ভ্যাকসিনে রেজিস্ট্রেশন করতে সুনামগঞ্জে স্বাস্থ্য বিভাগের প্রচারণা

সুনামগঞ্জ প্রতিনিধি:

ভ্যাকসিনে রেজিস্ট্রেশন করতে সুনামগঞ্জে স্বাস্থ্য বিভাগের প্রচারণা

করোনা ভ্যাকসিন গ্রহণের জন্য সুরক্ষা অ্যাপে রেজিস্ট্রেশন করার জন্য সাধারণ মানুষকে উদ্ধুদ্ধ করতে সুনামগঞ্জে প্রচারণা শুরু করেছে জেলা স্বাস্থ্য বিভাগ। 

আজ বৃহস্পতিবার সকালে সুনামগঞ্জ পৌর শহরের আলফাত স্কয়ার থেকে লিফলেট বিতরণের মাধ্যমে প্রচারণার উদ্বোধন করেন সিভিল সার্জন ডা.মো.শামস উদ্দিন।

আরও পড়ুন:


পরকালের যে বিশ্বাসে মমির মুখে সোনার জিভ

টাচ ছাড়াই আনলক হবে আইফোন

কৃষকদের জঙ্গি আখ্যায়িত করলেন কঙ্গনা

ফেসবুক বন্ধ মিয়ানমারে


পৌর শহরের হাসপাতাল রোড, পৌরবিপনী, দোজা মার্কেট, ট্রাফিক পয়েন্ট, পুরতন বাসষ্টেশন, কালিবাড়ীসহ আশপাশ এলাকার ব্যবসা প্রতিষ্ঠান, পথচারী, বিভিন্ন যানবাহনের চালক-যাত্রী ও সাধারণ মানুষের মাঝে লিফলেট বিতরণ করা হয় এবং করোনা ভ্যাকসিন গ্রহণের জন্য সুরক্ষা অ্যাপে রেজিস্ট্রেশন করতে অনুরোধ জানানো হয়। 

প্রচারণার উদ্বোধনকালে সিভিল সার্জন ডা.মো.শামস উদ্দিন বলেন, ‘করেনা ভ্যাকসিনের আসার বিষয়টি সাধারণ মানুষকে অবহিত করতে প্রচারণা শুরু হয়েছে। সুনামগঞ্জ জেলা শহরে ১০টি কেন্দ্রে ও প্রতিটি উপজেলায় তিনটি কেন্দ্রে ভ্যাকসিন দেওয়া হবে। তবে সবাইকে সুরক্ষা অ্যাপের মাধ্যমে রেজিস্ট্রেশন করতে হবে। ইউনিয়ন ডিজিটাল সেন্টার, উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স ও জেলা সদর হাতপালে রেজিস্ট্রেশন করা যাবে। এছাড়াও মোবাইল ফোনের মাধ্যমে রেজিস্ট্রেশন করা যাবে। ভ্যাকসিন পর্যায়ক্রমে সবাইকে প্রদান করা হবে। সন্মুখ সারির যোদ্ধারা অগ্রাধিকার পাবেন। ’ 

লিফলেট বিতরণকালে অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন,সুনামগঞ্জ পৌরসভার মেয়র নাদের বখত, সদর হাসপাতালের আবাসিক চিকিৎসক (আরএমও) ডা.রফিকুল ইসলাম, সিভিল সার্জন কার্যালয়ের শিক্ষা ও স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ওমর ফারুক প্রমুখ।

news24bd.tv / কামরুল 

মন্তব্য

পরবর্তী খবর

হাসপাতালে বিল বেশি দাবি করায় ৯৯৯ এ ফোন

নিজস্ব প্রতিবেদক

হাসপাতালে বিল বেশি দাবি করায় ৯৯৯ এ ফোন

জাতীয় জরুরি সেবা ৯৯৯ নম্বরে এক কলারের ফোন কলে বেশি বিল দাবি করা হাসপাতালে বিল পরিশোধ করতে না পেরে হাসপাতাল থেকে ছাড় না পাওয়া দম্পতির সহায়তায় এগিয়ে গেছে ঢাকার ওয়ারী থানার পুলিশ।

