এইচএসসির ফল দেখুন এখানে

অনলাইন ডেস্ক

এইচএসসির ফল দেখুন এখানে

পরীক্ষা ছাড়াই অবশেষে এইচএসসি ও সমমান পরীক্ষার ফলাফল ঘোষণা করা হয়েছে। শনিবার (৩০ জানুয়ারি) সকাল ১০টা ৫৫ মিনিটে আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা ইনস্টিটিউটে আয়োজিত অনুষ্ঠানে গণভবন থেকে অনলাইনে সংযুক্ত হয়ে ফলাফল আনুষ্ঠানিকভাবে ঘোষণা করেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

এইচএসসি ও সমমানের পরীক্ষার ফল প্রকাশের পর অনলাইনে দেখতে পাবে সকল শিক্ষার্থী। তবে ফলাফল জানতে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে ভিড় সম্পূর্ণ নিষেধ করেছে শিক্ষা মন্ত্রণালয়।  এবার ফল অনলাইনে প্রকাশিত হবে। পরীক্ষা কেন্দ্রে অথবা শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে কোনো ফল পাঠানো হবে না। কাজেই কোনো অবস্থাতেই ফল প্রকাশের দিন শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে জমায়েত হওয়া যাবে না। 

যারা মুঠোফোনের খুদে বার্তার মাধ্যমে ফল পেতে ইচ্ছুক তাদের ফল প্রকাশের আগেই প্রি-রেজিস্ট্রেশন করতে হবে: HSC< >Board name (First 3 letter) <> Roll<>2020 টাইপ করে ১৬২২২ নম্বরে পাঠাতে হবে। ফল প্রকাশের সঙ্গে সঙ্গেই  প্রি-রেজিস্ট্রেশনকৃত পরীক্ষার্থীদের মোবাইল নম্বরে তাদের ফল পৌঁছে যাবে।


পাপুলের সংসদ সদস্য পদ থাকবে কি?

ঘনিষ্ঠ দৃশ্যে কাজলের সাথে যা করতেন শাহরুখ

চিঠির মাধ্যমে তিউনিশিয়ার প্রেসিডেন্টকে হত্যার চেষ্টা

দুনিয়ার শ্রেষ্ঠ ‌জুমার দিনে ‘সূরা কাহাফ’ তেলাওয়াতের ফজিলত


 

মোবাইল অপারেটর টেলিটক জানিয়েছে, ফল প্রকাশের সঙ্গে সঙ্গেই প্রি-রেজিস্ট্রেশন করা শিক্ষার্থীদের মোবাইল নম্বরে ফলাফল পৌঁছে যাবে।

 রেজাল্ট দেখতে এখানে ক্লিক করুন। 

গত মঙ্গলবার (২৬ জানুয়ারি) পরীক্ষা ছাড়া এইচএসসি ও সমমানের পরীক্ষার ফল প্রকাশ করতে সংসদে পাস হওয়া তিনটি সংশোধিত আইনের গেজেট জারি করা হয়। এর আগে রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ তিনটি বিলে সম্মতি দেন। রাষ্ট্রপতির সম্মতির পর বিল তিনটি আইনে পরিণত হয়। করোনা ভাইরাসের প্রকোপ বাড়তে শুরু করলে গত বছরের ১৭ মার্চ থেকে দেশের সব শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধ করে দেওয়া হয়। এইচএসসি পরীক্ষাও বাতিল করা হয়। পরে জেএসসি এবং এসএসসির ফলাফলের ভিত্তিতে এইচএসসি ও সমমানের পরীক্ষার ফল প্রকাশের সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়।

news24bd.tv/আলী

মন্তব্য

পরবর্তী খবর

মার্চের মধ্যে পরীক্ষা নেয়ার দাবিতে

নোয়াখালীতে শিক্ষার্থীদের মানববন্ধন

নোয়াখালী প্রতিনিধি:

নোয়াখালীতে শিক্ষার্থীদের মানববন্ধন

মার্চের মধ্যে জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের সকল বিভাগের পরীক্ষা নেয়ার দাবিতে নোয়াখালী প্রেসক্লাবের সামনে মানববন্ধন হয়েছে। আজ রোববার সকাল সাড়ে ১০টায় বৃহত্তর নোয়াখালীর জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের সাধারণ শিক্ষার্থীর ব্যানারে এ কর্মসূচি পালিত করে। 

এ সময় শিক্ষার্থীরা, পরীক্ষার দাবিতে নানা স্লোগান দিতে থাকে। তারা জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের সদ্য প্রকাশিত রুটিনসমূহ পরিবর্তনের দাবি জানান। একই সঙ্গে অনার্স চতুর্থ বর্ষের মৌখিক ও ব্যবহারিক এবং মাস্টার্স ও ডিগ্রির চলমান পরীক্ষা মার্চের মধ্যে গ্রহণ করার জোর দাবি জানান। 


জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের মূল ফটক আটকে শিক্ষার্থীদের বিক্ষোভ

শিক্ষা জাতির উন্নয়নের মূল চাবিকাঠি: প্রধানমন্ত্রী

অসুস্থ মাকে বাঁচাতে ক্রিকেটে ফিরতে চান শাহাদাত

প্রেমিকের আশ্বাসে স্বামীকে তালাক, বিয়ের দাবিতে অনশন!


