যেকোনো মুহূর্তে সরকার পতন: রিজভী

অনলাইন ডেস্ক

যেকোনো মুহূর্তে সরকার পতন: রিজভী

যেকোনো মুহূর্তে সরকারের পতন ঘটবে দাবি করে বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী বলেছেন, সরকারের রাষ্ট্রযন্ত্র থেকে যে দুর্গন্ধ বের হচ্ছে তা দেশে বিদেশে ছড়িয়ে পড়েছে। এই সরকারের ক্ষমতায় থাকার আর কোনো ভিত্তি নেই। যেকোনো মুহূর্তে এই সরকারের পতন ঘটবে।

শুক্রবার (৫ ফেব্রুয়ারি) বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমানকে নড়াইলের আদালতে দুই বছরের কারাদণ্ড দেওয়ার প্রতিবাদে অনুষ্ঠিত বিক্ষোভ মিছিল ও সমাবেশে তিনি এসব কথা বলেন। ঢাকা মহানগর উত্তর বিএনপি এ বিক্ষোভ সমাবেশের আয়োজন করে।

আরও পড়ুন: 


বিয়ে আসর থেকে কনেকে অপহরণচেষ্টা, অভিযুক্ত ছাত্রলীগ নেতা বললেন ষড়ষন্ত্র

রাঙামাটিতে লড়াই হবে দ্বিমুখী ও হাড্ডাহাড্ডি

দুম‌ড়ে গেল অ‌টোবাইক, মৃত্যু হলো মা-মেয়ের

৯টা-৫টা ডেস্ক ওয়ার্ক সম্ভব না: ভারতের সর্বকনিষ্ঠ পাইলট

প্রথমে দুই স্ত্রীর ঝগড়া, পরে ভাইয়ের হাতে ভাই খুন


প্রধান অতিথির বক্তব্যে রিজভী বলেন, এই সরকারের আর কোথাও নিজেদের নয় মুখ দেখাবার জো নেই। তাই পূর্বের মতো রাষ্ট্রের ভয়াবহ ঘটনা ভিন্ন খাতে প্রবাহিত করতে দেশের জনপ্রিয় জননেতা তারেক রহমানের বিরুদ্ধে মিথ্যা মামলায় সাজা দিয়েছেন। এটি সম্পূর্ণ রাজনৈতিক উদ্দেশ্যপ্রণোদিত।

রিজভী আরো বলেন, সরকার জিয়া পরিবারকে টার্গেট করে আবারো মিথ্যা মামলা দিয়ে এবং নানা ধরনের কুৎসা রটনা করে নিজেরা মনে করছে পার পেয়ে যাবে। কিন্তু জনগণের কাছে ইতোমধ্যেই এই আওয়ামী সরকার গণধিকৃত হয়ে গেছে।

তিনি বলেন, অবিলম্বে তারেক রহমানের মিথ্যা মামলা প্রত্যাহার করে সাজা প্রত্যাহার করতে হবে।

এ সময় মহানগর উত্তর বিএনপির সিনিয়র সহসভাপতি মুনসী বজলুল বাসিত আনজু, সাধারণ সম্পাদক আব্দুল আলীম নকিসহ দলীয় নেতাকর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।

news24bd.tv তৌহিদ

মন্তব্য

পরবর্তী খবর

ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন ইস্যুতে প্রতিবাদ থেমে নেই

নিজস্ব প্রতিবেদক

বিক্ষোভ মিছিল করে এ ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন বাতিলের দাবি জানিয়েছে বাংলাদেশের কমিউনিস্ট পার্টি। একই বিষয়ে আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের বলেছেন, কেউ যাতে এ আইনের অপপ্রয়োগ করতে না পারে সে বিষয়ে সরকার সতর্ক। আর আইনমন্ত্রী আনিসুল হক বলছেন, এই আইনে কোন সংশোধন বা পরিবর্তন আসবে কিনা তা জানতে অপেক্ষা করতে হবে আরো কিছুদিন। 

ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনের মামলায় কারাগারে আটক লেখক মুশতাক আহমেদের মৃত্যুর পরই জোরালো হয় আইন বাতিলের দাবি। এরই মধ্যে বাতিলের পক্ষে রাজপথে নেমেছে বিভিন্ন বিভিন্ন রাজনৈতিক দল ও সংগঠন।

শুক্রবারও রাজধানীতে বিক্ষোভ মিছিল করে বাংলাদেশের কমিউনিস্ট পার্টি। পরে জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে সমাবেশ করে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন বাতিলের দাবি জানায় তারা।


ফেঁসে যাচ্ছেন নাসিরের স্ত্রী তামিমা!