শনিবার ২৭ ফেব্রুয়ারি দুপুর দুইটায় আল আমিন (৩৩) নামে একজন কলার ঢাকার ঢাকার ওয়ারী থানাধীন সালাউদ্দীন স্পেশালাইজড হাসপাতাল থেকে ফোন করে জানান, তিনি পেশায় একজন ক্ষুদ্র ব্যবসায়ী। একদিন পূর্বে ২৬ ফেব্রুয়ারি তারিখে তার গর্ভবতী স্ত্রীকে তিনি হাসপাতালে ভর্তি করেন। কিন্তু হাসপাতালে ভর্তি করার আগেই তার স্ত্রীর গর্ভস্থ সন্তান নষ্ট (মিস্ক্যারেজ) হয়ে যায়। 

একদিন পর ২৭ ফেব্রুয়ারি সকালের তিনি তার স্ত্রীকে বাসায় নিতে চাইলে তাকে ৩১ হাজার টাকা বিল পরিশোধ করতে বলা হয়। কিন্তু তিনি একদিন হাসপাতালে অবস্থানের জন্য এতো টাকা বিল দাবি করার কারণ জানতে চান এবং এতো টাকা পরিশোধে অসম্মতি জানান। তখন হাসপাতাল থেকে তাকে জানানো হয় বিল পরিশোধ না করলে তিনি তার স্ত্রীকে নিয়ে যেতে পারবেন না। শেষে তিনি কোন উপায় না পেয়ে ৯৯৯ এ ফোন করেন।


বিকৃত যৌনাচারে অনুশকার মৃত্যু: যা বললেন সিআইডি

জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের মূল ফটক আটকে শিক্ষার্থীদের বিক্ষোভ

অসুস্থ মাকে বাঁচাতে ক্রিকেটে ফিরতে চান শাহাদাত

প্রেমিকের আশ্বাসে স্বামীকে তালাক, বিয়ের দাবিতে অনশন!


৯৯৯ থেকে সংবাদ পেয়ে ওয়ারী থানার একটি দল ঘটনাস্থলে যায়। পরে ওয়ারী থানার এস আই জহির ৯৯৯ কে ফোনে জানান তিনি হাসপাতালে গিয়ে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষের সাথে কথা বলেন। কলার ক্ষুদ্র ব্যবসায়ী রতনের আর্থিক অবস্থা বিবেচনায় ন্যুনতম বিল নেয়ার অনুরোধ জানান। পরে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ বার হাজার টাকা বিল নিয়ে কলার এবং তার স্ত্রী কে ছাড়পত্র দেয়।  

news24bd.tv / কামরুল 

মন্তব্য

পরবর্তী খবর

স্ত্রীর সঙ্গে অভিমান করে স্বামীর আত্মহত্যা

শেখ রুহুল আমিন,ঝিনাইদহ:

স্ত্রীর সঙ্গে অভিমান করে স্বামীর আত্মহত্যা

ঝিনাইদহ শহরে স্ত্রীর সঙ্গে অভিমান করে আজ রোববার দুপুরে আব্দুস সাত্তার নামে (৪৯) এক ড্রাইভার আত্মহত্যা করেছেন। তিনি শহরের হামদহ এলাকার মোশাররফ হোসেন কলেজপাড়ার আব্দুল আওয়ালের ছেলে। 

জানা যায়, রোববার দুপুরে সাংসারিক বিষয় নিয়ে স্ত্রী রোজির সঙ্গে আব্দুস সাত্তারের ঝগড়া হয়। এতে অভিমান করে গলায় রশি দিয়ে আত্মহত্যা করেন আব্দুস সাত্তার।


বিকৃত যৌনাচারে অনুশকার মৃত্যু: যা বললেন সিআইডি

জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের মূল ফটক আটকে শিক্ষার্থীদের বিক্ষোভ

অসুস্থ মাকে বাঁচাতে ক্রিকেটে ফিরতে চান শাহাদাত

প্রেমিকের আশ্বাসে স্বামীকে তালাক, বিয়ের দাবিতে অনশন!


