বিএনপি নেতা ড.মঈন খানের ভাগ্নি বাইডেন প্রশাসনে!

অনলাইন ডেস্ক

বিএনপি নেতা ড.মঈন খানের ভাগ্নি বাইডেন প্রশাসনে!

প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন প্রশাসনে নিয়োগ পেয়েছেন বাংলাদেশি বংশোদ্ভূত ফারাহ আহমদ। মার্কিন কৃষি বিভাগের আওতাধীন পল্লী উন্নয়ন আন্ডার সেক্রেটারির কার্যালয়ে চিফ অব স্টাফ হিসেবে তাঁকে নিয়োগ দেওয়া হয়েছে। স্থানীয় সময় গত ২১ জানুয়ারি মার্কিন কৃষি বিভাগের প্রদত্ত প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়।

ফারাহ আহমদ বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দলের (বিএনপি) স্থায়ী কমিটির সদস্য ও সাবেক মন্ত্রী ড. আব্দুল মঈন খানের ভাগ্নি বলে জানা গেছে।

যুক্তরাষ্ট্রের কর্নেল বিশ্ববিদ্যালয় থেকে স্নাতক এবং প্রিন্সটন বিশ্ববিদ্যালয় থেকে স্নাতকোত্তর ডিগ্রি অর্জনকারী ফারাহ মার্কিন কৃষি বিভাগের (ইউএসডিএ) পল্লী ব্যবসায় সমবায় পরিষেবায় কমিউনিটি এবং অর্থনৈতিক উন্নয়ন দলের প্রোগ্রাম ম্যানেজার এবং আমেরিকান অগ্রগতির সেন্টারে সিনিয়র পলিসি অ্যানালিস্টের দায়িত্ব পালন করেছেন।


প্রেমিকার সঙ্গে অন্তরঙ্গ মুহূর্তের ভিডিও ভাইরাল

আওয়ামী লীগ যেখানে কখনোই জয়ী হতে পারেনি

চট্টগ্রাম সিটি নির্বাচন: নৌকা-ধানের শীষের লড়াই আজ

যে দুই সূরা পাঠ করলে সর্বপ্রকার অনিষ্ট হতে রক্ষা পাওয়া যাবে


ফারাহ আহমদের বাবা ড. মাতলুব আহমেদ ও মা ড. ফেরদৌস আহমেদ। তারা দুজনেই যুক্তরাষ্ট্রের একটি বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রফেসর হিসেবে কর্মরত রয়েছেন। ফারাহ আহমেদের নানা ড. আব্দুল বাতেন খান বাংলাদেশ পারমাণবিক শক্তি কমিশনের সাবেক চেয়ারম্যান ছিলেন।

news24bd.tv আয়শা

মন্তব্য

পরবর্তী খবর

ভুয়া চিকিৎসা ও অর্থ আত্মসাত: যুক্তরাষ্ট্রে বাংলাদেশির ১৫ বছরের জেল

অনলাইন ডেস্ক

ভুয়া চিকিৎসা ও অর্থ আত্মসাত: যুক্তরাষ্ট্রে বাংলাদেশির ১৫ বছরের জেল

ভুয়া চিকিৎসার নামে ইন্স্যুরেন্স কোম্পানির ১৫০ মিলিয়ন ডলার হাতিয়ে নেয়ার মামলায় বাংলাদেশি আমেরিকান মাশিয়াত রশিদকে (৪০) ১৫ বছরের কারাদণ্ড প্রদান করা হয়েছে। মিশিগানের ফেডারেল কোর্ট এ রায় দিয়েছে।

একই অভিযোগে এই চক্রের ১২ ডাক্তারসহ আরও ২১ জনের বিভিন্ন মেয়াদের কারাদণ্ড হয়েছে বলে মিশিগান ইস্টার্ন ডিস্ট্রিক্টের ইউএস এটর্নি সাইমা শফিক মহসিন এবং বিচার বিভাগের ক্রিমিনাল ডিভিশনের সহকারি এ্যাটর্নি জেনারেল নিকলাস এল ম্যাকুয়াইড সংবাদ সম্মেলনে জানিয়েছেন।

