নটর ডেম কলেজের সাবেক অধ্যক্ষ ফাদার পিশাতোর পরলোকগমন

অনলাইন ডেস্ক

নটর ডেম কলেজের সাবেক অধ্যক্ষ ফাদার পিশাতোর পরলোকগমন

নটর ডেম কলেজের সাবেক অধ্যক্ষ, পদার্থ বিজ্ঞানের অধ্যাপক রেভা: ফাদার জে এস পিশাতো সিএসসি আর নেই। বৃহস্পতিবার (৪ ফেব্রুয়ারি) সকাল ৮টায় না ফেরার দেশে পাড়ি দেন তিনি।

তাকে শ্রদ্ধা জানাতে বৃহস্পতিবার (৪ ফেব্রুয়ারি) দুপুর তিনটায় নটর ডেম কলেজ প্রাঙ্গণে এবং সন্ধ্যা ৬টায় রমনা ক্যাথলিক চার্চে নেওয়া হবে।

শুক্রবার (৫ ফেব্রুয়ারি) সকাল ৯টায় তার মরদেহ ঢাকার তেজগাঁও চার্চে নেওয়া হবে। সকাল ১১টায় নেওয়া হবে গাজীপুরে এবং সেখানেই তাকে সমাহিত করা হবে।

আরও পড়ুন:


পরকালের যে বিশ্বাসে মমির মুখে সোনার জিভ

টাচ ছাড়াই আনলক হবে আইফোন

কৃষকদের জঙ্গি আখ্যায়িত করলেন কঙ্গনা

ফেসবুক বন্ধ মিয়ানমারে


 

কৃতী এ শিক্ষক সম্পর্কে নটর ডেম কলেজের বাংলা বিভাগের প্রধান অধ্যাপক মারলিন ক্লারা পিনেরু বলেন, ‘ফাদার জে এস পিশাতো শুধু একজন শিক্ষক, পুরোহিত, অধ্যক্ষ নয় বরং বলা যায় তিনি একটি প্রতিষ্ঠান ছিলেন। ৮৭ বছর বয়সেও নটর ডেম ইউনিভারসিটির কোষাধ্যক্ষের দায়িত্বে ছিলেন।’

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে নটর ডেম কলেজের সাবেক শিক্ষার্থীদের ভেরিফায়েড পেইজে ‘শিক্ষাক্ষেত্রের কিংবদন্তি ফাদার যোসেফ এস, পিশাতো, সিএসসি’ শীর্ষক একটি পোস্ট দেওয়া হয়েছে।

news24bd.tv তৌহিদ

মন্তব্য

পরবর্তী খবর

চাঁদপুরে পরিত্যক্ত ইটভাটায় চাষ হচ্ছে বিদেশি চেরি টমেটো

অনলাইন ডেস্ক

চাঁদপুরে পরিত্যক্ত ইটভাটায় চাষ হচ্ছে বিদেশি চেরি টমেটো

বিদেশি চেরি টমেটো চাষ হচ্ছে চাঁদপুরে। সদর উপজেলার শাহতলী এলাকার হেলাল উদ্দিন নামে এক চাষি ফ্রুটস ভ্যালি নামে খামার গড়ে তুলেছেন। সেখানে পরিত্যক্ত ইটভাটায় চাষ হচ্ছে চেরি টমেটো।

চেরি চাষি হেলাল উদ্দিন জানান, এটি শীতপ্রধান দেশের ফসল হলেও বাংলাদেশের আবহাওয়া ভাল হওয়ায় ফলন হয়েছে বেশ ভাল। হলুদ ও লাল রংয়ের ম্যাগলিয়া রোসার বাম্পার ফলন হয়েছে বলেও জানান তিনি।

তিনি আরও বলেন, তাদের পরিত্যক্ত ইটভাটায় এই খামার গড়ে তোলা হয়েছে। “এটি অতি উচ্চফলনশীল সবজি। দীর্ঘ সময় এর ফলন পাওয়া যায়। গাছে সহজে পচন ধরে না। বাজারে ব্যাপক চাহিদার কারণে চাষ করে কৃষকরা লাভবান হতে পারেন।”

পরীক্ষামূলক চেরি টমেটোর চাষ হয়েছে সম্পূর্ণ অর্গানিক পদ্ধতিতে। বর্তমানে ঢাকার সুপারশপগুলোতে আমদানি করা চেরি টমেটো বিক্রি হচ্ছে ৯০০ টাকা কেজি দরে।

