শেরপুরে ট্রাক-অটোরিকশা সংঘর্ষে নিহত বেড়ে ৫

জুবাইদুল ইসলাম, শেরপুর

শেরপুরে ট্রাক-অটোরিকশা সংঘর্ষে নিহত বেড়ে ৫

শেরপুরে ট্রাক ও সিএনজিচালিত অটোরিকশার মধ্যে মুখোমুখি সংঘর্ষের ঘটনায় আরো একজনের মৃত্যু হয়েছে। এ নিয়ে মৃতের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়ালো পাঁচজনে। নিহত সবাই সিএনজি যাত্রী ছিলেন। এ ঘটনায় শিশুসহ আরও দুইজন আহত হয়েছেন। 

আজ সকালে সদর উপজেলার বাজিতখিলা ইউনিয়নের মির্জাপুর এলাকায় ওই ঘটনা ঘটে। 

নিহতরা হলেন-নালিতাবাড়ী উপজেলার বন্ধধারা গ্রামের ইউসূফ আলীর ছেলে অটোরিকশা চালক জবেদ আলী (২৫), রাজনগর ইউনিয়নের চাঁদগাও গ্রামের তায়েব আলীর ছেলে সেলিম (২৫), একই গ্রামের রফিকুল ইসলামের স্ত্রী রোকসানা বেগম (৩০), কেতু মিয়ার ছেলে লাল মিয়া (৩৫) ও তিনআনী ঘুটুরাপাড়া এলাকার মৃত আব্দুল হাইয়ের ছেলে আব্দুল মান্নান (৫৮)। আহতরা হচ্ছেন নিহত রোকসানার মেয়ে রুমি (৭) ও নন্নী বাইগরপাড়া গ্রামের মিস্টার আলীর ছেলে মামুন (২৫)। পুলিশ নিহতদের লাশ উদ্ধার ও ঘাতক ট্রাকটি আটক করলেও এর চালক পালিয়ে গেছে।


প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয় কমলাপুর স্টেশন ভাঙার অনুমোদন দিল

পাপুলের এমপিকান্ডে জড়িতদের বিচার চাই

যে আমল করলে বিশ্বনবী হাত ধরে জান্নাতে প্রবেশ করাবেন

নোরা ফাতেহির গোসলের ভিডিও ভাইরাল (ভিডিও)


পুলিশ ও স্থানীয় সূত্র জানায়, সকাল পৌনে ৯টার দিকে একটি সিএনজিচালিত অটোরিকশা নালিতাবাড়ী উপজেলার নন্নী বাজার থেকে যাত্রী নিয়ে শেরপুর শহরে যাচ্ছিল। পথিমধ্যে শেরপুর-নালিতাবাড়ী সড়কের মির্জাপুর এলাকায় বিপরীত দিক থেকে আসা একটি দ্রুতগতির ট্রাকের সঙ্গে মুখোমুখি সংঘর্ষ হয়। এতে সিএনজি অটোরিকশাটি দুমড়ে-মুচড়ে সড়কের পাশে ছিটকে পড়ে এবং ঘটনাস্থলেই সিএনজির ৩ যাত্রী নিহত ও হাসপাতালে নেওয়ার পর আরও ২ জন মারা যায়। খবর পেয়ে পুলিশ ও ফায়ার সার্ভিস ঘটনাস্থলে পৌঁছে হতাহতদের উদ্ধার করে জেলা সদর হাসপাতালে প্রেরণ করে। 

সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মোহাম্মদ আব্দুল্লাহ আল মামুন জানান, গুরুতর আহত ৩ জন বর্তমানে জেলা সদর হাসপাতালে ভর্তি রয়েছে। ঘাতক ট্রাক ও সিএনজিটি আটক করে থানায় নেওয়া হয়েছে। তবে ট্রাক চালক পালিয়ে গেছে। এ ঘটনায় আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে।

news24bd.tv নাজিম

মন্তব্য

পরবর্তী খবর

নেত্রকোনায় পিকআপচাপায় নারীর মৃত্যু

সোহান আহমেদ কাকন, নেত্রকোনা

নেত্রকোনায় পিকআপচাপায় নারীর মৃত্যু

নেত্রকোনায় পিকআপ চাপায় নুরেজা আক্তার (৪৭) নামের এক নারীর মৃত্যু হয়েছে। আজ বিকেল পৌনে পাঁচটার দিকে শহরের মোক্তারপাড়ার দত্ত মার্কেটের সামনে এ দুর্ঘটনাটি ঘটে।

এ ঘটনার পর পর স্থানীয়রা পিকআপভ্যানটি ভাঙচুর করে এবং চালককে আটক করে পুলিশে সোপর্দ করে। 

নিহত নুরেজা বারহাট্টা উপজেলার সাহতা ইউনিয়নের দরুন সাহতা গ্রামের আব্দুল খালেকের স্ত্রী। 

পুলিশ লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য নেত্রকোনা আধুনিক সদর হাসপাতালের মর্গে নিলে নিহত নারীর ব্যাগে থাকা এন আই ডি কার্ড, আশা সমিতির কার্ড ও নগদ ২১ হাজার ২ শত ১০ টাকাসহ সকল তথ্য পাওয়া যায়। 

স্থানীয় লোকজন জানান, বিকেলে দত্ত মার্কেটের সামনে মোটরসাইকেল যোগে ওই নারী বারহাট্টার দিকে যাচ্ছিলেন। সড়কের পাশে তরকারির ভ্যানের জন্য মোটরসাইকেলটি ব্রেক করলে ওই নারী সড়কে পড়ে যান। এসময় পেছন থেকে দ্রুতগামী একটি পিকাপ ভ্যান চাপা দিলে ঘটনাস্থলেই তিনি মারা যান। 


জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের মূল ফটক আটকে শিক্ষার্থীদের বিক্ষোভ

শিক্ষা জাতির উন্নয়নের মূল চাবিকাঠি: প্রধানমন্ত্রী

অসুস্থ মাকে বাঁচাতে ক্রিকেটে ফিরতে চান শাহাদাত

প্রেমিকের আশ্বাসে স্বামীকে তালাক, বিয়ের দাবিতে অনশন!


স্থানীয় হোটেল মালিক পরশ জানান, ওই মোটর সাইকেল চালক খুব সম্ভবত ভাড়াটে। কারণ দুর্ঘটনা পরপরই সে পালিয়ে গেছে। আত্মীয় স্বজন হলে হয়তো পালাতো না। 

এদিকে গাড়িটি ভাংচুর করে চালককে পুলিশে দেয়ার বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন নেত্রকোনা মডেল থানার ইন্সপেক্টর তদন্ত মো. সুহেল রানা।

news24bd.tv নাজিম

মন্তব্য

পরবর্তী খবর

মোংলা বন্দরে কয়লাবোঝাই জাহাজডুবি, উদ্ধার ১৩ নাবিক

শেখ আহসানুল করিম, বাগেরহাট

মোংলা বন্দরে কয়লাবোঝাই জাহাজডুবি, উদ্ধার ১৩ নাবিক

বাগেরহাটের মোংলা বন্দরের পশুর চ্যানেলে প্রায় ৮০০ মেট্রিক টন কয়লা বোঝাই এমভি বিবি-১১৫৮ নামে একটি লাইটার কার্গো জাহাজ তলা ফেটে ডুবে গেছে। 

শনিবার রাত এগারোটা মোংলা বন্দরের পশুর নদীর চ্যানেলের ইসমাইলের চরে এই দুর্ঘটনা ঘটে। তবে এই লাইটার জাহাজে থাকা মাস্টার, স্টাফ ও নিরাপত্তা কর্মীসহ ১৩ জনকে উদ্ধার করেছে মোংলা কোস্টগার্ড। 

