সৃজিতের ‘মুসকানে’ বাধন

অনলাইন ডেস্ক

সৃজিতের ‘মুসকানে’ বাধন

প্রথমবার কলকাতায় সৃজিত মুখার্জির পরিচালনায় একটি ওয়েব সিরিজে অভিনয় করেছেন বাংলাদেশি মডেল ও অভিনেত্রী আজমেরী হক বাঁধন।

‘মুসকান’ নামের ওয়েব সিরিজটিতে গুরুত্বপূর্ণ একটি চরিত্রে দেখা যাবে বাঁধনকে।

সৃজিতের ওয়েব সিরিজে মিথিলাকে না নিয়ে বাধনের অভিনয়ের খবর বের হওয়ার পর থেকেই, এ নিয়ে নেটিজেনরা সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ব্যাপক আলোচনা সমালোচনা করছে। এ বিষয়ে মুখ খুলেছেন বাধন, এ ধরনের আলোচনা কিংবা প্রশ্নের কোনো জবাব দিতে চান না জানিয়ে এই অভিনেত্রী বলেন,আমি মনে করি এ ধরনের আলোচনা-সমালোচনা বন্ধ করা উচিত। আমি এ সিরিজটির একজন অভিনেত্রী মাত্র। আমাকে যে চরিত্রের জন্য নির্বাচিত করা হয়েছিল, সেই চরিত্রটি ফুটিয়ে তোলার যথাসাধ্য চেষ্টা করেছি। এর বাইরে আর কিছু জানি নয় বা জানার চেষ্টাও করিনি।


মিমির সাথে মিলির প্রেমের গুঞ্জন!

বিদেশিদের জন্য সুযোগ, নাগরিকত্ব দেবে আমিরাত

পর্দা করে মিডিয়াতে কাজ করা সম্ভব না : সুজানা

মেসির পেছনে বার্সার ব্যয় ৫ হাজার ৭০২ কোটি টাকা!


সৃজিতের সঙ্গে কাজের বিষয়ে বাধন বলেন,  এমন একটা গুরুত্বপুর্ণ চরিত্রে আমাকে অভিনয়ের দিয়েছেন সৃজিত, এজন্য তার কাছে আমি কৃতজ্ঞ। একটি চমৎকার টিম ওয়ার্কের মধ্য দিয়ে কাজটি সম্পন্ন হয়েছে। নির্মাতা, অভিনয়শিল্পী থেকে শুরু করে টেকনিক্যাল টিমের সবাই আন্তরিকতা দিয়েই কাজ করেছেন। আমি এর প্রচারের অপেক্ষায় আছি। কলকাতা, সিকিমসহ ভারতের মনোরম কয়েকটি লোকেশনে সিরিজটির শুটিং হয়েছে।

news24bd.tv/আলী

মন্তব্য

পরবর্তী খবর

‘সহবাসে’ নতুন সিদ্ধান্ত সায়নীর (ভিডিও)

অনলাইন ডেস্ক

‘সহবাসে’ নতুন সিদ্ধান্ত সায়নীর (ভিডিও)

সিনেমা জগতে বেশ সাহসি অভিনেত্রী সায়নী ঘোষ। অনেক সময় একের পর এক আলোচনা সমালোচনার জন্ম দিয়েছে এই অভিনেত্রী। তবে এবার সায়নী অভিনয়ের পাশাপাশি নাম লেখাতে যাচ্ছেন রাজনীতিতে।

টালিউড অভিনেত্রী সায়নী ঘোষের আলোচিত সিনেমা ‘সহবাসে’ রয়েছে মুক্তির অপেক্ষায়। কিন্তু নির্বাচনী আচরণবিধি লঙ্ঘন হতে পারে, তাই তৃণমূল কংগ্রেস থেকে মনোনয়ন পাওয়া এই অভিনেত্রীর ‘সহবাসে’ সিনেমাটির মুক্তির সময় প্রায় ২০ দিন পিছিয়ে দেয়া হয়েছে।

