মেঘনা গ্রুপ গিলছে মেঘনা, নদীরক্ষা কমিশনের প্রতিবেদনে তোলপাড়

অনলাইন ডেস্ক

মেঘনা গ্রুপ গিলছে মেঘনা, নদীরক্ষা কমিশনের প্রতিবেদনে তোলপাড়

মেঘনা গ্রুপের নদী চুরির নিয়ে জাতীয় নদীরক্ষা কমিশন একটি প্রতিবেদনে প্রকাশ করেছে। এ ঘটনা নিয়ে দেশের একটি জাতীয় দৈনিকে খবর প্রকাশিত হয়। মেঘনা গ্রুপের নদী দখলের বিষয়টি তোলপাড় তুলেছে। জাতীয় নদী রক্ষা কমিশনের গঠিত ১২ সদস্য তদন্ত কমিটি দীর্ঘ দুই বছর সরেজমিনে তদন্ত করে প্রতিবেদনটি গত ১৪ জানুয়ারি মন্ত্রিপরিষদ বিভাগে জমা দেয়।

জাতীয় নদীরক্ষা কমিশনের ওই প্রতিবেদনে নানা তথ্য উঠে এসেছে। সেখানে বলা হয়েছে, এই শিল্পগ্রুপ বছরের পর বছর প্রভাব খাটিয়ে ও মিডিয়া ব্যবহারের মাধ্যমে নদী গিলে ফেলেছে। শিল্প প্রতিষ্ঠান গড়ে তুলতে গিয়ে মেঘনা গ্রুপের ৭টি প্রতিষ্ঠান প্রবাহমান মেঘনা নদীর ২৪১ দশমিক ২৭ একর জমি অবৈধ দখল করে নিয়েছে। এর মধ্যে ৮৪ দশমিক ৭৭ একর নদীর জমিতে মূল ভবন নির্মাণ করেছে তারা। আবার ৫ দশমিক ৫ একর জমিতে নির্মাণ করেছে নিজস্ব রাস্তা। অবৈধভাবে দখল করা এসব জমি এক মাসের মধ্যে উদ্ধার করে নদীর প্রবাহ ফিরিয়ে আনার জন্য নারায়ণগঞ্জ জেলা প্রশাসক, বিআইডব্লিউটিএ ও পানি উন্নয়ন বোর্ডকে নির্দেশ দিয়েছে জাতীয় নদী রক্ষা কমিশন। 

এ ছাড়া নদী রক্ষায় ব্যর্থ সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের বিরুদ্ধে কার্যকর ব্যবস্থা গ্রহণেরও সুপারিশ করেছে জাতীয় নদী কমিশন। বিশেষজ্ঞদের মতে, কমিশনের সুপারিশ মোতাবেক এক্ষুণি ব্যবস্থা নিতে না পারলে দখলদারদের কবল থেকে নদী উদ্ধার করা কঠিন হয়ে পড়বে। বিশেষ করে মেঘনা নদীর ক্ষেত্রে এটি আরো কঠিন হবে। কারণ এর আগে নারায়ণগঞ্জ জেলা প্রশাসন ও পরিবেশ অধিদপ্তরের অভিযানে মেঘনা নদী দখলদকারি মদীনা গ্রুপের অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ করা হয়েছে। কিন্তু রহস্যজনক কারণে মেঘনা গ্রুপের দখলকৃত নদীর জায়গা উদ্ধার করা হয়নি। 

জাতীয় নদী রক্ষা কমিশনের সাবেক চেয়ারম্যান ড. মজিবুর রহমান হাওলাদার স্বাক্ষরিত ওই তদন্ত প্রতিবেদনে বলা হয়, নারায়গঞ্জ জেলার সোনারগাঁ উপজেলা এলাকায় মেঘনা গ্রুপ প্রবাহমান মেঘনা নদী দখলের বিষয়ে সরেজমিন তদন্ত প্রতিবেদন পেশ করার জন্য ১২ সদস্য বিশিষ্ট একটি কমিটি গঠন করা হয়। কমিটির সকল সদস্য তদন্ত কার্যক্রম শুরু করে কিন্তু দুর্ভাগ্যবত ২০২০ সালের মার্চ মাস থেকে করোনার প্রাদুর্ভাবের কারণে কমিটির তদন্ত কার্যক্রম কিছুটা ঝিমিয়ে পড়ে। পরে তা আবারো কার্যক্রম শুরু করে তদন্ত কমিটি। 

