সামরিক অভ্যুত্থান চীনের কাছে ‘মন্ত্রিসভার রদবদল’

অনলাইন ডেস্ক

সামরিক অভ্যুত্থান চীনের কাছে ‘মন্ত্রিসভার রদবদল’

মিয়ানমারের সামরিক অভ্যুত্থানকে চীনের রাষ্ট্রীয় গণমাধ্যম সিনহুয়া ‘মন্ত্রিসভায় বড় ধরনের রদবদল’ বলে উল্লেখ করেছে। রাষ্ট্রীয় এই গণমাধ্যমটি সামরিক অভ্যুত্থান শব্দটিকেও এড়িয়ে যায় তাদের প্রতিবেদনে।

সিনহুয়া গতকাল মিয়ানমারে নির্বাচিত মন্ত্রীদের ও গণতন্ত্রপন্থী নেত্রী অং সান সুচিকে আটকের পর সেনাবাহিনীর ক্ষমতা দখলকে ‘মন্ত্রিসভায় বড় ধরনের রদবদল’ বলে উল্লেখ করে। একই সঙ্গে বেইজিং মিয়ানমারের সব পক্ষকে ‘নিজেদের মধ্যকার বিরোধ মিটিয়ে’ নিতে আহ্বান জানায়।

গত জানুয়ারিতে সি চিন পিং মিয়ানমার সফর করেন। ওই সময় তিনি মিয়ানমার সরকারের উন্নয়নে সমর্থন দেওয়ার প্রতিশ্রুতি দেন। মিয়ানমারে বেল্ট ও রোড অবকাঠামো খাতে চীনের ব্যাপক বিনিয়োগ রয়েছে।


সব মুছতে চান শ্রাবন্তী, কিন্তু কেন?

সারাদেশে মদ পানে ১৫ জনের মৃত্যু, বাড়ছে উৎকণ্ঠা

স্মার্টফোনের বহুমুখী ব্যবহারে কমছে মস্তিষ্কের কার্যক্ষমতা


 

চীনের কমিউনিস্ট পার্টি পিপলসের পত্রিকা গ্লোবাল টাইমসে নাম প্রকাশ না করার শর্তে এক বিশেষজ্ঞ বলেন, এই ক্ষমতা দখলটিকে ‘দেশটির অকার্যকর ক্ষমতা কাঠামোর মধ্যে সমন্বয় হিসেবে দেখা যায়।’

২০১১ সালে মিয়ানমারে গণতান্ত্রিক সরকার ব্যবস্থার উত্তরণের আগ পর্যন্ত দেশটিতে ক্ষমতায় ছিল সেনাবাহিনী। গত নভেম্বরে দেশটিতে সর্বশেষ সাধারণ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়। তাতে প্রয়োজনীয়সংখ্যক আসনে জিতে পুনরায় সরকার গঠন করে সু চির এনএলডি। তবে সেনাবাহিনী নির্বাচনে ভোট জালিয়াতির অভিযোগ তোলে।

এর আগে, সোমবার সকালে এক বছরের জরুরি অবস্থা জারি করে ক্ষমতা গ্রহণ করে মিয়ানমারের সেনাবাহিনী। ক্ষমতাসীন দল ন্যাশনাল লীগ ফর ডেমোক্রেসির (এনএলডি) প্রধান অং সান সু চি, দেশটির প্রেসিডেন্ট উইন মিন্টসহ বেশ কয়েকজনকে আটকের পর পরই জরুরি অবস্থা জারি করা হয়।

জনগণের ভোটে নির্বাচিত সুচির সরকার উৎখাতের পর মিয়ানমারের সেনাপ্রধান মিন অং হ্লাইং সব ক্ষমতা গ্রহণ করেন। সামরিক বাহিনী দেশটিতে এক বছরের জরুরি অবস্থা জারি করে।

এরই মধ্যে মিয়ানমারে রাজনীতিকদের আটক ও সামরিক অভ্যুত্থানের ঘটনায় উদ্বেগ প্রকাশ করেছেন বিশ্বনেতারা। জাতিসংঘসহ বিভিন্ন আন্তর্জাতিক সংস্থা-সংগঠনও এ ঘটনার নিন্দা জানিয়েছে।

news24bd.tv/আলী

মন্তব্য

পরবর্তী খবর

আস্থা ভোটে জিতলেন প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান

অনলাইন ডেস্ক

পাকিস্তানের সংসদে অনুষ্ঠিত আস্থা ভোটে জিতলেন প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান। শনিবার দুপুরে এ তথ্য জানিয়েছে দেশটির সংবাদ মাধ্যম ডন।

