খুলনায় উপকারভোগীদের সাথে সরাসরি কথা বলবেন প্রধানমন্ত্রী

৯২২টি হতদরিদ্র পরিবার পাচ্ছে ঘর

নিজস্ব প্রতিবেদক, খুলনা

খুলনায় উপকারভোগীদের সাথে সরাসরি কথা বলবেন প্রধানমন্ত্রী

মুজিববর্ষ উপলক্ষে ভূমিহীন গৃহহীন পরিবারকে ঘরসহ জমি প্রদান কার্যক্রমের অংশ হিসেবে খুলনার ৯টি উপজেলায় প্রথম পর্যায়ে ৯২২টি পরিবারকে দ্বি-কক্ষবিশিষ্ট নবনির্মিত ঘরসহ জমি প্রদান করা হচ্ছে।

আগামীকাল (শনিবার) সকালে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা জমি ও ঘর প্রদান কার্যক্রম উদ্বোধন করবেন।

এসময় বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইটের মাধ্যমে খুলনার ডুমুরিয়ার প্রত্যন্ত কাঁঠালতলা গ্রামে সরাসরি উপকারভোগীদের সাথে কথা বলবেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। এর মধ্যে ডুমুরিয়ায় স্যাটেলাইট টিম সংযোগ কার্যক্রম সম্পন্ন করেছে।

আজ (শুক্রবার) খুলনা জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ হেলাল হোসেন এসব তথ্য জানান।

আরও পড়ুন: ‌‘গরীবের ডাক্তার’ খ্যাত লিটুর আগাগোড়া ছিল সততা

সালিশে ধর্ষণের রফাদফা ৭২ হাজার টাকায়, ক্ষোভে কিশোরীর আত্মহত্যা

এর আগে বৃহস্পতিবার জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ে প্রেস ব্রিফিংয়ে তিনি বলেন, খুলনায় ‘ক’ শ্রেণির তালিকাভুক্ত ভুমিহীন গৃহহীন ৫
হাজার ৮৮টি পরিবারকে পর্যায়ক্রমে ঘর দেওয়া হবে।

তিনি বলেন, খুলনাকে বিশেষ প্রাধান্য দিয়ে সরাসরি উপকারভোগীদের সাথে কথা বলবেন প্রধানমন্ত্রী। যেহেতু ডুমুরিয়ার আটলিয়া কাঁঠালতলার প্রত্যন্ত এলাকায় নেটওয়ার্ক ব্যবস্থা ভালো না থাকায়, উচ্চক্ষমতা সম্পন্ন বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইটের মাধ্যমে প্রধানমন্ত্রী এই অনুষ্ঠানে সংযুক্ত হবেন।

এসময় আঞ্চলিক তথ্য অফিসের উপপ্রধান তথ্য অফিসার জিনাত আরা আহমেদ, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (রাজস্ব) জিয়াউর রহমান, খুলনা প্রেসক্লাবের সভাপতি এসএম জাহিদ হোসেন, সাংবাদিক নেতা মুন্সী মাহবুব আলম সোহাগ, হাসান আহমেদ মোল্লা, মকবুল হোসেন মিন্টু উপস্থিত ছিলেন।

news24bd.tv তৌহিদ

মন্তব্য

পরবর্তী খবর

কেউ অসুস্থ হয়ে মারা গেলে কি করার আছে?: প্রধানমন্ত্রী

অনলাইন ডেস্ক

কেউ অসুস্থ হয়ে মারা গেলে কি করার আছে?: প্রধানমন্ত্রী

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, ‘সমালোচনা যারা করছে, তারা সবকিছু কি অনুধাবন করছে? আজকের এই দিনে আমি অন্য কিছু বলতে চাই না। শুধু এটুকুই বলবো, কারও মৃত্যুই কাম্য নয়। তবে সেটাকে উদ্দেশ্য করে অশান্তিও কাম্য নয়। অসুস্থ হয়ে মারা গেলে কী করার আছে?’

