রেল যোগাযোগ স্বাভাবিক হয়নি; মানুষ সংগ্রহ করছে তেল

সৈয়দ রাসেল

রেল যোগাযোগ স্বাভাবিক হয়নি; মানুষ সংগ্রহ করছে তেল

সিলেটের ফেঞ্চুগঞ্জে তেলবাহী ট্রেনের সাতটি বগি লাইনচ্যুতির ঘটনায় ১৮ ঘণ্টা পরও স্বাভাবিক হয়নি রেল যোগাযোগ। বগি উদ্ধার ও লাইন মেরামতে কাজ করছে রেল কর্তৃপক্ষ।

বৃহস্পতিবার রাতে ওই দুর্ঘটনায় রেল লাইনের আশপাশে ছড়িয়ে পড়া তেল দিনভর সংগ্রহ করেন স্থানীয় মানুষ। ঘটনা তদন্তে ৫ সদস্যের কমিটি করেছে রেলওয়ে।

বৃহস্পতিবার দিবাগত রাত ১২টার দিকে ফেঞ্চুগঞ্জের মাইজগাঁও ও বিয়ালিবাজারের মাঝখানে গুতিগাঁও এলাকায় তেলবাহী ট্রেনের সাতটি বগি লাইনচ্যুত হয়।

আরও পড়ুন: 


স্তন ঝুলে যায় কেন?

৯টা-৫টা ডেস্ক ওয়ার্ক সম্ভব না: ভারতের সর্বকনিষ্ঠ পাইলট

যেকোনো মুহূর্তে সরকার পতন: রিজভী

ধর্ষণের পর শিক্ষার্থীর মৃত্যু, চিকিৎসক বলছেন ‘ভিন্ন কথা’


এতে ট্রেনের ওয়াগনে থাকা জ্বালানি তেল ছড়িয়ে পড়ে আশপাশের এলাকায়। গতকাল রাত থেকেই হাঁড়ি-পাতিল, বালতি, ড্রামসহ বিভিন্ন পাত্র নিয়ে তেল সংগ্রহ করতে শুরু করে স্থানীয়রা।

রেলওয়ে থানার ওসি আবদুস সাত্তার জানিয়েছেন, দুর্ঘটনার আশঙ্কায় ঘটনাস্থলে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে।

দুর্ঘটনার কারণ হিসেবে রেল লাইনে স্লিপার না থাকা ও নিয়মিত রক্ষণাবেক্ষণ না করাকেই দুষছেন স্থানীয়রা।

তেলবাহী ট্রেনের লাইনচ্যুত বগি উদ্ধারে গতকাল রাত থেকেই উদ্ধার তৎপরতা শুরু করে রেল কর্তৃপক্ষ।

এ দিকে এ ঘটনা তদন্তে রেলওয়ে বিভাগীয় পরিবহন কর্মকর্তা খায়রুল ইসলামকে প্রধান করে ৫ সদস্যর তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে। তিনদিনের মধ্যে তাদেরকে তদন্ত প্রতিবেদন দেওয়ার নির্দেশও দেওয়া হয়েছে।

news24bd.tv তৌহিদ

মন্তব্য

পরবর্তী খবর

কর্মস্থলে ফেরা মানুষের ঢল পাটুরিয়া-দৌলতদিয়ায়

অনলাইন ডেস্ক

কর্মস্থলে ফেরা মানুষের ঢল পাটুরিয়া-দৌলতদিয়ায়

পাটুরিয়া-দৌলতদিয়া নৌরুটে ৩ দিন ছুটি শেষে কর্মস্থল ফেরা মানুষের ঢল নেমেছে। এতে দৌলতদিয়ায় ৩ কিলোমিটার এলাকাজুড়ে দীর্ঘ যানজট সৃষ্টি হয়েছে। দ্বিগুণ ভাড়াসহ নানা ভোগান্তির অভিযোগ যাত্রীদের।

আজ সোমবার (২২ ফেব্রুয়ারি) ভোর থেকে লঞ্চ ও ফেরিতে কর্মস্থলে ফেরা মানুষের চাপ বাড়তে থাকে। তিল ধারণের জায়গা নেই লঞ্চ ও ফেরিতে। ভিড় রয়েছে ফেরিঘাটে। নদী পারের অপেক্ষায় রয়েছে অনেক যানবাহন।


ঘুমের চাইতে নামাজ উত্তম

মেয়েটা সিগারেট খাচ্ছে আর ড্রাইভ করছে পাশে বয় ফ্রেন্ড!