আরও পড়ুন


ভারতের ২ যুদ্ধ জাহাজ ৩ দিনের শুভেচ্ছা সফরে বাংলাদেশে

মাওলানা মামুনুল হককে খাওয়াতে প্রস্তুত আছি: নিক্সন

লাশ দাফনে বাধা, শাহীনের লাশ নিয়ে কবরস্থানে অসহায় ছেলের অপেক্ষা

স্নাতক পাসে সুপার স্টার গ্রুপে চাকরির সুযোগ


এ বিষয়ে মৈশাদী ইউনিয়ন কৃষি কর্মকর্তা মো. মনিরুজ্জামান বলেন, ইতালি থেকে চেরি টমেটোর বীজ আনা হয়েছে। বেলে মাটিতে শীতকালে চেরি টমেটোর চাষ করা হলে কৃষকরা লাভবান হতে পারবেন। পরীক্ষামূলক চেরি টমেটোর চাষ করে হেলাল সফল হয়েছেন। গত দুই মাসে তিনি ফসল তুলেছেন। আরও দুই মাস তুলতে পারবেন। একটি গাছ থেকে সাত থেকে আট কেজি ফসল পাওয়া সম্ভব বলেও জানান তিনি।

জেলা কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের উপ-পরিচালক মো. জালাল উদ্দিন বলেন, চেরি টমেটো' চাষাবাদে তারা সব ধরনের সহযোগিতা করছেন। হেলালের খামার কৃষকদের উদ্বুদ্ধ করবে বলে তিনি মনে করেন।

news24bd.tv আহমেদ

মন্তব্য

পরবর্তী খবর

বীমা শিল্পে নারীদের অবদান নিয়ে প্রথম ই-বুক প্রকাশিত

নিজস্ব প্রতিবেদক

বীমা শিল্পে নারীদের অবদান নিয়ে প্রথম ই-বুক প্রকাশিত

বীমা এজেন্টদের পেশাগত সম্ভাবনা এবং বীমা শিল্পে নারীদের অবদান সম্পর্কে সচেতনতা বৃদ্ধির লক্ষ্যে ‘সাফল্যের গল্প: বীমা শিল্পে নারীদের অর্জন গাথা’ নামে একটি ই-বই প্রকাশ করেছে মেটলাইফ বাংলাদেশ। বাংলাদেশে বীমা শিল্পে প্রথমবারের মতো এ ধরণের একটি ই-বই প্রকাশ করা হলো। 

হাজারো মানুষকে বিশ্ব পরামর্শ এবং বিশ্বমানের সেবা প্রদানের মাধ্যমে তাদেরকে ভবিষ্যৎ পরিকল্পনা করতে এবং আত্মবিশ্বাসের সাথে জীবন যাপনে সহায়তা প্রদানে নারী এজেন্টরা যে অবদান রেখে চলেছেন তার একটি প্রেরণা দায়ক চিত্র তুলে ধরা হয়েছে এই ই-বইটির মাধ্যমে।

বীমা এজেন্টরা গ্রাহদের আর্থিক সুরক্ষা, প্রয়োজন বিশ্লেষণ, পরিকল্প সম্পর্কে বিস্তারিত আলোচনা সেই সাথে প্রয়োজনে গ্রাহককে সহায়তা ও তাদের বীমা সংক্রান্ত জিজ্ঞাসার উত্তর দিয়ে বীমা সেবা প্রসারে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করেন। বাংলাদেশের জনসংখ্যার প্রায় ৫০ শতাংশ নারী। বীমা শিল্পে পেশাগত জীবন গড়ে তোলার মাধ্যমে সমাজ ও অর্থনীতিতে নারীরা আরো বৃহৎ পরিসরে অবদান রাখতে পারবেন।