শনিবার (২৭ ফেব্রুয়ারি) বিকেলে প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে বাংলাদেশের উন্নয়নশীল দেশে উত্তরণ নিয়ে সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করা হয়। এতে গণভবন প্রান্ত থেকে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা যুক্ত হন। এ সময় তার সঙ্গে বঙ্গবন্ধুর কনিষ্ঠ তনয়া শেখ রেহানা, আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের, অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল, তথ্যমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ উপস্থিত ছিলেন।

এসময় ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে লেখক-সাংবাদিকদের নির্যাতন ইস্যুতে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেন, ‘ডিজিটাল বাংলাদেশ যখন গড়ে তুলেছি, তখন ডিজিটাল নিরাপত্তা দেয়াও আমাদের দায়িত্ব। কেউ যেন সন্ত্রাস-জঙ্গিবাদে না জড়াতে পারে, সেজন্য ডিজিটাল নিরাপত্তা অপরিহার্য।’

২০২৪ সালের নির্বাচনে অংশ নেবেন কিনা, এমন প্রশ্নের জবাবে প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘২০২৪ আসলে তখন সিদ্ধান্ত নেব, কী করবো। উন্নয়নশীল দেশে উত্তরণের জন্য ২০২৬ সাল পর্যন্ত তার মান ধরে রাখতে হবে। এজন্য আমাদের নানা চ্যালেঞ্জ মোকাবিলা করতে হবে, সব চ্যালেঞ্জ মোকাবিলা করতে প্রস্তুত। আমার মনে হয়, এ কথার মধ্যে সব উত্তর আছে।’

আরও পড়ুন:


মিছিল থেকে গ্রেপ্তার সাতজনের বিরুদ্ধে পুলিশের ‘হত্যাচেষ্টা’ মামলা

জিয়ার অবদান অস্বীকার করার অর্থই হল স্বাধীনতাকে অস্বীকার: ফখরুল

সাম্প্রদায়িক গোষ্ঠীকে রাজনীতিতে সুযোগ দিয়েছিলেন জিয়া: কাদের

বসুন্ধরা এলপি গ্যাসের রিটেইলার মিট প্রোগ্রাম অনুষ্ঠিত


করোনা মহামারি মোকাবিলা সংক্রান্ত এক প্রশ্নের জবাবে প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘এটা কোনো ম্যাজিক নয়, আন্তরিকতা, দায়িত্ববোধ। এ জায়গা থেকে কাজ করেছি। এখানে আমার নয়, বাংলাদেশের জনগণের ম্যাজিক ছিল।’

সংবাদ সম্মেলন সঞ্চালনা করেন মুখ্য সচিব আহমদ কায়কাউস। শুরুতেই কান্নাজড়িত কণ্ঠে তার উপস্থাপনা সবার দৃষ্টি কাড়ে। এরপর প্রধানমন্ত্রীর হাতে স্বল্পোন্নত দেশ থেকে উন্নয়নশীল দেশে উত্তরণের জন্য জাতিসংঘের চূড়ান্ত সুপারিশপত্র তুলে দেন অর্থমন্ত্রী। এরপর প্রধানমন্ত্রী বক্তব্য দেন।

সংবাদ সম্মেলনে প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয় প্রান্তে মন্ত্রিপরিষদের সদস্য, আওয়ামী লীগের নেতা ও সাংবাদিকরা উপস্থিত ছিলেন।

news24bd.tv আহমেদ

মন্তব্য

পরবর্তী খবর

মিছিল থেকে গ্রেপ্তার সাতজনের বিরুদ্ধে পুলিশের ‘হত্যাচেষ্টা’ মামলা

অনলাইন ডেস্ক

মিছিল থেকে গ্রেপ্তার সাতজনের বিরুদ্ধে পুলিশের ‘হত্যাচেষ্টা’ মামলা

লেখক মুশতাক আহমেদের মৃত্যুর তদন্ত ও ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন বাতিলের দাবিতে প্রগতিশীল ছাত্র সংগঠনের মশাল মিছিলে সংঘর্ষের সময় আটক সাতজনের বিরুদ্ধে হত্যাচেষ্টা মামলা করেছে পুলিশ। 

