সমকামিতার দায়ে দুই যুবককে ৮০ বেত্রাঘাত, দর্শকরা বলল ‌‘আরও মারো’
সমকামিতার দায়ে দুই যুবককে ৮০ বেত্রাঘাত, দর্শকরা বলল ‌‘আরও মারো’

সমকামিতার দায়ে দুই যুবককে ৮০ বেত্রাঘাত, দর্শকরা বলল ‌‘আরও মারো’

অনলাইন ডেস্ক

ইন্দোনেশিয়ার আচেহ প্রদেশে জনসম্মুখে এক সমকামী যুগলকে বেত্রাঘাত করা হয়েছে। এই ঘটনায় বিশ্বের নানা প্রান্তে সমালোচনার সৃষ্টি হয়েছে। অভিযুক্ত দুজনকে সমকামিতার ‘অপরাধে’ ৮০ বার বেত দিয়ে আঘাত করা হয়। এ সময় ওই দুই যুবকের বাবা-মা সেখানে উপস্থিত ছিলেন।

সন্তানকে বেত্রাঘাতের দৃশ্য দেখে একজনের মা জ্ঞান হারান।  

শুক্রবার (২৮ জানুয়ারি) বানাডা আচেহ প্রদেশের একটি মসজিদের বাইরে দুই যুবককে বেত্রাঘাত করা হয়। এ সময় উপস্থিত জনতা এ দুজনকে দুয়োধ্বনি দেয়। এদিন মদ্যপান-মদ বিক্রি এবং খোলা রাস্তায় ভালোবাসা প্রকাশের জন্য আরো ১৫ জনকে শাস্তি দেওয়া হয়।

এদিন মালয়েশিয়া এবং আশপাশের আরো অনেক জায়গার প্রায় এক হাজার মানুষ সেখানে উপস্থিত ছিল। ভিড়ের মধ্য থেকে আরো জোরে মারার দাবিও ওঠে।

ইন্দোনেশিয়ার আচেহ প্রদেশ একমাত্র জায়গা যেখানে ইসলামিক শাসন মানা হয়।

আরও পড়ুন: নিজের মেয়ে ইভাঙ্কার সঙ্গে ট্রাম্পের যৌন সম্পর্ক?

ট্রাম্পের বিরুদ্ধে আবারো যৌন হয়রানির অভিযোগ

ট্রাম্পের গোপন বিষয়ে ‘বোমা’ ফাটালেন স্টর্মি

জানা গেছে, গত নভেম্বর মাসে একই ঘরে দুজনকে অর্ধনগ্ন অবস্থায় দেখে ফেলেছিলেন তাদের বাড়ির মালিক। এরপরই প্রশাসনের কাছে খবর যায় এবং দুজনকেই গ্রেফতার করা হয়।  

ইন্দোনেশিয়ার আচেহ প্রদেশের এই আইন একাধিকবার বাতিলের দাবি করা হলেও তা এখনো বলবৎ আছে। স্থানীয় জনগণের সমর্থনও রয়েছে আইনটির পক্ষে।

এ প্রসঙ্গে আচে প্রদেশের পাবলিক অর্ডার কর্মকর্তা হেরু ত্রিউইজানারকো জানান, আচে প্রদেশে ইসলামিক শরিয়ত আইন হলো শেষ কথা।

স্থানীয় বাসিন্দারাই শুধু নয়, পর্যটকদেরও এই আইন মেনে চলতে হবে।

news24bd.tv তৌহিদ