৮০ কেজি ওজন তুলে তাক লাগলেন ৭ বছরের মেয়ে
৮০ কেজি ওজন তুলে তাক লাগলেন ৭ বছরের মেয়ে

৮০ কেজি ওজন তুলে তাক লাগলেন ৭ বছরের মেয়ে

অনলাইন ডেস্ক

বয়স তার মাত্র ৭ বছর। এখন তো তার খেলার বয়স। কিন্তু এত কম বয়সেই এই মেয়ে যেন পেশাদার হয়ে উঠেছে। ৭ বছরের রোরি বেন উলফ অলিম্পিকের উইমেন্স বারের স্নেচে ৩২ কেজি, ক্লিন অ্যান্ড জার্কে ৪২ কেজি, সোয়াটিংয়ে ৬১ কেজি ও ডেডলিফ্টে ৮০ কেজি ওজন তুলে সবাইকে তাক লাগিয়ে দিয়েছে।

কানাডার এই মেয়ে এখন সোশ্যাল মিডিয়া সেনসেশন।  

রোরি এই অসম্ভবকে সম্ভব করেছে দুই বছর অনুশীলনের পর। মাত্র পাঁচ বছর বয়স থেকে রোরি ভারোত্তলন শুরু করেছিল। তার বয়সী বাচ্চারা যখন খেলে দিন কাটায়, তখন সে রীতিমতো নিজেকে শক্তিশালী করার করসত শুরু করে দিয়েছিল।  


কারাগারে পাঁচ বছর ধরে তুষারকে একান্তে সঙ্গ দিয়ে আসছে সুইটি

পপিকে বিয়ের প্রস্তাব দিয়ে এমপি বানাতে চাইলেন যুবক

সাতপাকে বাঁধা পরলেন বরুণ-নাতাশা

গৃহকর্মীকে ধর্ষণচেষ্টা, সাবেক চেয়ারম্যানের ছেলে গ্রেপ্তার


বলাবাহুল্য, রোরি এখন বিশ্বের সবচেয়ে শক্তিশালী বাচ্চা মেয়ে। অনন্য রেকর্ড সে নিজের নামে করে নিয়েছে। রোরি বলেছে, নিজেকে ফিট দেখতে তার ভালো লাগে। একই সঙ্গে সে নিজের সারা শরীরে ট্যাটু আঁকার ইচ্ছা প্রকাশ করেছে।

রোরি বলেছে, 'খাওয়াদাওয়া আর অনুশীলনে আমার সবচেয়ে বেশি ফোকাস ছিল। সেই সঙ্গে নিজেকে শক্তিশালী করে তোলার ইচ্ছাও ছিল। ওজন তুলতে আমার ভালো লাগে। আত্মবিশ্বাসী মনে হয়। নিজেকে ঠিকভাবে গড়ে তুলতে পারলে অনেক রেকর্ড করা যায়। ' 

তার ভারোত্তলনের ভিডিওর নিচে একজন লিখেছিলেন, 'তোমার বাঁ হাতের ট্যাটু-টা দারুণ। ' জবাবে রোরি বলেছে, 'ওটা অস্থায়ী। তবে আমি একদিন সারা শরীরে ট্যাটু করাব। ট্যাটু দেখাতে আমার খুব ভালো লাগে। '

ভিডিও লিংক- link

news24bd.tv / কামরুল