‘সহবাসে’ সিনেমায় গুরুত্বপূর্ণ চরিত্রে অভিনয় করেছেন ভারতের পশ্চিমবঙ্গের আসানসোল দক্ষিণের তৃণমূল প্রার্থী সায়নী ঘোষ। এতে কেন্দ্রীয় চরিত্রে অভিনয় করেছেন ইশা সাহা, অনুভব কাঞ্জিলাল ও সায়নী ঘোষ। এছাড়াও রয়েছেন রাহুল অরুণোদয় বন্দ্যোপাধ্যায়, দেবলীনা দত্ত, সায়নী ঘোষ, শুভশিস মুখোপাধ্যায়, তুলিকা বসু, বিশ্বজিৎ চক্রবর্তী সহ আরও অনেকে।

ভিডিও দেখতে ক্লিক করুন।

আরও পড়ুন


অতিরিক্ত আইজিপি মাহবুব হোসেনের চুক্তির মেয়াদ বাড়ল

মেসেঞ্জারে আপত্তিকর ছবি পাঠিয়ে কলেজছাত্রীকে অনৈতিক প্রস্তাব

জটিলতা কাটিয়ে অবশেষে বনানী কবরস্থানেই সমাহিত শাহিন আলম

লিফটে করে ১৩ তলার আগুনের উৎস খুঁজতে উঠাই কাল হল


‘সহবাসে’ সিনেমার চিত্রনাট্য লিখেছেন সুমনা কাঞ্জিলাল, ডিওপি মধুরা পালিত। সম্পাদনা করেছেন অনির্বাণ মাইতি। ‘সহবাসে’ ছবির সঙ্গীত পরিচালনা করেছেন সৌম্য রীত। গান গেয়েছেন দুর্নিবার সাহা, রূপঙ্কর বাগচী, শুভমিতা, শাওনী।

নির্মাতাদের তরফে জানানো হয়েছে, ১২ মার্চের বদলে ছবিটির মুক্তির দিন ৩০ এপ্রিল করা হয়েছে।

news24bd.tv আহমেদ

মন্তব্য

পরবর্তী খবর

জটিলতা কাটিয়ে অবশেষে বনানী কবরস্থানেই সমাহিত শাহিন আলম

অনলাইন ডেস্ক

জটিলতা কাটিয়ে অবশেষে বনানী কবরস্থানেই সমাহিত শাহিন আলম

অবশেষে রাজধানীর বনানী কবরস্থানেই দাফন করা হলো ঢাকাই চলচ্চিত্রের এক সময়ের জনপ্রিয় নায়ক শাহিন আলমকে। সকালের দিকে দাফন নিয়ে কিছুটা জটিলতা দেখা দেয়। এরপর জটিলতা কাটিয়ে মঙ্গলবার সকাল ১০টার দিকে তার দাফন সম্পন্ন হয়। 

শাহিন আলমের দাফনের সময় নায়ক ওমর সানি এবং শাহিন আলমের পরিবাবের সদস্যরা উপস্থিত ছিলেন। মঙ্গলবার বাদ ফজর রাজধানীর গুলশানের নিকেতন মসজিদে তার জানাজা হয়।

এর আগে , সকালে বনানী কবরস্থানে শাহীন আলমের লাশ দাফন করতে এসে চরম বিপাকে পড়েন তার ছেলে ফাহিম আলম। অসহায়ের মতো কবরস্থানের সামনে বাবার মরহেদ নিয়ে দাঁড়িয়ে ছিলেন তিনি।

এসময় তিনি বলেন, আমার বাবার লাশ বনানী কবরস্থানে দাফনের জন্য নিয়ে এসেছি। এখানে আমার চাচার কবরের স্থানে বাবার মরদেহ দাফনের কথা ছিল। কিন্তু কবর কমিটি লোকেরা তাতে বাধা দেয়। তাদের বক্তব্য, মেয়রের অনুমতি নিয়ে সেখানে দাফন করতে হবে।

