মান্নার নামে প্রতারণা, সতর্ক করলেন স্ত্রী

নিজস্ব প্রতিবেদক

মান্নার নামে প্রতারণা, সতর্ক করলেন স্ত্রী

আগামী ১৭ ফেব্রুয়ারি জনপ্রিয় চিত্রনায়ক মান্নার মৃত্যুবার্ষিকী। এই দিনটি উপলক্ষে চলছে প্রতারণা। 

মান্নার মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে কথিত মান্না ভক্ত পান্না চৌধুরী মান্না ফাউন্ডেশনের সদস্য সংগ্রহ করছেন। সংগ্রহ করছেন ভক্তদের মুঠোফোন নম্বর। পাশাপাশি নায়ক মান্নার জন্য মিলাদ অনুষ্ঠান আয়োজনের ঘোষণা দিয়েছেন। 

তিনি জানিয়েছেন, মিলাদ মাহফিলে উপস্থিত থাকবেন নায়ক মান্নার স্ত্রী শেলী মান্না ও চিত্রনায়ক অমিত হাসান। কিন্তু মান্নার স্ত্রী এবং অমিত হাসান এ বিষয়ে কিছুই জানেন না বলে জানিয়েছেন।

শেলী মান্না গণমাধ্যমকে বলেন, এই ব্যক্তিকে চিনি না। আমাদের সঙ্গে তার কোনো যোগাযোগ কিংবা কোনো সম্পর্ক নেই। এমনকি ফাউন্ডেশনের সদস্যও নন তিনি।

ভক্তদের উদ্দেশ্যে শেলী মান্না বলেন, মান্না ভক্তদের কাছে অনুরোধ করছি, কারো কথায় প্রভাবিত হবেন না। মান্না সম্পর্কিত যে কোনো কার্যক্রমের আপডেট একমাত্র আমার পরিচালনাধীন কৃতাঞ্জলি চলচ্চিত্রের ফেসবুক পেজ ‘কৃতাঞ্জলি’ ও ফেসবুক গ্রুপ ‘মান্না অফিশিয়াল’ থেকে পাওয়া যাবে। এর বাইরে আর কোনো তথ্য বিশ্বাস করবেন না। এতে প্রতারিত হতে পারেন।

কথিত মান্না ভক্ত পান্না চৌধুরীকে এ ধরনের কর্মকাণ্ড থেকে সরে আসার জন্য সতর্ক করা হয়েছে। তারপরও এ ধরনের কাজ করলে তার বিরুদ্ধে আইনি পদক্ষেপ নেবেন বলে জানিয়েছেন শেলী মান্না। 

বিষয়টি নিয়ে চিত্রনায়ক অমিত হাসান বলেন, তাকে আমি চিনিই না। আমার নাম সে ব্যবহার করেছে। বেশ কয়েকজনের মুখে খবরটি শুনে অনেকটা আতঙ্কিত হয়েই শেলী ভাবিকে বিষয়টি অবহিত করেছি। তিনিও তাকে চেনেন না।

পান্না চৌধুরী মান্না ফাউন্ডেশন কমিটির কোনো সদস্য না হয়েও সদস্য সংগ্রহের জন্য মান্নার ভক্তদের ফেসবুক ফ্যানপেজ ও গ্রুপগুলোতে পোস্ট করেছেন; যা অন্যায় ও প্রতারণা। সেখানে অনুমতি ছাড়া তিনি আমার নামও ব্যবহার করেছেন। আমি ওই ব্যক্তিকে বলব এসব প্রতারণা থেকে সরে দাঁড়ান।