মিশিগান এবং ওহাইও স্টেটভিত্তিক ‘ট্রাই-কাউন্টি ওয়েলনেস গ্রুপ’র সিইও মাশিয়াত রশিদকে কারাদণ্ডের পাশাপাশি প্রতারণামূলকভাবে হাতিয়ে নেয়া অর্থ ফিরিয়ে দিতে হবে মেডিকেয়ার কোম্পানিকে। আরও সাড়ে ১১ মিলিয়ন ডলার মূল্যের বাণিজ্যিক ও আবাসিক রিয়েল এস্টেট রাষ্ট্রের বরাবরে বাজেয়াপ্ত করা হয়েছে। মিশিগানের ওয়েস্ট ব্লুমফিল্ডের বাসিন্দা মাশিয়াত রশিদকে গত ৩ মার্চ এই দণ্ড প্রদান করা হয়। ২০১৭ সালে গ্রেফতার হন তিনি। ২০১৮ সালে নিজে থেকেই দোষ স্বীকার করেন মাশিয়াত।

আরও পড়ুন:


অভিনেত্রী চারুর গোসলের ছবি ভাইরাল

ঐতিহাসিক ৭ মার্চ: বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে প্রধানমন্ত্রীর শ্রদ্ধা

মেসি ঝড়ে বার্সার জয়, অ্যাতলেটিকোর সঙ্গে ব্যবধান কমলো

এবার অনলাইনে প্রতারণার শিকার মিমি চক্রবর্তী


মামলার বিবরণে জানা গেছে, ২০০৮ সাল থেকে ২০১৬ সাল পর্যন্ত রশিদ ছিলেন ঐ ট্রাই-কাউন্টি ওয়েলনেস গ্রুপের সিইও। এর অধীনে বেশ কিছু ক্লিনিক চালু করা হয় যারা সত্যিকারের কিছু রোগীর সাথে আদৌ অসুস্থ নন এমন গরিব লোকদের সংগ্রহ করে। ব্যাথানাশক ইঞ্জেকশনের আদৌ প্রয়োজন না হলেও অনেক মানুষকে তা প্রদান করা হয়। এভাবে অনেক মানুষকে আসক্ত করা হয় ওষুধ সেবনে। শতশত রোগী চিকিৎসার নামে মোটা অংক ড্র করা হয় ইন্স্যুরেন্স কোম্পানি থেকে। তদন্তের সময় অনেকে সাক্ষ্য দিয়েছেন যে, ঐ ক্লিনিকে বা চিকিৎসকের কাছে যাওয়ার আগে যতটুকু ব্যাথা ছিল, পরবর্তীতে চরম আকার ধারণ করে। অর্থাৎ ঘনঘন ইঞ্জেকশন নিতে হয়েছে তাদেরকে। বেশ কটি ক্লিনিকে প্রতিনিয়ত আর্ত-চিৎকার শোনা গেছে। রোগীরা কষ্টে কান্নাকাটি করেছেন। তদন্ত কর্মকর্তারা আদালতে উল্লেখ করেছেন, মাশিয়াত রশিদের নেটওয়ার্কের চিকিৎসকরা ৮ বছরে এতবেশি অর্থ আত্মসাৎ করেছেন, যারা যুক্তরাষ্ট্রের আর কোন অঞ্চলে ঘটেনি।

