পুলিশ টহলে সুনামগঞ্জে এসে পৌঁছেছে ৮৪ হাজার করোনার ভ্যাকসিন

সুনামগঞ্জ প্রতিনিধি:

পুলিশ টহলে সুনামগঞ্জে এসে পৌঁছেছে ৮৪ হাজার করোনার ভ্যাকসিন

সারা দেশের ন্যায় সুনামগঞ্জে পৌঁছেছে করোনার ভ্যাকসিন। রোববার (৩১ জানুয়ারি) ভোর ৬ টায় কঠোর পুলিশ নিরাপত্তায় ফ্রিজার ভ্যানে সাতটি কার্টুনে ১২ হাজার করে ৮৪ হাজার ভ্যাকসিন সুনামগঞ্জে পৌঁছে দিয়েছে বেসরকারি ঔষধ প্রস্তুতকারী প্রতিষ্ঠান বেক্সিমকো ফার্মাসিউটিক্যালস লিমিটেড।

সুনামগঞ্জ জেলা ইপিআই ভবন প্রাঙ্গণে বেক্সিমকো ফার্মাসিউটিক্যালস লিমিটেড প্রতিনিধি আমিনুর রহমানের কাছ থেকে করোনার ভ্যাকসিন আনুষ্ঠানিকভাবে গ্রহণ করেন সিভিল সার্জন ডা.শামস উদ্দিন।

এ সময় সুনামগঞ্জ সদর সার্কেলের সহকারী পুলিশ সুপার জয়নাল আবেদীনসহ জেলা স্বাস্থ্য বিভাগের অন্যান্য কর্মকর্তাগণ উপস্থিত ছিলেন। 

আরও পড়ুন:


প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয় কমলাপুর স্টেশন ভাঙার অনুমোদন দিল

পাপুলের এমপিকান্ডে জড়িতদের বিচার চাই

যে আমল করলে বিশ্বনবী হাত ধরে জান্নাতে প্রবেশ করাবেন

নোরা ফাতেহির গোসলের ভিডিও ভাইরাল (ভিডিও)


ভ্যাকসিন হস্তান্তর করার পর সেগুলো দ্রুত সুনামগঞ্জ শহরের হাছননগরের জেলা ইপিআই ভবনের একটি বিশেষয়াতি ফ্রিজার কক্ষে সংরক্ষণ করা হয়। সরকারি নির্দেশনা মোতাবেক আগামী ৭ ফেব্রুয়ারি থেকে নির্ধারিত কেন্দ্রে ভ্যাকসিন দেওয়ার কার্যক্রম শুরু হবে। সেলক্ষ্যে সুনামগঞ্জে ভ্যাকসিন প্রদানকারীদের প্রশিক্ষণ চলছে।

সুনামগঞ্জের সিভিল সার্জন ডা.শামস উদ্দিন জানান, ভ্যাকসিনের জন্য আমরা অপেক্ষায় ছিলাম। আমরা ৮৪ হাজার ডোজ ভ্যাকসিন গ্রহণ করেছি। এটা সুনামগঞ্জের জন্য সুখবর। ভ্যাকসিনগুলো ইপিআই ভবনের সংরক্ষণ করা হয়েছে। এই ভ্যাকসিন ৪৪ হাজার মানুষকে দেওয়া যাবে। সার্বক্ষণিক বিদ্যুৎ ব্যবস্থায় জেলা ইপিআই ভবনে করোনা ভ্যাকসিন সংরক্ষিত থাকবে।

news24bd.tv / কামরুল 

মন্তব্য

পরবর্তী খবর

বরিশালে নিহত ৩৭ পুলিশ সদস্যের পরিবারকে সংবর্ধনা

রাহাত খান, বরিশাল

বরিশালে নিহত ৩৭ পুলিশ সদস্যের পরিবারকে সংবর্ধনা

বরিশালে কর্মরত অবস্থায় অস্বাভাবিকভাবে নিহত ৩৭ পুলিশ সদস্যের পরিবারকে সম্মাননা প্রদান করা হয়েছে। সকালে পুলিশ মেমোরিয়াল ডে উপলক্ষে জেলা ও মেট্রোপলিটন পুলিশের যৌথ উদ্যোগে পুলিশ লাইনসের ড্রিল সেড মিলনায়তনে এই সম্মাননা প্রদান করা হয়।

অনুষ্ঠানে নিহতদের পরিবারকে সম্মাননা স্মারক ও উপহার তুলে দেন প্রধান অতিথি বরিশাল রেঞ্জ ডিআইজি শফিকুল ইসলাম।

