যশোরের মনিরামপুর পৌরসভার নির্বাচন কাল

রিপন হোসেন, যশোর

যশোরের মনিরামপুর পৌরসভার নির্বাচন কাল

আগামী ৩০ জানুয়ারি তৃতীয় ধাপে অনুষ্ঠিত হতে যাওয়া যশোর মনিরামপুর পৌরসভা নির্বাচন উপলক্ষ্যে আজ আজ দুপুরে উপজেলা থেকে নির্বাচনের সরঞ্জামাদি প্রতিটি ওয়ার্ডের ভোট কেন্দ্রগুলিতে পাঠানো হয়েছে। এগুলি প্রতিটি কেন্দ্রের প্রিজাইডিং কর্মকর্তাদের কাছে হস্তান্তর করেন উপজেলা নির্বাচন কর্মকর্তা শহিদুল ইসলাম।

দুজন পেছন থেকে ধরে রাখে একজন ধারাল অস্ত্র দিয়ে বুকে আঘাত করে

উন্নত মগজ মানুষের তাই সবচেয়ে হিংস্র-দয়ালু-আবেগী

ট্রাম্পকে অপ্রাপ্ত বয়স্ক রুশ মেয়ে পাঠানো হতো, ‘ভিডিও ধারণ’!

মনিরামপুর পৌরসভায় মেয়র পদে আওয়ামীলীগ ,বিএনপি ও ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ এই তিন দলের প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন এবং কাউন্সিলর পদে সংরক্ষিত ওয়ার্ডে ১৫ জন, সাধারণ ওয়ার্ডের ৩৩ জন, মোট ৫১ জন জন প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন।

পৌরসভায় ওয়ার্ড ৯টি, ভোট কেন্দ্র ১২ টি, বুথ ৬৯ টি। মোট ভোটার ২১ হাজার ৯৬৫ জন। এর মধ্যে মহিলা ভোটার ১১ হাজার ১২৯ জন, পুরুষ ভোটার ১০ হাজার ৮৩৬ জন।

news24bd.tv তৌহিদ

মন্তব্য

পরবর্তী খবর

সমালোচনা আমাদের কাজের সফলতা : কবীর চৌধুরী তন্ময়

নিজস্ব প্রতিবেদক

সমালোচনা আমাদের কাজের সফলতা : কবীর চৌধুরী তন্ময়

বাংলাদেশ অনলাইন অ্যাক্টিভিষ্ট ফোরাম (বোয়াফ) এর প্রতিষ্ঠাতা ও সভাপতি কবীর চৌধুরী তন্ময়। ছবি ফেসবুক

হঠাৎ করেই কয়েকদিন যাবত সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে তুমুল আলোচনা সমালোচনায় একজন ব্যক্তি। জাতীয় অনলাইন নিউজ পোর্টালগুলির সংবাদের মন্তব্যর ঘরে দেখা যাচ্ছে তাকে মন্তব্য করতে । যে মন্তব্যতে আবার পড়ছে হাজার হাজার লাইক। এই নিয়ে করা হচ্ছে ট্রল। ফেসবুকের সব জায়গায় কমেন্টকারি এই কবীর চৌধুরী তন্ময় যদিও এসব ট্রল বা তাকে নিয়ে করা বিভিন্ন ধরণের মন্তব্যের কোনও উওর এখনও দেননি। তবে কমেন্ট ইস্যুতে চলমান আলোচনা-সমালোচনার ব্যাখা দিয়েছেন নিউজ২৪ কে।

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে আপনাকে নিয়ে ব্যাপক সমালোচনা হচ্ছে এ ব্যাপারে  জানতে চাইলে তন্ময় নিউজ২৪ কে জানান,  বিষয়টাকে আমি ইতিবাচকভাবেই দেখছি। আর এটি আমাদের কাজের কিংবা ক্যাম্পেইনের সফলতাও।