জানায়, মাত্র ৬ ভোটে জিতে প্রধানমন্ত্রীত্ব টিকিয়ে রাখলেন তিনি । আস্থা ভোটে  জেতার জন্য ইমরানের প্রয়োজন ছিল ১৭২ ভোট।  তবে তার ঝুলিতে পড়েছে মোট ১৭৮টি ভোট। 


কুমিরের পেট থেকে বের করা হচ্ছে আস্ত মানুষ (ভিডিও)

প্রেমের বিয়ের ৪ মাসের মাথায় নববধূর ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার

বাক্‌স্বাধীনতা সুরক্ষিত রাখতে মানবাধিকার সংস্থাগুলোর আহ্বান

চুম্বনের দৃশ্যের আগে ফালতু কথা বলতো ইমরান : বিদ্যা


এর মধ্য দিয়ে নিজের গদি ধরে রাখতে সক্ষম হলেন বিশ্বকাপজয়ী সাবেক এই ক্রিকেটার। তবে আস্থা ভোটের এই ফলাফল বর্জন করেছে বিরোধীদলগুলো। 

সম্প্রতি তার সরকারের অর্থমন্ত্রী সিনেট আসনে হেরে যাওয়ার পর সেচ্ছায়  সংসদে আস্থা ভোটের আয়োজন করেন ইমরান খান ।

news24bd.tv নাজিম

মন্তব্য

পরবর্তী খবর

গান দিয়ে করোনা ঠেকানোর ব্যাতিক্রম উদ্যোগ

চন্দ্রানী চন্দ্রা

গান দিয়ে করোনা ঠেকানোর ব্যাতিক্রম উদ্যোগ

ভেনেজুয়েলার বারকুইসিমাতো শহরে অভিনব কায়দায় করোনা মহামারি নিয়ন্ত্রণের চেষ্টা চলছে। ভাইরাসটি প্রতিরোধে এবার সেখানে ব্যবহার করা হচ্ছে অর্কেস্ট্রা। প্রায় ১৬ জন মিউজিয়ান ট্রাকে ওপর বাদ্যযন্ত্র বাজিয়ে আশপাশের মানুষদের ভ্যাকসিন নেওযার জন্য অনুপ্রাণিত করেন।  

বারকুইসিমাতো শহরে বসবাসকারী ভেনিজুয়েলায়ানদের অর্কেস্ট্রা বাজিয়ে অর্থাৎ সংগীতের মাধ্যমে করোনার ভ্যাকসিনের প্রদানের উৎসাহ যোগাচ্ছেন।  


কুমিরের পেট থেকে বের করা হচ্ছে আস্ত মানুষ (ভিডিও)

প্রেমের বিয়ের ৪ মাসের মাথায় নববধূর ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার

বাক্‌স্বাধীনতা সুরক্ষিত রাখতে মানবাধিকার সংস্থাগুলোর আহ্বান

চুম্বনের দৃশ্যের আগে ফালতু কথা বলতো ইমরান : বিদ্যা


মহামারী থেকে বাঁচতে দক্ষিণ আমেরিকার এই দেশটি শৈল্পিক ভ্যাকসিনের প্রস্তাব দিয়েছেন অর্কেস্ট্রার পরিচালক। ট্রাকের ওপর মিউজিশিয়ানরা তাদের ভিন্ন ভিন্ন ইন্সট্রুমেন্ট বাজাতে থাকে। রাস্তার পাশে সাধারণ মানুষ বিল্ডিয়ের বাসিন্দারা মোবাইলে দৃশ্যধারণে করে সামাজিক যোগাযোগে ছড়িয়ে দেয়।

অন্যদিকে, ব্রিটিশ টিভির রিয়েলেটি তারকা মেগান ম্যাককেননা তার নতুন সিঙ্গেল গান দিজ এবং হোল জার্নি অফ মি অনেকের জীবনের দীর্ঘ লালিত স্বপ্নের কথা তুলে এনেছেন।  ম্যাক কেননা এবং অ্যামি ওয়াজের যৌথভাবে লেখা গানটি স্টোরি অফ মি ২০১৯ সালে দ্যা এক্স ফ্যাক্টর: সেলিব্রিটি’র ফাইনালেও পরিবেশন করা হয়।

news24bd.tv / কামরুল 

মন্তব্য

পরবর্তী খবর

হংকং এর নির্বাচন ব্যবস্থায় পরিবর্তন আনতে চায় চীন

আন্তর্জাতিক ডেস্ক

হংকং এর নির্বাচন ব্যবস্থায় পরিবর্তন আনতে চায় চীন

হংকংয়ের শাসনক্ষমতায় যেন শুধু বেইজিংয়ের অনুগতরাই বসতে পারে, তা নিশ্চিত করতে অঞ্চলটির নির্বাচন ব্যবস্থায় পরিবর্তন আনতে চাইছে চীন। দেশটির পার্লামেন্ট ন্যাশনাল পিপলস কংগ্রেসে এই বিষয়ে পরিকল্পনার কথা জানিয়েছে।

