রোহিঙ্গাদের ফিরিয়ে দেওয়ার বিকল্প নেই: বিশ্লেষক
Breaking News
রোহিঙ্গাদের ফিরিয়ে দেওয়ার বিকল্প নেই: বিশ্লেষক

রোহিঙ্গাদের ফিরিয়ে দেওয়ার বিকল্প নেই: বিশ্লেষক

Other

৩ বছর আগে অনিশ্চিত ভবিষ্যতকে সঙ্গী করে মিয়ানমার থেকে বাংলাদেশে আসা রোহিঙ্গারা এখন উন্নত জীবনের স্বপ্ন দেখছেন ভাসানচরে। সেখানে বসেই নিজেরা গড়ে তুলেছেন বাজার। আবার সেই বাজারের তারাই ক্রেতা।  

কর্মকর্তারা জানান, নিয়মনীতি মেনে চলতে পারলে আধুনিক সব সুযোগ সুবিধাই ভোগ করতে পারবেন এই চরের বাসিন্দারা্।

বিশ্লেষকরা বলছেন, ভাসানচর নিরাপদ হলেও রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসনের কোন বিকল্প নেই।  

কক্সবাজারের খুপরি ঘর ছেড়ে ভাসানচরের  নিরাপদ নিবাস পেয়ে আনন্দিত রোহিঙ্গারা।
পড়ালেখা আর খেলাধুলায় সময় যায় রোহিঙ্গা শিশুদের। পুরুষদের এখনো কাজ করার আনুষ্ঠানিক অনুমতি না থাকলেও ঘরের আঙ্গিনায় ছোট্ট দোকান করেছেন কেউ কেউ । গড়ে উঠেছে বাজার। বিক্রি হচ্ছে শীতের পিঠাও।  

আর সন্ধ্যার পর চলে গান বাজনাসহ নির্মল বিনোদনের নানা আয়োজন। চার দফায় প্রায় সাড়ে ৬ হাজার রোহিঙ্গা যায় ভাসানচরে। নিজেদের ঘর আর আধুনিক সুযোগ সুবিধায় খুশির কথাও জানান তারা।


প্রেম করলে আসক্তির সঙ্গে শরীরে যে প্রতিক্রিয়া হয়

শ্রমিক নেবে না মালয়েশিয়া!

চাকরি দেবে আইএফআইসি ব্যাংক


সৌর বিদ্যুৎ এমনকি মোবাইল নেটওয়ার্কসহ আধুনিক সুযোগ সুবিধার সবগুলো অনুসঙ্গই আছে এক সময়ের বিচ্ছিন্ন এই দ্বীপে। প্রকল্প পরিচালক কমডোর আব্দুল্লাহ আল মামুন চৌধুরী জানান, রোহিঙ্গাদের উপলক্ষ করে এক পরিকল্পিত নগরীই গড়ে তোলার চেষ্টা করেছেন তারা।

তবে চীনের সহায়তায় রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসনে কুৎনৈতিক তৎপরতা বাড়ানোর তাগিদ বিশ্লেষকদের।

এমন নিরাপদ আশ্রয়কেন্দ্র গড়ে তোলায় বাংলাদেশ সরকারকে ধন্যবাদ দেওয়ার পাশাপাশি নিরাপদ পরিবেশ পেলে জন্মভুমি মিয়ানমারে ফিরে যাওয়ার ইচ্ছার কথাও জানান রোহিঙ্গারা।

news24bd.tv নাজিম

;