বিষয়টি নিয়ে পরিস্কার করে বললে, আমরা দেশের এবং দেশের বাইরের যেমন-ভারত, পাকিস্তান, আমেরিকা, কানাডা, রাশিয়ার সরকার ও রাষ্ট্র প্রধানদের ফেসবুক পেজে আমারদের ক্যাম্পেইন শুরু করি। মন্তব্য করি, বাংলাদেশকে সেখানে তুলে ধরার চেষ্টা করি। পেজে আপলোড করা ছবি, ভিডিও এবং স্ট্যাটাসের পরিপ্রেক্ষিতে আমাদের মন্তব্য অর্থাৎ আমার ভেরিফাইড ফেসবুক পেজ থেকে মন্তব্য দিয়ে সেদেশের কিংবা উক্ত পেজের সাথে যুক্ত অনলাইন অ্যাক্টিভিস্টদের মনোজগতের বিষয়টা জানার চেষ্টা করি। এমনি করে পাকিস্তানের বর্তমান প্রজন্মের কাছে প্রশ্ন করি, তারা ১৯৭১ সালের মহান মুক্তিযুদ্ধ নিয়ে কি জানে, গণহত্যার জন্য বাংলাদেশের কাছে ক্ষমা চাওয়া বিষয় নিয়েও তাদের মতামত জানতে চাই।

তিনি আরও বলেন, ক্যাম্পেইনের অংশ হিসেবে বাংলাদেশের গণমাধ্যমের কয়েকটা ফেসবুক পেজে আমরা মন্তব্য করা শুরু করি। আমাদের টার্গেট ছিল আমরা ১০ দিন আমাদের সকল গণমাধ্যমের বিশেষ করে জনপ্রিয় সাইটগুলোতে আমরা মুক্তিযুদ্ধের ইতিহাস, সামাজিক সচেতনতা, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান, বিএনপির প্রতিষ্ঠাতা জিয়াউর রহমান এবং আদালত দ্বারা প্রমাণীত মানবতাবিরোধী অপরাধী দেলওয়ার হোসাইন সাঈদীকে নিয়ে প্রশ্ন করবো এবং উত্তর জানার চেষ্টা করবো।

আর শুরুটা অন্য ফেসবুক থেকে করা হলে তেমনটা সাড়া পাওয়া যায়নি। বলা চলে, কেউ ওই মন্তব্যগুলোতে গুরুত্ব দেয়নি। তখনই সিদ্ধান্ত পরিবর্তন করে আমার ব্যক্তিগত ফেসবুক পেজ থেকে আমাদের ক্যাম্পেইন অর্থাৎ মন্তব্য করা শুরু করি।

 কবীর চৌধুরী তন্ময়  বলেন, সবচেয়ে মজার বিষয় হচ্ছে, আমাদের ক্যাম্পেইন ১০ দিন করা লাগেনি। মাত্র দুইদিনেই যেসকল আলোচনা, সমালোচনা, ব্যক্তিগত আক্রমন, চরিত্রহনন করার চেষ্টা আমরা অবলোকন করেছি-ওইসব তথ্য প্রমাণগুলো যেমন, ব্যক্তির বয়স, পেশা, রাজনৈতিক দৃষ্টিভঙ্গি, সামাজিক সচেতনতার অবস্থানগুলো নিয়ে এখন আমরা স্টাডি করার চেষ্টা করছি। ভাইরালকৃত ছবি, প্রাপ্ত তথ্য ও তথ্য সুত্রগুলো আমাদের যাচাইবাচাই চলছে।