শুক্রবার মধ্যরাতে শাহবাগ থানায় মামলাটি করা হয়।  

ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনের মামলায় গ্রেফতার হয়ে কাশিমপুর হাই সিকিউরিটি কারাগারে বন্দি অবস্থায় বুধবার লেখক মুশতাক আহমেদের মৃত্যু হয়। এর প্রতিবাদে শুক্রবার দিনভর ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় এলাকায় বিক্ষোভ করেন বামধারার ছাত্র সংগঠনগুলোর নেতাকর্মীরা।

এদিন সন্ধ্যায় টিএসসি থেকে মশাল মিছিল নিয়ে শাহবাগে এলে তাদের বাধা দেয় পুলিশ। এক পর্যায়ে বিক্ষোভকারীদের সঙ্গে পুলিশের সংঘর্ষ বেধে যায়।

এ সময় পুলিশের লাঠিপেটায় তাদের ৩০ জন আহত হয়েছেন বলে দাবি করেছেন আন্দোলনকারীরা। অপরদিকে আন্দোলনকারীদের হামলায় ১৫ জন পুলিশ সদস্য আহত হয়েছিলেন বলে দাবি করা হয়।

আরও পড়ুন:


জিয়ার অবদান অস্বীকার করার অর্থই হল স্বাধীনতাকে অস্বীকার: ফখরুল

সাম্প্রদায়িক গোষ্ঠীকে রাজনীতিতে সুযোগ দিয়েছিলেন জিয়া: কাদের

বসুন্ধরা এলপি গ্যাসের রিটেইলার মিট প্রোগ্রাম অনুষ্ঠিত

খুলনায় বিএনপির অফিস ঘিরে রেখেছে পুলিশ, তীব্র উত্তেজনা


তবে বিভিন্ন সংবাদমাধ্যমে প্রকাশিত ওই ঘটনার আলোকচিত্রে পুলিশ সদস্যদের লাঠিপেটা করতে দেখা গেছে।

ঘটনার সময় সাতজনকে গ্রেফতার করে পুলিশ। তারা হলেন- আমজিন হায়দায় (২২), নজিব আমিন চৌধুরী (২৭), তানজিমুর রহমান (২২), আকিব আহমেদ (২২), আরাফাত (২৬), নাজিফা জান্নাত (২৪) ও জয়তী চক্রবর্তী (২৩)।

এদিকে আজ শনিবার আসামিদের ঢাকা মহানগর হাকিম আদালতে হাজির করা হয়। এ সময় মামলার সুষ্ঠু তদন্তের জন্য তাদের সাত দিনের রিমান্ডে নিতে আবেদন করে শাহবাগ থানা পুলিশ।

news24bd.tv আহমেদ

মন্তব্য

পরবর্তী খবর

অবরুদ্ধ খুলনায় নৌপথেও পারাপার বন্ধ, ভোগান্তি চরমে

সামছুজ্জামান শাহীন, খুলনা

অবরুদ্ধ খুলনায় নৌপথেও পারাপার বন্ধ, ভোগান্তি চরমে

শুক্রবার সন্ধ্যা ৬টা থেকে খুলনায় সড়ক পথে ১৮টি রুটে বাস চলাচল বন্ধ রাখা হয়েছে। একইভাবে আজ শনিবার সকাল থেকে খুলনা শহরের সঙ্গে সকল নদী পারাপার ঘাট বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে।