প্রতারণামূলকভাবে অর্জিত অর্থে ব্যক্তিগত জেট ক্রয় করেন মাশিয়াত। দামী গাড়ি ছাড়াও স্ত্রীর জন্যে মূল্যবান স্বর্ণালংকার ক্রয় করেছেন। নিজের জন্যে বিশ্বে সবচেয়ে মূল্যবান ঘড়ি, টাই, স্যুট, জুতা ক্রয় করেছেন। মাশিয়াতের চালচলনের বিস্মিত হয়েছিলেন মিশিগান ও ওহাইওতে বসবাসরত প্রবাসীরাও।

news24bd.tv আহমেদ

মন্তব্য

পরবর্তী খবর

মালয়েশিয়ায় বাংলাদেশিসহ ৮৮ বিদেশি কর্মী গ্রেফতার

অনলাইন ডেস্ক

মালয়েশিয়ায় বাংলাদেশিসহ ৮৮ বিদেশি কর্মী গ্রেফতার

মালয়েশিয়ার সেলাঙ্গরের পাইকারি বাজার থেকে আট বাংলাদেশীসহ ৮৮ বিদেশি কর্মী গ্রেফতার করেছে  সে দেশের পুলিশ। 

সেরডাং জেলা উপ-পুলিশ প্রধান মোহাম্মদ রোসদী দাউদ সাংবাদিকদের জানান, গ্রেফতারদের ৮৮ জনের মধ্যে ৭৮ জন মিয়ানমারের, ৮ জন বাংলাদেশের এবং বাকি দুইজন নেপাল ও  ইন্দোনেশিয়ার বাসিন্দা। তাদের সবার বয়স ২০ থেকে ৫০ বছরের মধ্যে।

সারডাং জেলা পুলিশ সদর দপ্তরের (আইপিডি) ৯২ জন সদস্য ও ১০ জন কর্মকর্তার নেতৃত্বে শনিবার মালয়েশিয়া সময় সকাল ১১টায় বিশেষ অভিযানে অভিবাসী কর্মীদের গ্রেফতার করা হয়।   


‘চুম্বন বা অন্তরঙ্গ দৃশ্যয়নের আগে একান্তে সময় কাটাই’

শেবাগ-শচিনের জুটিই হারিয়ে দিল বাংলাদেশকে

মন্ত্রী ও বিধায়ককে বাদ দিয়ে প্রার্থী চূড়ান্তে মমতার চমক!

শনিবার ঢাকার যে এলাকায় যাবেন না


 

কি কারণে এসব অভিবাসী কর্মীদের গ্রেফতার করা হয়েছে সে প্রশ্নে জেলা উপ-পুলিশ প্রধান মোহাম্মদ রোসদী দাউদ বলেন, গোয়েন্দা তথ্যে দেখা গেছে, বেশির ভাগ বিদেশিরা অবৈধভাবে পাইকারি বাজারে ব্যবসা করছেন।  তাদের কোনো বৈধ লাইসেন্স নেই।  তাদের কাছে বৈধ কাগজপত্রও পাওয়া যায়নি।  এ নিয়ে স্থানীয় ব্যবসায়ীরা অভিযোগ করে আসছেন পুলিশের কাছে।  তাই অবৈধভাবে ব্যবসা পরিচালনা করার পাশাপাশি বাজারে বিশৃঙ্খল সৃষ্টি এবং অপরাধমূলক কর্মকাণ্ডে জড়িত থাকায় তাদের গ্রেফতার করা হয়।

গ্রেফতারদের আইপিডি সারডাং -এ নেয়া হয়েছে এবং সেকসন ৬ (১) সি অভিবাসন আইন ১৯৫৯/৬৩ অনুসারে তদন্ত করা হয়েছে বলে জানিয়েছে আইপিডি বিভাগ।