সংবর্ধনা অনুষ্ঠানের আগে স্মৃতিস্তম্ভে পুষ্পার্ঘ অর্পণ করে নিহতদের প্রতি শ্রদ্ধা জানান রেঞ্জ ডিআইজি শফিকুল ইসলাম ও মেট্রোপলিটন পুলিশ কমিশনার শাহাবুদ্দিন খান।


পুলিশকে কেন প্রতিপক্ষ বানানো হয়, প্রশ্ন আইজিপির

আমাকে ‘বলির পাঁঠা’ বানানো হয়েছে: সামিয়া রহমান

বিমা খাতে সচেতনতা সৃষ্টির ক্ষেত্রে আরও প্রচার প্রয়োজন: প্রধানমন্ত্রী

পোশাক খাতে ভিয়েতনামকে পেছনে ফেললো বাংলাদেশ


এদিন পুলিশ লাইনসের ড্রিল সেড মিলনায়তন এক আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। বরিশাল জেলা পুলিশ সুপার মো. মারুফ হোসেনের সভাপতিত্বে সভায় প্রধান অতিথি ছিলেন ডিআইজি মো. শফিকুল ইসলাম। বিশেষ অতিথি ছিলেন মেট্রোপলিটন পুলিশ কমিশনার মো. শাহাবুদ্দিন খান। 

উল্লেখ্য, নিহত ৩৭ পুলিশ সদস্য ২০১৩ সাল থেকে ২০২১ সাল পর্যন্ত বরিশাল জেলা ও মেট্রোপলিটনে কর্মরত অবস্থায় অস্বাভাবিক মৃত্যুবরণ করেন।

news24bd.tv নাজিম

মন্তব্য

পরবর্তী খবর

সাংবাদিক মুজ্জাকির হত্যা: নোয়াখালীতে কালো পতাকা মিছিল

আকবর হোসেন সোহাগ, নোয়াখালী

সাংবাদিক মুজ্জাকির হত্যা: নোয়াখালীতে কালো পতাকা মিছিল

নোয়াখালীর কোম্পানীগঞ্জে আওয়ামী লীগের দুই গ্রুপের সংঘর্ষে গুলিবিদ্ধ হয়ে সাংবাদিক বোরহান উদ্দিন মুজাক্কিরের মৃত্যুর প্রতিবাদ ও দোষীদের গ্রেপ্তার করে বিচারের দাবিতে কালো পতাকা মিছিল করেছে জেলার সাংবাদিকরা।

আজ সকাল ১১টায় প্রেসক্লাবের সামনে থেকে একটি মিছিলটি বের করা হয়। মিছিলটি শহরের প্রধান প্রধান সড়ক প্রদক্ষিণ করে। 

জেলায় কর্মরত গণমাধ্যমকর্মীদের উদ্যোগে এ কালো মিছিলে গণমাধ্যমকর্মী ছাড়াও বিভিন্ন সামাজিক-সাংস্কৃতিক সংগঠনের নেতারাও অংশ নেন।


পুলিশকে কেন প্রতিপক্ষ বানানো হয়, প্রশ্ন আইজিপির

আমাকে ‘বলির পাঁঠা’ বানানো হয়েছে: সামিয়া রহমান

বিমা খাতে সচেতনতা সৃষ্টির ক্ষেত্রে আরও প্রচার প্রয়োজন: প্রধানমন্ত্রী

পোশাক খাতে ভিয়েতনামকে পেছনে ফেললো বাংলাদেশ


৪৫ ফিট লম্বা কালো পতাকার দুই পাশে সারিবদ্ধভাবে গণমাধ্যম কর্মীরা মিছিলে অংশ নিলেও দেয়া হয়নি কোনো স্লোগান। এ ছাড়া প্রত্যেক গণমাধ্যকর্মীর হাতে ছিল একটি করো কালো পতাকা। 

গণমাধ্যম নেতৃবৃন্দ জানান, মুজ্জাকির হত্যার সঠিক বিচার না হওয়া পর্যন্ত কর্মসূচি অব্যাহত থাকবে।  

news24bd.tv নাজিম

মন্তব্য

পরবর্তী খবর

জেলের জালে সাড়ে তিন মণ ওজনের কৈবোল

দাম এক লাখ ৩০ হাজার টাকা

সামছুজ্জামান শাহীন, খুলনা

জেলের জালে সাড়ে তিন মণ ওজনের কৈবোল

খুলনার রূপসা পাইকারি মাছ বাজারে আজ (সোমবার) সাড়ে তিনমণ ওজনের কৈবোল মাছ বিক্রি হয়েছে। বিশাল আকৃতির এই মাছটি ভূপাল নামের এক জেলের জালে ধরা পড়ে। মাছটি প্রতি কেজি এক হাজার টাকা দরে এক লাখ ৩০ হাজার টাকায় কিনে নেন স্থানীয় মাছ ব্যবসায়ীরা।