এ বিষয়ে পান্না চৌধুরীর সঙ্গে যোগাযোগ করলে তিনি বলেন, আগামী ১৭ ফেব্রুয়ারি টাঙ্গাইলের এলেঙ্গায় আসেন, তাহলে সব জানতে পারবেন।
প্রসঙ্গত, গত ২৫ জানুয়ারি পান্না চৌধুরী একটি স্ট্যাটাস দেন। সেখানে তিনি লেখেন, ‘১৭ ফেব্রুয়ারি ২০২১ মান্না ভাইয়ের ১৩তম প্রয়াণ দিবস। মান্না ভাইয়ের মৃত্যুর পর ২০০৯ সালের ১৪ এপ্রিল গঠন করা হয় মান্না ফাউন্ডেশন। মান্নার প্রয়াণ দিবসে নায়কের প্রতি শ্রদ্ধা জ্ঞাপন করতে ১৭ ফেব্রুয়ারি যারা মান্না ভাইয়ের কবর জিয়ারত ও বাদ জোহর মান্না ভাইয়ের কবর সংলগ্ন এলেঙ্গা বাগানবাড়ি মসজিদে মিলাদ মাহফিল এবং দোয়ায় অংশ নেবেন তারা নাম ও ফোন দিয়ে সাহায্য করুন।’


আওয়ামী লীগের সমর্থন বৃদ্ধির প্রতিফলন হচ্ছে স্থানীয় সরকার নির্বাচন: প্রধানমন্ত্রী

নৌকায়ই উঠতে হবে: খালেদা জিয়াকে প্রধানমন্ত্রী

শুধু গৃহকর্মী বাবদ ট্রাম্প পাচ্ছেন প্রায় ১ লাখ ডলার


তবে ২ ফেব্রুয়ারি পান্নার ওই স্ট্যাটাসে কোথাও শেলী মান্না বা অমিত হাসানের নাম পাওয়া যায়নি।

উল্লেখ্য, মান্না নামে চলচ্চিত্রপ্রেমীদের কাছে পরিচিত হলেও তার পুরো নাম এস এম আসলাম তালুকদার। ১৯৬৪ সালে টাংগাইলের কালিহাতীতে জন্মগ্রহণ করেন তিনি।

news24bd.tv নাজিম

মন্তব্য

পরবর্তী খবর

সানি লিওনের জায়গা নিলেন আবিরা! (ভিডিও)

অনলাইন ডেস্ক

সানি লিওনের জায়গা নিলেন আবিরা! (ভিডিও)

আগের ক্যারিয়ার ছেড়ে দিয়ে সানি লিওন এখন বলিউডের অন্যতম ব্যস্ততম নায়িকা। নিজের তিন সন্তান, স্বামী সঙ্গে নানা কাজ। কখনও শ্যুটিং, কখনও ফটোশ্যুটে ব্যস্ত তিনি। একটা সময় যে সানির বলিউডে কাজ পেতে বেগ পেতে হয়েছিল, তারই এখন শিডিউল পাওয়াই মুশকিল।

সম্প্রতি এই শিডিউল নিয়েই ঝামেলায় জড়ান সানি লিওন। তাও আবার বিখ্যাত গায়ক মিকা সিংয়ের সঙ্গে। বলিউডে মিকার খ্যাতি সব সময়। সেই মিকার সঙ্গেই বিবাদে জড়ালেন সানি।

মিকা তার নতুন গানের জন্য গিয়েছিলেন সানির কাছে। মিউজিক অ্যালবামে সানিকে মুখ্য চরিত্রে থাকতে বলেছিলেন। কিন্তু মিকাকে মুখের ওপর না বলে দেন সানি। কারণ তার কোনও শিডিউল খালি নেই।

তাই পারবেন না তিনি মিকার সঙ্গে কাজ করতে। এতে বেজায় ক্ষেপে যান মিকা। সানিকে চ্যালেঞ্জ ছোড়েন মিকা। যে তিনি যে ভিডিও বানাবেন, সেখানে কাজ না করতে পেরে ভুল করবেন সানি।


১৯ মার্চ আসছে জয়ার ‘অলাতচক্র’