অস্ত্রের মুখে জিম্মি করে ৬ষ্ঠ শ্রেণির ছাত্রীকে ধর্ষণ

দেশে ২৪ ঘণ্টায় করোনায় মৃত্যু- শনাক্তের সর্বশেষ তথ্য

মুরগির দাম বেড়েছে কেজিতে ১০ টাকা


এ আইনে কোন পরিবর্তন হবে কিনা সে বিষয়ে আরো কিছুদিন ধৈর্য ধরতে বলেছেন আইনমন্ত্রী আনিসুল হক। সকালে ব্রাহ্মণবাড়িয়ার আখাউড়ায় সাংবাদিকদের প্রশ্নের উত্তরে এ কথা বলেন।

নিজ বাসভবনে এক ভার্চুয়ালি ব্রিফিংয়ে একই বিষয়ে কথা বলেন আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদেরও। জানান, আইনের অপব্যবহার রোধে সরকার সতর্ক। 

বিএনপি আরেকটি ১৫ই আগস্ট ঘটানোর ষড়যন্ত্র লিপ্ত বলেও অভিযোগ করেন আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক।

news24bd.tv / কামরুল 

মন্তব্য

পরবর্তী খবর

জিয়া তার জায়গায় আছেন, থাকবেন: গয়েশ্বর

নিজস্ব প্রতিবেদক

জিয়া তার জায়গায় আছেন, থাকবেন: গয়েশ্বর

জিয়াউর রহমান তার জায়গায় আছেন এবং থাকবেন বলে মন্তব্য করেছেন বিএনপির জাতীয় স্থায়ী কমিটির সদস্য গয়েশ্বর চন্দ্র রায়।

তিনি বলেছেন, জিয়াউর রহমানকে নিয়ে কী বলল বা বলবে, তাতে কিছু যায় আসে না। কেননা তিনি তার জায়গায় আছেন, থাকবেন।  যত দিন দেশ থাকবে।

আজ দুপুরে জাতীয় প্রেসক্লাবে এক আলোচনা সভায় এসব কথা বলেন তিনি। 

‘গণতন্ত্র, গণমাধ্যম, গণকণ্ঠ অবরুদ্ধ বাংলাদেশের ভবিষ্যৎ কোন পথে?’ শীর্ষক এক আলোচনা সভাটি ‘গণতন্ত্র পুনরুদ্ধার সংগ্রাম পরিষদ’ আয়োজন করে।

গয়েশ্বর চন্দ্র বলেন, বাংলাদেশের স্বাধীনতা কোনো ভাষণে আসেনি, স্বাধীনতা এসেছে যুদ্ধে। এই যুদ্ধের আহ্বান করেছেন জিয়াউর রহমান। আজ তাঁরই খেতাব কেড়ে নেওয়া হচ্ছে।

আওয়ামী লীগকে উদ্দেশ্য করে তিনি বলেন, তারা বিভিন্ন সময় আমাদের সংবেদনশীল জায়গায় আঘাত করবে। এতে আমাদের ব্যস্ত হওয়া যাবে না। আমরা ব্যস্ত হলে, তারা আরামে দিন কাটাবে। গত ১২-১৩ বছরে এই জিনিস দেখা গিয়েছে। তারা বিভিন্ন স্পর্শকাতর বিষয় আমাদের সামনে নিয়ে এসেছে। আর আমরা তা নিয়ে ব্যস্ত হয়ে পড়েছি।


