ঘরে ঢুকে গৃহবধূকে ধর্ষণের হুমকি দিয়ে ডাকাতি

অনলাইন ডেস্ক

ঘরে ঢুকে গৃহবধূকে ধর্ষণের হুমকি দিয়ে ডাকাতি

কুমিল্লার তিতাস উপজেলা সদরের কড়িকান্দি ইউনিয়নে এক গৃহবধূকে গণধর্ষণের হুমকি দিয়ে ডাকাতির ঘটনা ঘটেছে। রোববার রাত দেড়টার দিকে চর রাজাপুরের হাবিবুর রহমান বেপারি বাড়িতে এ ঘটনা ঘটে।

সরেজমিন জানা যায়, এসএস পাইপের গেটের মালয়েশিয়ান তালা তরল জাতীয় কিছু দিয়ে খুলে ঘরের ভেতর প্রবেশ করে ১২-১৫ জনের একটি সংঘবদ্ধ ডাকাত দল। তারা অস্ত্রের মুখে সাইফুল ইসলামের স্ত্রীকে গণধর্ষণের হুমকি দিয়ে প্রতিটি কক্ষ থেকে তালা ভেঙে দামি সব জিনিসপত্র নিয়ে যায়।

আরও পড়ুন:


‘করোনায় আক্রান্ত’ বলে ধর্ষণ থেকে বাঁচলেন তরুণী

‌‘বাড়ি চলে যান, নইলে অ্যাকশন’, বিক্ষোভকারীদের মিয়ানমারের সেনাবাহিনী

মোশাররফ করিম ‘বাংলাদেশের শাহরুখ খান’: আনন্দবাজার

গাড়িতে উঠিয়ে দরজা বন্ধ করে ধর্ষণ

এফ-৩৫ ও এস-৪০০ একসঙ্গে রাখা যাবে না, তুরস্ককে যুক্তরাষ্ট্র

পুলিশ সুপারের গাড়িতে সেতুমন্ত্রীর কাছে নিয়ে গেল পুলিশ

বটি দিয়ে কুপিয়ে ধর্ষণ থেকে বাঁচলেন নারী

‌‘দূর সম্পর্কের বোনের’ সম্মতিতে শারীরিক সম্পর্ক, সাজা বাতিল হলো কিশোরের

দেশীয় বিলুপ্ত প্রজাতির শকুনটিকে খাওয়ানো হচ্ছে মাংস

তুরস্ককে বাইডেন প্রশাসনের হুমকি

হাবিবুর রহমান প্রকাশ হবির ছেলে মালয়েশিয়া প্রবাসী সাইফুল ইসলাম বলেন, ডাকাতরা ঘরে ঢুকেই আমাদের সবার হাত, পা, মুখ দড়ি ও স্কচটেপ দিয়ে বেঁধে ফেলে। ডাকাত দল ঘরে থাকা নগদ চার লাখ টাকা, ১০ ভরি ওজনের স্বর্ণালঙ্কার, ল্যাপটপসহ প্রায় ১৭ লক্ষাধিক টাকার মূল্যবান জিনিসপত্র নিয়ে যায় বলে পরিবারটির দাবি।

বাড়ির মালিক হাবিবুর রহমান হবি বলেন, আমার পুত্রবধূকে জিম্মি করে রাম দা, ধারালো ছুরি ও কাওয়াল দিয়ে ভয় দেখিয়ে সব নিয়ে নিঃস্ব করে গেছে আমাদের। এখন আমার কী হবে? দেশে কী আইনশৃঙ্খলা বলতে কিছু নাই?

ভিন্ন এক ঘটনায় একই কায়দায় উপজেলার আলীরগাঁও গ্রামের দুটি বাড়িতে ডাকাতির ঘটনা ঘটে। গৃহবধূকে ডাকাত দল ধর্ষণ করার চেষ্টা করলে বুকে পবিত্র কোরআন শরীফ চেপে ধরে ধর্ষণ থেকে রক্ষা পান সেই গৃহবধূ।