অভাব দুর হবে, বাড়বে ধন-সম্পদ যে আমলে

সংবাদ উপস্থাপনায় ও নাটকে রূপান্তরিত দুই নারী

করোনার ভ্যাকসিন গ্রহণে বাধা নেই ইসলামে

কমেন্টের কারণ নিয়ে যা বললেন কবীর চৌধুরী তন্ময়


অনলাইন এ্যাক্টিভিষ্ট হিসাবে বিষয়টাকে আপনি কিভাবে দেখছেন জানতে চাইলে তিনি নিউজ২৪ কে জানান, একজন অনলাইন অ্যাক্টিভিস্ট কিংবা বাংলাদেশ অনলাইন অ্যাক্টিভিস্ট ফোরাম (বোয়াফ) সভাপতি হিসাবে আমি এটাকে অভিজ্ঞতার দৃষ্টিভঙ্গিতে নিয়েছি। কারণ, ডিজিটাল প্লাটফর্ম নিরাপদ রাখতে হলে, অনলাইন অ্যাক্টিভিস্টদের মনোজগতের বিষয়, দায়িত্বজ্ঞান আর সচেতনতার দিকগুলো জানা আমাদের জন্য খুব জরুরী। একদিকে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন বাতিলের আন্দোলন, আরেকদিকে এই আইনকে বৃদ্ধাঙ্গুলি দেখিয়ে কতিপয় মানুষ কি ধরণের অপপ্রচার আর ব্যক্তিগত আক্রমন করতে পারে-এটা আশাকরি আমাদের গণমাধ্যমসহ দেশবাসী অবগত হয়েছে।

কবীর চৌধুরী তন্ময় 
২০১৩ সালে গণজাগরণ মঞ্চের প্রগতিশীল ও জাতি পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের আদর্শ, মুক্তিযোদ্ধা, মুক্তিযুদ্ধের ইতিহাস এবং স্বাধীনতার পক্ষে একঝাঁক ব্লগার, লেখক, গবেষক, সাংবাদিক ও অনলাইন অ্যাক্টিভিষ্টদের নিয়ে গঠিত বাংলাদেশ অনলাইন অ্যাক্টিভিষ্ট ফোরাম (বোয়াফ)-এর প্রতিষ্ঠাতা ও সভাপতির দায়িত্ব পালন করছেন।  বিভিন্ন ব্লগে লেখালেখি, সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ও প্রগতিশীল বিভিন্ন আন্দোলন-সংগ্রামে মাঠে-ময়দানে দেখা যায়। সাংবাদিকতার পাশাপাশি দেশীয় ও আন্তর্জাতিক গণমাধ্যমে তিনি নিয়মিত কলাম লিখছেন। মুক্তিযুদ্ধ বিষয় নিয়ে গবেষণা করছেন। লিখেছেন বেশ কয়েকটি বইও।

তার বাবা এম এ খালেক চৌধুরী মহান মুক্তিযুদ্ধে পাকিস্তানী হানাদার বাহিনীর বিরুদ্ধে অস্ত্র হাতে যুদ্ধ করেন। বড় কাকা সুজত আলী চৌধুরী স্বাধীনতাবিরোধী রাজাকার বাহিনীর হাতে নির্মমভাবে শহীদ হন, যাঁর মরদেহ তিনি ও তার পরিবার আজও খুঁজে পায়নি।

news24bd.tv/আলী

মন্তব্য

পরবর্তী খবর

সাংবাদিক মুজাক্কির হত্যা মামলায় গ্রেপ্তার ১

নোয়াখালী প্রতিনিধি:

সাংবাদিক মুজাক্কির হত্যা মামলায় গ্রেপ্তার ১

নোয়াখালীর কোম্পানীগঞ্জে সাংবাদিক বুরহান উদ্দিন মুজাক্কির হত্যা মামলায় বেলাল উদ্দিন নামে একজনকে গ্রেপ্তার করেছে পিবিআই। 

আজ রোববার দুপুরে উপজেলার চরফকিরা ইউনিয়নের ১নং ওয়ার্ড থেকে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়। গ্রেপ্তারকৃত বেলাল উদ্দিন চরফকিরা ইউনিয়নের ১নং ওয়ার্ডের ইব্রাহিমের ছেলে। 


সালমান খানের তোয়ালে পরা ছবি ভাইরাল

দেব-মিমি-নুসরাত যে কারণে প্রার্থীদের তালিকায় নেই

চুম্বনের দৃশ্যের আগে ফালতু কথা বলতো ইমরান : বিদ্যা

রণবীরের সঙ্গে ক্যাটরিনার খোলামেলা ছবি বিশ্বাস হয়নি সালমানের


হত্যা মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা নোয়াখালী জেলা পিবিআই পরিদর্শক মোস্তাফিজুর রহমান বিষয়টি নিশ্চিত নিউজ টোয়েন্টিফোরকে বলেন, মামলা তদন্তের ভার পাওয়ার পর এটাই প্রথম গ্রেপ্তার। গ্রেপ্তারকৃত আসামিকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে। 

