'আমার প্রাক্তনের চেয়েও সেনাশাসন খারাপ': মিয়ানমারে গণবিক্ষোভ

অনলাইন ডেস্ক

'আমার প্রাক্তনের চেয়েও সেনাশাসন খারাপ': মিয়ানমারে গণবিক্ষোভ

সেনা অভ্যুত্থানের মাধ্যমে ক্ষমতা দখল করা সামরিক বাহিনীর বিরুদ্ধে তুমুল বিক্ষোভ চলছে মিয়ানমারে। এই বিক্ষোভের অন্যতম উল্লেখযোগ্য দিক হলো নানা অভিনব শ্লোগান-প্ল্যাকার্ডসহ তরুণ প্রজন্মের অভূতপূর্ব অংশগ্রহণ। নতুন প্রজন্মের দেওয়া এসব বার্তা আগে কখনো দেখেনি মিয়ানমার।

শাসকবিরোধী বিক্ষোভ-আন্দোলন মিয়ানমারে আগেও হয়েছে। তবে সেসবের সাথে এবারের আন্দোলনের উল্লেখযোগ্য পার্থক্য রয়েছে। ইন্টারনেটের সুবিধা এবং পশ্চিমা সংস্কৃতির সংস্পর্শে আসা এই প্রজন্মের প্রতিবাদের ভাষাও তাই আগের চেয়ে ভিন্ন। সাধারণত ২৪ বছরের কম বয়সীদের এই প্রজন্মকে জেনারেশন জেড বা জেন জেড বলা হয়।

মিয়ানমারে জান্তাবিরোধী বিক্ষোভে অংশ নেওয়া জেনারেশন জেডের হাতে দেখা গেছে নানা ধরনের চমকপ্রদ, সুক্ষ কিন্তু তীক্ষ্ণ ব্যঙ্গাত্মক কিংবা দুষ্টু বার্তা লেখা নানা প্ল্যাকার্ড।

বিক্ষোভে অংশ নেওয়া এক তরুণীর হাতে থাকা কাগজে লেখা ছিল, আমার প্রাক্তন (প্রেমিক) খারাপ, কিন্তু মিয়ানমারের সেনাবাহিনী আরো খারাপ। আবার, আরেকজনের প্ল্যাকার্ডের ভাষা একটু নরম। তাতে লেখা, স্বৈরশাসন চাই না, বয়ফ্রেন্ড চাই।


সালমানের টানে মায়ামি থেকে মুম্বাই, বিচ্ছেদের কারণ ঐশ্বরিয়া

পানির নীচে পৃথিবীর অষ্টম মহাদেশের খোঁজে

দেহের গঠন ঠিক করতেই প্লাস্টিক সার্জারি করেছিলেন প্রিয়াঙ্কা


আরেকটি প্ল্যাকার্ডে লেখা, প্রেম চাই, স্বৈরশাসন নয়।

news24bd.tv / নকিব

পরবর্তী খবর

ইসরায়েলের বিমান হামলায় হামাসের কমান্ডার নিহত

অনলাইন ডেস্ক

ইসরায়েলের বিমান হামলায় হামাসের কমান্ডার নিহত

আল আকসায় মুসলিমদের সঙ্গে ইসরায়েলি বাহিনীর তাণ্ডবের ঘটনায় রকেট হামলা চালায় হামাস। এর পরই গাজা উপত্যকা লক্ষ্য করে ইসরায়েল বিমান হামলা চালায়। এতে হামাসের এক সিনিয়র কমান্ডার নিহত হয়েছেন।

সোমবার (১০ মে) স্থানীয় সময় রাত ৮টার দিকে বিমান হামলা চালায় ইসরায়েল।

ইসরায়েলি সেনার মুখপাত্র জনাথন কংরিকাস বলেন, আমরা গাজার সেনাদের লক্ষ্য করে হামলা চালিয়েছি। আমরা তাদের সেনা পরিচালকদের টার্গেট করেছি। 