আজ সকালে মোংলা বন্দর কর্তৃপক্ষ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন। লাইটার জাহাজটি এখনো উদ্ধার করতে পারেনি কর্তৃপক্ষ। তবে লাইটার কার্গোটি পশুর চ্যানেলের এক পাশে ডুবে যাওয়া মোংলা বন্দরের মূল চ্যানেল নিরাপদ রয়েছে বলে জানিয়েছে বন্দরের হারবার বিভাগ।

ডুবে যাওয়া কার্গো জাহাজের মাস্টার ওসমান আলী জানান, মোংলা বন্দরের হাড়বাড়িয়ার ৭ নম্বর এ্যাংকোরেজ থাকা বিদেশি জাহাজ এমভি জসকো থেকে শনিবার প্রায় ৮শত মেট্রিক টন কয়লা বোঝাই করে লাইটার কার্গো জাহাজ এমভি বিবি-১১৪৮। 

এরপর শনিবার রাতে  কার্গো জাহাজটি ওই বিদেশি জাহাজ থেকে যশোরের নওয়াপাড়ার উদ্দেশ্যে ছেড়ে আসে। এরই পথিমধ্যে রাত ১১টার দিকে মোংলার পশুর নদীর বানীশান্তা ও কানাইনগর এলাকায় ইসমাইলের চরে পৌঁছালে তলা ফেটে কার্গোটি ডুবে যায়। 

এ সময় ওই জাহাজের মাষ্টারসহ ১২জন স্টাফ ও একজন নিরাপত্তা কর্মীকে মোংলা কোস্টগার্ড এসে উদ্ধার করে। এদিকে জাহাজটি উদ্ধার কাজ শুরু না হলেও ঘটনাস্থলে মার্কিংয়ের ব্যবস্থার কাজ শুরু করার কথা জানিয়েছে বন্দর কর্তৃপক্ষ। তবে কার্গোটি পশুর নদীর মূল চ্যানেলের বাইরে ডুবেছে বলে নৌযান চলাচলে মুল চ্যানেল নিরাপদ রয়েছে বলে জানিয়েছে বন্দরের হারবার বিভাগ।


জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের মূল ফটক আটকে শিক্ষার্থীদের বিক্ষোভ

শিক্ষা জাতির উন্নয়নের মূল চাবিকাঠি: প্রধানমন্ত্রী

অসুস্থ মাকে বাঁচাতে ক্রিকেটে ফিরতে চান শাহাদাত

প্রেমিকের আশ্বাসে স্বামীকে তালাক, বিয়ের দাবিতে অনশন!


মোংলা বন্দরের হারবার মাস্টার কমান্ডার শেখ ফকর উদ্দিন জানান, মোংলা বন্দরের হারবাড়িয়া এলাকায় নোঙ্গর করা জাহাজ থেকে ইস্টার্ণ প্রাইভেট লিমিটেডের আমদানি করা কয়লা এমভি বিবি-১১৫৮ নামে একটি লাইটার কার্গো জাহাজ পরিবহণ করছিল। শনিবার রাত এগারোটার দিকে হারবাড়িয়া থেকে প্রাং ৮ শত মেট্রিক টর কয়লা নিয়ে যশোরের নওয়াপাড়ায় যাওয়ার পথে পশুর নদীর ইসমাইলের ডুবো চরে আটকে তলা ফেটে কাত হয়ে ডুবে যায়।