তামিমাকে আমি আর ফেরত নিতে চাই না: রাকিব

তৃতীয় সন্তানের বাবা হচ্ছেন সাকিব


ঘাট কর্তৃপক্ষ জানায়, কর্মস্থল ফেরা মানুষের চাপ বেড়ে কয়েক গুণ। পাটুরিয়া-দৌলতদিয়া নৌরুটে ১৬টি ফেরি ও ২২টি লঞ্চ চলাচল করছে। 

পাটুরিয়া-দৌলতদিয়া নৌরুটের এ জি এম মো. জিল্লুর রহমান জানান, আমাদের যানবাহনের সঙ্গে সঙ্গে দুর্ভোগের কথা মাথায় রেখে যাত্রীও পার করা হচ্ছে। 

news24bd.tv / কামরুল 

মন্তব্য

পরবর্তী খবর

সাতক্ষীরা উপকূলে জোয়ার ভাটায় হাবুডুবু খাচ্ছে ৫০ হাজার মানুষ

শাকিলা ইসলাম জুঁই, সাতক্ষীরা

সাতক্ষীরা উপকূলে জোয়ার ভাটায় হাবুডুবু খাচ্ছে ৫০ হাজার মানুষ

গত ২০ মে সাতক্ষীরার আশাশুনি উপজেলায় আঘাত হেনেছিল ঘূর্ণিঝড় আম্পান। ওই সময় ঝড় ও জলোচ্ছ্বাসের আঘাতে পাউবো’র বেড়ী বাঁধ ভেঙ্গে পানিতে তলিয়ে যায় উপজেলার বেশ কিছু এলাকা। যার একটি হচ্ছে প্রতাপনগর ও শ্রীউলা ইউনিয়ন।

ঘূর্ণিঝড় আম্পানের পর সাড়ে ৮মাস পার হলেও বাঁধ নির্মাণ শেষ না হওয়ায় উপজেলার প্রতাপনগর ও শ্রীউলা ইউনিয়নের মানুষ তাদের দুর্ভোগ কাটিয়ে উঠতে পারেনি। উপজেলা প্রশাসনের তথ্যানুযায়ী ১০ হাজার পরিবারের ৫০ হাজার মানুষ এখনও পানিবন্দী অবস্থায় নিয়মিত জোয়ার-ভাটার মধ্যে বসবাস করছে।

সাতক্ষীরা শহর থেকে ৫৫ কিলোমিটার দূরে আশাশুনি উপজেলার প্রতাপনগর ইউনিয়নের প্রতাপনগর, কুড়িকাউনিয়া, হরিশখালী, চাকলা, শ্রীপুরসহ বিভিন্ন গ্রাম ঘুরে ও মানুষজনের সঙ্গে কথা বলে দেখা গেছে, ঘরবাড়ি, গাছগাছালি, রাস্তাঘাট, ফসলের মাঠ, চিংড়িঘের, পুকুর, পানির আধার সবকিছুই নিশ্চিহ্ন করে উপকূলবাসীকে নিঃস্ব করে দিয়েছে ঘূর্ণিঝড় আম্পান। আম্পানের আঘাতে খোলপেটুয়া নদী ও কপোতাক্ষ নদের বেড়িবাঁধ ভেঙে প্লাবিত হয় গ্রামের পর গ্রাম। গাছপালা, ঘরবাড়ি, বিদ্যুতের খুঁটি ভেঙে দুমড়েমুচড়ে পড়ে। ফসলের খেত আর মাছের ঘের ভেসে যায়। বিধ্বত্ত জনপদে পরিণত হয় প্রতাপনগর ও শ্রীউলা ইউনিয়নের ৩৯টি গ্রাম। দুই ইউনিয়নের প্রায় ১০ হাজার পরিবারের ৫০ হাজার মানুষ ক্ষতিগ্রস্থ হয়। আম্পানের সারে ৮মাস পার হলেও এখনো তাদের দুর্ভোগ কাটিয়ে উঠতে পারেনি।

আরও পড়ুন: 


সাকিবের ছুটি মঞ্জুর

‘ইরানকে নিয়ে ৪২ বছর ধরে জুয়া খেলেছ আমেরিকা’

টস হেরে ফিল্ডিংয়ে বাংলাদেশ, একাদশে পরিবর্তন

সব হত্যার দ্রুত বিচার হোক: দীপনের বাবা


নাকনা গ্রামের সিমা আক্তার জানান, দির্ঘদিন আমরা বিলের ভেতর পড়ে আছি আমাদের কেউ খোঁজও নেয় না । প্রায় ছেলে মেয়েরা অসুস্থ হয়ে পরছে। বাড়ি থেকে ভেলায় করে মেইন সড়কে আসতে হয়। এতো কষ্ট নিতে পারছি না।

কুড়িকাউনিয়া রবিউল ইসলাম জানান, আমাদের আর এখানে থাকার কোনো ইচ্ছা নেই, আম্পান আমাদের সব শেষ করে দিয়েছে। ঘরের ভেতর জোয়ার ভাটার পানি ওঠানামা করছে কোনো আশায় আমরা এখানে পড়ে থাকব?