তিতাস থানার ওসি সৈয়দ আহসানুল ইসলাম জানান, আমি নিজেই ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছি। তদন্তসাপেক্ষে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করব।

news24bd.tv তৌহিদ

মন্তব্য

পরবর্তী খবর

বিয়ে করতে রাজি না হওয়ায় কেটে ফেলা হল কিষানীর তিন হাজার গাছ

অনলাইন ডেস্ক

বিয়ে করতে রাজি না হওয়ায় কেটে ফেলা হল কিষানীর তিন হাজার গাছ

মৌলভীবাজারের শ্রীমঙ্গলে বিয়েতে রাজি না হওয়ায় এক কিষানির প্রায় তিন হাজার সবজি গাছ কেটে ফেলা হয়েছে। বুধবার দুপুরে উপজেলার আশিদ্রোন ইউপির ৮ নম্বর ওয়ার্ডের পাড়ের টং গ্রামে এমন দৃশ্য দেখা গেছে।

সবজির ভরা মৌসুমে ফলসহ গাছগুলো কেটে ফেলায় নিঃস্ব হয়ে পড়েছেন আশিদ্রোন ইউনিয়নের পাড়ের টং গ্রামের কিষানি জাহেরা খাতুন। রাতের আঁধারে তার চাষ করা ৩ একর জমির গাছগুলো কেটে এবং উপড়ে ফেলা হয়েছে।

প্রায় তিন হাজার করলা, শশা, চালকুমড়া, চিচিঙ্গাসহ বিভিন্ন সবজি গাছ মাটিতে পড়ে থাকতে দেখা গেছে। সব গাছের গোড়া কেটে এবং উপড়ে ফেলে মাটিতে রাখা হয়েছে। গাছগুলোতে ফল ও ফুল দুটোই রয়েছে। 

সবজি চাষি জাহেরা খাতুন অভিযোগ করেন, বানিয়াচং উপজেলার গুনই গ্রামের আনোয়ার আলী, পাড়ের টংয়ের ইনচার আলী ও কাদির মিয়া মঙ্গলবার রাতে তার সবজি ক্ষেত নষ্ট করেছে। সবজি গাছগুলো কেটে ফেলায় তার প্রায় ১০ লাখ টাকার ক্ষতি হয়েছে। ঋণ নিয়ে তিন একর জমিতে সবজি চাষ শুরু করেছিলাম। ভরা ফলের সময়ে রাতের আঁধারে আমার ক্ষেতের ফসল কেটে ফেলল। আমি পরিবার নিয়ে নিঃস্ব হয়ে পড়েছি।

আরও পড়ুন:


তামিমার পাসপোর্ট আসল কিনা মুখ খুললেন নাসিরের সাবেক প্রেমিকা

একসাথে রাম চরণ ও কোরিয়ান নায়িকা সুজি!

রাজধানীর যেসব এলাকায় গ্যাস থাকবে না আজ

পিলখানা হত্যা: শহীদদের সমাধিতে রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রীর শ্রদ্ধা


এ ব্যাপারে বুধবার শ্রীমঙ্গল থানায় একটি লিখিত অভিযোগ করেছেন তিনি।

৮ নম্বর ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য বিল্লাল হোসেন ও ৭, ৮, ৯ নম্বর সংরক্ষিত ওয়ার্ডের নারী সদস্য শিল্পী পাল বলেন, আনোয়ার মিয়ার স্ত্রী মারা যাওয়ায় জাহেরা খাতুনকে বিয়ের প্রস্তাব দিয়েছিলেন। জাহেরা খাতুন এই প্রস্তাবে রাজি না হওয়ায় আনোয়ার মিয়া ক্ষুব্ধ হয়ে একাজ করেছেন।

আনোয়ার মিয়ার সঙ্গে কথা বলতে যোগাযোগের চেষ্টা করা হয়। তিনি পলাতক আছেন।

news24bd.tv আহমেদ

মন্তব্য

পরবর্তী খবর

গাজীপুরে হেরোইনসহ দুই মাদক ব্যবসায়ী আটক

শেখ সফিউদ্দিন জিন্নাহ, গাজীপুর

গাজীপুরে হেরোইনসহ দুই মাদক ব্যবসায়ী আটক

গাজীপুরের টঙ্গী থেকে ২ হাজার ৬৩০ কেজি হেরোইনসহ দুই মাদক ব্যবসায়ী আটক। একটি ট্রাক জব্দ করেছে র‌্যাব।

বিস্তারিত আসছে...