আধা ঘন্টা ব্যাপী অনুষ্ঠিত এ মানববন্ধনে জেলার বিভিন্ন কলেজের অনার্স, মাস্টার্স ও ডিগ্রির শিক্ষার্থীরা অংশ নেন। 

news24bd.tv / কামরুল 

মন্তব্য

পরবর্তী খবর

৪৮ ঘন্টার আল্টিমেটাম

দ্রুত পরীক্ষা গ্রহণের দাবিতে বরিশাল বিএম কলেজের শিক্ষার্থীদের সড়ক অবরোধ

রাহাত খান, বরিশাল:

দ্রুত পরীক্ষা গ্রহণের দাবিতে বরিশাল বিএম কলেজের শিক্ষার্থীদের সড়ক অবরোধ

৪৮ ঘন্টার আল্টিমেটাম দিয়ে দ্রুত পরীক্ষা গ্রহণের দাবিতে চলমান সড়ক অবরোধ প্রত্যাহার করেছে বরিশাল বিএম কলেজের শিক্ষার্থীরা। ৪৮ ঘন্টার মধ্যে দাবি আদায় না হলে ফের কঠোর আন্দোলন করার হুশিয়ারী দিয়েছেন তারা। 

অনার্স চতুর্থ বর্ষের মৌখিক ও ব্যবহারিক পরীক্ষা এবং মাস্টার্স শেষ বর্ষের ২টি লিখিত পরীক্ষা সহ সকল পরীক্ষা গ্রহণের দাবিতে গত কয়েক দিন ধরে আন্দোলন করে আসছে বিএম কলেজের শিক্ষার্থীরা। 

এর অংশ হিসেবে আজ রোববার সকাল সোয়া ১১ টার দিকে বিএম কলেজ ক্যাম্পাস থেকে একটি বিক্ষোভ মিছিল বের করে শিক্ষার্থীরা। মিছিলটি ক্যাম্পাসের বিভিন্ন সড়ক প্রদক্ষিন করে কলেজের শহীদ মিনার গেটের সামনে বিএম কলেজ রোড অবরোধ করে। 


জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের মূল ফটক আটকে শিক্ষার্থীদের বিক্ষোভ

শিক্ষা জাতির উন্নয়নের মূল চাবিকাঠি: প্রধানমন্ত্রী

অসুস্থ মাকে বাঁচাতে ক্রিকেটে ফিরতে চান শাহাদাত

প্রেমিকের আশ্বাসে স্বামীকে তালাক, বিয়ের দাবিতে অনশন!


এ সময় শিক্ষার্থীরা জানায়, তারা ২০১৯ সালে অনার্স চতুর্থ বর্ষের শিক্ষার্থী। করোনার কারনে শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধ থাকায় তারা অনেক পিছিয়ে পড়েছেন। তাদের লিখিত পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হলেও অযৌক্তিকভাবে ব্যবহারিক ও মৌখিক পরীক্ষা স্থগিত করা হয়েছে। 

অপরদিকে মাস্টার্সের মাত্র ২টি লিখিত পরীক্ষা অসম্পন্ন রেখে পরীক্ষা স্থগিত করা হয়েছে। এ কারণে তারা কোথাও সরকারি চাকুরির আবেদন করতে পারছে না তারা। এতে তাদের শিক্ষা জীবনে চরম অনিশ্চয়তা নেমে এসেছে। তারা অনতিবিলম্বে স্থগিত পরীক্ষা গ্রহণের দাবি জানান। 

অবরোধের ফলে গুরুত্বপূর্ন বিএম কলেজ রোডে সব ধরনের যানবাহন চলাচল বন্ধ হয়ে যায়। এতে জনদুর্ভোগ সৃষ্টি হয়।  

প্রায় অর্ধ ঘন্টা পর শিক্ষার্থীরা বিক্ষোভ মিছিলি নিয়ে অধ্যক্ষের কার্যালয়ের সামনে গিয়ে সমাবেশ করে। সমাবেশে একাত্মতা প্রকাশ করে অধ্যক্ষ প্রফেসর ড. গোলাম কিবরিয়া শিক্ষার্থীদের দাবির বিষয়টি জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়কে অবহিত করার প্রতিশ্রুতি দেন। 