আরও পড়ুন


নামাজে মুস্তাহাব কাজগুলো কী জেনে নিন

কেয়ামতের দিন যে সূরা বান্দার হয়ে আল্লাহর কাছে সুপারিশ করবে

চিত্রনায়ক শাহিন আলম মারা গেছেন

চট্টগ্রাম কারাগারে নিখোঁজ বন্দি খুজঁতে কারা অভ্যন্তরে তল্লাশি


পেশা হিসাবে বীমা এজেন্টদের সুযোগ এবং সম্ভাবনা সম্পর্কে সচেতনতা তৈরির লক্ষ্যে মেটলাইফ নানা উদ্যোগ গ্রহণ করছে। ই-বইটির প্রকাশনা উপলক্ষ্যে মেটলাইফ-এর জেনারেল ম্যানেজার আলা আহমদ বলেন, ‘‘বিশ্ব জুড়ে আমরা দেড়’শ-রও বেশি বছর ধরে প্রজন্মের পর প্রজন্মকে বীমা সেবা দিয়ে এসেছি। বাংলাদেশের গ্রাহকদেরকেও আমরা বীমা সেবা দিয়ে চলেছি।”

news24bd.tv আহমেদ

মন্তব্য

পরবর্তী খবর

চট্টগ্রাম কারাগারে নিখোঁজ বন্দি খুজঁতে কারা অভ্যন্তরে তল্লাশি

নিজস্ব প্রতিবেদক

চট্টগ্রাম কারাগারে নিখোঁজ বন্দি খুজঁতে কারা অভ্যন্তরে তল্লাশি

চট্টগ্রাম কারাগারে নিখোঁজ বন্দি ফরহাদ হোসেন রুবেলকে খুজঁতে কারা অভ্যন্তরের বিভিন্ন জায়গায় ফায়ার সার্ভিসের মাধ্যমে তল্লাশি শুরু করেছে কারা কর্তৃপক্ষ গঠিত তদন্ত কমিটি।

এর আগে সকালে তদন্ত কমিটি চট্টগ্রাম কারাগারের ডিআইজি প্রিজনের কার্যালয়ে বিভিন্ন জনের সাথে আলোচনা করেন। পরে তদন্ত কমিটির প্রধান ও খুলনা বিভাগের কারা উপ-মহাপরিদর্শক ছগির মিয়া সাংবাদিদের বলেন, সমন্বিতভাবে সব কিছু মাথায় রেখে তদন্ত কাজ করা হচ্ছে। 

নিখোঁজ রুবেলের অবস্থান পরিষ্কার করতে রাষ্ট্রীয় সকল বিষয়গুলোর সমন্বর করে তদন্ত করা হবে। এর জন্য কারাগারের ভিতর ফায়ার সার্ভিস দিয়ে তল্লাশি করা হচ্ছে। 


 

কাদের মির্জা যেভাবে মারলো, মনে হলো আমি পকেট মাইর

চলন্ত বাস থেকে ফেলে দেওয়া হলো প্রতিবন্ধী নারীকে

অর্থনীতির নতুন পথ সন্ধানের এখনই সময়

৫ বছরে লাশ হয়ে দেশে ফিরেছেন ৪৮৭ নারী শ্রমিক


তবে কারা কর্তৃপক্ষের গঠিত তদন্ত কমিটি জেলা প্রশাসন গঠিত তদন্ত কমিটির সাথে এখনো একমত নয় বলেও জানান তিনি। সাত কর্মদিবসের মধ্যে কমিটিকে প্রতিবেদন দিতে বলা হয়েছে। গত শনিবার থেকে ফরহাদ হোসেন রুবেল কারাগারে নিখোঁজ হন। 

এ ঘটনায় চট্টগ্রাম কেন্দ্রীয় কারাগারের জেলার ও ডেপুটি জেলারকে প্রত্যাহার করা হয়েছে। দুই কারারক্ষীকে বরখাস্তও করা হয়েছে।

news24bd.tv নাজিম

মন্তব্য

পরবর্তী খবর

কোম্পানীগঞ্জ আওয়ামী লীগ সভাপতি ও মুক্তিযোদ্ধ খিজির হায়াতের অভিযোগ

কাদের মির্জা যেভাবে মারলো, মনে হলো আমি পকেট মাইর

আকবর হোসেন সোহাগ, নোয়াখালী

কাদের মির্জা যেভাবে মারলো, মনে হলো আমি পকেট মাইর

(ছবি-বাঁদিক থেকে) খিজির হায়াত খান, কাদের মির্জা

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদেরের ছোট ভাই ও বসুরহাট পৌরসভার মেয়র আবদুল কাদের মির্জার বিরুদ্ধে কোম্পানীগঞ্জ উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও বীর মুক্তিযোদ্ধা খিজির হায়াত খানকে মারধরের অভিযোগ ওঠেছে। 