শ্রীপুর গ্রামের রবিউল মোড়ল বলেন, ২০০৯ সালের ২৫ মে আইলার আঘাতে ভেঙে তছনছ হয়ে যায় আমাদের ঘরবাড়ি। আইলায় বেড়িবাঁধ ভেঙে ভেসে যায় গ্রামের পর গ্রাম। তখনো আমরা এত পানি দেখিনি।

শ্রীউলার মোকছেদ আলি জানান, বর্তমানে আমাদের থাকার জায়গা নেই, টোঁং বেধে কষ্ট করে সেখানে থাকি ছেলেপুলে নিয়ে, ঘরে খাবার নেই, খাওয়ার পানি ,স্যানিটেশন ব্যবস্থা একেবারেই নেই।

প্রতাপনগরে দায়িত্বরত পাউবো’র (এসও) আলমগীর হোসেন জানান, বর্তমানে,কুড়িকাহনিয়া,চাকলা ও হরিশখালী এ তিনটা পয়েন্ট দিয়ে জোয়ার ভাটা পানি উঠা নামা করছে। আগামী ৫দিনের ভেতর কুড়িকাহনিয়া আটকাতে পারবো। চাকলা কয়েকদিন লাগবে। আগামী এ মাসের ভেতর সব বাঁধ আটকানো সম্ভব হবে বলে আশা করছি।

প্রতাপনগর ইউপি চেয়ারম্যান শেখ জাকির হোসেন জানান, আম্পান আমাদের সব শেষ করে দিয়েছে । আমাদের কষ্টের কোন সীমা নেই। আম্পানের পরবর্তী বাঁধ বাধার পর দুইবার ভেঙ্গে পুরো ইউনিয়ন প্লাবিত হয়েছে । এতে ঘরবাড়ি, মৎস্য ঘের প্লাবিত হয়ে ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে । বর্তমান ৩টা পয়েন্ট দিয়ে জোয়ার ভাটা চলছে। প্রতাপনগরের অবস্থা ২০ মে’র মত হয়েছে। একটা মানুষ মারা গেলে ও তার কবরটা পানির ভেতর দিতে হচ্ছে। প্রতাপনগরের মানুষের দুর্ভোগের কোনো শেষ নেই।

শ্রীউলা উপি চেয়ারম্যান আবু হেনা সাকিল জানান,সাড়ে ৮মাস পরও আমার ইউনিয়নের অনেক মানুয় পানির ভেতর বসবাস করেছে। মানুষের ঘরে খাবার নেই, খাওয়ার পানি নেই। স্যানিটেশন ব্যবস্থা ভেঙ্গে পরেছে। হাজরাখালি ও
কোলা বেড়ী বাঁধ আটকানো হলেও মানুষের দুর্ভোগ এখনো কমনি।

আশাশুনি উপজেলা নির্বাহী অফিসার (ইউএনও) মীর আলিফ রেজা বলেন, বেড়িবাঁধগুলোর সংস্কারকাজ দরুতগতিতে এগিয়ে যাচ্ছে। সংস্কারের ফলে ভাঙা বেড়িবাঁধগুলো আগের মতো দৃশ্যমান হচ্ছে। বাঁধের কাজ শুরু হওয়ায় এলাকাবাসী তাঁদের বাড়িতে ফিরতে শুরু করেছে।

news24bd.tv তৌহিদ

মন্তব্য

পরবর্তী খবর

রাজধানীর যেসব এলাকায় গ্যাস থাকবে না মঙ্গলবার

অনলাইন ডেস্ক

রাজধানীর যেসব এলাকায় গ্যাস থাকবে না মঙ্গলবার

পাইপলাইনের পুনর্বাসন ও সংশ্লিষ্ট সার্ভিস লাইন স্থানান্তর কাজের কারণে ঢাকার বেশকিছু এলাকায় আগামীকাল মঙ্গলবার গ্যাস সরবরাহ বন্ধ থাকবে।

গ্যাস বিতরণকারী সংস্থা তিতাস গ্যাস এ তথ্য নিশ্চিত করে। সংস্থাটি জানায়, গ্যাস পাইপলাইনের সংস্কার কাজের জন্য দুপুর ২টা থেকে সন্ধ্যা ৬ টা পর্যন্ত গ্যাস সরবরাহ বন্ধ থাকবে।

আরও পড়ুন:


ধর্ষণের পর শিক্ষার্থীর মৃত্যু, চিকিৎসক বলছেন ‘ভিন্ন কথা’

আ.লীগ প্রার্থীকে হারিয়ে নৈশ্যপ্রহরী এখন মেয়র!