আরও পড়ুন


লিফটে করে ১৩ তলার আগুনের উৎস খুঁজতে উঠাই কাল হল

চাঁদপুরে পরিত্যক্ত ইটভাটায় চাষ হচ্ছে বিদেশি চেরি টমেটো

ভারতের ২ যুদ্ধ জাহাজ ৩ দিনের শুভেচ্ছা সফরে বাংলাদেশে

লাশ দাফনে বাধা, শাহীনের লাশ নিয়ে কবরস্থানে অসহায় ছেলের অপেক্ষা


উল্লেখ্য, সোমবার (৮ মার্চ) রাত ১০টা ৫ মিনিটে রাজধানীর আজগর আলী হাসপাতালে লাইফ সাপোর্টে থাকা অবস্থায় মারা যান বাংলা সিনেমার এক সময়ের ব্যস্ত চিত্রনায়ক শাহীন আলম।

শাহীন আলম অভিনীত সিনেমাগুলোর মধ্যে ‘ঘাটের মাঝি’, ‘এক পলকে’, ‘প্রেম দিওয়ানা’, ‘চাঁদাবাজ’, ‘প্রেম প্রতিশোধ’, ‘টাইগার’, ‘রাগ-অনুরাগ’, ‘দাগি সন্তান’, ‘বাঘা-বাঘিনী’, ‘স্বপ্নের নায়ক’, ‘আরিফ লায়লা’, ‘আঞ্জুমান’, ‘অজানা শত্রু’, ‘গরিবের সংসার’, ‘দেশদ্রোহী’, ‘আমার মা’, ‘পাগলা বাবুল’, ‘তেজী’, ‘শক্তির লড়াই’, ‘দলপতি’, ‘পাপী সন্তান’, ‘ঢাকাইয়া মাস্তান’, ‘বিগবস’, ‘বাবা’, ‘বাঘের বাচ্চা’, ‘বিদ্রোহী সালাউদ্দিন’, ‘তেজী পুরুষ’ ইত্যাদি অন্যতম।

news24bd.tv আহমেদ

মন্তব্য

পরবর্তী খবর

লাশ দাফনে বাধা, শাহীনের লাশ নিয়ে কবরস্থানে অসহায় ছেলের অপেক্ষা

অনলাইন ডেস্ক

লাশ দাফনে বাধা, শাহীনের লাশ নিয়ে কবরস্থানে অসহায় ছেলের অপেক্ষা

ঢাকাই চলচ্চিত্রের এক সময়ের জনপ্রিয় অভিনেতা চিত্রনায়ক শাহিন আলম আর নেই (ইন্নালিল্লাহি ওয়াইন্নইলাহি রাজিউন)। সোমবার রাত ১০ টা ৫ মিনিটে চিকিৎসাধীন অবস্থায় রাজধানীর আজগর আলী হাসপাতালে শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন তিনি।

শাহীন আলমের লাশ দাফন নিয়ে চরম বিপাকে পড়েছেন তার ছেলে। অসহায়ের মতো কবরস্থানের সামনে শাহীন আলমের মরহেদ নিয়ে দাঁড়িয়ে আছেন তার ছেলে ফাহিম আলম। 

মঙ্গলবার সকালে (৯ মার্চ) ফাহিম বলেন, আমার বাবার লাশ বনানী কবরস্থানে দাফনের জন্য নিয়ে এসেছি। এখানে আমার চাচার কবরের স্থানে বাবার মরদেহ দাফনের কথা ছিল। কিন্তু কবর কমিটি লোকেরা তাতে বাধা দেয়। তাদের বক্তব্য, মেয়রের অনুমতি নিয়ে সেখানে দাফন করতে হবে।

আরও পড়ুন


স্নাতক পাসে সুপার স্টার গ্রুপে চাকরির সুযোগ

দেশের ৪ অঞ্চলে বজ্রসহ বৃষ্টির সম্ভাবনা

যে কারণে অভিনয় ছেড়েছিলেন প্রয়াত নায়ক শাহীন আলম

কলকাতায় বহুতল ভবনে ভয়াবহ আগুন, নিহত ৯


এ বিষয়ে দাফনে অংশ নেয়া একজন জানান, নায়ক শাহিন আলমের দাফনে এসেছি। কিন্তু এসে দেখছি এখানে একজনের কবরের ওপর আরেকজনের দাফন করতে চাইলে একটি নির্দিষ্ট সময় পার করতে হয়। সেই সময়ও পার হয়েছে কিন্তু তারা দাফন করতে দিচ্ছে না। 

