কলাপাড়া পৌরসভা নির্বাচন: নৌকা’র শক্ত প্রতিদ্বন্দ্বী স্বতন্ত্র প্রার্থীর জগ প্রতীক

অনলাইন ডেস্ক

কলাপাড়া পৌরসভা নির্বাচন: নৌকা’র শক্ত প্রতিদ্বন্দ্বী স্বতন্ত্র প্রার্থীর জগ প্রতীক

চতুর্থ ধাপে ১৪ ফেব্রুয়ারি পটুয়াখালীর কলাপাড়া পৌরসভা নির্বাচন হবে। শেষ সময়ের প্রচার প্রচারণায় এখন ব্যস্ত সময় পার করছেন মেয়র ও কাউন্সিলর প্রার্থীরা। তারা এক গাদা উন্নয়নের স্বপ্ন দিন-রাত পাড়ায় মহল্লায় ছড়িয়ে দিচ্ছেন৷ বাড়ি বাড়ি গিয়ে ভোটারদের কাছে ভোট প্রার্থণা করছেন। পুরো শহর ছেয়ে গেছে সাদা কালো পোস্টার, ফেস্টুন, ব্যানার, লিফলেট ও স্টিকারে। বিকেল থেকে শুরু হয় প্রচার-প্রচারণা এবং মাইকিং। চলছে মেয়র ও কাউন্সিলর প্রার্থীদের উঠান বৈঠকও। এবারের নির্বাচনে অংশগ্রহণকারী একাধিক প্রার্থীর বিরুদ্ধে রয়েছে ফৌজদারী অপরাধের অভিযোগ সহ মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনের মামলা।

এছাড়া নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন ক’জন কিশোর গ্যাং লিডার। তাদের ভয়ে স্কুল শিক্ষক সহ সংখ্যা লঘু সম্প্রদায়ের নারী-পুরুষ। তারাও এবার ভোট চাইতে বাড়ি বাড়ি যাচ্ছেন। নিরিহ ভোটাররা এনিয়ে আতঙ্কিত হয়ে পরেছে। তবে এ নিয়ে অভিযোগ করতেও রাজী নন তারা। শহরে বাড়ছে অচেনা বহিরাগতদের আনাগোনা। এতে কিছুটা আতঙ্কে আছেন সাধারণ ভোটাররা। কিন্তু ইভিএম পদ্ধতিতে এবার প্রথম ভোট অনুষ্ঠিত হওয়ায় সাধারণ ভোটাররা অনেকটা উদ্বেলিত। ভোটের দিন ভোট কেন্দ্রের গোপন বুথে পছন্দের প্রার্থীকে ভোট দিতে পারবেন এমন নিশ্চয়তায় আছেন তারা।

আরও পড়ুন:


ঝিনাইদহে নিহতদের ছয়জন নারী, তিনজন পুরুষ

সিকদার গ্রুপের চেয়ারম্যানের মৃত্যুতে বসুন্ধরা গ্রুপের শোক

মোশাররফ করিম ‘বাংলাদেশের শাহরুখ খান’: আনন্দবাজার

গাড়িতে উঠিয়ে দরজা বন্ধ করে ধর্ষণ

এফ-৩৫ ও এস-৪০০ একসঙ্গে রাখা যাবে না, তুরস্ককে যুক্তরাষ্ট্র


এদিকে নির্বাচন নিয়ে এরই মধ্যে দু’একটি হামলার ঘটনায় গুরুত্বর আহতের ঘটনাও ঘটেছে। স্বতন্ত্র প্রার্থীর কর্মীকে কুপিয়ে হত্যা চেষ্টার অভিযোগে দু’নৌকা সমর্থকের বিরুদ্ধে থানায় মামলা হয়েছে। গ্রেফতারও করেছে পুলিশ। প্রচারণায় বাঁধা প্রদানের অভিযোগে রিটার্নিং অফিসারের কাছে অভিযোগ জমা পড়েছে এক গাদা। তবে ফুরফুরে মেজাজে প্রচারনা চালাচ্ছেন বিএনপি’র ধানের শীষ প্রতীকের প্রার্থী ও ইসলামী আন্দোলন’র হাত পাখা প্রতীকের প্রার্থী। তাদের প্রচারণায় কোনো বাঁধা নেই।