সপ্তম শ্রেণির ছাত্রীকে ধর্ষণের অভিযোগে আ.লীগ নেতা গ্রেপ্তার

৭ নায়ক ৭ নির্মাতার ১ ছবি


 

আজ সোমবার সংস্থাটি জানিয়েছে, আগামীকাল রাজধানীর জিয়া সরণি, জুরাইন মেডিকেল রোড, জুরাইন মাদরাসা রোড, এ কে স্কুল রোড, মীরহাজীরবাগ ও এর আশপাশের এলাকায় আবাসিকসহ সব শ্রেণির গ্রাহকের গ্যাস সরবরাহ বন্ধ থাকবে।

গ্যাসের স্বল্পচাপজনিত সমস্যা নিরসনে মুরাদপুর পোকার বাজার রোড সংলগ্ন মুরাদপুর হাইস্কুল ও জুরাইন এলাকায় বিদ্যমান গ্যাস পাইপলাইনের পুনর্বাসন ও সংশ্লিষ্ট সার্ভিস লাইন স্থানান্তর কাজের টাই-ইনের জন্য এসব এলাকায় গ্যাস সরবরাহ বন্ধ থাকবে বলে জানানো হয়েছে।

news24bd.tv তৌহিদ

মন্তব্য

পরবর্তী খবর

পাটুরিয়া-দৌলতদিয়া ও বাংলাবাজার-শিমুলিয়া দিয়ে ফেরি চলাচল বন্ধ

অনলাইন ডেস্ক

পাটুরিয়া-দৌলতদিয়া ও বাংলাবাজার-শিমুলিয়া দিয়ে ফেরি চলাচল বন্ধ

ঘন কুয়াশায় দুর্ঘটনা এড়া‌তে দে‌শের গুরুত্বপূর্ণ পাটুরিয়া-দৌলতদিয়া ও বাংলাবাজার-শিমুলিয়া রুটে ফেরি চলাচল বন্ধ ক‌রে দেওয়া হয়েছে।

বিআইডি‌ব্লিউটিসি কর্তৃপক্ষ জানায়, রোববার (২৪ জানুয়ারি) যথাক্রমে রাত পৌনে ১১টা ও সোয়া ৯টার দিকে এসব রুটে ফেরি চালচাল বন্ধ করে দেয় কর্তৃপক্ষ।

এসময় মাঝ নদী‌তে যানবাহন ও যাত্রী নি‌য়ে আটকা পড়ে ক‌য়েক‌টি ফে‌রি। এ ছাড়া ফে‌রি চলাচল বন্ধ থাকায় উভয় ঘা‌টে দীর্ঘ হ‌চ্ছে যানবাহ‌নের সা‌রি এবং তীব্র শীতে ভোগা‌ন্তিতে প‌ড়ে‌ছেন চালক ও যাত্রীরা।

দুর্গাপুরে চলছে দোকান সমিতির অনির্দিষ্টকালের ধর্মঘট

কারাবন্দীর সঙ্গে একান্তে সময় কাটানো কে এই আসমা?

এ ব্যাপারে বিআইডব্লিউটিসি দৌলতদিয়া ঘাট শাখার সহকারী ব্যবস্থাপক মাহবুব হো‌সেন বলেন, ‘সন্ধ্যা থে‌কে পদ্মায় কুয়াশার ঘনত্ব বাড়‌তে থা‌কে। রাত পৌনে ১১টার দি‌কে কুয়াশায় নদীপথ অস্পষ্ট হ‌য়ে ওঠে। ফ‌লে দুর্ঘটনা এড়াতে দৌলতদিয়া-পাটুরিয়া নৌরুটে ফেরি চলাচল বন্ধ ক‌রে দেয়া হয়। কুয়াশার ঘনত্ব কমে আসলে পুনরায় এই রু‌টে ফেরি চলাচল শুরু করা হবে। ফে‌রি চলাচল বন্ধ থাকায় সি‌রিয়া‌লে কিছু যানবাহন র‌য়ে‌ছে। ফে‌রি চলাচল স্বাভা‌বিক হ‌লে দ্রুত এসব যানবাহ‌নের চাপ ক‌মে যা‌বে। বর্তমা‌নে এই রু‌টে ছোট-বড় ১৬টি ফে‌রি চলাচল কর‌ছে।’

