আন্তর্জাতিক আদালতে আমেরিকার বিরুদ্ধে বিচার চলবে

অনলাইন ডেস্ক

আন্তর্জাতিক আদালতে আমেরিকার বিরুদ্ধে বিচার চলবে

হেগের আন্তর্জাতিক বিচার আদালত ইরানের বিরুদ্ধে আমেরিকার একতরফা অর্থনৈতিক নিষেধাজ্ঞা আরোপ এবং দু’দেশের মধ্যে ১৯৫৫ সালে স্বাক্ষরিত অর্থনৈতিক চুক্তি লঙ্ঘনের অভিযোগের বিচার করতে সম্মত হয়েছে।

আমেরিকার পক্ষ থেকে এই আদালতে ইরানের এ সংক্রান্ত অভিযোগের বিচার না করার আবেদন জানানো হয়েছিল। কিন্তু আদালত তা প্রত্যাখ্যান করে ইরানের পক্ষে রায় দিল।

ইরানের ওপর সাবেক মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প নিষেধাজ্ঞা পুনর্বহাল করার পর ২০১৮ সালে ইরান আন্তর্জাতিক বিচার আদালতে মার্কিন সরকারের বিরুদ্ধে ওই অভিযোগ দায়ের করেছিল।

আদালতের প্রধান বিচারপতি গতকাল বুধবার তার রায় ঘোষণা করে বলেন, আমেরিকা এ বিচারের শুনানি স্থগিত করতে যে আবেদন জানিয়েছিল বেশিরভাগ বিচারক তাকে ন্যায়সঙ্গত মনে করেননি। তারা বরং আমেরিকার বিরুদ্ধে ইরানের অভিযোগ খতিয়ে দেখতে সম্মত হয়েছেন।

২০২০ সালে আন্তর্জাতিক বিচার আদালতে ইরানের আইনজীবীরা যুক্তিতর্ক উপস্থাপন করে বলেছিলেন, মার্কিন সরকার তেহরানের বিরুদ্ধে নিষেধাজ্ঞা পুনর্বহাল করে ১৯৫৫ সালে দু’দেশের মধ্যে স্বাক্ষরিত অর্থনৈতিক সম্পর্ক বিষয়ক চুক্তি লঙ্ঘন করেছে।

২০১৮ সালের ৩ অক্টোবর আন্তর্জাতিক বিচার আদালত ইরানের বিরুদ্ধে আমেরিকার একতরফা অর্থনৈতিক নিষেধাজ্ঞা স্থগিতের নির্দেশ দিয়েছিল।  বিশেষ করে ইরানে মানবিক পণ্য সরবরাহকে নিষেধাজ্ঞার বাইরে রাখতে ওয়াশিংটনের প্রতি আহ্বান জানিয়েছিল ওই আদালত।

আরও পড়ুন:


রাজধানীর যেসব এলাকায় গ্যাস থাকবে না আজ

গাজীপুরে রাতভর ৫ জনের গণধর্ষণের শিকার অভিনয়শিল্পী

জান্নাতে বেশি মেহমানদারি পেতে চাইলে যে আমল করবেন

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর সঙ্গে পাঁচ প্রভাবশালী কূটনীতিক বৈঠক


২০১৫ সালে ইরান ও ছয় জাতিগোষ্ঠীর মধ্যে সই হওয়া পরমাণু সমঝোতা থেকে আমেরিকা ২০১৮ সালের মে মাসে বের হয়ে যায়।  এরপর ওয়াশিংটন তেহরানের বিরুদ্ধে একতরফা অর্থনৈতিক নিষেধাজ্ঞা আরোপ করলে ওই বছরেরই জুলাই মাসে ইরান নেদারল্যান্ডের হেগে অবস্থিত আন্তর্জাতিক বিচার আদালতে মামলা দায়ের করে।  ৩ অক্টোবর জাতিসংঘের সর্বোচ্চ বিচার আদালত ইরানের পক্ষে সেই মামলার রায় দেয়।

কিন্তু সে রায় বাস্তবায়ন না করে আমেরিকা উল্টো এই বিচার প্রক্রিয়ার ন্যায্যতা নিয়ে প্রশ্ন তুলে বিচারের শুনানি স্থগিত রাখার আবেদন জানিয়েছিল। সূত্র: পার্সটুডে।

news24bd.tv আহমেদ

মন্তব্য

পরবর্তী খবর

টিকা নেয়ার পরও করোনা আক্রান্ত হয়ে মারা গেলেন কুয়েতের অভিনেতা

অনলাইন ডেস্ক

টিকা নেয়ার পরও করোনা আক্রান্ত হয়ে মারা গেলেন কুয়েতের অভিনেতা

করোনাভাইরাসের টিকার প্রথম ডোজ গ্রহণের কয়েকদিন পরেই মারা গেলেও কুয়েতের অভিনেতা মিশারি আল-বালাম। তার পরিবার থেকে এ খবর নিশ্চিত করা হয়েছে।

