সিংড়ায় হিন্দু দম্পতি কে বেঁধে রেখে মারপিট ও ভাংচুরের অভিযোগ
Breaking News
সিংড়ায় হিন্দু দম্পতি কে বেঁধে রেখে মারপিট ও ভাংচুরের অভিযোগ

সিংড়ায় হিন্দু দম্পতি কে বেঁধে রেখে মারপিট ও ভাংচুরের অভিযোগ

Other

নাটোরের সিংড়ার প্রত্যন্ত অঞ্চল পূর্ব মাগুড়া গ্রামে এক সংখ্যালঘু পরিবারের সদস্যদের বেঁধে রেখে মারপিট করে লুটপাটের অভিযোগ উঠেছে। এই ঘটনায় বাড়ির মালিক শ্রী কনক চন্দ্র প্রামাণিক ও রাধা রানী নামে দু’জন আহত হয়েছে। খবর পাওয়ার পর পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে।

সূত্রে জানা যায়, বৃহস্পতিবার রাত ১টার দিকে সিংড়া উপজেলার প্রত্যন্ত অঞ্চল পূর্ব মাগুড়া গ্রামের শ্রী কনক চন্দ্র প্রামাণিকের ছেলে সুব্রত এর ঘরের দরজা ভেঙ্গে ৮ থেকে ১০জনের একটি দুর্বৃত্ত দল প্রবেশ করে।

এ সময় পরিবারের অন্যান্য লোকজন বের হয়ে হই-চই শুরু করলে রাধা রানী ও শ্রী কনক চন্দ্র প্রামাণিককে মারধর করে বেঁধে রাখে দুর্বৃত্তরা। এ সময় নগদ টাকা সহ আনুমানিক ৪ লক্ষাধিক টাকার মালামাল লুট করে নিয়ে যায় বলে অভিযোগ করেছে ওই পরিবারটি।

 আরও পড়ুন:


প্রিয়াঙ্কার ৭ কোটির বাড়ি এখন জ্যাকুলিনের

শিশু সন্তান রেখে পরকীয়া প্রেমিকের সঙ্গে উধাও গৃহবধূ

স্বামী পালালেও ২০ কেজি গাঁজা নিয়ে স্ত্রী ধরা

ধর্ষণ ও হত্যাই যেন তার পেশা!


এদিকে, শুক্রবার সকাল ৯টায় হিন্দু দম্পতি রাধা রানী ও শ্রী কনক চন্দ্র প্রামাণিককে উদ্ধার করে সিংড়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে প্রাথমিক চিকিৎসা দেয়া হয়। তাদের হাত-মুখ সহ শরীরের বিভিন্ন স্থানে আঘাতের চিহ্ন রয়েছে।

এদিকে, রাধা রানী ইটালী ইউনিয়নের ৮নম্বর ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মাহবুবুর রহমান সহ ৮ জনের নাম উলে­খ করে সিংড়া থানায় একটি লিখিত অভিযোগ করেছেন। এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত সিংড়া থানা পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন। স্থানীয় ৭নম্বর ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সভাপতি মো. নজরুল ইসলাম বলেন, রাতে ওই রাড়িতে অনেক হই-চই শোনা গেছে। তখন কেউ ভয়ে ঘর থেকে বের হয়নি। তবে সকালে গিয়ে ঘর-বাড়ি ভাংচুর ও লুটপাটের চিহ্ন দেখা যায়।

এ বিষয়ে সিংড়া থানার ভারপ্রাপ্ত তদন্ত কর্মকর্তা রফিকুল ইসলাম জানান, প্রাথমিক ভাবে আমরা পূর্ব শত্রুতার জের ধরে হামলার ঘটনার সত্যতা পেয়েছি। তদন্ত করে ব্যবস্থা গ্রহণ করা হচ্ছে।

news24bd.tv / কামরুল 

;