বস্তিবাসীকে না জানিয়েই ভ্যাকসিনের ট্রায়াল

গাড়িতে অগ্নিকান্ড, রেকর্ড সংখ্যক গাড়ি উঠিয়ে নিচ্ছে হুন্দাই

৭ সন্তান নিতে স্বেচ্ছায় দেড় লাখ ডলার জরিমানা গুনলেন চীনা দম্পতি


এরপর নতুন মুখের খোঁজ শুরু করেন মিকা। খুঁজতে গিয়ে পেয়ে যান মডেল-অভিনেত্রী আবিরা সিংয়ের খোঁজ। আবিরাকে অনেকটাই সানির মতো দেখতে। কিছু জায়গায় তার এক্সপ্রেশন সানির থেকেও ভালো।

ভিডিও দেখতে এখানে ক্লিক করুন

আবিরাকে নিয়েই নিজের নতুন মিউজিক অ্যালবাম লঞ্চ করেন মিকা। আর তা ঝড়ের গতিতে ভাইরাল হয়।

news24bd.tv / নকিব

মন্তব্য

পরবর্তী খবর

১৯ মার্চ আসছে জয়ার ‘অলাতচক্র’

অনলাইন ডেস্ক

১৯ মার্চ আসছে জয়ার ‘অলাতচক্র’

আগামী ১৯ মার্চ মুক্তি পাচ্ছে জয়া আহসান অভিনীত বাংলা ভাষায় প্রথম থ্রিডি চলচ্চিত্র ‘অলাতচক্র’। সরকারি অনুদানে নির্মিত এই চলচ্চিত্রের টিজার সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে শেয়ার করেছেন পরিচালক হাবিবুর রহমান।

ফেসবুকে তিনি লিখেছেন, “শুভমুক্তি ১৯ মার্চ, ২০২১। মহান মুক্তিযুদ্ধের ৫০ বছর পূর্তির এই মাহেন্দ্রক্ষণে মুক্তি পেতে যাচ্ছে, মুক্তিযুদ্ধের পটভূমিতে আহমদ ছফার উপন্যাস অবলম্বনে; বাংলা ভাষায় নির্মিত প্রথম থ্রিডি চলচ্চিত্র ‘অলাতচক্র’। ‘আমার ভাইয়ের রক্তে রাঙ্গানো একুশে ফেব্রুয়ারি আমি কি ভুলিতে পারি’। ভাষা আন্দোলনের শহীদদের প্রতি শ্রদ্ধাঞ্জলি।”


বাইডেনের নির্দেশে সিরিয়ায় বিমান হামলা

বস্তিবাসীকে না জানিয়েই ভ্যাকসিনের ট্রায়াল

গাড়িতে অগ্নিকান্ড, রেকর্ড সংখ্যক গাড়ি উঠিয়ে নিচ্ছে হুন্দাই

৭ সন্তান নিতে স্বেচ্ছায় দেড় লাখ ডলার জরিমানা গুনলেন চীনা দম্পতি


চলচ্চিত্রটি আহমদ ছফার একই নামের উপন্যাস থেকে তৈরি করা হয়েছে। ১৯৮৫ সালে প্রকাশিত হয় ছফার মুক্তিযুদ্ধভিত্তিক উপন্যাস ‘অলাতচক্র’। এই উপন্যাসের তায়েবা চরিত্রে অভিনয় করেছেন জয়া আহসান। আর দানিয়েল চরিত্রে আছেন আহমেদ রুবেল।

news24bd.tv / নকিব

মন্তব্য

পরবর্তী খবর

হৃত্বিক-কঙ্গনা সাইবার মামলা : হৃত্বিককে ক্রাইম ব্রাঞ্চের তলব

অনলাইন ডেস্ক

হৃত্বিক-কঙ্গনা সাইবার মামলা : হৃত্বিককে ক্রাইম ব্রাঞ্চের তলব

কঙ্গনার ইমেইলকাণ্ডে সুপারস্টার হৃত্বিক রোশনকে শনিবার হাজিরা দিতে বলেছে মুম্বাই ক্রাইম ব্রাঞ্চের 'ক্রাইম ইনটেলিজেন্স ইউনিট'। ২০১৬ সালে ইমেলইকাণ্ড মুম্বাই পুলিশের সাইবার সেলে অভিযোগ দায়ের করেছিলেন হৃত্বিক রোশন। সেই মামলাতেই তাকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হবে এবং জবানবন্দি রেকর্ড করা হবে।

হৃত্বিক অভিযোগ জানিয়েছিলেন, কে বা কারা তার নাম করে কোনও ভুয়া অ্যাকাউন্ট থেকে কঙ্গনাকে ইমেল করতেন। 


নিউজিল্যান্ডের সঙ্গে টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপের ফাইনালে কে?