গত শনিবার থেকে তিনি কুয়েতের জাবের আল-আহমাদ আল-জাবের আস-সাবা হাসপাতলের ইনটেনসিভ কেয়ার ইউনিটে ভর্তি ছিলেন। শেষ পর্যন্ত বৃহস্পতিবার তিনি মারা যান।

৪৮ বছর বয়সী অভিনেতা মিশারি গত ১১ ফেব্রুয়ারি সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যম ইনস্টাগ্রামে একটি ভিডিও শেয়ার করেন যাতে দেখা যায় ফাইজার-বায়োনটেকের টিকার প্রথম ডোজ গ্রহণ করছেন তিনি এবং তার ফলোয়ারদেরকেও টিকা নিতে আহ্বান জানাচ্ছেন।

ফাইজারের টিকা নেয়ার পরেও তিনি করোনা আক্রান্ত হয়েছেন এবং তার স্বাস্থ্যের অবস্থা দিন দিন অবনতি হতে থাকে। পরে ১৭ ফেব্রুয়ারি তিনি ইনস্টাগ্রামে দেয়া আলাদা একটি পোস্টে জানান, ফাইজারের টিকা নেয়ার পরেও তার স্বাস্থ্যের এই অবনতি ঘটেছে।


৭৬ জন সৌদি নাগরিকের উপর মার্কিন নিষেধাজ্ঞা

গাড়িতে অগ্নিকান্ড, রেকর্ড সংখ্যক গাড়ি উঠিয়ে নিচ্ছে হুন্দাই

সানি লিওনের জায়গা নিলেন আবিরা! (ভিডিও)

অন্য পুরুষের সাথে সম্পর্ক নিয়ে সন্দেহ, স্ত্রীকে খুন


চলতি মাসের প্রথম দিকে অন্য একটি রিপোর্টে বলা হয়েছে, ফাইজার ও মডার্নার টিকা গ্রহণের পর আমেরিকায় ৪০ ব্যক্তির মধ্যে নতুন ধরনের ‘ইমিউন ডিসঅর্ডার’ দেখা দিয়েছে যা রক্তে আক্রমণ করছে। এই ৪০ জনের মধ্যে এক রোগী মারা গেছেন।

১৯৯১ সালে  মিশারি আল-বালাম অভিনয়ের ক্যারিয়ার শুরু করেন এবং ৫৬টি মঞ্চ নাটক ও সিরিজে অভিনয় করেছেন তিনি।

news24bd.tv / নকিব

মন্তব্য

পরবর্তী খবর

৭৬ জন সৌদি নাগরিকের উপর মার্কিন নিষেধাজ্ঞা

অনলাইন ডেস্ক

৭৬ জন সৌদি নাগরিকের উপর মার্কিন নিষেধাজ্ঞা

সৌদি আরবের সাবেক এক কর্মকর্তা ও রাজকীয় একটি বাহিনীর ওপর আর্থিক নিষেধাজ্ঞার পাশাপাশি দেশটির ৭৬ নাগরিকের ওপর ভিসা নিষেধাজ্ঞা দিয়েছে যুক্তরাষ্ট্র। সাংবাদিক জামাল খাসোগি হত্যার ঘটনার সূত্র ধরে এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়।

খাসোগি হত্যায় সৌদি যুবরাজ অনুমোদন দিয়েছিলেন বলে মার্কিন গোয়েন্দা প্রতিবেদন প্রকাশিত হওয়ার পরদিনই রিয়াদের বিরুদ্ধে এ পদক্ষেপ নিল ওয়াশিংটন ।

গোয়েন্দা প্রতিবেদনে মোহাম্মদ বিন সালমানকে ভিন্নমতাবলম্বী সাংবাদিক খুনে দায়ী করা হলেও শুক্রবার যুক্তরাষ্ট্র সরাসরি তার ওপর কোনো নিষেধাজ্ঞা দেয়নি।


বস্তিবাসীকে না জানিয়েই ভ্যাকসিনের ট্রায়াল

গাড়িতে অগ্নিকান্ড, রেকর্ড সংখ্যক গাড়ি উঠিয়ে নিচ্ছে হুন্দাই

সানি লিওনের জায়গা নিলেন আবিরা! (ভিডিও)