আজ বিকাল ৫টার দিকে বসুরহাট পৌরসভার রূপালী চত্বরে দলীয় কার্যালয়ের সামনে এ ঘটনা ঘটে। 

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, বিকাল ৫টার দিকে উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি খিজির হায়াত খান দলীয় কার্যালয়ের পাশে অবস্থান করেন। হঠাৎ করে আবদুল কাদের মির্জা, তার ছোট ভাই শাহাদাত হোসেনসহ বেশ কয়েকজন নেতাকর্মী খিজির হায়াতকে অকথ্য ভাষায় গালমন্দ করে। এক পর্যায়ে মির্জা কাদের খিজির হায়াত খানের পাঞ্জাবি ধরে তাকে বাহিরে নিয়ে আসে। এক পর্যায়ে তাকে মারধর করে এবং তার পাঞ্জাবি ছিড়ে ফেলে। এ সময় খিজির হায়াতকে ভবিষ্যতে বসুরহাট বাজারে আসতে নিষেধ করেন। 


চলন্ত বাস থেকে ফেলে দেওয়া হলো প্রতিবন্ধী নারীকে

অর্থনীতির নতুন পথ সন্ধানের এখনই সময়

৫ বছরে লাশ হয়ে দেশে ফিরেছেন ৪৮৭ নারী শ্রমিক

সন্তানদের নিয়ে রাজনীতি করবেন না : শ্রীলেখা


মারধরের বিষয়ে খিজির হায়াত খান বলেন, মির্জা যেভাবে তাকে মারধর করেছে মনে হলো আমি পকেট মাইর। তিনি আমাকে লাথি, কিল, ঘুষি মেরে পাঞ্জাবি ছিঁড়ে ফেলে। বিষয়টি পুলিশকে জানালেও পুলিশ তাকে কোনো সহযোগিতা করে নাই। 

তবে অভিযোগের বিষয় জানতে মেয়র আবদুল কাদের মির্জাকে এবং কোম্পানীগঞ্জ থানার ওসি মীর জাহিদুল হক রনিকে ফোন দিলেও তারা কেউই রিসিভ করেননি।

news24bd.tv নাজিম

মন্তব্য

পরবর্তী খবর

মাদানী উপাধি ব্যবহারের ব্যাখ্যা দিলেন সেই আলেম

নিজস্ব প্রতিবেদক

মাদানী উপাধি ব্যবহারের ব্যাখ্যা দিলেন সেই আলেম

সৌদি আরবের মদিনা বিশ্ববিদ্যালয়ে লেখাপড়া না করেও নামের শেষে 'মাদানী' উপাধি করায় গত ১৫ ফেব্রুয়ারি সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবী শরীফুল হাসান খাঁন একটি লিগ্যাল নোটিশ পাঠান।

হেফাজতে ইসলাম বাংলাদেশের মদিনা শাখার আমীর ও সংগঠনটির কেন্দ্রীয় সদস্য মাওলানা রফিকুল ইসলাম মাদানীর পক্ষে এই লিগ্যাল নোটিশ পাঠানো হয়। ১৫ দিনের মধ্যে নিজের পরিচয়ের সঙ্গে ‘মাদানী’ উপাধি ব্যবহার করা বন্ধ করা না হলে তার বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলে নোটিশে জানানো হয়।

নিজের নামের সঙ্গে এই শিশুবক্তার নাম মিলে যাওয়ায় অনেকটাই বিব্রত ও বিরক্ত হয়েই আইনি নোটিশ পাঠান এই হেফাজত নেতা। তবে এমন নোটিশ পেয়ে মনক্ষুণ্ন ও হতাশ হয়েছেন শিশু বক্তা খ্যাত রফিকুল ইসলাম। 