news24bd.tv / কামরুল 

মন্তব্য

পরবর্তী খবর

দেড় লাখ ক্ষুদে কন্ঠে বঙ্গবন্ধুর ভাষণ

সামছুজ্জামান শাহীন, খুলনা

দেড় লাখ ক্ষুদে কন্ঠে বঙ্গবন্ধুর ভাষণ

‘এবারের সংগ্রাম আমাদের মুক্তির সংগ্রাম, এবারের সংগ্রাম স্বাধীনতার সংগ্রাম ....’ খুলনায় স্বাস্থ্যবিধি মেনে জুম ওয়েবিনারের মাধ্যমে এক লাখ ৫০ হাজার ১৫১ জন ক্ষুদে শিক্ষার্থীর কণ্ঠে উচ্চারিত হলো বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৭ মার্চের ভাষণ। বঙ্গবন্ধুর সাথে মিল

রেখে তাদের পরনে ছিলো সাদা পাঞ্জাবি কালো মুজিবকোট। শিক্ষার্থীরা লাল-সবুজ জাতীয় পতাকার নিচে দাঁড়িয়ে শপথ নিল বঙ্গবন্ধুর আদর্শে দেশ গড়ার।


রাঙামাটিতে বিজিবি-বিএসএফের পতাকা বৈঠক

৭৫০ মে.টন কয়লা নিয়ে জাহাজ ডুবি, শুরু হয়নি উদ্ধার কাজ

মোবাইলে পরিচয়, দেখা করতে গিয়ে গণধর্ষণের শিকার কিশোরী

নোয়াখালীতে স্ত্রীকে পিটিয়ে হত্যা: স্বামী আটক


রোববার ঐতিহাসিক ৭ মার্চ উপলক্ষে খুলনায় ব্যতিক্রমী এ আয়োজন করে খুলনা জেলা প্রশাসন। এতে প্রধান অতিথি হিসেবে জুম ওয়েবিনারে যুক্ত ছিলেন সড়ক পরিবহন ও সেতু মন্ত্রী ওবায়দুল কাদের।

তিনি বলেন, খুলনায় দেড় হাজার শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের প্রায় দেড় লাখ ক্ষুদে বঙ্গবন্ধুকে দিয়ে ৭ মার্চের ভাষণ উপস্থাপনা আজকের দিনের সবচেয়ে ব্যতিক্রমী আয়োজন।

জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ হেলাল হোসেনের সভাপতিত্বে বক্তৃতা করেন সিটি মেয়র তালুকদার আব্দুল খালেক, বিভাগীয় কমিশনার মো, ইসমাইল হোসেন, আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক এসএম কামাল হোসেন।

জানা যায়, ঢাকায় কেন্দ্রিয় অনুষ্ঠানের সাথে মিল রেখে বেলা ৩টা ১৯ মিনিটে ক্ষুদে শিক্ষার্থীরা একই সাথে বঙ্গবন্ধুর ভাষন উপস্থাপন করে।

খুলনা বয়রা মডেল স্কুল এন্ড কলেজ মাঠে ১৫১ জন শিক্ষার্থী ও একই সাথে জুম ওয়েবিনারের মাধ্যমে জেলার বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের দেড় লাখ শিক্ষার্থী এতে অংশ নেয়। চাইল্ড ইন্টিগ্রিটি ও শিশু বঙ্গবন্ধু ফোরামের সার্বিক ব্যবস্থাপনায় এ অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়।

news24bd.tv তৌহিদ

মন্তব্য

পরবর্তী খবর

৭ মার্চের ভাষণ বাঙালির বুকে আজও নাড়া দেয়: খাদ্যমন্ত্রী

বাবুল আখতার রানা, নওগাঁ

৭ মার্চের ভাষণ বাঙালির বুকে আজও নাড়া দেয়: খাদ্যমন্ত্রী

খাদ্যমন্ত্রী সাধন চন্দ্র মজুমদার বলেছেন, ৭ই মার্চের ভাষণ এক অভাবনীয় অমর বাণী। ১৮ মিনিটের এই ভাষণ গোটা জাতিকে একত্রিত করেছিলো। ভাষণে বঙ্গবন্ধু বলেছিলেন হিন্দু-মুসলমান বাঙালি-অবাঙালি সবাই আমরা ভাই ভাই। বীর বাঙালি অস্ত্র ধর, বাংলাদেশ স্বাধীন কর। বঙ্গবন্ধুর এই দিক নির্দেশনা বক্তব্যেই বাঙালি জাতি উদ্বুদ্ধ হয়ে মুক্তিযুদ্ধে ঝাঁপিয়ে পড়েছিলেন। 