রূপসা পাইকারি মৎস্য বাজার সমবায় সমিতির নির্বাহী পরিচালক মো. রমজান আলী হাওলাদার জানান, এতো বিশাল আকৃতির মাছ কম পাওয়া যায়। এ কারণে মানুষের মধ্যে মাছটি নিয়ে আগ্রহ বেশি। তিনজন কসাই কয়েক ঘণ্টা সময়
ব্যয় করে মাছটি কেটে পরিষ্কার করেন। পরে ক্রেতারা তা’ কিনে নেন।


এক নারী দিয়ে হতো না, প্রতিদিন নতুন নারী লাগত তার

অস্ত্রের মুখে ছাত্রীকে বিবস্ত্র করে ভিডিও ধারণের পর দফায় দফায় ধর্ষণ

মেয়েকে তুলে নিয়ে মাকে রাত কাটানোর প্রস্তাব অপহরণকারীর

নাসির বিয়ে করেছেন আপনার খারাপ লাগে কেন?

ঘুমন্ত স্বামীর পুরুষাঙ্গ কাটলেন স্ত্রী


জেলে ভূপাল জানান, গত শুক্রবার বঙ্গোপসাগরে মাছ ধরতে গেলে এই বিশাল মাছটি তার জালে ধরা পড়ে। মাছটি বিক্রি করে অধিক দাম পাওয়ার আশায় তিনি সরাসরি খুলনায় নিয়ে আসেন। এই মাছে তার ভাগ্য খুলে গেছে।

রূপসা পাইকারি মাছ বাজার সচিব এস এম ইব্রাহিম খলিল জানান, কৈবোল মাছ খেতে খুব সুস্বাদু। এর আগে ২০১৯ সালে ১৩০ কেজি ওজনের একটি কৈবল মাছ এসেছিল এ বাজারে। সেটিও স্থানীয় ব্যবসায়ীরা প্রতি কেজি এক হাজার টাকা দরে কিনে নিজেদের মধ্যে ভাগ করে নিয়েছিলেন।

news24bd.tv তৌহিদ

মন্তব্য

পরবর্তী খবর

রাঙামাটিতে বিজিবি-বিএসএফের পতাকা বৈঠক

ফাতেমা জান্নাত মুমু, চট্টগ্রাম:

রাঙামাটিতে বিজিবি-বিএসএফের পতাকা বৈঠক

বাংলাদেশ-ভারত সীমান্তে মাদক দ্রব্য পাচারকারীদের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়েছে। শুধু মাদক নয়, অবৈধ অনুপ্রবেশ, মালামাল চোরাচালান রোধেসহ সীমান্তবর্তী স্পর্শকাতর এলাকা চিহ্নিত করে উভয় দেশে সীমান্তে সচেতনতা বৃদ্ধি করার বিষয়ে সিদ্ধান্ত গ্রহণ করেছে বিজিবি ও বিএসএফ।

সোমবার দুপুর সাড়ে ১২টায় রাঙামাটির ছোটহরিণা ব্যাটালিয়ন (১২ বিজিবি) এর ও ভারতের অভ্যন্তরে ১৩১ বিএসএফ
ব্যাটালিয়নে বিন্দাছড়া এলাকায় ভারত বাংলাদেশের সেক্টর কমান্ডার বিজিবি বান্দরবান, রাঙামাটি এবং ডিআইজি বিএসএফ, আইজল সেক্টর কমান্ডার পর্যায়ে সীমান্ত সমন্বয় সভায় এ সিদ্ধান্ত গ্রহণ করা হয়।

এসময় বাংলাদেশের পক্ষে নেতৃত্ব দেন বিজিবি বান্দরবানের সেক্টর কমান্ডার ডেপুটি ডাইরেক্টর জেনারেল মো. কোরবান আলী ও বিএসএফ এর পক্ষে নেতৃত্ব দেন বিএসএফ আইজল সেক্টরের ডিআইজি কুলদীপ সিং।