হতাশ হলেও মাদানী উপাধি ব্যবহারের ব্যাখ্যা দিয়েছেন তিনি। সম্প্রতি এক মাহফিলে হাজির হয়ে তিনি বলেন, আলেমরা তাদের নামের শেষে এমন শব্দ জুড়ে দেন যা দিয়ে তাদের নির্দিষ্টভাবে চিহ্নিত করা যায়। এটি একটি রসম। কেউ নামের শেষে তিনি যে বিশ্ববিদ্যালয় থেকে ডিগ্রি নিয়ে এসেছেন তা জুড়ে দেন। যেমন মদিনা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে পাশ করে এলে মাদানী, মিসরের আজহার বিশ্ববিদ্যালয় থেকে শিক্ষালাভ করলে আজহারী, দেওবন্দ থেকে এলে কাসেমি বা দেওবন্দী উপাধি ব্যবহার করেন আলেমরা। কেউ কেউ আবার তার জন্মস্থানের নাম ব্যবহার করেন। দেশে অনেকে নিজ মাদ্রাসার নাম ব্যবহার করেন। যেমন মোহাম্মদপুরের রহমানিয়া মাদ্রাসা থেকে শিক্ষালাভকারীরা রহমানী, জামিয়া মাহমুদিয়া মাদ্রাসার ছাত্ররা মাহমুদী ব্যবহার করে। 

এরপর রফিকুল ইসলাম প্রশ্ন করেন, আমি জামিয়া মাদানিয়া বারিধারার শিক্ষার্থী হিসেবে কি তাহলে মাদানী লিখতে পারি না?

তিনি বলেন, আমার এই মাদানী উপাধি ব্যবহারে আমার বারিধারা মাদ্রাসার শিক্ষকরা কখনো বিরোধিতা করেননি। তাদের পরামর্শ নিয়েই আমি এই উপাধি ব্যবহার করেছি। আমি 'শিশুবক্তা' হিসেবে আর পরিচিতি পেতে চাই না। যখন শিশু থাকব না তখনো কি এই উপাধি নিয়েই থাকতে হবে আমাকে? যারা আমাকে 'শিশুবক্তা' বলেন একসময় তাদের মাহফিলে যাওয়া বন্ধ করে দিই। এরপরও যখন নাম থেকে 'শিশুবক্তা' উপাধি মুছে ফেলতে ব্যর্থ হচ্ছিলাম তখন শিক্ষকদের পরামর্শে মাদানী উপাধি গ্রহণ করি। 


চলন্ত বাস থেকে ফেলে দেওয়া হলো প্রতিবন্ধী নারীকে

অর্থনীতির নতুন পথ সন্ধানের এখনই সময়

৫ বছরে লাশ হয়ে দেশে ফিরেছেন ৪৮৭ নারী শ্রমিক

সন্তানদের নিয়ে রাজনীতি করবেন না : শ্রীলেখা


ক্ষোভের সুরে রফিকুল ইসলাম বলেন, নামের মিলের কারণে সমস্যায় পড়ায় হেফাজতের ওই নেতা বিষয়টি হেফাজতের মহাসচিবকে বলতে পারতেন। মামুনুল হকের মতো নেতাদের বলতে পারতেন। আমার শিক্ষকদের কাছে নালিশ করতে পারতেন। বা আমাকে সরাসরি বা মেসেজে জানাতে পারতেন। কিন্তু তা না করে আমার বাড়িতে সরাসরি উকিল নোটিশ পাঠিয়েছেন। এতে আমার সহজসরল মা ভীতসন্ত্রস্ত হয়ে পড়েছেন। এলাকার লোকজন আমাকে 'জাল মাদানী' বলে কটাক্ষ করছে। দেশের জাতীয় দৈনিকে আমাকে নিয়ে সংবাদ প্রকাশিত হচ্ছে। এতে আমার সম্মানহানি ঘটছে। অথচ এই মাদানী উপাধি ব্যবহারে আমি ধর্মীয়, রাষ্ট্রীয় বা উপমহাদেশের কোনো নিয়ম ভঙ্গ করিনি। আমি ভাইরাল হতেও এই উপাধি ব্যবহার করিনি। 

প্রসঙ্গত, তরুণ ওয়ায়েজ মাওলানা রফিকুল ইসলাম রাজধানীর জামিয়া মাদানীয়া বারিধারা মাদ্রাসায় পড়াশোনা করেছেন। শারীরিক আকৃতিতে ছোট হওয়ায় শিশু বক্তা হিসেবে পরিচিত তিনি। মাওলানা রফিকুল ইসলাম নেত্রকোনা জেলার পশ্চিম বিলাশপুর সাওতুল হেরা মাদ্রাসার পরিচালক বলে জানা গেছে। এছাড়া ২০ দলীয় জোটভূক্ত জমিয়তে উলামায়ে ইসলাম ও রাবেতাতুল ওয়ায়েজিনের সঙ্গে যুক্ত তিনি। 

news24bd.tv নাজিম

মন্তব্য

পরবর্তী খবর