প্রতিবেদনে বলা হয়, ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের পাশে মেঘনা শাখা নদী মারাখালী নদীর অংশের উত্তর ও দক্ষিণ অংশের পাড় থেকে নদীর ভেতরে প্রায় দুই কিলোমিটার পর্যন্ত দখল করার অভিযোগ উঠেছে। মেঘনা নদীর অন্তত ৩০০ বিঘা জমি দখল করেছে মেঘনা গ্রুপ। দখলকৃত স্থানে ইতোমধ্যে গড়ে তোলা হয়েছে মেঘনা গ্রুপের মালিকানাধীন ফ্রেস টি ফ্রেস সুগার মিলস, পেপার মিলস, কেমিক্যাল ফ্যাক্টারিসহ বিভিন্ন ধরনের প্রতিষ্ঠান। ভূমি দস্যুতার এই প্রতিযোগিতায় পিঠিয়ে নেই মেঘনার পারিবারিক প্রতিষ্ঠানগুলোও। গ্রুপের ভাগ্নিজামাই বলে পরিচিত আল মোস্তফার ব্যবসা প্রতিষ্ঠান গ্রুপ ও নদী দখল করে ব্যাগের কারখানা গড়ে তুলেছেন। 

যা বিগত ২০১০ সাল থেকে ধাপে ধাপে এবং একটু একটু করে এসব জমি দখল করে নেয়া হয়। মেঘনা গ্রুপের এমন অবৈধ দখলে ভরাট হওয়ায় সাধারণ গতিপথ হারাতে বসেছে প্রবাহমান মেঘনা। নদী ডাকাতির এক কর্মকাণ্ডে অস্তিত্ব সংকটের হুমকিতে আছে আশেপাশের নদী সংলগ্ন বিভিন্ন নিচু এলাকা ও চরে জমিগুলো। আনন্দ বাজার এলাকায় মেঘনা নদীর প্রায় ৫০০ ফুট জায়গা দখল করে মাটি ভরাট করেছে মেঘনা গ্রুপ এবং প্রায় ৫০ একর জমি। পিরোজপুর ইউনিয়নের ছয়হিস্যা জৈনপুরসহ বিভিন্ন এলাকায় ১০০ বিঘা জমি গ্রাস করেছে। আষাড়িয়ার চড় ও ঝাউচর এলাকায় নদীর অধিকাংশ বালু ভরাট করেছে। নদীর প্রায় ৭০০ ফুট দখল করে সীমানা প্রাচীর নির্মাণ করেছে মেঘনা গ্রুপ। 

ওই জাতীয় দৈনিকের প্রতিবেদনে বলা হয়, নারায়ণগঞ্জের জেলা প্রশাসক মোস্তাইন বলেন, জাতীয় নদীরক্ষা কমিশনের প্রতিবেদনটি আমরা এখনো পাইনি। তবে গত ২৮ জানুয়ারি জাতীয় নদীরক্ষা কমিশনের সাথে এ বিষয়ে সভা হয়েছে। মেঘনা গ্রুপের নদী দখল প্রসঙ্গে তিনি বলেন, এ বিষয়ে ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের নির্দেশনার অপেক্ষায় আছি। নির্দেশনা পাওয়া মাত্রই ব্যবস্থা নেয়া হবে।