আমি সত্যের পক্ষে থাকব, সত্যেও কথা বলব: এমপি একরাম

তৃতীয় লিঙ্গের অধিকার রক্ষা; সাহসী উদ্যোগ বৈশাখী টিভির

দলের শৃঙ্খলা ভঙ্গে ছাড় দেবে না আওয়ামী লীগ: হানিফ

যে কারণে বুড়ো সাজলেন রনবীর


তিনি বলেন, আমরা রাজপথে নামি আর না নামি, সরকার থাকবে না। কিন্তু আমরা জনগণের আবহাওয়াটা পাব কি না, সে কথাটা ভেবেই আমাদের আগামী দিনে পথ চলতে হবে।

সংগঠনের প্রতিষ্ঠাতা ও সভাপতি শাহেদুল ইসলামের সভাপতিত্বে সভায় বিএনপির যুগ্ম মহাসচিব মোয়াজ্জেম হোসেন, বিএনপি চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা হাবিবুর রহমান প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন। 

news24bd.tv নাজিম

মন্তব্য

পরবর্তী খবর

সরকারের দমননীতি, প্রস্তুত ছিলো না বিএনপি: মির্জা আব্বাস

মারুফা রহমান

ঘুরে দাঁড়ানোর চেষ্টা করছে ঢাকা মহানগর বিএনপি। নিজেদের এতোদিনকার সাংগঠনিক দুর্লতার কথা স্বীকার করে একথা জানান, বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ও ঢাকা মহানগরের নেতা মির্জা আব্বাস। 

তিনি বলেন, বর্তমান সরকার বিরোধীদলের ওপর যে দমননীতি নিয়েছে, সেটার জন্য বিএনপি প্রস্তুত ছিলো না। যার কারণেই আন্দোলনে ব্যর্থতা এসেছে। 

চৌদ্দবছরের বেশী সরকারের বাইরে থাকা দল বিএনপির, নির্দলীয় তত্ত্বাবধায়ক সরকারের অধীনে নির্বাচনসহ নানা ইস্যুতেই রাজপথের আন্দোলনে ব্যর্থতার জন্য প্রথমেই আলোচনায় আসে ঢাকা মহানগর বিএনপির নাম। 

দীর্ঘদিন মহানগরের দায়িত্বে থাকা বিএনপি নেতা মির্জা আব্বাস জানান, রাজনৈতিক এমন পরিস্থিতির জন্য প্রস্তুত ছিলেন না তারা। তবে ঘুরে দাঁড়ানোর চেষ্টা করছে বিএনপির কেন্দ্রে থাকা এই অংশ।


আমি সত্যের পক্ষে থাকব, সত্যেও কথা বলব: এমপি একরাম

তৃতীয় লিঙ্গের অধিকার রক্ষা; সাহসী উদ্যোগ বৈশাখী টিভির

দলের শৃঙ্খলা ভঙ্গে ছাড় দেবে না আওয়ামী লীগ: হানিফ

যে কারণে বুড়ো সাজলেন রনবীর


দেশের সমগ্র রাজনৈতিক পরিস্থিতি নিয়ে বিএনপির নীতি-নির্ধারণী ফোরামের এই নেতার মত। সরকারের বাইরে থাকা সবদলমত এক হচ্ছে, আওয়ামী লীগ সরকার পতনের আন্দোলনে মাঠে নামতে।

ঢাকার সাবেক এই মেয়র আরও বলেন, বর্তমান মেয়রদের সাথে বসে, সমাধান করতে চান নগরের সমস্যার।

news24bd.tv নাজিম

মন্তব্য

পরবর্তী খবর

আমি সত্যের পক্ষে থাকব, সত্যেও কথা বলব: এমপি একরাম

নোয়াখালী প্রতিনিধি

আমি সত্যের পক্ষে থাকব, সত্যেও কথা বলব: এমপি একরাম

নোয়াখালীর ৪ (সদর-সুবর্ণচর) আসনের সাংসদ মোহাম্মদ একরামুল করিম চৌধুরী বলেছেন, 'সারা নোয়াখালীতে আমার জনপ্রিয়তা দেখে ওবায়দুল কাদের ভাইয়ের ভাই মির্জা কাদের সারা দিনরাত বক বক করছিল। সে প্রথম আমাকে দিয়ে শুরু করেছে। যেতে যেতে তার ভাবি এবং ওবায়দুল কাদের সহ বাংলাদেশের কোন নেতা বাদ নেই। শেষ পর্যন্ত নেত্রীকে নিয়েও বলেছে। সেই পাগলকে সামলাতে গিয়ে কারণবসত; কারো কারো সাথে টেলিফোনে কথা হতেই পারে।’ 