এ সময় শিক্ষার্থীরা ৪৮ ঘন্টার আল্টিমেটাম দিয়ে দ্রুত পরীক্ষা গ্রহণের দাবিতে চলমান সড়ক অবরোধ আজকের মতে প্রত্যাহার করে নেয়।

news24bd.tv / কামরুল 

মন্তব্য

পরবর্তী খবর

জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের মূল ফটক আটকে শিক্ষার্থীদের বিক্ষোভ

অনলাইন ডেস্ক

জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের মূল ফটক আটকে শিক্ষার্থীদের বিক্ষোভ

গাজীপুরে জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের মূল ফটক আটকে রেখে পরীক্ষার নতুন সময়সূচি বাতিল চেয়ে আজ রোববার বেলা ১১টার দিকে মানববন্ধন ও বিক্ষোভ সমাবেশ শুরু করেছে বিভিন্ন কলেজের শিক্ষার্থীরা। তাদের দাবি অনার্স চতুর্থ বর্ষের ব্যবহারিক ও মৌখিক পরীক্ষা গ্রহণ এবং ডিগ্রি ও মাস্টার্স পরীক্ষা মার্চের মধ্যে নেওয়ার।

জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয় অধিভুক্ত বিভিন্ন কলেজের শতাধিক শিক্ষার্থী এই মানববন্ধন ও বিক্ষোভ সমাবেশে অংশ নেন। এ সময় শিক্ষার্থীরা মার্চের মধ্যে পরীক্ষা গ্রহণের দাবি জানান। 

অন্যদিকে, জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের নিরাপত্তা রক্ষায় পুলিশ ও আনসার সদস্যদের মোতায়েন করা হয়েছে।


শিক্ষা জাতির উন্নয়নের মূল চাবিকাঠি: প্রধানমন্ত্রী

অসুস্থ মাকে বাঁচাতে ক্রিকেটে ফিরতে চান শাহাদাত

প্রেমিকের আশ্বাসে স্বামীকে তালাক, বিয়ের দাবিতে অনশন!

মেসি ম্যাজিকে সহজেই জিতল বার্সা


জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে গত বৃহস্পতিবার জানানো হয়, ‘আগামী ২৪ মে থেকে সংশোধিত সময়সূচি অনুযায়ী স্থগিত হয়ে যাওয়া পরীক্ষা গ্রহণ শুরু হবে। ২০১৯ সালের ডিগ্রি পাস ও সার্টিফিকেট কোর্স দ্বিতীয় বর্ষের স্থগিত পরীক্ষা এবং ২০১৮ সালের মাস্টার্স শেষ পর্বের পরীক্ষাসহ অন্যান্য সব প্রফেশনাল কোর্সের স্থগিত পরীক্ষাও একই দিনে শুরু হবে।’

বিজ্ঞপ্তিতে আরও বলা হয়, ‘চলতি ২০২০-২০২১ শিক্ষাবর্ষের প্রথম বর্ষে ভর্তির কার্যক্রম আগামী ৮ জুন থেকে শুরু হবে। শিক্ষার্থীদের পরীক্ষার প্রস্তুতি নেওয়ার আহ্বান জানিয়েছে জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ। পরীক্ষার সময়সূচি বিশ্ববিদ্যালয়ের ওয়েবসাইটে পাওয়া যাবে।’

news24bd.tv / কামরুল 

মন্তব্য

পরবর্তী খবর

রমজান মাসেও খুলা থাকবে স্কুল-কলেজ: শিক্ষামন্ত্রী

অনলাইন ডেস্ক

রমজান মাসেও খুলা থাকবে স্কুল-কলেজ: শিক্ষামন্ত্রী

আগামী ৩০ মার্চ খুলে দেয়া হবে দেশের স্কুল-কলেজ। আজ শনিবার সচিবালয়ে মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের সম্মেলন কক্ষে আন্তঃমন্ত্রণালয় সভায় এ সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। 

শিক্ষামন্ত্রী দীপু মনি জানান, আগামী রমজান মাসেও স্কুল-কলেজ খুলা থাকবে।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নির্দেশে আজ শনিবার সন্ধ্যা সাড়ে ৬টার দিকে এ সভা শুরু হয়।

সভায় শিক্ষামন্ত্রী দীপু মনি, কৃষিমন্ত্রী আব্দুর রাজ্জাক, স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল, প্রাথমিক ও গণশিক্ষা প্রতিমন্ত্রী মো. জাকির হোসেন উপস্থিত ছিলেন।