সোনারগাঁও উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা আতিকুল ইসলামের বরাত দিয়ে প্রতিবেদনে বলা হয়, এরই মধ্যে জেলা প্রশাসক স্যারের নির্দেশে মদিনা গ্রুপের দখলে থাকা নদী ও নদীর তীরবর্তি সরকারি সম্পত্তি উদ্ধার করা হয়েছে। তিনি বলেন, শুধু মেঘনা গ্রুপের দখলে থাকাই নয় ও অন্যান্য শিল্প প্রতিষ্ঠানের দখলের তালিকা করে জেলা প্রশাসকের নির্দেশক্রমে নদীর জায়গা উদ্ধারে ব্যবস্থা নেয়া হবে।

মেঘনা গ্রুপের দখলে থাকা নদীর জায়গা দখলমুক্ত করতে একাধিকবার অভিযান শুরু হলেও মাঝপথে তা আটকে গেছে। এরপর আরে সেখানে অভিযান পরিচালিত হয়নি। এতে করে অন্যান্য দখলদাররাও ছাড় পেয়ে গেছে বলে প্রতিবেদনে জানানো হয়েছে। সূত্র: কালের কণ্ঠ। 

মন্তব্য

পরবর্তী খবর

করোনা ভাইরাসের টিকা নিলেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা

নিজস্ব প্রতিবেদক

করোনা ভাইরাসের টিকা নিলেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা

করোনা ভাইরাসের টিকা নিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। আজ বৃহস্পতিবার (০৪ মার্চ) বিকালে তিনি করোনার টিকার প্রথম ডোজ নিয়েছেন বলে জানিয়েছেন, প্রধানমন্ত্রীর প্রেস সচিব ইহসানুল করিম।


ছেলের প্রেমিকাকে রাত জেগে পাহারা দিলেন বাবা

পানি পানে আসা কিশোরীকে ধর্ষণের পর হত্যা ও মাটিচাপা

কালো পোশাকে নতুন এক জয়া

সৌদি যাত্রীর ছোট ব্যাগ থেকে মিলল ৫ কেজি স্বর্ণ


news24bd.tv / কামরুল 

মন্তব্য

পরবর্তী খবর

ফুটপাত থেকে মা ও নবজাতককে হাসপাতালে ভর্তি করল পুলিশ

অনলাইন ডেস্ক

ফুটপাত থেকে মা ও নবজাতককে হাসপাতালে ভর্তি করল পুলিশ

চট্টগ্রাম নগরের বন্দর থানা এলাকায় সদ্যপ্রসূত সন্তানসহ মানসিক ভারসাম্যহীন এক নারীকে উদ্ধার করে হাসপাতালে ভর্তি করেছে বন্দর থানার সহকারী উপ-পরিদর্শক (এএসআই) মো. আমান।

বৃহস্পতিবার (৪ মার্চ) সকাল ৮টার দিকে তাদের উদ্ধার করে হাসপাতালে ভর্তি করেন বন্দর থানার এএসআই মো. আমান।


গুপ্তচরবৃত্তির ইসরাইলি জাহাজে ইরানের হামলা!

ওটিটি প্ল্যাটফর্মেও ডাবল ব্লকবাস্টার দৃশ্যম টু!

টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ নিয়ে মুখোমুখি অবস্থানে পাক-ভারত!

অপো নতুন ফোনে থাকছে ১২ জিবি র‌্যাম


পুলিশ জানায়, আজ সকালে বন্দর থানা থেকে অদূরে ফুটপাতে মানসিক ভারসাম্যহীন এক নারীকে সন্তান প্রসব করতে দেখে থানায় খবর দেন স্থানীয়রা। পরে বন্দর থানার এএসআই আমান গিয়ে দ্রুত তাদের উদ্ধার করে চট্টগ্রাম মা ও শিশু মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করেন।