তিনি বলেন, হাজার বছরের শ্রেষ্ঠ বাঙালি জাতির জনক বঙ্গবন্ধুর শ্লোগান ছিল, তুমি কে, আমি কে, বাঙালি বাঙালি, তোমার আমার ঠিকানা, পদ্মা মেঘনা যমুনা। এই শ্লোগানের ভিত্তি করেই জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু ৬ মার্চ জাতীয় নেতাদেরকে নিয়ে বসলেন এবং একেক জন একেক রকমের ভাষণে ডাফট দিয়েছিলেন। কিন্তু বঙ্গবন্ধু নিজের মত করে ৭ই মার্চের ভাষণ দিয়েছিলেন। যা বাঙালির বুকে আজও নাড়া দেয়। ৩০ লাখ শহীদের রক্তের বিনিময়ে এই বাংলায় ও এই বাংলার আকাশে বাতাসে এখনও ধ্বনিত হয়।

বঙ্গবন্ধুর অমর বাণী, এবারের সংগ্রাম, মুক্তির সংগ্রাম, এবারের সংগ্রাম, স্বাধীনতার সংগ্রাম। তিনি শনিবার দুপুরে নওগাঁ জেলা প্রশাসন আয়োজনে সদর উপজেলা হল রুমে ঐতিহাসিক ৭ই মার্চ দিবসের আলোচনা সভা, পুরষ্কার বিতরন অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্য এসব কথাগুলো বলেন। 

জেলা প্রশাসক মো: হারুন অর রশীদের সভাপতিত্বে সভায় অতিরিক্ত পুলিশ সুপার রাকিবুল আকতার, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (শিক্ষা ও আইসিটি), জেলা মুক্তিযোদ্ধা সংসদের সাবেক মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার হারুন অল রশীদ, সাবেক অধ্যক্ষ প্রফেসর শরীফুল ইসলাম খান, সদর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যার রফিকুল ইসলামসহ প্রমুখ বক্তব্য রাখেন।

অপরদিকে ঐতিহাসিক ৭ই মার্চ দিবস উপলক্ষে সকাল সাড়ে ৯টায় শহরের মুক্তির মোড়ে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে শ্রদ্ধাঞ্জলি নিবেদন করা হয়। শুরুতেই ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা জানান খাদ্যমন্ত্রী ও নওগাঁ জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক সাধন চন্দ্র মজুমদার। তিনি প্রথমে খাদ্য মন্ত্রণালয় ও পরে জেলা আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীদের সাথে নিয়ে শ্রদ্ধা নিবেদন করেন। 

এরপর সংসদ সদস্য ব্যারিস্টার নিজাম উদ্দিন জলিল জন, জেলা প্রশাসক হারুন অর রশিদ, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার রাকিবুল আকতার, জেলা মুক্তিযোদ্ধা সংসদ, জেলা প্রেস ক্লাবসহ বিভিন্ন সরকারি দপ্তরের কর্মকর্তা ও রাজনৈতিক নেতৃবৃন্দ, সামাজিক সাংস্কৃতিক সংগঠনের পক্ষ থেকে স্বাস্থ্যবিধি মেনে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা জানান। 

অপরদিকে জেলা আওয়ামী লীগের দলীয় কার্যালয়ে জাতীয় ও দলীয় পতাকা উত্তোলন, বঙ্গবন্ধুসহ জাতীয় চার নেতার প্রতিকৃতিতে পুষ্পমাল্য অর্পণ, এক মিনিট নীরবতা পালন ও আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়।