এতে রূপসা, তেরখাদা ও দিঘলিয়া উপজেলা থেকে কোন মানুষ নৌকা বা ট্রলারে করে খুলনা শহরে প্রবেশ বা বের হতে পারছেন না। প্রতিটি ঘাট এলাকায় অপেক্ষমান মানুষের মধ্যে ভোগান্তি বাড়ছে। অনেকে চিকিৎসা বা চাকরির কারনে খুলনা শহরে এসেও ফিরে যেতে পারেননি। ঘাট এলাকায় অসুস্থ অনেক মানুষকে হতাশা নিয়ে ঘন্টার পর ঘন্টা বসে থাকতে দেখা গেছে। নদী ঘাটগুলোতে আড়াআড়ি বাঁশ দিয়ে চলাচল বন্ধ করা হয়েছে।

আরও পড়ুন:


ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনকে ‘বৃদ্ধাঙ্গুলি’ ছাত্র ফেডারেশনের

ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন বাতিলের দাবিতে আল্টিমেটাম

শাকিবের হয়ে পুরস্কার গ্রহণ করলেন বুবলি, জল্পনা তুঙ্গে

মহাসমাবেশে যোগ দিতে খুলনায় ইশরাক, পথে বাধার অভিযোগ


ছয়টি সিটি করপোরেশনে ধারাবাহিকভাবে এ সমাবেশ অনুষ্ঠিত হচ্ছে। মহানগর বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম সম্পাদক অধ্যক্ষ তারিকুল ইসলাম বলেন, খুলনায় এ সমাবেশ যেন সফল না হয় এ লক্ষ্যে বাস চলাচল বন্ধের পাশাপাশি নৌকা ও ট্রলারে মানুষ পারাপার বন্ধ করা হয়েছে। 

তবে খুলনা জেলা মটর শ্রমিক ইউনিয়নের সভাপতি মো. নুরুল ইসলাম বেবি জানান, বিএনপির কর্মসূচির সাথে তাদের কর্মবিরতীর কোন সম্পর্ক নেই। দীর্ঘদিন টানা কাজ করার পর বাস শ্রমিকদের বিশ্রাম দেওয়ার জন্য এ কর্মবিরতী দেওয়া হয়েছে। আর নদী পথে ঘাট মালিকরা নৌকা ট্রলার বন্ধের বিষয়ে কিছু জানাতে রাজি হয়নি।

news24bd.tv আহমেদ

মন্তব্য

পরবর্তী খবর

ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনকে ‘বৃদ্ধাঙ্গুলি’ ছাত্র ফেডারেশনের

অনলাইন ডেস্ক

ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনকে ‘বৃদ্ধাঙ্গুলি’ ছাত্র ফেডারেশনের

শিক্ষার্থীদের ওপর হওয়া হামলার বিচার ও ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন বাতিলের দাবিতে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসে বিক্ষোভ মিছিল করেছে গণসংহতি আন্দোলনের ছাত্রসংগঠন বাংলাদেশ ছাত্র ফেডারেশন। বিক্ষোভ শেষে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনকে বাতিল ঘোষণা করে এর প্রতি ‘বৃদ্ধাঙ্গুলি’ প্রদর্শন করেন সংগঠনটির নেতা-কর্মীরা।

শনিবার (২৭ ফেব্রুয়ারি) ১২টার পর বিশ্ববিদ্যালয়ের টিএসসি থেকে এই মিছিল বের করা হয়। মিছিলটি ক্যাম্পাসের গুরুত্বপূর্ণ সড়ক প্রদক্ষিণ করে শাহবাগ মোড় হয়ে আবার টিএসসিতে এসে সমাবেশে মিলিত হয়।

গতকাল শুক্রবার প্রগতিশীল ছাত্র সংগঠনগুলো কারাগারে লেখক মুশতাকের মৃত্যুর ঘটনায় দায়ীদের বিচার চেয়ে টিএসসি থেকে মশাল মিছিল বের করলে পাবলিক লাইব্রেরির সামনে লাঠিচার্জ ও টিয়ার শেল নিক্ষেপ করে মিছিলটি ছত্রভঙ্গ করে দেয় পুলিশ।