এছাড়া বাংলাদেশের পক্ষে বিজিবি বান্দরবান, খাগড়াছড়ি ও রাঙামাটি সেক্টরের সেক্টর কমান্ডার ডেপুটি ডাইরেক্টর জেনারেল মো. সাহীদুর রহমান ওসমানী সহ ৫জন কর্মকর্তা ও বিএসএফ এর পক্ষে ৭ জন কর্মখর্তা বৈঠকে অংশগ্রহণ করেন।

বৈঠকে পারস্পরিক সম্পর্ক উন্নয়নের বিষয় নিয়ে বিষদ আলোচনা হয়। এছাড়া সার্বক্ষণিক সীমান্ত পরিস্থিতি স্বাভাবিক এবং শান্তিপূর্ণ পরিবেশ বজায় রাখার লক্ষ্যে প্রয়োজনীয় সকল প্রকার কার্যক্রম গ্রহণের বিষয়ে বিজিবি-বিএসএফ উভয়পক্ষ একমত পোষণ করেন। রাঙামাটির ছোটহরিণা ব্যাটালিয়ন (১২ বিজিবি) এর সার্বিক তত্ত্বাবধানে বৈঠকটি শান্তিপূর্ণভাবে সম্পন্ন হয়।

news24bd.tv তৌহিদ

মন্তব্য

পরবর্তী খবর

রাজশাহীতে বিএনপির সম্মেলন কাল, সব রুটে বন্ধ বাস চলাচল

নিজস্ব প্রতিবেদক

রাজশাহীতে বিএনপির সম্মেলন কাল, সব রুটে বন্ধ বাস চলাচল

রাজশাহীতে বিএনপির বিভাগীয় সম্মেলন কাল। এরই মধ্যে রাজশাহীর সব রুটে বাস চলাচল বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে। বিএনপির অভিযোগ, সমাবেশে জনসমাগম ঠেকাতে বাস চলাচল বন্ধ করে দিয়েছে সরকার।

রাজশাহী মহানগর বিএনপির সভাপতি মোসাদ্দেক হোসেন বুলবুল বলেন, আগামীকাল ৩টায় রাজশাহী শহরের সাহেব বাজার, গণকপাড়া ও সোনাদিঘির মোড়ে বিভাগীয় সম্মেলনের জন্যে অনুমতি চাওয়া হয়েছে। এখনো অনুমতি পাইনি। এর ওপর বাস বন্ধ রাখা হয়েছে। বিএনপির বিভাগীয় সমাবেশে ব্যাপক জনসমাগম হবে। জনস্রোত ঠেকাতেই এ কাণ্ড ঘটানো হয়েছে।


পুলিশকে কেন প্রতিপক্ষ বানানো হয়, প্রশ্ন আইজিপির

আমাকে ‘বলির পাঁঠা’ বানানো হয়েছে: সামিয়া রহমান

বিমা খাতে সচেতনতা সৃষ্টির ক্ষেত্রে আরও প্রচার প্রয়োজন: প্রধানমন্ত্রী

পোশাক খাতে ভিয়েতনামকে পেছনে ফেললো বাংলাদেশ


এ বিষয়ে রাজশাহী জেলা মোটর শ্রমিক ইউনিয়নের সাধারণ সম্পাদক মাহাতাব হোসেন চৌধুরী বলেন, বগুড়ায় এক পরিবহন শ্রমিককে মারধর করা হয়েছে। এর প্রতিবাদ এবং জড়িতদের গ্রেফতারের দাবিতে বাস বন্ধ রেখেছেন পরিবহন শ্রমিকরা। এটি তাদের পূর্ব ঘোষিত কর্মসূচি। তবে দূরপাল্লার বাস চলাচল করছে।

এদিকে, পূর্ববর্তী কোন ঘোষণা ছাড়াই হঠাৎ করে বাস বন্ধ করে দেওয়ায় এতে ভোগান্তিতে পড়েছেন সাধারণ মানুষ। সকাল থেকেই বন্ধ ছিল রাজশাহী-চাঁপাইনবাবগঞ্জ রুটের বাস চলাচল। দুপুরের দিকে অন্যান্য জেলার বাসও বন্ধ করে দেয় শ্রমিকরা। ফলে বিভিন্ন স্ট্যান্ডে দাঁড়িয়ে থাকতে দেখা গেছে যাত্রীদের। বিকল্প যানবাহ থাকলেও ভাড়া বেশি হওয়ায় বাধ্য হয়ে ফিরে যান অনেকে।

news24bd.tv নাজিম

মন্তব্য

পরবর্তী খবর