news24bd.tv আয়শা

মন্তব্য

পরবর্তী খবর

তুচ্ছ ঘটনায় বাবাকে হত্যা, র‍্যাবের হাতে ধরা সেই ঘাতক ছেলে

অনলাইন ডেস্ক

তুচ্ছ ঘটনায় বাবাকে হত্যা, র‍্যাবের হাতে ধরা সেই ঘাতক ছেলে

ময়মনসিংহ ফুলবাড়িয়া উপজেলার আছিম পাটুলী ইউনিয়নের পাটুলী টানপাড়া গ্রামে তুচ্ছ ঘটনায় বৃদ্ধ বাবা চান মিয়া (৬০)কে হত্যার ঘটনায় ঘাতক ছেলে গোলাম ফারুক (৩৫) কে গ্রেপ্তার করেছে র‍্যাব।

ময়মনসিংহ র‍্যাব-১৪ আজ  বুধবার দুপুরে ফুলবাড়িয়া থানায় সোপর্দ করেছে। গত শনিবার সকালে বাবা-ছেলের মধ্যে কথা-কাটাকাটি হলে এক পর্যায়ে বাঁশ দিয়ে মাথায় আঘাত করলে গুরুতর আহত হয়। মচিমহায় নিয়ে ভর্তি করা হলে রাতেই মারা যান তিনি। ঘটনার পর থেকে ছেলে পলাতক ছিল।


কাদের মির্জার অশালীন ফোনালাপ ফাঁস (অডিওসহ)

নিজের সব সন্তানকে চেনেন না পেলে!

বাংলাদেশ বিমান বহরে যোগ হল 'আকাশতরী'

বঙ্গবন্ধুর খুনিকে ফেরত চেয়ে যুক্তরাষ্ট্রকে আবারও অনুরোধ


বাবাকে হত্যার ঘটনায় বড় ছেলে মুছা মিয়া বাদী হয়ে গোলাম ফারুককে আসামি করে ফুলবাড়িয়া থানায় মামলা করেন। তাঁকে গ্রেপ্তার করতে র‍্যাব, পুলিশের একাধিক টিম বিভিন্ন জায়গায় অভিযান চালায়। গত রাতে র‍্যাব ভালুকা উপজেলার জামিদিয়া গ্রামে এক খালা শাশুড়ির বাড়ি থেকে গোলাম ফারুককে গ্রেপ্তার করেন।

মামলা তদন্তকারী কর্মকর্তা ফুলবাড়িয়া থানার এস আই রুবেল খান জানান, হত্যা মামলায় গ্রেপ্তারকৃত ছেলেকে বৃহস্পতিবার সকালে আদালতে নেওয়া হবে।

news24bd.tv / কামরুল 

মন্তব্য

পরবর্তী খবর

মসজিদে দাঁড়িয়ে কোরআন হাতে নিজেকে নির্দোষ দাবি করে সে

অনলাইন ডেস্ক

মসজিদে দাঁড়িয়ে কোরআন হাতে নিজেকে নির্দোষ দাবি করে সে

প্রাইভেট থেকে ফেরার পথে চেতনানাশক দিয়ে স্কুলছাত্রীকে ধর্ষণের ঘটনার দশদিনেও অভিযুক্তদের গ্রেপ্তার করতে পারেনি পুলিশ। এ নিয়ে ভুক্তভোগি পরিবার ও স্থানীয়দের মাঝে ক্ষোভ বিরাজ করছে।

গত ১৪ ফেব্রুয়ারি (রোববার) গোপালগঞ্জের টুঙ্গিপাড়া উপজেলার নতুন বাজার বটতলা থেকে তিন যুবক নবম শ্রেণির ওই ছাত্রীকে ইজিবাইকে করে অন্যত্র তুলে নিয়ে ধর্ষণ করে। পরে শনিবার (২০ ফেব্রুয়ারি) স্কুল ছাত্রীর বাবা বাদি হয়ে মামলা দায়ের করেন।

মামলায় অভিযুক্তরা হলেন- মিতুল মল্লিক (২২), তার বন্ধু রাজিব শেখ (২৩) ও রসুল খান (২১)।

আরও পড়ুন:


স্ত্রীকে সৌদি পাঠিয়ে ৮ বছরের মেয়েকে নিয়মিত ধর্ষণ করে বাবা

বন্ধুর স্ত্রীর ‘গোপন ভিডিও’ ধারণ, ভয় দেখিয়ে আটমাস ধরে ‘ধর্ষণ’

কুমিল্লাগামী বাসে দরজা-জানালা বন্ধ করে তরুণীকে ধর্ষণ!