এই লাইটার কার্গো জাহাজের মাস্টার, স্টাফ ও নিরাপত্তা কর্মীসহ ১৩ জন স্টাফ ছিলেন। তারা সবাইকে উদ্ধার করা হয়েছে। লাইটার জাহাজটি নদীতে ভাটির সময় দেখা যাচ্ছে। জোয়ার আসলে ডুবে যাচ্ছে। আমরা ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছি। লাইটার জাহাজটিকে উদ্ধারের উদ্যোগ নেয়া হচ্ছে।

news24bd.tv নাজিম

মন্তব্য

পরবর্তী খবর

সলঙ্গায় বাস-ট্রাক সংঘর্ষে নিহত ১, আহত ৫

আব্দুস সামাদ সায়েম, সিরাজগঞ্জ

সলঙ্গায় বাস-ট্রাক সংঘর্ষে নিহত ১, আহত ৫

সিরাজগঞ্জের সলঙ্গায় বাস-ট্রাক সংঘর্ষে অজ্ঞাত পরিচয় (৪০) একজন নিহত হয়েছেন। এ ঘটনায় আহত হয়েছে অন্তত ৫ জন। আজ দুপুর দেড়টার দিকে হাটিকুমরুল-বনপাড়া মহাসড়কে থানার নাইমুড়ী বাজারের পরে রুয়াপাড়া এলাকায় এ দুর্ঘটনা ঘটে। 

হাটিকুমরুল হাইওয়ে থানার ওসি শাহজাহান আলী জানান, ঢাকা থেকে চাপাইনবাবগঞ্জ গামী ন্যাশনাল ট্রাভেলসের একটি যাত্রীবাহী বাস ঘটনাস্থলে পৌঁছলে বিপরীত দিক থেকে আসা একটি মাটিবাহী ট্রাককে ক্রসিংয়ের সময় পেছন দিকে ধাক্কা লাগে। এতে ট্রাকটি উল্টে রাস্তার পাশে খাদে পড়ে যায়। 


জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের মূল ফটক আটকে শিক্ষার্থীদের বিক্ষোভ

শিক্ষা জাতির উন্নয়নের মূল চাবিকাঠি: প্রধানমন্ত্রী

অসুস্থ মাকে বাঁচাতে ক্রিকেটে ফিরতে চান শাহাদাত

প্রেমিকের আশ্বাসে স্বামীকে তালাক, বিয়ের দাবিতে অনশন!


এ দুর্ঘটনায় ঘটনাস্থলেই একজন মারা যান। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছে আহত অবস্থায় ৪/৫ জনকে উদ্ধার করে হাসপাতালে পাঠিয়েছে। নিহতের মরদেহ থানা হেফাজতে রাখা হয়েছে। তার পরিচয় পাওয়া যায়নি। দুর্ঘটনা কবলিত পরিবহন দুটি জব্দ করা হয়েছে।

news24bd.tv নাজিম

মন্তব্য

পরবর্তী খবর

টাঙ্গাইলে বাস মোটরসাইকেল সংঘর্ষে নিহত ২

অনলাইন ডেস্ক

টাঙ্গাইলে বাস মোটরসাইকেল সংঘর্ষে নিহত ২

টাঙ্গাইলের মধুপুরে বাস ও মোটরসাইকেল মুখোমুখি সংঘর্ষে দুই যুবক নিহত হয়েছে। আহত হয়েছে মোটরসাইকেলে থাকা আরও একজন। আজ রোববার (২৮ ফেব্রুয়ারি) দুপুর ২টার দিকে জামালপুর-টাঙ্গাইল সড়কের উপজেলার গোলাবাড়ী ব্রীজ সংলগ্ন এলাকায় এই ঘটনা ঘটে।

নিহতরা হলেন- ইউসুফ আলী সওদাগর (২৮) মধুপুর পৌরসভার আঙ্গিনাপাড়ার রবি সওদাগরের ছেলে ও একই এলাকার বোরহান সওদাগরের ছেলে আব্দুল্লাহ সওদাগর (২৫)।


জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের মূল ফটক আটকে শিক্ষার্থীদের বিক্ষোভ

শিক্ষা জাতির উন্নয়নের মূল চাবিকাঠি: প্রধানমন্ত্রী

অসুস্থ মাকে বাঁচাতে ক্রিকেটে ফিরতে চান শাহাদাত

প্রেমিকের আশ্বাসে স্বামীকে তালাক, বিয়ের দাবিতে অনশন!