হামাস বাহিনী সংবাদ সংস্থা এএফপিকে জানিয়েছে, তাদের একজন কমান্ডার ইসরায়েলি বিমান হামলায় নিহত হয়েছে।

news24bd.tv তৌহিদ

পরবর্তী খবর

ইসরায়েলে হামাসের ৭ রকেট হামলা

অনলাইন ডেস্ক

ইসরায়েলে হামাসের ৭ রকেট হামলা

গাজার সশস্ত্র গ্রুপ আল্টিমেটাম দেওয়ার পর জেরুজালেমে বিকট শব্দে বিস্ফোরণ হওয়ার ঘটনা ঘটেছে। সোমবার সন্ধ্যার পর ৬টার দিকে এই রকেট হামলার ঘটনা ঘটে।

গাজার কাছ থেকেও রকেট হামলার ঘটনা ঘটে। সোশ্যাল মিডিয়ায় ছড়িয়ে পড়া ছবিতে ইসরায়েলের সঙ্গে সীমান্তের আকাশে সাদা ধোঁয়া উড়তে দেখা যায়। তবে ওই ফুটেজ তাৎক্ষণিকভাবে নিশ্চিত করা সম্ভব হয়নি।

ইসরায়েলি সেনাবাহিনী এক বিবৃতিতে জানিয়েছে, গাজা উপত্যকা থেকে ইসরায়েলি অঞ্চলের বেইত শিমেশ এবং জেরুজালেম শহরে সাতটি রকেট ছোঁড়া হয়। এরপর সাইরেন বাজানো হয়। আয়রন ডোম এরিয়াল ডিফেন্স সিস্টেম একটি রকেটকে প্রতিহত করে।

এগুলো ছাড়াও অ্যান্টি-ট্যাংক মিসাইল ছোঁড়া হয়েছে বলেও জানিয়েছে ইসরায়েলি সেনাবাহিনী। এদিকে প্যালেস্টিনিয়ান ইসলামিক জিহাদও ইসরায়েলে একাধিক রকেট হামলা চালানোর দাবি করেছে। ইসরায়েলি সেনাবাহিনী কয়েকটি শহরে ‘রেড অ্যালার্ট’ জারি করার পর এই দাবি করে গ্রুপটি।

পরবর্তী খবর

ইসরায়েলি বিমান হামলায় ৯ ফিলিস্তিনি নিহত

অনলাইন ডেস্ক

ইসরায়েলি বিমান হামলায় ৯ ফিলিস্তিনি নিহত

গাজার উত্তরাঞ্চলে ইসরায়েলি বিমান হামলায় অন্তত নয়জন ফিলিস্তিনি নিহত হয়েছে। গাজার স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় সোমবার এক বিবৃতিতে এ কথা জানিয়েছে। খবর ডেইলি সাবাহ ও আল জাজিরার।

ইসরায়েলি সেনাবাহিনী তাৎক্ষণিকভাবে এই হামলার বিষয়ে মন্তব্য করেনি।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানিয়েছেন, নিহতদের মধ্যে তিনজন শিশু।

এর আগে হামলার পর পর ফিলিস্তিনের মেডিকেল কর্মীরা জানিয়েছিল, অন্তত একজন নিহত এবং বেশ কয়েকজন আহত হয়েছে।

গত কয়েকদিন ধরেই জেরুজালেমে আল-আকসা মসজিদ ও এর আশপাশের এলাকায় ইসরায়েলি পুলিশের সঙ্গে ফিলিস্তিনি বিক্ষোভকারীদের সংঘর্ষ চলছে। ইসরায়েলি বাহিনী শান্তিপূর্ণ মুসল্লিদের ওপর বিনা উস্কানিতে হামলা চালিয়ে যাচ্ছে।

একটি মেডিকেল সূত্র আনাদোলু এজেন্সিকে জানিয়েছে, ৫০ জনকে আহতাবস্থায় হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়েছে।

এদিকে ১৯৬৭ সালের ৬ দিনের যুদ্ধের স্মরণে ‘জেরুজালেম দিবস’ পালনের একটি র‌্যালিকে সামনে রেখে ফিলিস্তিনিদের ওপর ব্যাপক হামলা চালায় ইসরায়েলি বাহিনী। রাবার বুলেট, টিয়ার গ্যাস ও স্টান গ্রেনেডের হামলায় শত শত ফিলিস্তিনি আহত হয়।

দখলদার বাহিনী হামলার জবাবে পাথর ও অন্যান্য বস্তু ছুঁড়ে প্রতিরোধ গড়ার চেষ্টা করেছে ফিলিস্তিনিরা। কিন্তু ইসরায়েলি বাহিনী আল-আকসা মসজিদের ভেতর ঢুকে স্টান গ্রেনেড ছুঁড়েছে।