এসময় জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও খাদ্যমন্ত্রী সাধন চন্দ্র মজুমদার, সদর আসনের সংসদ সদস্য ব্যারিস্টার নিজাম উদ্দিন জলিল জন, সহ-সভাপতি নির্মল কৃষ্ণ সাহাসহ আওয়ামী লীগের অঙ্গ ও সহযোগী সংগঠনের নেতাকর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।  

news24bd.tv নাজিম

মন্তব্য

পরবর্তী খবর

৫০ বছরেও বাংলাদেশ নিয়ে ষড়যন্ত্র বন্ধ হয়নি: ধর্ম প্রতিমন্ত্রী

ফাতেমা জান্নাত মুমু, রাঙামাটি

৫০ বছরেও বাংলাদেশ নিয়ে ষড়যন্ত্র বন্ধ হয়নি: ধর্ম প্রতিমন্ত্রী

ধর্ম প্রতিমন্ত্রী মো. ফরিদুল হক খান বলেছেন, স্বাধীনতার দীর্ঘ ৫০ বছরেও বাংলাদেশ নিয়ে ষড়যন্ত্র বন্ধ হয়নি। এখনো বিএনপি-জামাত জোট স্বাধীনতা বিরোধীদের সঙ্গে আঁতাত করে দেশের বিরুদ্ধে, বর্তমান সরকারের ষড়যন্ত্র অব্যাহত রেখেছে। 

ঐতিহাসিক ৭ মার্চ উপলক্ষে আজ সকালে রাঙামাটি জেলা প্রশাসনের উদ্যোগে আব্দুল আলী চত্বরে আয়োজিত আলোচনা সভায় এসব কথা বলেন তিনি।

প্রধান অতিথি হিসেবে ধর্ম প্রতিমন্ত্রী বলেন, ষড়যন্ত্রকারীরা মহান স্বাধীনতার সঠিক ইতিহাস বিকৃত করার অপপ্রয়াসে লিপ্ত। এসব ষড়যন্ত্রের বিরুদ্ধে সকলকে ঐক্যবদ্ধভাবে কাজ করতে হবে।

রাঙামাটি জেলা প্রশাসক মো. মিজানুর রহমানের সভাপতিত্বে সভায় বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন খাদ্য মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সভাপতি দীপংকর তালুকদার, দিনাজপুর-১ আসনের সংসদ সদস্য মনোরঞ্জন শীল গোপাল, রাঙামাটি পুলিশ সুপার মীর মো. মোদদাছছের হোসেন, পার্বত্য চট্টগ্রাম আঞ্চলিক পরিষদ সদস্য ও বীর মুক্তিযোদ্ধা হাজী মো. কামাল উদ্দিন প্রমুখ।

ধর্ম প্রতিমন্ত্রী আরো বলেন, বঙ্গবন্ধুর ৭ই মার্চের ভাষণ এখন বিশ্বের ঐতিহাসিক দলিল হিসেবে স্বীকৃত। ১৯৭১ সালের ৭ মার্চের ভাষণে ৯টি মূলমন্ত্র ছিল, যার উপর ভিত্তি করেই বাংলাদেশের স্বাধীনতা সংগ্রাম পূর্ণতা লাভ করে।


অনুমোদনের অপেক্ষায় সিএমপির ছয় থানা

৩৩৭ জনকে উপসচিব পদে পদোন্নতি

আটকে গেল ব্রাজিল-আর্জেন্টিনার লড়াই

শিক্ষার্থীকে পিটিয়ে জখম মাদ্রাসার শিক্ষক প্রেপ্তার


 

পরে দুই দিনব্যাপী বিভিন্ন প্রতিযোগিতার বিজয়ীদের মাঝে পুরস্কার বিতরণী করেন তিনি। সব শেষ স্বাধীনতার গান নিয়ে সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়।

এর আগে ধর্ম প্রতিমন্ত্রী রাঙামাটি পার্বত্য চট্টগ্রাম উন্নয়ন বোর্ডে ধর্ম বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের আয়োজিত ধর্মীয় সম্প্রীতি ও সচেতনতা বিষয়ক দিনব্যাপী প্রশিক্ষণ কর্মশালার উদ্বোধন করেন।

news24bd.tv নাজিম

মন্তব্য

পরবর্তী খবর