news24bd.tv/আলী

মন্তব্য

পরবর্তী খবর

৭ই মার্চ উপলক্ষে অটোয়াস্থ বাংলাদেশ হাইকমিশন বিভিন্ন কর্মসূচি গ্রহণ

লায়লা নুসরাত, কানাডা

৭ই মার্চ উপলক্ষে অটোয়াস্থ বাংলাদেশ হাইকমিশন বিভিন্ন কর্মসূচি গ্রহণ

ঐতিহাসিক ৭ই মার্চ উদযাপন উপলক্ষে অটোয়াস্থ বাংলাদেশ হাইকমিশন আগামী ৭ মার্চ রবিবার বিভিন্ন কর্মসূচি গ্রহণ করেছে। তন্মধ্যে সকাল ১০ টা থেকে ১১টা পর্যন্ত আয়োজিত ভার্চুয়াল অনুষ্ঠানের মধ্যে সকাল ১০টায় জাতির পিতার প্রতিকৃতিতে পুষ্পার্ঘ্য অর্পণ, ১০টা ৫মিনিটে জাতীয় নেতৃবৃন্দের বাণী পাঠ।


‘চুম্বন বা অন্তরঙ্গ দৃশ্যয়নের আগে একান্তে সময় কাটাই’

শেবাগ-শচিনের জুটিই হারিয়ে দিল বাংলাদেশকে

মন্ত্রী ও বিধায়ককে বাদ দিয়ে প্রার্থী চূড়ান্তে মমতার চমক!

শনিবার ঢাকার যে এলাকায় যাবেন না


১০-২০ মিনিটে ‘ঐতিহাসিক ৭ই মার্চ ‘ ভাষণের উপর নির্মিত প্রমাণ্যচিত্র প্রদর্শন, সাড়ে দশটায় স্বাধীনতার ঘোষক ও জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের প্রদত্ত “ঐতিহাসিক ৭ই মার্চের ভাষণের তাৎপর্য, গুরুত্ব ও স্বাধীনতা সংগ্রামের ভূমিকার উপর আলোচনা সভা, এরপর থাকবে সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান।

অনুষ্ঠানটি সবাই উপভোগ করার জন্য হাইকমিশনের পক্ষ থেকে আমন্ত্রণ জানিয়েছেন দূতাবাসের মিনিস্টার ও দুতালয় প্রধান মিয়া মো. মাইনূল কবির।
news24bd.tv/আয়শা

মন্তব্য

পরবর্তী খবর

কানাডায় ইমিগ্রেশনের নামে প্রতারণা ঠেকাতে বিশেষ পদক্ষেপ

অনলাইন ডেস্ক

কানাডায় ইমিগ্রেশনের নামে প্রতারণা ঠেকাতে বিশেষ পদক্ষেপ

কানাডায় ইমিগ্রেশনের নামে ভূয়া তথ্য দিয়ে সিটিজেনশিপ নেওয়ার বিরুদ্ধে কঠোর অবস্থানের ঘোষনা দিয়েছে ফেডারেল ইমিগ্রেশন ও সিটিজেনশীপ মন্ত্রী মার্কো মেনডিসিনো। ইমিগ্রেশন কনসাল্ট্যান্টদের উপর খবরদারি বাড়ানোসহ ইমিগ্রেশনের নামে প্রতারণায় নিয়োজিত অপরাধীদের চিহ্নিত করতে সব ধরণের পদক্ষেপ নেওয়া হবে। 

অভিবাসনে আগ্রহী এবং কানাডীয়ানদের যে কোনো প্রতারণার হাত থেকে রক্ষা করে কানাডার অভিবাসন পদ্ধতির সুনাম অক্ষুন্ন রাখার অঙ্গীকার ব্যক্ত করেছেন মন্ত্রী। 

ইমিগ্রেশনের নামে প্রতারণা বিরোধী প্রচারণায় ৫০ মিলিয়ন ডলারের একটি তহবিল বরাদ্দ দেওয়া হয়েছে। যা আগামী কয়েক বছর এ কাজে ব্যয় করা হবে। 