আজ শুক্রবার দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে সুবর্ণচর উপজেলা আ’লীগের নেতাকর্মীদের সাথে এক মতবিনিময় সভায় তিনি এসব কথা বলেন। 

তিনি বলেন, গত ছয় দিন আমি ঢাকাতে ছিলাম। আমি নেত্রীকে কতগুলো ম্যাসেজ পাঠিয়েছি উনি ম্যাসেজগুলো দেখছেন। নেত্রীর সাথে যিনি সব সময় থাকেন। তিনি আমাকে বললেন, ‘নেত্রী আপনাকে এতো ভালো জানেন। আপনি কেন ঢাকায় ঘুরছেন?’ এ সময় আমি ‘আমাদের কমিটি টা দরকার বলে জানাই’। এরপর উনি বলেন ‘নোয়াখালী চালায় কে? এবার আমি বললাম ‘নোয়াখালী চালাই আমি।’ নেত্রী কি আপনাকে না চালাতে বলছে? আমি বলি ‘না।’ নেত্রী জানে যে আপনিই চালাবেন নোয়াখালী। আপনি গিয়ে নোয়াখালী চালাতে থাকেন। ’ 

এ সময় তিনি বলেন, বিএনপি যেহেতু ভোটে আসবে না, যারা অর্থের বিনিময়ে নমিনেশনের আশা করছেন, নৌকা এদিক-ওদিক যদি নৌকা চলেও যায়, আমি কিন্তু বেঠিক লোককে আমার জনগণকে ভোট দিতে দেব না। আমি সত্যের পক্ষে থাকব। সত্যেও কথা বলব।’

খারাপ লোক অর্থের বিনিময়ে নমিনেশন পাবে, তাকে ভোট দিবে এরকম কোন দরকার নেই। যারা সঠিক লোক তাদের পক্ষে আমার অবস্থান থাকবে। 

কারা মানুষের সাথে দুর্বব্যহার করেছিল এটা মানুষ ভুলে যায়নি। দুর্বব্যহারকারীদের ভোট দিক, এটা এমপি হিসেবে আমি হতে দিতে পারি না। আমাদের দরকার জনগণের চেয়ারম্যান। আমাদের দরকার যে জনগণের পাশে থেকে আ’লীগকে সুসংগঠিত করতে পারবে, আ’লীগের নেতাকর্মীকে আপন করে নিতে পারবে। 

এ সময় আরও উপস্থিত ছিলেন, সুবর্ণচর উপজেলা আ’লীগের সভাপতি এডভোকেট ওমর ফারুক, চর আমান উল্যাহ ইউপি চেয়ারম্যান অধ্যাপক বেলায়েত হোসেন, চর ক্লার্ক ইউপি চেয়ারম্যান আবুল বাসার আজাদ, সুবর্ণচর উপজেলা যুবলীগের আহবায়ক আমিরুল ইসলাম রাজীব, উপজেলা ছাত্রলীগের আহবায়ক আবদুল্লাহ আল মামুন জাবেদ প্রমুখ। 

ফেঁসে যাচ্ছেন নাসিরের স্ত্রী তামিমা!