বন্দর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) নিজাম উদ্দিন বলেন,  বর্তমানে তারা মা ও শিশু মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন। নবজাতক ও মা সুস্থ আছেন।

news24bd.tv/আলী

মন্তব্য

পরবর্তী খবর

বাংলাদেশের অগ্রগতি কেউ থামিয়ে রাখতে পারবে না: প্রধানমন্ত্রী

শাহ আলী জয়

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন বাংলাদেশের অগ্রগতি কেউ থামিয়ে রাখতে পারবে না। গবেষক এবং বিজ্ঞান শিক্ষার্থীদের ফেলোশিপ প্রদান অনুষ্ঠানে এ কথা বলেন তিনি। প্রধানমন্ত্রী বলেন শিক্ষার পাশাপাশি গবেষনাকেও সর্বোচ্চ গুরুত্ব দিচ্ছে সরকার।

জ্ঞান-বিজ্ঞানে উৎকর্ষ অর্জনের লক্ষ্যে বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয় এবং গবেষনা প্রতিষ্ঠানের গবেষক শিক্ষক বিজ্ঞানী এবং বিজ্ঞান শিক্ষার্থীদের দেয়া হয় বঙ্গবন্ধু বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি ফেলোশিপ এবং এনএসটি ফেলোশিপ। করোনা বাস্তবতায় এ বছর ভার্চুয়াল প্লাটফর্মে যুক্ত হয়ে ফেলোশিপের অর্থ গবেষকদের হাতে তুলে দেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।


আমাকে ‘বলির পাঁঠা’ বানানো হয়েছে: সামিয়া রহমান

প্রথমবারের মতো দেশে পালিত হচ্ছে টাকা দিবস

ইয়ার্ড সেলে মিললো ৪ কোটি টাকার মূল্যবান চীনামাটির পাত্র!

এই নচিকেতা মানে কী? আমি তোমার ছোট? : মঞ্চে ভক্তকে নচিকেতার ধমক (ভিডিও)


অনুষ্ঠানে প্রধানমন্ত্রী বলেন, জণগনের অর্থে পরিচালিত গবেষণা যেন জনকল্যাণে লাগে তা গবেষকদের তা নিশ্চিত করতে হবে।

আলোচনায় উঠে আসে বৈশ্বিক মহামারী করোনা প্রসঙ্গ। প্রধানমন্ত্রী বলেন, সফল ভাবেই করোনা সংক্রমন মোকাবিলা করেছে বাংলাদেশ।

প্রধানমন্ত্রী জানান জ্ঞানের নানা ক্ষেত্র চর্চার জন্য সারাদেশে বিজ্ঞান প্রযুক্তি, কৃষি, চিকিৎসা সহ বিশেষায়িত বিশ্ববিদ্যালয় স্থাপন করা হয়েছে।

news24bd.tv / নকিব

মন্তব্য

পরবর্তী খবর

দেশে করোনায় মৃত্যু-শনাক্তের সর্বশেষ তথ্য

অনলাইন ডেস্ক

দেশে করোনায় মৃত্যু-শনাক্তের সর্বশেষ তথ্য

দেশে গত ২৪ ঘণ্টায় করোনায় আরও ৭ জনের মৃত্যু হয়েছে। এ নিয়ে মৃতের সংখ্যা দাঁড়াড়িয়েছে ৮ হাজার ৪৩৫ জনে। নতুন করে রোগী শনাক্ত হয়েছে ৬১৯ জন।

মোট শনাক্ত ৫ লাখ ৪৮ হাজার ৫৪৯ জনে দাঁড়িয়েছে। ২৪ ঘণ্টায়  ৮৪১ জন এবং এখন পর্যন্ত ৫ লাখ  ৪৬৮ জন সুস্থ হয়ে উঠেছেন।


ছেলের প্রেমিকাকে রাত জেগে পাহারা দিলেন বাবা

পানি পানে আসা কিশোরীকে ধর্ষণের পর হত্যা ও মাটিচাপা

কালো পোশাকে নতুন এক জয়া

সৌদি যাত্রীর ছোট ব্যাগ থেকে মিলল ৫ কেজি স্বর্ণ


আজ বৃহস্পতিবার স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য  জানানো হয়েছে।