কলাইক্ষেতে নারীর অর্ধনগ্ন মরদেহ, পাশে পাজামা-ছাতা-স্যান্ডেল


এরপর ধর্ষণের ঘটনা ধামাচাপা দেয়ার অভিযোগ ওঠায় সোমবার (২২ ফেব্রুয়ারি) তার সহপাঠীরা মানববন্ধন করে। মানববন্ধনে বিভিন্ন সামাজিক-সাংস্কৃতিক সংগঠন ও স্থানীয় এলাকাবাসীরা যোগ দেন।

এ সময় টুঙ্গীপাড়া উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক শেখ বাবুল হোসেন ও পৌরমেয়র শেখ মোজাম্মেল হক টুটুল ২৪ ঘণ্টার মধ্যে আসামিদের গ্রেফতারের প্রতিশ্রুতি দেন।

এদিকে ধর্ষকের সহযোগী রাজিব শেখ অজ্ঞাত স্থান থেকে তার ফেসবুকে একটি ভিডিও প্রকাশ করে। মসজিদে দাঁড়িয়ে কোরআন শরীফ হাতে কান্না করে নিজেকে নির্দোষ দাবি করে সে।

টুঙ্গীপাড়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) এফএম নাসিম বলেন, আসামিদের গ্রেফতারে বিভিন্ন স্থানে অভিযান অব্যাহত রয়েছে। খুব তাড়াতাড়ি অভিযুক্তদের ধরতে পারব।

news24bd.tv তৌহিদ

মন্তব্য

পরবর্তী খবর

তামিমাকে নিয়ে নাসিরের ‘ভয়’

অনলাইন ডেস্ক

তামিমাকে নিয়ে নাসিরের ‘ভয়’

বনানীতে এক সংবাদ সম্মেলনে ক্রিকেটার নাসির হোসেন হুঁশিয়ারি দিয়ে বলেছেন, মিথ্যা প্রচারের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেবেন। তামিমাকে নিয়ে ভয়ে আছেন জানিয়ে তিনি বলেছেন, ‘আমার এখন ভয় লাগছে, তামিমা যেকোনো সময় ভুল সিদ্ধান্ত নিয়ে নিতে পারে। এখন তামিমা আর তামিমা নয়। তামিমা হোসাইন। সুতরাং তার নামে কেউ কিছু বললে আমি মেনে নেব না।’

বুধবার বনানীতে এক সংবাদ সম্মেলনে স্ত্রী তামিমা তাম্মিকে সঙ্গ নিয়ে নাসির হোসেন এসব কথা বলেন। তিনি বলেন, ধর্মীয় রীতিনীতি এবং দেশের প্রচলিত আইন মেনেই আমি তামিমাকে বিয়ে করেছি। আমি তাই সকলের প্রতি আহ্বান করছি যেন এমন কিছু না করা হয় যাতে তার স্ত্রীর কোন অসুবিধা হয়। তামিমাকে আমি চিনি চার, সাড়ে চার বছর ধরে। আমি ওকে খুব কাছ থেকে চিনি। আমরা দু'জনই প্রাপ্ত বয়স্ক। আমরা আইনগতভাবে, ধর্ম অনুযায়ী বিয়ে করেছি। কোন সমস্যা থাকলে এভাবে লোক জানিয়ে বিয়ে করতাম না।

তিনি আরও বলেন, ‘আমি ওর ব্যাপারে আমি সব জানতাম। ওর আগে বিয়ে হয়েছে, বাচ্চা আছে। ডিভোর্স হয়েছে। বিয়ের আগে আমরা লিগ্যাল ডিভোর্স পেপার দেখেই বিয়ে করেছি। আমি চাইলে ডিভোর্স পেপার ফেসবুকে এসে দেখাতে পারতাম। কিন্তু দেখাইনি।’

নাসির বলেন, ‘মিস্টার রাকিব আমাদের নিয়ে যা বলেছেন সেসব কথা সব মিথ্যা। তার কথার মধ্যে সত্য হলো রাকিবের সাথে আমার বিয়ে হয়েছিলো এবং আমাদের একটি বাচ্চা আছে। উনি যেটা করছেন সেটা এখন সবারই জানা হয়ে গেছে। তিনি যেসব মিথ্যে কথা বলেছেন তার প্রমাণ আমার কাছে আছে।’

news24bd.tv তৌহিদ

মন্তব্য

পরবর্তী খবর