তিনি বলেন, এ বিষয়ে শাহীন আলমের ছেলে শিল্পী সমিতির একাধিক নেতার সঙ্গে যোগাযোগ করলেও তারা কোনো সহযোগিতা করেননি। চিত্রনায়ক ওমর সানী, মিশা সওদাগর ও জায়েদের নাম উল্লেখ করে তিনি বলেন, তাদের সঙ্গে যোগাযোগ করলেও তারা কোনো সহযোগিতা করেননি। এতে শাহীন আলমের ছেলে চরম অসহায়ের মতো কবরস্থানের পাশে সময় অতিবাহিত করছেন। সূত্র: সময় নিউজ।

news24bd.tv আহমেদ

মন্তব্য

পরবর্তী খবর

যে কারণে অভিনয় ছেড়েছিলেন প্রয়াত নায়ক শাহীন আলম

অনলাইন ডেস্ক

যে কারণে অভিনয় ছেড়েছিলেন প্রয়াত নায়ক শাহীন আলম

ঢাকাই চলচ্চিত্রের এক সময়ের জনপ্রিয় অভিনেতা চিত্রনায়ক শাহিন আলম আর নেই (ইন্নালিল্লাহি ওয়াইন্নইলাহি রাজিউন)। সোমবার রাত ১০ টা ৫ মিনিটে চিকিৎসাধীন অবস্থায় রাজধানীর আজগর আলী হাসপাতালে শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন তিনি।

এক সময়ের দাপুটে এই নায়ক ১৯৮৬ সালে এফডিসির নতুন মুখের সন্ধানের মাধ্যমে চলচ্চিত্রে আসেন। ক্যারিয়ারে অনেক জনপ্রিয় সিনেমা রয়েছে তার। 

ঢালিউডের এই নায়ক মৃত্যুর অনেক বছর আগে থেকেই সিনেমা জগতের বাইরে। কয়েকমাস আগে এক সাক্ষাৎকারে শাহিন আলম জানিয়েছিলেন ইসলামকে ভালোবেসে অভিনয় ছেড়ে দিয়েছি।

এক সাক্ষাৎকারে শাহীন আলম বলেন, আমি তো মুসলমান। পরকালে বিশ্বাসী। আমাকে একদিন না একদিন ওই সর্বশক্তিমানের কাছে ফিরতেই হবে। তখন কী জবাব দেব? একটা মানুষ কত দিন বাঁচে? ধরুন খুব বেশি হলে ১০০ বছর বাঁচব। এরপর তো আল্লাহর কাছে গিয়ে জবাবদিহি করতে হবে। তাই আমি বলব, আগে পরকালের হিসাবের খাতাটা ঠিক রাখতে হবে। এসব বিবেচনা করেই সিনেমা থেকে সরে এসেছি। আস্তে আস্তে নিজেকে গুটিয়ে নিয়েছি।

আরও পড়ুন


কলকাতায় বহুতল ভবনে ভয়াবহ আগুন, নিহত ৯

নামাজে মুস্তাহাব কাজগুলো কী জেনে নিন

কেয়ামতের দিন যে সূরা বান্দার হয়ে আল্লাহর কাছে সুপারিশ করবে

চিত্রনায়ক শাহিন আলম মারা গেছেন


তিনি আরও বলেন, ঢাকাই ছবিতে যখন অশ্লীলতা মহামারী আকার ধারণ করে আর সিনেমাজগতটা নির্মাতার হাতছাড়া হয়ে প্রযোজকদের হাতে চলে যায়, তখন আর অভিনয় চালিয়ে যেতে পারছিলাম না। আমাকে অশ্লীল দৃশ্যে অভিনয়ের জন্য চাপ দেওয়া হতো। এমন পরিস্থিতিতে আমার বড়ভাই হজ পালন করে এসে আমাকে অনুরোধ করেন, সিনেমাজগত ছেড়ে দিতে। আমিও পরে উপলব্ধি করি আর কতো। সিনেমা থেকে নিজেকে গুটিয়ে পারিবারিক ব্যবসাপ্রতিষ্ঠানটি দেখাশোনা শুরু করি।