আরও পড়ুন:


ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন বাতিলের দাবিতে আল্টিমেটাম

শাকিবের হয়ে পুরস্কার গ্রহণ করলেন বুবলি, জল্পনা তুঙ্গে

মহাসমাবেশে যোগ দিতে খুলনায় ইশরাক, পথে বাধার অভিযোগ

ইহুদিদের উৎসব উপলক্ষে ইব্রাহিমি মসজিদের আজানে ইসরায়েলের নিষেধাজ্ঞা


সমাবেশে সংগঠনের কেন্দ্রীয় সভাপতি গোলাম মোস্তফা বলেন, ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন বাতিল করতে আগামী এক মাস সারা দেশে সব প্রগতিশীল সংগঠনকে সঙ্গে নিয়ে আমরা বিক্ষোভ কর্মসূচি পালন করবো। স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় অভিমুখে বিক্ষোভ করবো আমরা।

সমাবেশে উপস্থিত ছিলেন সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক জাহিদ সুজন, ঢাকা মহানগর শাখার আহ্বায়ক মশিউর রহমান প্রমুখ।

news24bd.tv আহমেদ

মন্তব্য

পরবর্তী খবর

ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন বাতিলের দাবিতে আল্টিমেটাম

নাঈম আল জিকো

ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন বাতিলের দাবিতে আল্টিমেটাম

অবিলম্বে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন বাতিল না হলে ১ মার্চ স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় ঘেরাও ও ৩ তারিখ প্রধানমন্ত্রী কার্যালয় অভিমুখী যাত্রা করার ঘোষণা দিয়েছে বামপন্থী ছাত্র সংগঠনগুলো। এছাড়া, লেখক মুস্তাক আহমেদের মৃত্যুর সঠিক কারণ বের করা ও আন্দোলন থেকে গ্রেফতারও ছাত্রদের মুক্তি সহ ৩ দফা দাবি জানিয়েছে তারা। 

জেল খানায় লেখক মুস্তাক আহমেদের মৃত্যুর প্রতিবাদ ও ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন বাতিলের দাবিতে সকালে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় এর রাজু ভাস্কর্য থেকে শাহবাগ পর্যন্ত বিক্ষোভ মিছিল করে সাধারণ ছাত্র পরিষদ। পরে রাজু ভাস্কর্যের অবস্থান নেয়া তারা।

এসময়, সংগঠনের নেতারা বলেন, এই আইনের মাধ্যমে মানুষের কথা বলার অধিকার ছিনিয়ে নেয়া হচ্ছে। তাই এই আইন বাতিলের দাবি জানান তারা।

আরও পড়ুন:


শাকিবের হয়ে পুরস্কার গ্রহণ করলেন বুবলি, জল্পনা তুঙ্গে

মহাসমাবেশে যোগ দিতে খুলনায় ইশরাক, পথে বাধার অভিযোগ

ইহুদিদের উৎসব উপলক্ষে ইব্রাহিমি মসজিদের আজানে ইসরায়েলের নিষেধাজ্ঞা

শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খোলার বিষয়ে সন্ধ্যায় বৈঠকে বসবে ৬ মন্ত্রণালয়


শাহবাগে অবস্থান নেয় নাম পন্থী সংগঠনগুলো। এসময়, ১ মার্চ স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় ঘেরাও ও ৩ তারিখ প্রধানমন্ত্রী কার্যালয় অভিমুখী যাত্রা করার ঘোষণা দিয়েছেন আন্দোলনকারীরা। 

এছাড়া, জাতীয় প্রেসক্লাবে এই আইন বাতিলের দাবিতে মানববন্ধন করেছে বাম পন্থী ছাত্র সংগঠনগুলো।

news24bd.tv আহমেদ

মন্তব্য

পরবর্তী খবর