তনের মাধ্যমে এখন এসব নির্বাচন হচ্ছে দলীয়ভাবে।  

চলমান পৌরসভা ও সিটি কর্পোরেশনের প্রেক্ষাপট বলছে-ভোটে মানুষের লাইন বড় হলেও-সহিংসতা উল্লেখ করার মত। নির্বাচনের আগে – পরে ঘটছে প্রার্থীদের মধ্যে সংঘর্ষ-রক্তপাত। বিজয়ী প্রার্থী হত্যাকাণ্ডের ঘটনাও ঘটেছে। দল মনোনীত প্রার্থীর বাইরে স্থানীয় এসব নির্বাচনে ক্ষমতাসীন দলের জন্য বড় চ্যালেঞ্জ হয়ে উঠেছে বিদ্রোহী প্রার্থী। এমন বাস্তবতায়-স্থাণীয় সরকারে নিরপেক্ষতা বজায় রাখার  দাবি উঠছে।  


নির্বাচন পর্বেক্ষকদের মতে-নির্বাচন কমিশন, ক্ষমতাসীন দল ও সরকারের সদিচ্ছা এবং অন্যান্য দলগুলোর শক্তিশালী অংশগ্রহনেই হতে পারে একটি ভালো নির্বাচন। তবে-স্থাণীয় সরকারের নির্বাচন ব্যবস্থার ভাল-মন্দ নিয়ে মতবিরোধ আছে বিশ্লেষকদের মধ্যে।   

তাদের মতে-যেকোনো ভোটে নির্বাচন কমিশনের শক্ত পদক্ষেপ অত্যন্ত  জরুরি। যতদিন তা না হবে-ততদিন সুষ্ঠু, গ্রহনযোগ্য এবং নিরপেক্ষ নির্বাচন দুরাশা হয়েই থাকবে।

news24bd.tv/আলী