ঢাকায় সিনেমায় বর্ণাঢ্য ক্যারিয়ার ছিল শাহিন আলমের। ক্যারিয়ারে দেড়শোর বেশি ছবিতে অভিনয় করা এ চিত্রনায়কের অন্যতম ছবিগুলো হচ্ছে - অভিনীত উল্লেখযোগ্য চলচ্চিত্রের মধ্যে রয়েছে- ঘাটের মাঝি, এক পলকে, গরিবের সংসার, তেজী, চাঁদাবাজ, প্রেম প্রতিশোধ, টাইগার, রাগ-অনুরাগ, দাগী সন্তান, বাঘা-বাঘিনী, আলিফ লায়লা, স্বপ্নের নায়ক, আঞ্জুমান, অজানা শত্রু, দেশদ্রোহী, প্রেম দিওয়ানা, আমার মা, পাগলা বাবুল, শক্তির লড়াই, দলপতি, পাপী সন্তান, ঢাকাইয়া মাস্তান, বিগবস, বাবা ও বাঘের বাচ্চা।

news24bd.tv আহমেদ

মন্তব্য

পরবর্তী খবর

বিজেপিতে যোগ দিয়ে যা বললেন মিঠুন চক্রবর্তী !

অনলাইন ডেস্ক

বিজেপিতে যোগ দিয়ে যা বললেন মিঠুন চক্রবর্তী !

বিজেপিতে যোগ দিয়ে ব্রিগেড সভায় মিঠুন চক্রবর্তী বলেন, ‘কারও দিকে আঙুল তুলতে চাই না। কাউকে দোষও দিচ্ছি না। আমারই সিদ্ধান্তে ভুল ছিল।’

রোববার (৭ মার্চ) ব্রিগেড সমাবেশের মঞ্চে তিনি এ কথা বলেন। মিঠুন বক্তব্য দেয়ার সময় কোনো দলের নাম উল্লেখ করেননি। তিনি তার আগের সিদ্ধান্ত ভুল ছিল বলে জানান। আগের সিদ্ধান্ত অর্থাৎ তৃণমূলে যোগ দেয়ার সিদ্ধান্তের কথা বুঝিয়েছেন। ভারতীয় গণমাধ্যমের প্রতিবেদন থেকে এমনটি জানা যায়।

মিঠুন চক্রবর্তী বলেন, তিনি ‘রাজনীতি’ নয়, ‘মানবনীতি’ বোঝেন। রাজনীতির জন্য সবারই একটা পতাকার প্রয়োজন হয়। প্রধানমন্ত্রী আমায় ডেকে যখন কথা বললেন, আমি বললাম, আমি বাংলার জন্য কাজ করতে চাই। আমি বাংলাকে ভালোবাসি।


পশ্চিমবঙ্গের কাছে পর্যাপ্ত পানি থাকবে তখন তিস্তা চুক্তি: মমতা

যে দোয়া পড়লে বিশ্ব নবীর সঙ্গে জান্নাতে যাওয়া যাবে!

খুলনায় সওজ কার্যালয় ঘেরাও কর্মসূচি, ক্ষোভ

৭ই মার্চের অনুষ্ঠান থেকে বেড়িয়ে গেলেন অথিতিরা


তিনি আরও বলেন, ‘বাংলায় বিজেপি যথেষ্ট জায়গা তৈরি করেছে। বাংলার মানুষ বিশ্বাস করছে, ওরা রাজ্যের জন্য ভালো কিছু করবে। তারা ক্রমাগত চেষ্টা করে যাচ্ছে। সেটা কখনো মিথ্যা হতে পারে না। তার মধ্যে কিছু সততা থাকে।’

প্রসঙ্গত, ব্রিগেড সভার পরে মঞ্চের পেছনে মিঠুনের সঙ্গে আলাদা অন্তত ১৫ মিনিট কথা বলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। মিঠুনের কথায়, ‘ওনার সঙ্গে আমার খুব ভালো আলোচনা হয়েছে। সব কথা তো প্রকাশ্যে বলা যায় না।’

সূত্র : আনন্দবাজার

news24bd.tv / কামরুল 

মন্তব্য

পরবর্তী খবর