কঠোর নিরাপত্তা আইন চালুর পর হংকংয়ে ব্যাপক বিক্ষোভ শুরু হয়েছে। ওই ঘটনার উল্লেখ করে শুক্রবার  চীনের এনপিসির ভাইস চেয়ারম্যান ওয়াং চেন বলেন, বিদ্যমান নির্বাচন ব্যবস্থায় স্পষ্ট অসংলগ্নতা রয়েছে। তাই এ ব্যবস্থায় থাকা ঝুঁকি সংস্কারের প্রয়োজন। 


কুমিরের পেট থেকে বের করা হচ্ছে আস্ত মানুষ (ভিডিও)

প্রেমের বিয়ের ৪ মাসের মাথায় নববধূর ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার

বাক্‌স্বাধীনতা সুরক্ষিত রাখতে মানবাধিকার সংস্থাগুলোর আহ্বান

চুম্বনের দৃশ্যের আগে ফালতু কথা বলতো ইমরান : বিদ্যা


প্রধানমন্ত্রী লি কেকিয়াং বলেছেন, হংকং বিষয়ে বৈদেশিক হস্তক্ষেপ ঠেকাতে বেইজিং শক্ত ভূমিকা অব্যাহত রাখবে। একইসঙ্গে সতর্ক করেন, এই পদক্ষেপে হস্তক্ষেপ না করার। হংকংয়ের জন্য কঠোর নিরাপত্তা আইন চালুর পর এবার  নির্বাচন ব্যবস্থার ওপর নিয়ন্ত্রণ জোরালো করতে চাইছে চীন। তবে বিরোধীদের দাবী, ভিন্নমত দমনের উদ্দেশ্যেই এ আইন প্রচলন করা হয়। ইউরোপীয় ইউনিয়নও সতর্ক করে দিয়ে বলেছে, শুক্রবার ঘোষিত পরিকল্পনা বাস্তবায়ন করা হলে চীনের বিরুদ্ধে আরও ব্যবস্থা নেওয়া হতে পারে।

news24bd.tv / কামরুল 

মন্তব্য

পরবর্তী খবর

আরো সাড়ে চার লাখ মানুষ আক্রান্ত

আন্তর্জাতিক ডেস্ক

আরো সাড়ে চার লাখ মানুষ আক্রান্ত

করোনায় বিশ্বে গেলো ২৪ ঘণ্টায় আরো সাড়ে চার লাখ মানুষ আক্রান্ত হয়েছে। মারা গেছে ৯ হাজার ৬৫৫ জন। এর মধ্যে শুধু যুক্তরাষ্ট্র ও ব্রাজিলে ১৭০০ করে মানুষের প্রাণহানি ঘটেছে।

যা নিয়ে বিশ্বে মোট মৃত্যুর সংখ্যা ছাড়ালো ২৫ লাখ ৯৪ হাজার। আর মোট সংক্রমণ ছাড়িয়েছে ১১ কোটি ৬৭ লাখ। অবশ্য যুক্তরাষ্ট্রে গেলো সপ্তাহের তুলনায় সংক্রমণ কিছুটা বাড়লেও নিউইয়র্কসহ বেশকটি অঙ্গরাজ্যে থিয়েটার ও সিনেমা হলের মতো জনসমাগম স্থল খুলে দেয়া হচ্ছে।

এছাড়া প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন প্রস্তাবিত মহামারীতে আর্থিকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত মার্কিনীদের সাহায্যার্থে ১ দশমিক ৯ ট্রিলিয়ন ডলারের বিলটি বর্তমানে সিনেটের অনুমোদনের অপেক্ষায় রয়েছে। প্রেসিডেন্ট বিলটি দ্রুত অনুমোদনের তাগিদ দিয়েছেন।


কুমিরের পেট থেকে বের করা হচ্ছে আস্ত মানুষ (ভিডিও)

প্রেমের বিয়ের ৪ মাসের মাথায় নববধূর ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার

বাক্‌স্বাধীনতা সুরক্ষিত রাখতে মানবাধিকার সংস্থাগুলোর আহ্বান

চুম্বনের দৃশ্যের আগে ফালতু কথা বলতো ইমরান : বিদ্যা


এছাড়া ভাইরাসটির উৎস খুঁজতে চীনে চালানো তদন্তের প্রতিবেদনটি প্রকাশে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা দেরি করছে বলে অভিযোগ করেছে হোয়াইট হাউজ। তবে চলতি মাসেই এই প্রতিবেদন প্রকাশের প্রতিশ্রুতি দিয়েছে ডব্লিউএইচও।