স্থানীয়রা বলছেন, নৌকা প্রতীকের প্রার্থীর শক্ত প্রতিদ্বন্দ্বী জগ প্রতীকের আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী (স্বতন্ত্র) প্রার্থী। একাধিক ভোটারের সাথে কথা বলে জানা যায়, শুধু বড় বড় ভাষণ, উন্নয়নের ফুলঝুড়ি নয়, নাগরিকের সেবা নিশ্চিতে পছন্দের প্রার্থীকে এবার মেয়র হিসেবে দেখতে চান তারা। একটি পরিচ্ছন্ন নগরী গড়তে তাকেই জয়যুক্ত করতে চান তারা। যিনি বর্ষায় জলাবদ্ধতা দূরীকরণ, মশার উপদ্রব লাঘবে সহায়ক হবেন। ড্রেনেজ সিষ্টেমের উন্নয়ন ঘটিয়ে শহরকে রাখবেন ময়লা আবর্জনা মুক্ত। শহরে থাকবে নিরবিচ্ছিন্ন পানি সরবরাহ। জনজট মুক্ত সড়ক হবে নাগরিকের পায়ে হাঁটা চলার পথ। কলাপাড়া পৌরসভার ৪র্থ ধাপের এবারের নির্বাচনে মেয়র পদে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন ৪ জন। কাউন্সিলর পদে মোট ৪৯ জন প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। এদের মধ্যে পুরুষ কাউন্সিলর পদে ৩৯ জন ও সংরক্ষিত মহিলা কাউন্সিলর পদে ১০ জন প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন।

এবারের পৌর সভা নির্বাচনে মেয়র পদে নৌকা প্রতীক নিয়ে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন বর্তমান পৌর মেয়র ও পৌর আওয়ামী লীগের সভাপতি বিপুল চন্দ্র হাওলাদার। জাতীয়তাবাদী দল বিএনপি’র ধানের শীষ প্রতীক নিয়ে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন কলাপাড়া উপজেলা বিএনপি’র সাধারণ সম্পাদক ও সাবেক মেয়র হাজী হুমায়ুন সিকদার।

স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসাবে জগ প্রতীক নিয়ে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন কলাপাড়া পৌর আওয়ামী লীগের সদ্য বহিস্কৃত সাধারণ সম্পাদক দিদার উদ্দিন আহমেদ মাসুম ও ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ’র হাত পাখা প্রতীক নিয়ে মাঠে রয়েছেন মো. সেলিম মিয়া। কাউন্সিলর পদে বেশিরভাগ ওয়ার্ডেই রয়েছে একাধিক প্রার্থী। পৌরসভার ৯নং ওয়ার্ডে প্রতিদ্বিন্দ্বিতা করছেন দু’সহোদর। মো. কালাম সরদার ও বর্তমান কাউন্সিলর মো. আল-আমিন সরদার। অপর দুই সহোদর মো. জাকি হোসেন জুকু ৩নং ওয়ার্ড হতে ও তার ছোট ভাই মো. খালিদ খান ৪নং ওয়ার্ড হতে কাউন্সিলর পদে নির্বাচন করছেন। শহরে তাদের নিয়ে রয়েছে নানা গুঞ্জন। গত দশ বছরে রহস্যজনকভাবে কোটিপতি বনে গেছেন তারা। একাধিক ফৌজদারী অপরাধের অভিযোগও রয়েছে তাদের বিরুদ্ধে।

কলাপাড়া নির্বাচন অফিসার আবদুর রশিদ মিয়া বলেন, পৌরসভা নির্বাচন নিয়ে ভোটারদের মাঝে এখন উৎসবের আমেজ। শান্তিপূর্ণ পরিবেশে চলছে প্রার্থীদের প্রচারণা। তবে নির্বাচন নিয়ে স্বতন্ত্র প্রার্থীর পক্ষ থেকে প্রচারণায় বাঁধা প্রদানের কটি অভিযোগ পাওয়া গেছে। যেগুলো তদন্তের জন্য থানা পুলিশের কাছে পাঠানো হয়েছে।

আবদুর রশিদ আরও জানান, কলাপাড়ায় এই প্রথম ইভিএম পদ্ধতিতে ভোট অনুষ্ঠিত হবে। অবাধ ও শান্তিপূর্ণ পরিবেশে ভোট অনুষ্ঠানের জন্য সতর্ক অবস্থানে রয়েছে নির্বাচন সংশ্লিষ্টরা। আচরণবিধি লংঘন রোধে ভ্রাম্যমাণ আদালত মাঠে রয়েছে। পৌরসভায় মোট ১২হাজার ৮৯১ জন ভোটার রয়েছে। এরমধ্যে মহিলা ভোটার রয়েছে ৬ হাজার ৫৫৭ জন ও পুরুষ ভোটার রয়েছে ৬ হাজার ৩৩৪ জন।

news24bd.tv তৌহিদ

মন্তব্য

পরবর্তী খবর

প্রধানমন্ত্রীর রাজনৈতিক উপদেষ্টা এইচটি ইমামের মৃত্যুতে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর শোক

অনলাইন ডেস্ক

প্রধানমন্ত্রীর রাজনৈতিক উপদেষ্টা এইচটি ইমামের মৃত্যুতে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর শোক

বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের উপদেষ্টা পরিষদের সদস্য, মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার রাজনৈতিক উপদেষ্টা, মুক্তিযুদ্ধের সময় প্রবাসী সরকারের মন্ত্রীপরিষদ সচিব, স্বাধীন বাংলাদেশের প্রথম মন্ত্রীপরিষদ সচিব হোসেন তৌফিক ইমাম (এইচ টি ইমাম) এর মৃত্যুতে গভীর শোক প্রকাশ করেছেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান এমপি। 

মন্ত্রী আজ বৃহস্পতিবার এক শোকবার্তায় বলেন, ' মুক্তিযুদ্ধে এইচটি ইমামের অনন্য অবদানের জন‍‍্য দেশের জনগণ তাঁকে স্মরণ করবে। তিঁনি বঙ্গবন্ধুর আদর্শ বাস্তবায়নে আজীবন কাজ করে গেছেন।'


জামালপুরে নারীর সঙ্গে ভিডিও ফাঁস হওয়া সেই ডিসির বেতন কমল

‘পরমাণু সমঝোতার একমাত্র পথ নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহার’

এইচ টি ইমামের জানাজা ও দাফনের সময়

এইচ টি ইমামের মৃত্যুতে স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরীর শোক


'দেশপ্রেম, মেধা ও অনন্য প্রতিভা এবং প্রগতিশীল চিন্তার জন্য নিজেকে একজন অনুকরণীয় ব্যক্তিত্বের আসনে অধিষ্ঠিত করেছেন তিঁনি। তাঁর মৃত্যু দেশের জন‍্য এক অপূরণীয় ক্ষতি।'

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী মরহুমের বিদেহী আত্মার মাগফিরাত কামনা করেন ও শোকসন্তপ্ত পরিবারের প্রতি গভীর সমবেদনা জানান।

news24bd.tv আয়শা

মন্তব্য

পরবর্তী খবর

এইচ টি ইমামের মৃত্যুতে ওবায়দুল কাদেরের শোক

অনলাইন ডেস্ক

এইচ টি ইমামের মৃত্যুতে ওবায়দুল কাদেরের শোক

প্রধানমন্ত্রীর রাজনৈতিক উপদেষ্টা এইচ টি ইমামের মৃত্যুতে গভীর শোক ও দুঃখ প্রকাশ করেছেন আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক ও সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের।

এক শোক বার্তায় এইচ টি ইমামের বিদেহী আত্মার মাগফিরাত কামনা করে তার শোকসন্তপ্ত পরিবারের প্রতি গভীর সমবেদনা জানান তিনি।

আরও পড়ুন:


কক্সবাজারে র‌্যাবের সঙ্গে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ মাদক ব্যবসায়ী নিহত

বিতর নামাজে দোয়া কুনুতের গুরুত্ব, উচ্চারণ ও অনুবাদ

নামাজের মধ্যে খুবই গুরুত্বপূর্ণ ওয়াজিব ১৪টি কাজ

এইচ টি ইমামের মৃত্যুতে রাষ্ট্রপতি-প্রধানমন্ত্রীর শোক


বুধবার (০৩ মার্চ) দিবাগত রাত সোয়া ১টার দিকে ঢাকার সম্মিলিত সামরিক হাসপাতালে (সিএমএইচ) চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান এইচ টি ইমাম।

মৃত্যুকালে হোসেন তৌফিক ইমামের বয়স হয়েছিল ৮২ বছর। তিনি কিডনির জটিলতাসহ বার্ধক্যজনিত নানা রোগে ভুগছিলেন। তাকে অসুস্থ অবস্থায় গত ৭ ফেব্রুয়ারি ঢাকার সিএমএইচে ভর্তি করা হয়েছিল।

news24bd.tv আহমেদ

মন্তব্য

পরবর্তী খবর

কাদের মির্জাকে দলে চায় না আওয়ামী লীগের ৪২ নেতা

অনলাইন ডেস্ক

কাদের মির্জাকে দলে চায় না আওয়ামী লীগের ৪২ নেতা

আবদুল কাদের মির্জা

এবার নোয়াখালীর কোম্পানীগঞ্জ উপজেলার বসুরহাট পৌরসভার আলোচিত মেয়র আবদুল কাদের মির্জাকে দল থেকে বহিষ্কার করার জন্য সুপারিশ করলেন উপজেলা আওয়ামী লীগের বিভিন্ন পর্যায়ের ৪২ নেতা।