প্রসঙ্গত, কানাডায় ইমিগ্রেশনের নামে বিভিন্ন দেশে প্রতারণার কথা অনেকদিন ধরেই আলোচিত হচ্ছিলো। গত ২৪ ফেব্রুয়ারি কানাডার বাংলা পত্রিকা ‘নতুনদেশ’এর প্রধান সম্পাদক শওগাত আলী সাগরের সঞ্চালনায় টরন্টো থেকে সম্প্রচারিত ‘শওগাত আলী সাগর লাইভে’ কানাডা ইমিগ্রেশনের বিভিন্ন প্রতারণা নিয়ে আলোচনা হয়।

আলোচনায় উঠে আসা প্রতারণার নানা চিত্রের একটি সারসংক্ষেপ ইমিগ্রেশন মন্ত্রীকেও পাঠানো হয় বলে সংশ্লিষ্টরা জানিয়েছেন।


‘চুম্বন বা অন্তরঙ্গ দৃশ্যয়নের আগে একান্তে সময় কাটাই’

শেবাগ-শচিনের জুটিই হারিয়ে দিল বাংলাদেশকে

মন্ত্রী ও বিধায়ককে বাদ দিয়ে প্রার্থী চূড়ান্তে মমতার চমক!

শনিবার ঢাকার যে এলাকায় যাবেন না


শুক্রবার দেয়া বিবৃতিতে ইমিগ্রেশন মন্ত্রী মার্কো মেনডিসিনো বলেন, অভিবাসন এবং ভ্রমণের জন্য সারা বিশ্বের মানুষের অন্যতম আগ্রহের গন্তব্য কানাডা এবং প্রতি বছর  বছর হাজার হাজার মানুষ কানাডায় আসে। অভিবাসনের আবেদনের সময় অনেকেই পরামর্শকদের ম্মরণাপন্ন হয় এবং বিভিন্নজনের সহায়তা নেয়। 

তিনি বলেন, অধিকাংশ  পরামর্শকই নিয়মনীতি অনুসরণ করে কাজ করলেও  এক শ্রেণীর অসাধু  পরামর্শক অভিবাসন পদ্ধতির অপব্যবহার করে সুবিধা নেয়ার চেষ্টা করে।

তিনি পরামর্শকের প্রয়োজন হলে কেবলমাত্র কানাডা সরকারের অনুমোদিত আইনজীবী বা অভিবাসন পরামর্শকদের সহায়তা নেয়ার পরামর্শ দেন।

মন্ত্রীর বিবৃতিতে বলা হয়, অভিবাসনের নামে প্রতারণা বন্ধ করতে কানাডা সরকার অব্যাহতভাবে  কাজ করে যাচ্ছে এবং কানাডায় অভিবাসনে আগ্রহীদের সুরক্ষা দেয়ার চেষ্টা করছে। তিনি বলেন,  অভিবাসন পদ্ধতিকে শক্তিশালী করতে  আবেদন জমা দেয়া থেকে নিষ্পত্তি পর্যন্ত  নজরদারি বাড়ানো,প্রতারণা বিরোধী প্রচারণাসহ বেশ কিছু পদক্ষেপ নেয়া হয়েছে।

ইমিগ্রেশন মন্ত্রী কানাডায় অভিবাসনে আগ্রহীদের মৌলিক কতগুলো বিষয়ের দিকে দৃষ্টি আকর্ষণ করে বলেন, কেউ নিজে কিংবা পরামর্শকের সাহায্য  নিয়ে যেভাবেই অভিবাসনের আবেদন করা হউক না কেন কানাডা সব আবেদনপত্রকেই সমান গুরুত্ব দিয়ে দেখে।  কেউ বাড়তি কোনো মনোযোগ বা সুবিধা পায় না।

তিনি উল্লেখ করেন,কানাডা ইমিগ্রেশনের ওয়েবসাইটে অভিবাসনের নিয়মাবলী এবং প্রক্রিয়া অত্যন্ত সহজভাবে উল্লেখ করা আছে।