অস্ত্রের মুখে জিম্মি করে ৬ষ্ঠ শ্রেণির ছাত্রীকে ধর্ষণ

দেশে ২৪ ঘণ্টায় করোনায় মৃত্যু- শনাক্তের সর্বশেষ তথ্য

মুরগির দাম বেড়েছে কেজিতে ১০ টাকা


news24bd.tv / কামরুল 

মন্তব্য

পরবর্তী খবর

মুশতাকের মৃত্যুর ঘটনাকে হত্যাকাণ্ড বলছে সিপিবি

অনলাইন ডেস্ক

মুশতাকের মৃত্যুর ঘটনাকে হত্যাকাণ্ড বলছে সিপিবি

কারাবন্দী অবস্থায় লেখক মুশতাক আহমেদের মৃত্যুর ঘটনা বিচার বিভাগীয় তদন্তের মাধ্যমে দোষী ব্যক্তিদের শাস্তির দাবি জানিয়েছে বাংলাদেশের কমিউনিস্ট পার্টি (সিপিবি)। মুশতাকের মৃত্যুর ঘটনাকে হত্যাকাণ্ড বলছে দলটি।

ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন বাতিলের দাবিতে আজ শুক্রবার রাজধানীর জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে সিপিবি আয়োজিত এক মানববন্ধন কর্মসূচিতে বক্তারা বলেন, সত্য প্রকাশ করার জন্য যারা এগিয়ে আসছে, তাদের বিভিন্নভাবে প্রতিহত করা হচ্ছে। সত্য বলার জন্য একজনের জেলের ভেতরে মৃত্যু কোনো স্বাভাবিক বিষয় হিসেবে মেনে নেওয়া যায় না। এটা হত্যাকাণ্ড ছাড়া কিছু নয়।


আবাসিক হোটেলে অনৈতিক কর্মকাণ্ড, ধরা ২০ নারী

চুমু দিয়ে নারীদের সব রোগ সারিয়ে দেন ‘চুমুবাবা’

বুবলিকে ধাক্কা দেওয়া গাড়িটি ছিল ব্ল্যাক পেপারে মোড়ানো, ছিল না নম্বর প্লেট

অস্ত্রের মুখে ছাত্রীকে বিবস্ত্র করে ভিডিও ধারণের পর দফায় দফায় ধর্ষণ


সভাপতির বক্তব্যে মুজাহিদুল ইসলাম সেলিম বলেন, ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন বাতিলের দাবিতে মশাল মিছিল হয়েছে। সেই মিছিল থেকে সাত শিক্ষার্থীকে আটক করেছে পুলিশ। কিন্তু সরকারি উকিলের জন্য তাঁদের জামিন আটকে আছে। দেশ আজ শোষক ও ভুক্তভোগী দুই ভাগে বিভক্ত হয়ে আছে।

সিপিবির সভাপতি মুজাহিদুল ইসলাম সেলিম মানববন্ধন কর্মসূচিতে সভাপতিত্ব করেন।

সঞ্চালনায় ছিলেন সিপিবির কেন্দ্রীয় সম্পাদক জনি তালুকদার। মানববন্ধন কর্মসূচিতে অংশ নেওয়া বক্তারা দ্রুত ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন বাতিল করার জন্য সরকারের প্রতি দাবি জানান।

একই সঙ্গে তাঁরা মানুষের স্বাভাবিক বাক্স্বাধীনতা নিশ্চিত করার জন্য সরকারের প্রতি আহ্বান জানান।

গত ২৫ ফেব্রুয়ারি রাতে কাশিমপুর হাই সিকিউরিটি কারাগারে বন্দী অবস্থায় লেখক মুশতাক মারা যান।

ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনের মামলায় প্রায় ১০ মাস আগে গ্রেপ্তার করা হয়েছিল লেখক মুশতাককে। গ্রেপ্তারের পর থেকে মৃত্যু পর্যন্ত মোট ছয়বার তাঁর জামিন আবেদন নাকচ হয়।

লেখক মুশতাকের মৃত্যুর পর আবারও জোরেশোরে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন বাতিলের দাবি উঠেছে। মতপ্রকাশের অধিকার হরণ এবং বাক ও গণমাধ্যমের স্বাধীনতার জন্য এ আইন বড় হুমকি উল্লেখ করে তা বাতিল বা সংশোধনের দাবি উঠেছে বিভিন্ন মহল থেকে।

news24bd.tv তৌহিদ

মন্তব্য

পরবর্তী খবর