৭ সন্তান নিতে স্বেচ্ছায় দেড় লাখ ডলার জরিমানা গুনলেন চীনা দম্পতি


মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী অ্যান্থনি ব্লিংকিন বলেন, যুক্তরাষ্ট্র সাংবাদিক জামাল খাসোগির নামে একটি আইন প্রণয়ন করেছে। যার নাম দেওয়া হয়েছে, খাসোগি আইন। যেসব বিদেশি ভিন্নমতাবলম্বীদের হুমকি দেবে বা সাংবাদিক এবং তাদের পরিবারকে হয়রানি করবে; এই আইনের অধীন তারা যুক্তরাষ্ট্রে প্রবেশ করতে পারবেন না।

এই আইনে ৭৬ জন সৌদি নাগরিককে কালো তালিকাভুক্ত করা হয়েছে।

news24bd.tv / নকিব

মন্তব্য

পরবর্তী খবর

রমজানে মুসলিমদের রাতে টিকা দেওয়ার পরিকল্পনা ব্রিটেনের

অনলাইন ডেস্ক

রমজানে মুসলিমদের রাতে টিকা দেওয়ার পরিকল্পনা ব্রিটেনের

রমজান মাসে মুসলিম নগরিকদের জন্য রাতে করোনাভাইরাসের টিকা দেওয়ার পরিকল্পনা করছে ব্রিটেন। গতকাল শুক্রবার ব্রিটেনের সংবাদমাধ্যম ডেইলি টেলিগ্রাফ এই খবর প্রকাশ করেছে।

ব্রিটেনে করোনাভাইরাসের সংক্রমণের দ্বিতীয় ধাপে এশীয় সম্প্রদায় বিশেষ করে বাংলাদেশি ও পাকিস্তানিদের মধ্যে মৃত্যুর হার সর্বোচ্চ। করোনার টিকা প্রদান অব্যাহত রেখে মৃত্যুহার কমিয়ে আনতে চায় ব্রিটেন, যে কারণে এ সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে।


বস্তিবাসীকে না জানিয়েই ভ্যাকসিনের ট্রায়াল

গাড়িতে অগ্নিকান্ড, রেকর্ড সংখ্যক গাড়ি উঠিয়ে নিচ্ছে হুন্দাই

সানি লিওনের জায়গা নিলেন আবিরা! (ভিডিও)

৭ সন্তান নিতে স্বেচ্ছায় দেড় লাখ ডলার জরিমানা গুনলেন চীনা দম্পতি


চাঁদ দেখা সাপেক্ষে আগামী ১২ এপ্রিল ব্রিটেনে রমজান শুরু হওয়ার কথা রয়েছে। রমজানের সময় রাতে টিকা প্রদানের বিষয়টিকে স্বাগত জানিয়েছে ব্রিটেনের মুসলিম সম্প্রদায়।

news24bd.tv / নকিব

মন্তব্য

পরবর্তী খবর

ইহুদিদের উৎসব উপলক্ষে ইব্রাহিমি মসজিদের আজানে ইসরায়েলের নিষেধাজ্ঞা

অনলাইন ডেস্ক

ইহুদিদের উৎসব উপলক্ষে ইব্রাহিমি মসজিদের আজানে ইসরায়েলের নিষেধাজ্ঞা

ইহুদিদের পুরিম উৎসবের অজুহাতে সাময়িকভাবে ফিলিস্তিনের অধিকৃত পশ্চিম তীরের হেবরুন এলাকার প্রাচীনতম ইব্রাহিমি মসজিদের আজানে নিষেধাজ্ঞা জারি করেছে ইসরায়েলে। 

ইব্রাহিমি মসজিদের প্রধান শায়খ হাফজি আবু সানিনা বলেন, গত ২৫ ফেব্রুয়ারি বৃহস্পতিবার সন্ধ্যার পর থেকে এ নিষেধাজ্ঞা কার্যকর হয় এবং শনিবার ২৭ ফেব্রুয়ারি সন্ধ্যা পর্যন্ত তা অব্যাহত থাকবে। এ নিষেধজ্ঞা আন্তর্জাতিক আইন প্রদত্ত ধর্মীয় উপাসনার স্বাধীনতাকে লঙ্ঘন করে। 

দীর্ঘ দিন যাবত প্রাচীন স্থাপনা হিসেবে ইব্রাহিমি মসজিদের ওপর নানা রকম বিধি-নিষেধ জারি করে আসছে ইসরায়েলি দখলদার সেনারা। জাতিসংঘ সংশ্লিষ্ট বিভিন্ন সংস্থা ও আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়কে পবিত্র নগরীর প্রাচীন ও ঐতিহ্যবাহি স্থাপনা সংরক্ষণে এগিয়ে আসার আহ্বান জানিয়েছে ফিলিস্তিনের পররাষ্ট্রমন্ত্রণালয়।

আরও পড়ুন:


শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খোলার বিষয়ে সন্ধ্যায় বৈঠকে বসবে ৬ মন্ত্রণালয়

নির্বাচনি পরিবেশ নষ্ট করে অতি উৎসাহী প্রার্থী ও নেতারা: ইসি শাহাদাত

৮ মাসের মধ্যে স্বর্ণের দাম সর্বনিম্ন

‘নিষেধাজ্ঞা না তুললে আইএইএ’র ক্যামেরা খুলে ফেলা হবে’


এর আগে পূর্ব জেরুজালেমের পবিত্র আল আকসা মসজিদে প্রবেশে পশ্চিম তীর অধিবাসীদের ওপর আরোপিত ইসরায়েলের নিষেধাজ্ঞায় তীব্র নিন্দা জানিয়েছিল ফিলিস্তিন পররাষ্ট্রমন্ত্রণালয়। 

অনেক দিন যাবত ইব্রাহিমি মসজিদের পুন:নির্মাণ কাজে নানা রকম বিধিনিষেধ আরোপ করে আসছে ইসরায়েলি দখলদার সেনারা। ফিলিস্তিনি আরবদের উচ্ছেদ করে পশ্চিম তীরের ঐতিহ্যবাহি হেবরুন নগরীকে ইহুদিদের জন্য উম্মুক্ত করার কাজ করছে ইসরায়েলি দখলদার বাহিনী। 

১৯৯৪ সালে ইব্রাহিমি মসজিদে ইসরায়েলি দখলদার সেনারা গণহত্যা চালায়। এ সময় ২৯ মুসল্লিকে নামাজরত অবস্থায় হত্যা করা হয় এবং ১৫০ জনের বেশি আহত হয়। সূত্র : মিডল ইস্ট মনিটর

news24bd.tv আহমেদ

মন্তব্য

পরবর্তী খবর

কারাগার থেকে পালিয়েছে ৪ শতাধিক কয়েদী, নিহত ২৫

অনলাইন ডেস্ক

কারাগার থেকে পালিয়েছে ৪ শতাধিক কয়েদী, নিহত ২৫

হাইতির রাজধানীর নিকটস্থ একটি কারাগার থেকে চার শতাধিক বন্দি পালিয়ে গেছে। পালিয়ে যাওয়ার সময় নিহত হয়েছে কারাগারের পরিচালকসহ ২৫ জন।

এদিকে, কারাগার থেকে পালিয়ে যাওয়ার কয়েক ঘণ্টা পরেই ক্ষমতাবান গ্যাং নেতা আর্নেল জোসেফ নিহত হয়েছেন।

পুলিশের মুখপাত্র গেরি ডেসরোজিয়ার্স জানিয়েছেন, মৃত্যুর পর পায়ে বেড়ি পরা অবস্থায় তাকে পাওয়া গেছে। একটি মোটর সাইকেলে করে তিনি চেকপয়েন্ট দিয়ে পালানোর চেষ্টা করেন।

২০১৯ সালে গ্রেফতার হওয়ার আগ পর্যন্ত হাইতির মোস্ট ওয়ান্টেড গ্যাং নেতা হিসেবে পরিচিত ছিলেন জোসেফ। কিভাবে কারাগার থেকে শত শত বন্দি পালিয়ে গেল তা এখনও পরিষ্কার নয়।

প্রত্যক্ষদর্শীরা বলছেন, বৃহস্পতিবার দুপুরের দিকে তীব্র গোলাগুলির শব্দ শোনা যায় এবং এর পরপরই বন্দিরা পালাতে শুরু করে।


বস্তিবাসীকে না জানিয়েই ভ্যাকসিনের ট্রায়াল

গাড়িতে অগ্নিকান্ড, রেকর্ড সংখ্যক গাড়ি উঠিয়ে নিচ্ছে হুন্দাই

সানি লিওনের জায়গা নিলেন আবিরা! (ভিডিও)

৭ সন্তান নিতে স্বেচ্ছায় দেড় লাখ ডলার জরিমানা গুনলেন চীনা দম্পতি


কারাগারের কাছাকাছি থাকা এক স্টাফ জানান, কারাগার থেকে পালিয়ে আসা বন্দিরা জোর করে তাদের কাছ থেকে কাপড়-চোপড় নিয়ে গেছেন।

এএফপি নিউজ এজেন্সি জানিয়েছে, ক্রয়িক্স-দেস-বুকেটস কারাগারটি ২০১২ সালে চালু হয়। এই কারাগারে ৮৭২ জন বন্দিকে রাখা সম্ভব। কিন্তু সেখানে ধারণ ক্ষমতার বাইরে বন্দিদের রাখা হয়েছিল।

news24bd.tv / নকিব

মন্তব্য

পরবর্তী খবর