কানাডা এখন কয়েক লাখ ইমিগ্রান্ট নিচ্ছে। এসব এমিগ্রান্টরা যেন কোন ধরণের প্রতারণার শিকার না হন সে ব্যাপারে সজাগ থাকতে বলেছে। 

news24bd.tv/আয়শা

মন্তব্য

পরবর্তী খবর

ফের চালু নিউইয়র্কের বাংলাদেশ কনস্যুলেট

অনলাইন ডেস্ক

ফের চালু নিউইয়র্কের বাংলাদেশ কনস্যুলেট

আবারও চালু হয়েছে নিউইয়র্কের বাংলাদেশ কনস্যুলেট। গত ৩ মার্চ থেকে এ কনস্যুলেটে স্বাভাবিক সেবা পাচ্ছেন প্রবাসী বাংলাদেশিরা। এ জন্য কোনো অ্যাপয়েন্টমেন্টের প্রয়োজন হচ্ছে না। অব্যাহত রয়েছে ডাকসেবা।

নিউইয়র্কের বাংলাদেশ কনস্যুলেট এক বিজ্ঞপ্তিতে জানায়, আগের নিয়মে অফিস চলাকালীন প্রতিদিন সকাল সাড়ে ৯টা থেকে দুপুর দেড়টা পর্যন্ত সকলপ্রকার কনস্যুলার সেবার আবেদন গ্রহণ করা হবে এবং প্রতিদিন বিকেল ৩টা থেকে বিকাল ৫টা পর্যন্ত ডেলিভারি প্রদান করা হবে। সকল সেবাগ্রহীতাকে মাস্ক পরিধানসহ অন্যান্য স্থানীয় স্বাস্থ্যবিধি অনুসরণ করে কনস্যুলেটে যাওয়ার জন্য অনুরোধ জানানো হয়েছে।


অভাব দুর হবে, বাড়বে ধন-সম্পদ যে আমলে

সূরা কাহাফ তিলাওয়াতে রয়েছে বিশেষ ফজিলত

করোনার ভ্যাকসিন গ্রহণে বাধা নেই ইসলামে

নামাজে মনোযোগী হওয়ার কৌশল


 

বিজ্ঞপ্তিতে আরও বলা হয়, যেহেতু করোনা মহামারির কারণে বর্তমানে নিউইয়র্কের স্থানীয় সরকার কর্তৃক ইনডোর সমাবেশে একটি নির্দিষ্ট সংখ্যার বেশি জনসমাগমের ওপর নিষেধাজ্ঞা রয়েছে, সেহেতু অধিক জনসমাগম হলে স্বাস্থ্যবিধি অনুসরণের স্বার্থে সেবাগ্রাহকদের কনস্যুলেটের বাইরে লাইনে দাঁড়ানোর প্রয়োজন হতে পারে।

ইতোমধ্যে যারা অনলাইনে অ্যাপয়েন্টমেন্ট গ্রহণ করেছেন, তারা গৃহীত অ্যাপয়েন্টমেন্টের নির্ধারিত সময়ে অথবা অফিস চলাকালীন তাদের সুবিধাজনক সময়ে কনস্যুলেটে এসে সেবা গ্রহণ করতে পারবেন।

এছাড়া জরুরি প্রয়োজনে সবাইকে নিম্নবর্ণিত টেলিফোন নম্বর এবং ই-মেইলে যোগাযোগ করার জন্য অনুরোধ জানানো হয়েছে। কনস্যুলেটের ফোন নম্বর ২১২-৫৯৯-৬৭৬৭ (সোম থেকে শুক্রবার প্রতিদিন সকাল সাড়ে ৯টা থেকে বিকেল সাড়ে ৫টা পর্যন্ত, ছুটির দিন ব্যতীত)। হটলাইন ফোন নম্বর ৬৪৬-৬৪৫-৭২৪২ (প্রতিদিন ২৪/৭ চালু রয়েছে)। ই-মেইল [email protected]

news24bd.tv/আলী

মন্তব্য

পরবর্তী খবর