আব্দুস সাত্তারের ছেলে অভি জানান, তার পিতা মায়ের সাথে রাগ করে আত্মহত্যা করেছেন।

ঝিনাইদহ সদর থানার ওসি মিজানুর রহমান ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে নিউজ টোয়েন্টিয়োরকে জানান, প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে পরিবারিক কলহের জের ধরে আত্মহত্যা করেছে।

news24bd.tv / কামরুল 

মন্তব্য

পরবর্তী খবর

জেএসএস ও ইউপিডিএফ নিষিদ্ধের দাবি

ফাতেমা জান্নাত মুমু, চট্টগ্রাম

জেএসএস ও ইউপিডিএফ নিষিদ্ধের দাবি

পাহাড়ে শান্তি প্রতিষ্ঠা করতে পার্বত্য চট্টগ্রাম জনসংহতি সমিতি (জেএসএস) এবং ইউনাইটেড পিপলস ডেমোক্রেটিক ফ্রন্ট (ইউপিডিএফ) এর রাজনীতি নিষিদ্ধ করতে সরকারের কাছে দাবি জানিয়েছে পার্বত্য ছাত্র পরিষদের নেতারা।

তারা বলেন, সশস্ত্র সন্ত্রাসীদের আঞ্চলিক রাজনীতির কারণে পাহাড়ে সংঘাত সহিংসতা বৃদ্ধি পেয়েছে। প্রাণ হারাচ্ছে হাজারো নিরীহ ক্ষুদ্র নৃ-গোষ্ঠী ও বাঙালীরা। পাহাড়ের মানুষ এখনো নিরাপত্তাহীন। স্বাধিন দেশে সশস্ত্র সন্ত্রাসীদের কাছে জিম্মি যুব সমাজ। অতচ পাহাড়ে শান্তি প্রতিষ্ঠার লক্ষ্যে ১৯৯৭সালে সন্তু লারমা শান্তি চুক্তি স্বাক্ষর করেছিল। কিন্তু তিনি শান্তি রক্ষায় কোনো ভূমিকাই রাখেনি।

রোববার দুপুরে রাঙামাটি জেলা প্রশাসক কার্যালয়ের সামনে সংগঠনটির উদ্যোগে পাহাড়ের অবৈধ অস্ত্র উদ্ধার ও সেনা

ক্যাম্প পূর্ণ স্থাপনের দাবিতে বিক্ষোভ মিছিল ও প্রতিবাদ সমাবেশ বক্তরা এসব কথা বলেন।


গুলি ছুড়ে ইয়েমেনের ক্ষেপণাস্ত্র আকাশেই ধ্বংস করেছে সৌদি

জানা গেল আসল রহস্য, ১৩-১৪ বছরের দুই বোনের সঙ্গেই শরীরিক মেলামেশা ছিল তার


পার্বত্য চট্টগ্রাম ছাত্র পরিষদের কেন্দ্রীয় কমিটির সভাপতি শাহাদাৎ ফরাজি সাকিবের সভাপতিত্বে এতে বক্তব্য দেন-
পার্বত্য নাগরিক পরিষদের মহাসচিব ও বাঘাইছড়ি পৌরসভার সাবেক মেয়র আলমগীর কবির, রাঙামাটি জেলা শাখার সভাপতি সাব্বির আহম্মদ, সহসভাপতি মো. নাদিরুজ্জামান, কাজী মো. জালোয়া, সাধারণ সম্পাদক মো. সোলায়মান,
সাংগঠনিক সম্পাদক আবু বক্কর সিদ্দিক মোল্লা, পার্বত্য চট্টগ্রাম ছাত্র পরিষদের কেন্দ্রীয় সহসভাপতি হাবিব আজম,
সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক মামুনুর রশীদ মামুন ও প্রচার সম্পাদক মো. তাজুল ইসলামসহ অন্যরা।

পার্বত্য চট্টগ্রাম ছাত্র পরিষদের নেতারা আরও বলেন, পাহাড়ে অবৈধ অস্ত্র উদ্ধারসহ অস্ত্রধারীদের সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ড বন্ধ এবং ঝুঁকিপূর্ণ এলাকায় নিরাপত্তাবাহিনীর ক্যাম্প স্থাপনের এখন সময়ের দাবি।