মধুপুর থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) হুমায়ুন ফরিদ নিউজ টোয়েন্টিফোরকে বলেন, জামালপুর থেকে ছেড়ে আসা ঢাকাগামী মহাখালী ট্রাভেলস সাথে ধনবাড়িগামী মোটরসাইকেলের মুখোমুখি সংঘর্ষ ঘটে। এতে ঘটনাস্থলেই ইউসুফ আলী মারা যায়। পরে গুরুত্বর আহতবস্থায় দুইজনকে প্রথমে মধুপুর স্বাস্থ্যকমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়। পরে সেখানে অবস্থার অবনতি হলে তাদের ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ  হাসপাতালে নেওয়া পথে আরেক মারা জান।

তিনি আরও বলেন, এ ঘটনায় যাত্রীবাহি বাসটিকে আটক করা গেলেও চালক পালিয়ে যায়। পরে বাসটি থানায় নিয়ে আসা হয়েছে।

news24bd.tv / কামরুল 

মন্তব্য

পরবর্তী খবর

যশোরে আয়া দিয়ে ডেলিভারি, নবজাতকের দেহ থেকে মাথা বিচ্ছিন্ন

রিপন হোসেন, যশোর

যশোরে আয়া দিয়ে ডেলিভারি, নবজাতকের দেহ থেকে মাথা বিচ্ছিন্ন

যশোর জেনারেল হাসপাতালের গাইনী ওয়ার্ডের আয়ার কারনে মা ডাক শোনা হলো না গৃহবধু আন্নার(২৫)। বেনাপোলের গাজীপুরের ইয়াকুবের স্ত্রী। শুক্রবার রাত আড়াইটায় প্রসব কালিন ব্যাথা নিয়ে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। আয়ার টানাটানিতে নবজাতকের শরীর থেকে মাথা বিচ্ছিন্ন হয়ে যায়। মাথা পেটের মধ্যে থাকলেও দেহ বের হয়ে আসে। 

আজ শনিবার সকালে ওয়ার্ড ডাক্তার তানজিলা আখতার একবার দেখে যান। ওয়ার্ড নার্সদের ডাক্তার বলে জরায়ুর মুখ খোলার ওষুধ দিতে। ডাক্তারের কথা মত আন্নাকে ওষুধ দেয়া হয়।এর পর আর ডাক্তার আসেননি। 

শনিবার সন্ধ্যা সাড়ে ৭টার দিকে আন্নার গর্ভে থাকা ছেলের দু পা বেরিয়ে আসলে ওই ওয়ার্ডের আয়া মোমেনা আন্নাকে ওটিতে নিয়ে বেরিয়ে পড়া পা ধরে টানা টানি করার এক পর্যায়ে বাচ্চাটির মাথা পেটের মধ্যে থেকে যায়। 


ঋণ থেকে মুক্তির দু’টি দোয়া

মেসি ম্যাজিকে সহজেই জিতল বার্সা

দোয়া কবুলের উত্তম সময়

রোনালদোর গোলেও হোঁচট খেল জুভেন্টাস


ছিড়ে বেরিয়ে আসে বাচ্চার গলার নিচ থেকে বাকি অংশ। আন্নাকে ওটিতে ফেলেই পালিয়ে যায় আয়া মোমেনা। এরপর অন্য নার্সরা দ্রুত ওটি থেকে আন্নাকে বের করে এনে কাউকে কিছু না বলতে নানা রকম ভয়ভীতি দেখায়। আয়ার কান্ডে বাক শক্তি হারিয়ে ফেলেছেন আন্না ও তার পরিবারেরর সদস্যরা।

এব্যাপারে আরএমও ডাক্তার আরিফ আহমেদ এঘটনার সত্যতা স্বীকার করে বলেন আয়ার বাড়াবাড়িতে এই দুর্ঘটনা ঘটেছে। তার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।

news24bd.tv/আয়শা

মন্তব্য

পরবর্তী খবর