মন্ত্রিপরিষদ সচিব খন্দকার আনোয়ারুল ইসলাম, শিক্ষা, স্বাস্থ্য, জননিরাপত্তা সচিব এবং পুলিশের আইজিপি বৈঠকে অংশ নেন।


চরমোনাই মাহফিল থেকে ফেরার পথে দুই নৌকা ডুবি

চুয়াডাঙ্গায় নারীর রহস্যজন মৃত্যু, শাশুড়ি আটক

অতিরিক্ত পাথর বোঝাই ট্রাকের চাপে বেইলী ব্রিজ ভেঙ্গে যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন

অন্য পুরুষের সাথে সম্পর্ক নিয়ে সন্দেহ, স্ত্রীকে খুন


news24bd.tv / কামরুল 

মন্তব্য

পরবর্তী খবর

রমজানে বন্ধ থাকছে না স্কুল-কলেজ: শিক্ষামন্ত্রী

নিজস্ব প্রতিবেদক

রমজানে বন্ধ থাকছে না স্কুল-কলেজ: শিক্ষামন্ত্রী

দীর্ঘ এক বছর পর শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খোলার সিদ্ধান্ত নিয়েছে সরকার। আগামী ৩০ মার্চ খুলে দেওয়া হবে স্কুল ও কলেজ। এবার রমজান মাসেও শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খোলাে থাকবে।

আজ রাত সাড়ে ৮টার দিকে আন্তঃমন্ত্রণালয় সভা শেষে সংবাদ সম্মেলনে এ কথা জানান শিক্ষামন্ত্রী।

তিনি বলেন, স্কুল-কলেজ দীর্ঘদিন বন্ধ থাকার কারণে শিক্ষার্থীরা ব্যাকুল হয়ে আছে কবে খুলবে। এখন তারা ক্লাস করার জন্য অধীর আগ্রহে বসে আছে। তাই রমজানে ক্লাস খোলা থাকলেও আশা করি তাদের কোনো সমস্যা হবে না। তারা বরং আগ্রহ নিয়ে ক্লাস করবে। তবে ঈদের ছুটি থাকবে। 

শিক্ষামন্ত্রী বলেন, আগেও যেভাবে বলেছি, হয়তো পর্যায়ক্রমে হবে। প্রথমে হয়তো প্রাথমিকে পঞ্চম শ্রেণীর শিক্ষার্থীদের, মাধ্যমিক ও উচ্চমাধ্যমিকে দশম ও দ্বাদশ শ্রেণীর শিক্ষার্থীদের প্রতিদিন আনব। আর বাকি শ্রেণির শিক্ষার্থীরা হয়তো প্রথমে সপ্তাহে একদিন আসবে। তার কয়েকদিন পর থেকে সপ্তাহে দুদিন করে আসবে। পর্যায়ক্রমে আমরা স্বাভাবিকের দিকে নিয়ে যাব।

পরীক্ষা নেওয়ার বিষয়ে তিনি বলেন, আমরা এসএসসির জন্য ৬০ কর্মদিবস এবং এইচএসসির জন্য ৮০ কর্মদিবসের একটি সিলেবাস প্রণয়ন করেছি। এসএসসি শিক্ষার্থীদের ৬০ কর্মদিবস এবং এইচএসসি শিক্ষার্থীদের ৮০ কর্মদিবস ক্লাস করিয়ে আমরা পরীক্ষা নেব।


দুই পৌরসভায় নির্বাচন কাল, কেন্দ্রে পৌঁছেছে ভোটের সরঞ্জাম

হত্যাচেষ্টার অভিযোগ এনে আতঙ্কিত বুবলীর থানায় জিডি

চুয়াডাঙ্গায় প্রতিপক্ষের হামলায় ট্রাকচালক গুলিবিদ্ধ

পিতার স্পর্শকাতর স্থান চেপে ধরল ছেলে, বাবার মৃত্যু


এক প্রশ্নের জবাবে শিক্ষামন্ত্রী বলেন, যদি আমরা ৩০ মার্চে খুলতে পারি অথবা তার পরে খুলতে হয়- তাহলে তার পরবর্তী ৬০ কর্মদিবস ক্লাস করিয়ে এসএসসি পরীক্ষা নেব। একইভাবে এইচএসসি শিক্ষার্থীদের ৮০ কর্মদিবস ক্লাস করিয়ে তাদের পরীক্ষা নেব।

উল্লেখ্য, করোনাভাইরাসের সংক্রমণ রোধে গত বছরের ১৭ মার্চ থেকে দেশের সব শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ রয়েছে। কয়েকধাপে বাড়িয়ে সর্বশেষ ২৮ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত ছুটি বাড়ানো হয়েছিল।

news24bd.tv নাজিম

মন্তব্য

পরবর্তী খবর