সমাবেশ শেষে পার্বত্য ছাত্র পরিষদের নেতারা রাঙামাটি জেলা প্রশাসক কার্যালয়ের সামনে থেকে বিক্ষোভ মিছিল বের করে।

মিছিলটি শহরের প্রধান প্রধান সড়ক প্রদক্ষিণ করে বনরূপা চত্বর ঘুরে আবারও সমাবেশে স্থলে এসে শেষ হয়।

news24bd.tv তৌহিদ

মন্তব্য

পরবর্তী খবর

ছিলেন না চিকিৎসক- নার্স কেউই

হাসপাতালে সন্তান প্রসব; গর্ভেই রয়ে গেল বিচ্ছিন্ন মাথা

অনলাইন ডেস্ক

হাসপাতালে সন্তান প্রসব; গর্ভেই রয়ে গেল বিচ্ছিন্ন মাথা

হাসপাতালে ছিলেন না  চিকিৎসক বা নার্স কেউই। সন্তান প্রসব করাতে আসলেন এক আয়া, অনেক চেষ্টায় দ্বিখন্ডিত হয়ে যায় সন্তান। দেহ থেকে বিচ্ছিন্ন হয়ে মায়ের গর্ভে রয়ে যায় শিশুটির মাথা। শনিবার রাতে মর্মান্তিক এ ঘটনাটি ঘটে যশোর ২৫০ শয্যা জেনারেল হাসপাতালে। ঘটনার পর উত্তেজনা সৃষ্টি হলে প্রসূতি ওয়ার্ডের দায়িত্বরত কর্মীরা সবাই সটকে পড়েন।

ঘটনার শিকার আন্না খাতুন (২৬) যশোরের শার্শা উপজেলার গাজীপুর গ্রামের আইয়ুব হোসেনের স্ত্রী।

আইয়ুব হোসেনের অভিযোগ বরে জানান, তার স্ত্রী পাঁচমাসের গর্ভবতী। সন্তানের নড়াচড়া টের না পাওয়ায় শুক্রবার রাতে তাকে যশোর ২৫০ শয্যা হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। শনিবার সকালে চিকিৎসক আল্ট্রাসনো পরীক্ষা করে গর্ভের সন্তান মারা গেছে বলে জানান।

পরে চিকিৎসকের পরামর্শ অনুযায়ী সেবিকা গর্ভপাতের ওষুধ দেন। শনিবার রাত সাড়ে ৭টার দিকে হঠাৎ বেরিয়ে আসে অনাগত সন্তানটির পা। এ সময় অনেক ডাকাডাকি করেও পাওয়া যায়নি হাসপাতালের কোনো চিকিৎসক এবং নার্সদের। পরে ওয়ার্ডের আয়া মোমেনা সন্তান প্রসব করানোর চেষ্টা করেন। একপর্যায়ে সন্তানের দেহ বেরিয়ে এলেও মাথা ছিন্ন হয়ে থেকে যায় প্রসূতির গর্ভে। এ ঘটনার পর রোগীর স্বজনরা ক্ষুব্ধ হয়ে উঠলে সেবিকা, আয়া সবাই ওয়ার্ড ছেড়ে পালিয়ে যান।


বিকৃত যৌনাচারে অনুশকার মৃত্যু: যা বললেন সিআইডি

জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের মূল ফটক আটকে শিক্ষার্থীদের বিক্ষোভ

অসুস্থ মাকে বাঁচাতে ক্রিকেটে ফিরতে চান শাহাদাত

প্রেমিকের আশ্বাসে স্বামীকে তালাক, বিয়ের দাবিতে অনশন!