এদিকে মহামারিতে বিশ্বের প্রতি ৩০ মিনিটে একজন করে স্বাস্থ্য কর্মীর মৃত্যু হয়েছে বলে জানিয়েছে মানবাধিকার সংস্থা এমনেস্টি ইন্টারন্যাশনাল।

news24bd.tv নাজিম

মন্তব্য

পরবর্তী খবর

প্রাণ হারিয়েছে ৫৫ জন, তারপরো মিয়ানমারে থামছে না আন্দোলন

চন্দ্রানী চন্দ্রা

প্রাণ হারিয়েছে ৫৫ জন, তারপরো মিয়ানমারে থামছে না আন্দোলন

মিয়ানমারে জান্তা বাহিনীর হাতে এ পর্যন্ত কমপক্ষে ৫৫ জন প্রাণ হারানোর পরও, গণতন্ত্র পুণ:প্রতিষ্ঠার দাবি থেকে পিছু হটেনি আন্দোলনকারীরা। শনিবারও দেশটির বিভিন্ন শহরে বিক্ষোভ অব্যাহত রাখেন তারা। কঠোর অবস্থান নেয় পুলিশও। এদিকে, এবার সেনাসরকারের বিরুদ্ধে দাঁড়াচ্ছেন দেশটির কূটনীতিকরা। অন্যদিকে, মিয়ানমারের বিরুদ্ধে ঐক্যবদ্ধভাবে ব্যবস্থা নেওয়ার তাগিদ জাতিসংঘ দূতের।

মিয়ানমারে সামরিক অভ্যুত্থানের এক মাসেরও বেশি সময় কেটে যাচ্ছে। তবুও বন্ধ হচ্ছে না জান্তা সরকারের দমনপীড়ন। তবে বন্ধ রয়েছে ইন্টারনেট ও বিদ্যুৎ সরবরাহ। চলছে নির্বিচারে গ্রেপ্তার, পুলিশের লাঠিচার্জ ও গুলিবর্ষণ। কিন্তু কিছুতেই দমানো যাচ্ছে না আন্দোলনকারীদের।

শনিবারও অভ্যূত্থান বিরোধী বিক্ষোভে অংশ নিয়েছে হাজার হাজার মানুষ। সেনাদের ঠেকাতে আন্দোলনকারীরা  অভিনব কায়দায় বিক্ষোভ শুরু করেছে। দক্ষিণ মিয়ানমারের দাওয়া শহরের জনতার আন্দোলনকে ছত্রভঙ্গ করতে টিয়ারগ্যাস ছুঁড়ে দাঙ্গা পুলিশ। তবে এ ঘটনায় আহত বা গ্রেপ্তারের খবর পাওয়া যায়নি।


আরও পড়ুনঃ


আমাকে ‘বলির পাঁঠা’ বানানো হয়েছে: সামিয়া রহমান

লবণ প্রাসাদ ‘পামুক্কালে’

ইসরাইলে কনসার্ট করে দেয়া হল করোনার টিকা

৪ প্রেমিককে নিয়ে পালালো তরুণী, লটারিতে বেছে নিলেন বর


অভ্যুত্থানবিরোধী বিক্ষোভে নির্বিচার হত্যাকাণ্ডের প্রতিবাদেই দেশটির কূটনীতিকরা সামরিক সরকারের বিরুদ্ধে অবস্থান নিচ্ছেন। এপি জানিয়েছে, ওয়াশিংটনের মিয়ানমার দূতাবাস সামরিক জান্তার আনুগত্য স্বীকারে অনীহা জানিয়েছে। এক কূটনীতিক এরিমধ্যে পদত্যাগ করেছেন। সেখানকার অন্তত তিন কূটনীতিক সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে পোস্ট দিয়ে বলেছেন, তারা সামরিক সরকারের বিরুদ্ধে অনাস্থা জানিয়ে অসহযোগ আন্দোলনে যোগ দিচ্ছেন।

এদিকে, সম্প্রতি ব্যাপক এই হতাহতের ঘটনায় মিয়ানমারের বিরুদ্ধে ঐক্যবদ্ধ ব্যবস্থা নিতে নিরাপত্তা পরিষদের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন দেশটিতে নিযুক্ত জাতিসংঘ দূত ক্রিস্টিন শার্নার বার্গেনার।

news24bd.tv / নকিব

মন্তব্য

পরবর্তী খবর