এদিকে, ঘন কুয়াশার কারণে বাংলাবাজার-শিমুলিয়া রুটে রাত সোয়া ৯টা থেকে ফেরি চলাচল বন্ধ রাখা হয়। বিআইডব্লিউটিসির বাংলাবাজার ঘাট সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।

news24bd.tv তৌহিদ

মন্তব্য

পরবর্তী খবর

বাংলাবাজার-শিমুলিয়া রুটে ৮ ঘণ্টা ফেরি বন্ধ

পারাপারের দুই শতাধিক যানবাহন

বেলাল রিজভী, মাদারীপুর

বাংলাবাজার-শিমুলিয়া রুটে ৮ ঘণ্টা ফেরি বন্ধ

ঘন কুয়াশার কারণে বাংলাবাজার-শিমুলিয়া নৌরুটে ভোর ৫টা থেকে দুপুর ১২টা পর্যন্ত ৮ঘন্টা ফেরি বন্ধ থাকার পর ফেরি চলাচল শুরু করেছে। ঘন কুয়াশার কারণে দুর্ঘটনা এড়াতে সোমবার (১৮ জানুয়ারি) ভোর ৫টা থেকে নৌরুটে ফেরি চলাচল বন্ধ রাখে কর্তৃপক্ষ। একারনে পারাপাড়ের অপেক্ষায় উভয় পারে রয়েছে দুই শতাধিক যানবাহন।

বিআইডব্লিউটি'র  বাংলাবাজার ঘাটের ব্যবস্থাপক মো.সালাহউদ্দিন আহমেদ এ তথ্য জানিয়েছেন। এছাড়াও ভোর থেকে লঞ্চ ও স্পিডবোট চলাচলও বন্ধ রাখা হয়েছিল বলে ঘাট সূত্রে জানা গেছে। পরে ঘন কুয়াশার মধ্যে যাত্রীদের জীবনের ঝুঁকি নিয়েই সকাল ৭টা থেকে লঞ্চ ও স্পীডবোটে যাত্রীরা পারাপার হয়। এ রুটে ১৭টি ফেরি, ৮৭টি লঞ্চ ও ২শতাধিক স্পীডবোট চলাচল করে।

সিরাজুল আলম খানের অবস্থা উন্নতির দিকে

ধর্ষণের পর মা-মেয়ের মাথা ন্যাড়া করে দেওয়া সেই ‌‘শ্রমিক লীগ নেতার’ জামিন

বাংলাবাজার ঘাট সূত্রে জানা গেছে, সোমবার ভোর ৫টায় কুয়াশার পরিমাণ বেড়ে গেলে নৌরুটের দিক নির্দেশনামূলক বাতি অস্পষ্ট হয়ে আসে। এ সময় পদ্মা নদীতে দিক নির্ণয়ে ব্যর্থ হয় ফেরিগুলো। দুর্ঘটনা এড়াতে ভোর ৫টা থেকে ফেরি চলাচল বন্ধ রাখে কর্তৃপক্ষ। এ সময় চলাচলরত বেশ কয়েকটি ফেরি পদ্মা নদীর বিভিন্ন স্থানে নোঙর করে রাখা হয়েছিল। এদিকে ফেরি চলাচল বন্ধ থাকায় উভয় পাড়ে আটকা পাড়ে পড়েছে দুই শতাধিক যানবাহন।

এতে করে তীব্র শীতে দুর্ভোগে পড়েছে পরিবহন শ্রমিক ও যাত্রীরা।

বিআইডব্লিউটি বাংলাবাজার ফেরিঘাটের ব্যবস্থাপক মো.সালাহউদ্দিন আহমেদ জানান, ঘন কুয়াশার কারণে দূর্ঘটনা এড়াতে ৮ ঘন্টা ফেরি চলাচল বন্ধ রাখা হয়েছিল। এতে করে ঘাটের উভয়পারে দুই শতাধিক যানবাহন আটকরা পড়েছে। পর্যায়ক্রমে সব যানবাহন পারাপারের ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে।

news24bd.tv তৌহিদ

মন্তব্য

পরবর্তী খবর