শুক্রবার থেকে ইসরায়েলি পুলিশ আল-আকসা মসিজদে ফিলিস্তিনে মুসল্লিদের ওপর হামলা চালিয়ে যাচ্ছে। এসব হামলার ঘটনায় অন্তত ৩০০ জন আহত হয়েছে। ফিলিস্তিন রেড ক্রিসেন্ট জানিয়েছে, আহতদের অধিকাংশের শরীরেই ইসরায়েলি পুলিশের ছোঁড়া রাবার বুলেটের আঘাত রয়েছে।
গাজার উত্তরাঞ্চলে ইসরায়েলি বিমান হামলায় অন্তত নয়জন ফিলিস্তিনি নিহত হয়েছে। গাজার স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় সোমবার এক বিবৃতিতে এ কথা জানিয়েছে। খবর ডেইলি সাবাহ ও আল জাজিরার।

ইসরায়েলি সেনাবাহিনী তাৎক্ষণিকভাবে এই হামলার বিষয়ে মন্তব্য করেনি। প্রত্যক্ষদর্শীরা জানিয়েছেন, নিহতদের মধ্যে তিনজন শিশু।

এর আগে হামলার পর পর ফিলিস্তিনের মেডিকেল কর্মীরা জানিয়েছিল, অন্তত একজন নিহত এবং বেশ কয়েকজন আহত হয়েছে।

গত কয়েকদিন ধরেই জেরুজালেমে আল-আকসা মসজিদ ও এর আশপাশের এলাকায় ইসরায়েলি পুলিশের সঙ্গে ফিলিস্তিনি বিক্ষোভকারীদের সংঘর্ষ চলছে। ইসরায়েলি বাহিনী শান্তিপূর্ণ মুসল্লিদের ওপর বিনা উস্কানিতে হামলা চালিয়ে যাচ্ছে।

একটি মেডিকেল সূত্র আনাদোলু এজেন্সিকে জানিয়েছে, ৫০ জনকে আহতাবস্থায় হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়েছে।

এদিকে ১৯৬৭ সালের ৬ দিনের যুদ্ধের স্মরণে ‘জেরুজালেম দিবস’ পালনের একটি র‌্যালিকে সামনে রেখে ফিলিস্তিনিদের ওপর ব্যাপক হামলা চালায় ইসরায়েলি বাহিনী। রাবার বুলেট, টিয়ার গ্যাস ও স্টান গ্রেনেডের হামলায় শত শত ফিলিস্তিনি আহত হয়।

দখলদার বাহিনী হামলার জবাবে পাথর ও অন্যান্য বস্তু ছুঁড়ে প্রতিরোধ গড়ার চেষ্টা করেছে ফিলিস্তিনিরা। কিন্তু ইসরায়েলি বাহিনী আল-আকসা মসজিদের ভেতর ঢুকে স্টান গ্রেনেড ছুঁড়েছে।

শুক্রবার থেকে ইসরায়েলি পুলিশ আল-আকসা মসিজদে ফিলিস্তিনে মুসল্লিদের ওপর হামলা চালিয়ে যাচ্ছে। এসব হামলার ঘটনায় অন্তত ৩০০ জন আহত হয়েছে। ফিলিস্তিন রেড ক্রিসেন্ট জানিয়েছে, আহতদের অধিকাংশের শরীরেই ইসরায়েলি পুলিশের ছোঁড়া রাবার বুলেটের আঘাত রয়েছে।

পরবর্তী খবর

নদীতে ভেসে এল ৪০টির বেশি লাশ

অনলাইন ডেস্ক

নদীতে ভেসে এল ৪০টির বেশি লাশ

ভারতের বিহার রাজ্যে গঙ্গায় ভেসে এসেছে ৪০টির বেশি লাশ। এসব লাশ করোনায় মৃত ব্যক্তিদের বলে ধারণা করা হচ্ছে।

সোমবার এই খবর জানিয়ে এনডিটিভি বলছে, করোনাভাইরাস ভারতে কী প্রভাব ফেলেছে, তারই যেন প্রকাশ ঘটল নদীতে লাশের এই বহরে।