হাসপাতালের আবাসিক মেডিকেল অফিসার ডা. আরিফ আহম্মেদ জানান, রোগীর গর্ভে ২০ সপ্তাহের মৃত বাচ্চা ছিল। অ্যাবরেশনের জন্য মেডিসিন দেয়া হয়। রাতে বাচ্চার পা বেরিয়ে আসতে দেখে আয়া কাউকে না জানিয়ে নিজে ডেলিভারি করার চেষ্টা করে। তখন বাচ্চার শরীর বেরিয়ে এলেও মাথা মায়ের গর্ভে থেকে যায়। আজ রোববার রোগীর গর্ভ থেকে ছিন্ন মাথা অপসারণের পদক্ষেপ নেয়া হবে। তবে ঘটনার সময় ওয়ার্ডে চিকিৎসক এবং নার্স ছিল বলে দাবি করেছেন ডা. আরিফ।

news24bd.tv / কামরুল 

মন্তব্য

পরবর্তী খবর

বরিশালে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব ঢাকা ম্যারাথন অনুষ্ঠিত

রাহাত খান, বরিশাল

বরিশালে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব ঢাকা ম্যারাথন অনুষ্ঠিত

বরিশাল সদর উপজেলায় বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব ঢাকা ম্যারাথন-২০২১ অনুষ্ঠিত হয়েছে। আজ রবিবার সদর উপজেলা পর্বের ম্যারাথন অনুষ্ঠিত হওয়ার মধ্য দিয়ে বরিশাল জেলায় বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব ঢাকা ম্যারাথন-২০২১ সম্পন্ন হয়েছে। 

জাতীর জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্ম শতবার্ষিকী উপলক্ষ্যে দেশব্যাপী বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব ঢাকা ম্যারাথন-২০২১ এর আয়োজন করে বাংলাদেশ সেনা বাহিনী। দেশব্যাপী এই ডিজিটাল ম্যারাথনে সারা দেশের ১০ লাখ মানুষ অংশগ্রহণ করছে। 

বঙ্গবন্ধুর স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবস উপলক্ষ্যে গত ১০ জানুয়ারি বরিশালের শেখ হাসিনা সেনানিবাসে এই ডিজিটাল ম্যারাথনের উদ্বোধন হয়। বরিশাল জেলার ১০ উপজেলায় পর্যায়ক্রমে এই ডিজিটাল ম্যারাথন আয়োজন করা হয়। 

আজ রবিবার বরিশাল জেলার শেষ পর্বে সদর উপজেলায় বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব ঢাকা ম্যারাথন-২০২১ অনুষ্ঠিত হয়। সকাল সাড়ে ১০টায় বরিশাল বিশ্ববিদ্যালয়ের সামনে থেকে সদর উপজেলা পর্বের ডিজিটাল ম্যারাথন উদ্বোধন করেন শেখ হাসিনা সেনানিবাসের ৬২ ইস্ট বেঙ্গলের মেজর মুন্তাজার রাশেদীন, ক্যাপ্টেন মো. ইয়াসির আরাফাত, সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. মুনিবুর রহমান এবং সদর উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) মো. মেহেদী হাসান।


জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের মূল ফটক আটকে শিক্ষার্থীদের বিক্ষোভ

শিক্ষা জাতির উন্নয়নের মূল চাবিকাঠি: প্রধানমন্ত্রী

অসুস্থ মাকে বাঁচাতে ক্রিকেটে ফিরতে চান শাহাদাত

প্রেমিকের আশ্বাসে স্বামীকে তালাক, বিয়ের দাবিতে অনশন!


বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থী, ক্রীড়া সংস্থা এবং বেসামরিক প্রায় ৩শ’ মানুষের অংশগ্রহণে বিশ্ববিদ্যালয়ের সামনে থেকে শুরু হওয়া ডিজিটাল ম্যারাথনটি মহাসড়কের প্রায় ৩ কিলোমিটার প্রদক্ষিণ করে সদর উপজেলা পরিষদ চত্বরে গিয়ে শেষ হয়। 

আগামী ১৭ মার্চ বঙ্গবন্ধুর জন্মদিনে সেনাবাহিনী আয়োজিত ‘বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব ঢাকা ম্যারাথন-২০২১’  শেষ হবে বলে জানিয়েছেন সংশ্লিষ্টরা।

news24bd.tv নাজিম

মন্তব্য

পরবর্তী খবর