মার্কিন গোয়েন্দা রিপোর্টে উঠে এল খাসোগি হত্যার গোপন তথ্য

নামাজে মনোযোগী হওয়ার কৌশল

অভাব দুর হবে, বাড়বে ধন-সম্পদ যে আমলে


যদিও কঙ্গনা রানাউত দাবি করেছিলেন, ওই ইমেল আইডি-টি হৃত্বিক নিজেই ২০১৪ সালে তাকে দিয়েছিলেন। ২০১৩-১৪ সালেও তার ও কঙ্গনার মধ্যে ওই একই আইডি থেকে ইমেল চালাচালি হয়েছিল। ২০১৬ সালে কঙ্গনা হৃত্বিককে 'Silly Ex' (বোকা প্রাক্তন) বলে কটাক্ষ করেন। যাতে অভিনেত্রীকে আইনি নোটিশ পাঠিয়েছিলেন হৃত্বিক। কঙ্গনার সঙ্গে কোনোরকম সম্পর্কে থাকার কথাও অস্বীকার করেছিলেন তিনি।

সেই মামলার পরিপ্রেক্ষিতেই শনিবার অভিনেতাকে জিজ্ঞাসাবাদ করবেন মুম্বাই পুলিশের অপরাধ দমন শাখার ক্রাইম ইনটেলিজেন্স ইউনিট।

প্রসঙ্গত, কঙ্গনা-হৃত্বিক একে অপরের সঙ্গে ২০১০ সালে 'কাইটস' ২০১৩ সালে 'কৃষ-৩'তে অভিনয় করেন। তখনই তাদের মধ্যে সম্পর্কের সূত্রপাত বলে দাবি করেছিলেন কঙ্গনা। হৃত্বিক ২০১৬তে অভিযোগ করেছিলেন, কঙ্গনা তাকে ২০১৩-১৪ সালের মধ্যে ১৪৩৯টি অদ্ভুত ইমেল পাঠাতেন, যাতে তার ওপর মানসিক চাপ তৈরি হয়। সেসময় অজ্ঞাতপরিচয় ব্যক্তির নামে সাইবার সেলে মামলা রুজু হয়।

সেসময়ই তদন্তের জন্য হৃত্বিকের ফোন, ল্যাপটপ সবকিছু বাজেয়াপ্ত করেছিল সাইবার সেল। পরবর্তীকালে সেই মামলা মুম্বাই পুলিশের ক্রাইম ইনটেলিজেন্স ইউনিটে স্থানান্তরিত হয়।

news24bd.tv/আলী

মন্তব্য

পরবর্তী খবর

তুলসীর যে গানের ভিউ ১০ কোটি পার

অনলাইন ডেস্ক

তুলসীর যে গানের ভিউ ১০ কোটি পার

সংগীত অঙ্গনে ঝড় তুলেছেন ভারতের তুলসী কুমার। তাঁর যেকোনো গান ইউটিউবে প্রকাশের কিছু সময়ের মধ্যে লাখো ভিউ পার হয়। কণ্ঠ আর রূপমাধুরী দিয়ে সংগীতাঙ্গন মাতিয়ে রেখেছেন তুলসী। এবার একটি মাইলফলক ছুঁলো তুলসীর গাওয়া গান।

ভারতের বিনোদনভিত্তিক সংবাদমাধ্যম বলিউড বাবলের খবর, ২০২০ সালের নভেম্বরে মুক্তি পেয়েছিল তুলসী কুমারের মিউজিক ভিডিও ‘তানহাই’। একাকিত্বের গল্পের সেই ভিডিওটির ভিউ ১০০ মিলিয়ন বা ১০ কোটি অতিক্রম করেছে।