এনডিটিভির খবরে বলা হয়, বিহার রাজ্যের বক্সারে সোমবার সকালে গঙ্গা নদীতে লাশগুলো পাওয়া গেছে। ভোরে ঘুম থেকে উঠে স্থানীয় ব্যক্তিরা নদীতে এসব লাশ দেখতে পান। লাশগুলো পচেগলে ফুলে গেছে। সেখানে তখন ভীতিকর পরিস্থিতি তৈরি হয়।

স্থানীয় প্রশাসনের ধারণা, লাশগুলো উত্তর প্রদেশ থেকে ভেসে এসেছে। মৃত করোনা রোগীদের মরদেহ দাহ বা দাফনের জন্য জায়গা না পেয়ে সেগুলো নদীতে ভাসিয়ে দিয়ে থাকতে পারেন স্বজনেরা।

বিহারের চৌসা জেলা কর্মকর্তা অশোক কুমার বলেন, ‘৪০ থেকে ৪৫টি লাশ ভাসতে দেখা গেছে।’ চৌসার মহাদেবা ঘাট থেকে লাশগুলো উদ্ধার করা হয়। সেখানে দাঁড়িয়েই কথা বলছিলেন অশোক কুমার। তিনি বলেন, লাশগুলো নদীতে ভাসিয়ে দেওয়া হয়েছিল বলে মনে হচ্ছে।

কারও কারও মতে, লাশের সংখ্যা ১০০–এর কাছাকাছি। 

স্থানীয় প্রশাসনের আরেক কর্মকর্তা কে কে উপাধ্যায় বলেন, ‘লাশগুলো ফুলে গেছে। অন্তত পাঁচ থেকে সাত দিন ধরে সেগুলো পানিতে ছিল। আমরা লাশগুলোর সৎকারের ব্যবস্থা করছি। আমাদের দেখতে হবে এগুলো কোথা থেকে এসেছে। উত্তর প্রদেশের বাহরাইচ, বারানসি নাকি এলাহাবাদ থেকে।’

কে কে উপাধ্যায় আরও বলেন, ‘এসব লাশ বিহারের কোথাও থেকে আসেনি। কারণ, এখানে নদীতে ভাসিয়ে দিয়ে লাশ সৎকার করা হয় না।’

news24bd.tv তৌহিদ

পরবর্তী খবর

আস্থা ভোটে নেপালে সরকার পতন

অনলাইন ডেস্ক

আস্থা ভোটে নেপালে সরকার পতন

নেপালের প্রধানমন্ত্রী কে পি শর্মা ওলি  সংসদের আস্থা ভোটে পরাজিত হয়েছেন। আস্থা ভোটে  ওলি সরকারের পক্ষে মোট ভোট পড়েছে ৯৩টি এবং তার বিপক্ষে ভোট পড়েছে ১২৪টি। এছাড়া ১৫ জন সংসদ সদস্য ভোটদানে বিরত ছিলেন।

সোমবার (১০ মে) নেপালের ২৭১ আসনের সংসদে ২৩২ জন সদস্য উপস্থিতিতে এ ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত হয়।

২০১৫ সালের সেপ্টেম্বর মাসে নতুন সংবিধানের অধীনে নির্বাচিত হয় ওলি সরকার। এরপর এটাই প্রথম আস্থা ভোট তাদের। পুষ্প কমল দাহালের নেতৃত্বাধীন নেপাল কমিউনিস্ট পার্টি (মাওবাদী) সমর্থন প্রত্যাহার করায় সংখ্যাগরিষ্ঠতা হারায় ওলি সরকার। এ কারণে তাদেরকে সংসদের নিম্নকক্ষে আস্থা ভোটে আসতে হয়েছে।

আর আস্থা ভোটে এসে হারের মুখ দেখলো তারা ফলে ৩৮ মাসেই পত হলো ওলি সরকারেরে। ক্ষমতাসীন দলের বিক্ষুব্ধ সদস্যরা দলীয় হুইপকে অস্বীকার করেন এবং ভোটদানে বিরত ছিলেন। এ কারনে তাদের সংসদ সদস্য পদও চলে যেতে পারে।

এই হারের পর কে পি শর্মা ওলি রাষ্ট্রপতি বিদ্যাদেবী ভান্ডারীর কাছে পদত্যাগপত্র জমা দেবেন।

news24bd.tv/আলী

পরবর্তী খবর