দলীয় গঠনতন্ত্রের সম্পূর্ণ পরিপন্থী বক্তব্য রাখার অভিযোগে গতকাল মঙ্গলবার অনুষ্ঠিত দলীয় সভায় সর্বসম্মতিক্রমে এ সিদ্ধান্ত নেওয়া হয় বলে দলীয় সূত্র নিশ্চিত করে। এ ছাড়া একই সভায় উপস্থিত ৪২ নেতা আবদুল কাদের মির্জার সঙ্গে ভবিষ্যতে কোনো প্রকারে দল করবেন না বলে শপথ নেন।

এর আগে ২০ ফেব্রুয়ারি কাদের মির্জাকে আওয়ামী লীগ থেকে বহিষ্কারের ২ ঘণ্টার মধ্যে ফের সেই আদেশ প্রত্যাহার করা হয়।

উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি খিজির হায়াতের সভাপতিত্বে চরকাঁকড়া গ্রামে তার নিজ বাড়িতে দলীয় ওই সভায় বক্তব্য রাখেন উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক নুরনবী চৌধুরী, সাংগঠনিক সম্পাদক ও সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান মিজানুর রহমান বাদল, সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদেরের ভাগ্নে সাবেক ছাত্রলীগ সভাপতি মাহবুবুর রশীদ মঞ্জু, ফখরুল ইসলাম রাহাত, সাবেক ছাত্রনেতা আলাল, চরহাজারী ইউপি চেয়ারম্যান নুরুল হুদা, চরএলাহী ইউপি চেয়ারমান আবদুর রাজ্জাকসহ বিভিন্ন পর্যায়ের নেতারা।


পাপুলের আসনে উপনির্বাচনের তারিখ ঘোষণা

বিক্রি হওয়া সেই শিশু ফিরে পেলেন মা

হারিয়ে যাচ্ছে গ্রামীণ সৌন্দর্য

জন্ম নেওয়া শিশুর বাবা দাবি করলেন তিন যুবক


এ বিষয়ে জানতে চাইলে উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি খিজির হায়াত খান বলেন, বৈঠকে গৃহীত সিদ্ধান্তগুলোর বিষয়ে গণমাধ্যমকে প্রেস বিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে জানানো হবে। তবে তিনি আবদুল কাদের মির্জার সঙ্গে ভবিষ্যতে রাজনীতি না করার বিষয়ে এবং তাকে দল থেকে বহিষ্কারের সুপারিশ কেন্দ্র ও জেলায় পাঠানোর বিষয়টি স্বীকার করেছেন।

একই বিষয়ে জানতে চাইলে উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক নুরনবী চৌধুরী জানান, আবদুল কাদের মির্জাকে বহিষ্কারের বিষয়ে সর্বসম্মতিক্রমে সিদ্ধান্ত গ্রহণের সময় ৭১ সদস্যের মধ্যে ৪২ জন নেতা উপস্থিত ছিলেন।

news24bd.tv / কামরুল 

মন্তব্য

পরবর্তী খবর

পুলিশের সঙ্গে সংঘর্ষ

বিএনপির ৬ নেতাকে জামিন

নিজস্ব প্রতিবেদক

বিএনপির ৬ নেতাকে জামিন

প্রেসক্লাবের সামনে পুলিশের সাথে সংঘর্ষের মামলায় বিএনপি ৬ নেতাকে জামিন দিয়েছেন হাইকোর্ট। এরা হলেন- বিএনপির যুগ্ন মহাসচিব হাবিবুন নবি খান সোহেল, যুবদলের সাধারণ সম্পাদক সুলতান সালাউদ্দীন টুকু, সেচ্ছ্বাসেবক দলের সভাপতি আব্দুল কাদের ভূইয়া জুয়েল। আজ বুধবার তাদের আইনজীবী এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।


এইচ টি ইমামের শারীরিক অবস্থা সংকটপূর্ণ

পাপুলের আসনে উপনির্বাচনের তারিখ ঘোষণা

বিক্রি হওয়া সেই শিশু ফিরে পেলেন মা

হারিয়ে যাচ্ছে গ্রামীণ সৌন্দর্য


news24bd.tv / কামরুল 

মন্তব্য

পরবর্তী খবর

‘শেখ হাসিনাকে পঁচাত্তর মনে রাখার’ কথা বলায় বিএনপি নেতাকে ক্ষমা চাওয়ার আল্টিমেটাম

নিজস্ব প্রতিবেদক

‘শেখ হাসিনাকে পঁচাত্তর মনে রাখার’ কথা বলায় বিএনপি নেতাকে ক্ষমা চাওয়ার আল্টিমেটাম

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে পঁচাত্তর মনে রাখার কথা বলায় বিএনপি নেতা মিজানুর রহমান মিনুকে ক্ষমা চাইতে ৭২ ঘণ্টার সময় বেঁধে দিলেন রাসিক মেয়র লিটন।

বিস্তারিত আসছে...

news24bd.tv তৌহিদ

 

মন্তব্য

পরবর্তী খবর