এতে আরও জানানো হয়, ২১৯টি পরীক্ষাগারে গত ২৪ ঘণ্টায় ১৬ হাজার ১৪৪টি নমুনা সংগ্রহ এবং ১৫ হাজার ৯৮৫টি নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছে। এখন পর্যন্ত ৪১ লাখ ৫ হাজার ৩২১টি নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছে।

news24bd.tv / কামরুল 

মন্তব্য

পরবর্তী খবর

মুশতাকের ‘মৃত্যু স্বাভাবিক’ বলছে তদন্ত কমিটি

অনলাইন ডেস্ক

মুশতাকের ‘মৃত্যু স্বাভাবিক’ বলছে তদন্ত   কমিটি

কারাগারে বন্দি অবস্থায় লেখক মুশতাক আহমেদের মৃত্যুর পর স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়, গাজীপুরের জেলা প্রশাসন ও কারা অধিদফতরের গঠিত কমিটির তদন্ত প্রতিবেদনে এই মৃত্যুকে ‘ন্যাচারাল ডেথ (স্বাভাবিক মৃত্যু)’ উল্লেখ করা হয়েছে বলে জনিয়েছেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল।

আজ বৃহস্পতিবার (০৪ মার্চ) দুপুরে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে তিনি এ কথা জানান।

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, ময়নাতদন্তে যেটা আসছে, সেটাতেও কোনও আঘাতের চিহ্ন তার গায়ে পায়নি। এবং পোস্টমর্টেমে প্রাথমিকভাবে ডাক্তাররা যেসব অভিমতগুলো করেছেন, এগুলো কিন্তু লিখিত অভিমত নয়। পোস্টমর্টেমের রিপোর্টটা আসলে আমরা চূড়ান্তভাবে জানতে পারবো।

গত বছরের মে মাসে লেখক মুশতাক আহমেদ, কার্টুনিস্ট আহমেদ কবির কিশোর, রাষ্ট্রচিন্তার সদস্য দিদারুল ইসলাম ও ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জের পরিচালক মিনহাজ মান্নানকে গ্রেফতার করে র‌্যাব।


গুপ্তচরবৃত্তির ইসরাইলি জাহাজে ইরানের হামলা!

ওটিটি প্ল্যাটফর্মেও ডাবল ব্লকবাস্টার দৃশ্যম টু!

টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ নিয়ে মুখোমুখি অবস্থানে পাক-ভারত!

অপো নতুন ফোনে থাকছে ১২ জিবি র‌্যাম


সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ব্যবহার করে রাষ্ট্রের বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্রমূলক কথাবার্তা ও গুজব ছড়ানোর অভিযোগে এ সময় মোট ১১ জনের বিরুদ্ধে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে মামলা করে র‌্যাব। সেই মামলায় দুজন জামিনে মুক্তি পেলেও মুশতাক ও কিশোরের জামিন আবেদন ছয় বার নাকচ হয়েছিলো। ১০ মাস পর জামিনে আজ বৃহস্পতিবার কিশোর মুক্তি পান।

গত ২৫ ফেব্রুয়ারি গাজীপুরের কাশিমপুর হাইসিকিউরিটি কেন্দ্রীয় কারাগারে বন্দি অবস্থায় লেখক মুশতাক মারা যান। এই মৃত্যু নিয়ে সারাদেশে সমালোচনার ঝড় ওঠে।

মুশতাক আহমেদের মৃত্যুতে কারা কর্তৃপক্ষের কোনো ধরনের গাফিলতি ছিল কি-না, যদি থাকে তবে দায়ী ব্যক্তিদের চিহ্নিত করতে গত ২৭ ফেব্রুয়ারি পাঁচ সদস্যের তদন্ত কমিটি গঠন করে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের সুরক্ষা সেবা বিভাগ।

এছাড়া গাজীপুর জেলা প্রশাসন ও কারা অধিদফতরের পক্ষ থেকেও তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়। সবগুলো কমিটিই ইতোমধ্যে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে তদন্ত প্রতিবেদন জমা দিয়েছে।

news24bd.tv/আলী

মন্তব্য

পরবর্তী খবর