কারাবন্দি অবস্থায় লেখক মুশতাক মৃত্যুতে যা বললেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

সংবাদ সম্মেলনে আসছেন প্রধানমন্ত্রী

বগুড়ায় সকাল ও দুপুরের সড়ক দুর্ঘটনায় ঝরল ৬ প্রাণ

যা দেখে নাসিরকে ভালোবেসেছিলেন তামিমা


‘তানহাই’ গানের মিউজিক ভিডিওতে অভিনয় করেছেন তুলসী, সঙ্গে ছিলেন জনপ্রিয় অভিনেতা জৈন ইমাম। গানটির সুর করেছেন সংগীত-যুগল সচেত-পরম্পরা। গানটির গীতিকার সৈয়দ কাদরি। ভিডিওচিত্র পরিচালনা করেছেন স্নেহা শেঠি কোহলি।

news24bd.tv / কামরুল 

মন্তব্য

পরবর্তী খবর

ডিরেক্টর’স গিল্ডের সভাপতি লাভলু, সম্পাদক সাগর

অনলাইন ডেস্ক

ডিরেক্টর’স গিল্ডের সভাপতি লাভলু, সম্পাদক সাগর

টেলিভিশন নাটক নির্মাতাদের সংগঠন ডিরেক্টর’স গিল্ডের নির্বাচনে দ্বিতীয়বারের মতো সভাপতি পদে জয়লাভ করেছেন সালাহউদ্দিন লাভলু। সাধারণ সম্পাদক নির্বাচিত হয়েছেন কামরুজ্জামান সাগর। ডিজিটাল পদ্ধতিতে ভোটগণনার পর শুক্রবার (২৬ ফেব্রুয়ারি) রাত ৮টায় বিজয়ীদের নাম ঘোষণা করা হয়।

সভাপতি পদে সালাহউদ্দিন লাভলু পেয়েছেন ১৭০ ভোট। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী অনন্ত হিরার ঘরে এসেছে ১৪৯ ভোট। এছাড়া দীপু হাজরাকে ১২ জন ভোট দিয়েছেন।

সাধারণ সম্পাদক পদে হয়েছে হাড্ডাহাড্ডি লড়াই। ১৭০ ভোট পেয়ে বিজয়ীর হাসি হেসেছেন কামরুজ্জামান সাগর। একই পদে নির্বাচন করা মুহাম্মদ মোস্তফা কামাল রাজ পেয়েছেন ১৬১ ভোট।

যুগ্ন সাধারণ সম্পাদক পদে ২৬০ ভোট নিয়ে পিকলু চৌধুরী এবং ২০৮ ভোট পেয়ে ফিরোজ খান নির্বাচিত হয়েছেন। সাংগঠনিক সম্পাদক পদে ১৭১ ভোট নিয়ে ফেরারী অমিত এবং প্রচার সম্পাদক পদে মো. সহিদ-উন-নবী ১৮২ ভোট পেয়ে নির্বাচিত হয়েছেন।


কারাবন্দি অবস্থায় লেখক মুশতাক মৃত্যুতে যা বললেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

সংবাদ সম্মেলনে আসছেন প্রধানমন্ত্রী

বগুড়ায় সকাল ও দুপুরের সড়ক দুর্ঘটনায় ঝরল ৬ প্রাণ

যা দেখে নাসিরকে ভালোবেসেছিলেন তামিমা


অর্থ সম্পাদক পদে মো. সাজ্জাদ হোসেন সনি এবং কার্যনির্বাহী পরিষদের সদস্য হিসেবে আবু হায়াত মাহমুদ, ইমরাউল হুদা রাফাত, একেএম আনিসুজ্জামান আনিস, কেএম মাহমুদুন্নবী (রিপন নবী), তারিক মুহাম্মাদ হাসান, মোস্তাফিজুর রহমান সুমন ও হাফিজুর রহমান সুরুজ বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত হয়েছেন।

আজ ঢাকায় বিএফডিসির চলচ্চিত্র পরিচালক সমিতিতে সকাল ৯টায় ভোটগ্রহণ শুরু হয়। উৎসবমুখর পরিবেশে নির্মাতারা ভোট দিয়েছেন। বিকাল ৫টা পর্যন্ত ভোট পড়েছে ৩৩১টি। 

এর মধ্যে কোনো ব্যালট বাতিল হয়নি। ডিরেক্টর’স গিল্ডের এবারের নির্বাচনে প্রধান নির্বাচন কমিশনার ছিলেন এসএম মহসীন। এছাড়া নির্বাচন কমিশনারের দায়িত্ব পালন করেন নরেশ ভূঁইয়া ও মাসুম রেজা।

একনজরে ডিরেক্টর’স গিল্ড নির্বাচন-২০২১

সভাপতি

সালাহউদ্দিন লাভলু: ১৭০ ভোট (বিজয়ী)

অনন্ত হিরা: ১৪৯ ভোট

দীপু হাজরা: ১২ ভোট

সহসভাপতি

মাসুম আজিজ: ২৬৮ ভোট (বিজয়ী)

রফিক উল্লাহ সেলিম: ১৮৯ ভোট (বিজয়ী)

ফরিদুল হাসান: ১৯৯ ভোট (বিজয়ী)

শিহাব শাহীন: ১৮২ ভোট

প্রানেশ চন্দ্র চৌধুরী: ১৫৫ ভোট

সাধারণ সম্পাদক

কামরুজ্জামান সাগর: ১৭০ ভোট (বিজয়ী)

মুহাম্মদ মোস্তফা কামাল রাজ: ১৬১ ভোট

যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক

পিকলু চৌধুরী (রকিবুল হাসান চৌধুরী): ২৬০ ভোট (বিজয়ী)

ফিরোজ খান: ২০৮ ভোট (বিজয়ী)

চয়নিকা চৌধুরী: ১৯৪ ভোট

সাংগঠনিক সম্পাদক

ফেরারী অমিত: ১৭১ ভোট (বিজয়ী)

তুহিন হোসেন: ১৩৯ ভোট

এস.এম. মাসুম করিম: ২১ ভোট

অর্থ সম্পাদক

মো. সাজ্জাদ হোসেন সনি (বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত)

প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক

মো. সহিদ-উন-নবী: ১৮২ ভোট (বিজয়ী)

মনিরুজ্জামান নাহিদ (নাহিদ জামান): ১৪৯ ভোট

দফতর সম্পাদক

গোলাম মুক্তাদির (শান): ১৮৩ ভোট (বিজয়ী)

মুক্তি মাহমুদ: ১৪৮ ভোট

প্রশিক্ষণ ও আর্কাইভ বিষয়ক সম্পাদক

মোস্তফা মনন: ১৮৬ ভোট (বিজয়ী)

এসএম শহিদুল ইসলাম রুনু: ১৪৫ ভোট

তথ্য ও প্রযুক্তি বিষয়ক সম্পাদক

মো. আনিসুল ইসলাম ইমেল: ১৯১ ভোট (বিজয়ী)

সঞ্জয় বড়ুয়া: ১৪০ ভোট

আইন ও কল্যাণ বিষয়ক সম্পাদক

নিয়াজ মাহমুদ আক্কাস (মাহমুদ নিয়াজ চন্দ্রদীপ): ১৬৭ ভোট (বিজয়ী)

সাঈদ রহমান (মো. সাইদুর রহমান আরিফ): ১৬৪ ভোট

কার্যনির্বাহী পরিষদ সদস্য (বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত)

আবু হায়াত মাহমুদ

ইমরাউল হুদা রাফাত

একেএম আনিসুজ্জামান আনিস

কেএম মাহমুদুন্নবী (রিপন নবী)

তারিক মুহাম্মাদ হাসান

মোস্তাফিজুর রহমান সুমন

হাফিজুর রহমান সুরুজ

news24bd.tv / কামরুল 

মন্তব্য

পরবর্তী খবর