তরকারিতে লবণ বেশি হলে যা করবেন?

অনলাইন ডেস্ক

তরকারিতে লবণ বেশি হলে যা করবেন?

তরকারি যত ভালো করে রান্না করেন না কেনো। একটু লবণ বেশি হলেই খাওয়া মুশকিল। অনেক সময় বিভিন্ন কারণে আমরা তরকারি রান্না করতে গিয়ে লবণের পরিমাণটা একটু বেশি বাড়িয়ে দেয়। পরে খাওয়ার সময় বাধে বিপত্তি। তাই তরকারিতে লবণ বেশি হলেই কী করবেন? এই প্রতিবেদনে থাকছে সে বিষয়ে বিস্তারিত-

আলু: যেসব তরকারিতে ঝোল বেশি থাকে, সেখানে লবণ বেশি হলে এক টুকরো আলু খোসা ছিলে দিয়ে দিলেই কেল্লা ফতে। এভাবে আলু দিয়ে ঝোল ২০ মিনিট জ্বাল দিলেই অতিরিক্ত লবণ শুষে নেবে তা। 

আটার কাঈ: বাড়িতে আলু না থাকলে আটার কাঈ দিয়েও অতিরিক্ত লবণ কমিয়ে ফেলা যায়। আধকাপ আটা নিয়ে তাতে কিছুটা পানি আর দুই ফোঁটা তেল দিয়ে ভালোভাবে মথে নিয়ে ছোট ছোট বল তৈরি করে ছেড়ে দিন তরকারিতে। রান্না শেষে পরিবেশনের আগে বলগুলো তুলে ফেলে দিন। দেখবেন অতিরিক্ত লবণ নিমিষেই গায়েব!

আরও পড়ুন:


আজ ৯২ জনের শরীরে পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া

টিকা নিয়ে পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া ২০৭ জনের শরীরে

ঝিনাইদহে নিহতদের ছয়জন নারী, তিনজন পুরুষ

বুকে পবিত্র কোরআন শরীফ চেপে ধরে ধর্ষণ থেকে রক্ষা পান সেই গৃহবধূ

‌‘দূর সম্পর্কের বোনের’ সম্মতিতে শারীরিক সম্পর্ক, সাজা বাতিল হলো কিশোরের


ঘন দুধ: ভুনা তরকারির লবণ কমাতে খুবই কার্যকর ঘন দুধ। আগে থেকে জ্বাল দেয়া ঘন দুধ আধ কাপ ঢেলে দিয়ে তরকারি কষালেই লবণের ভারসাম্য ফিরে আসবে। তরকারির স্বাদও এতে বাড়বে বহুগুণ।

দই: ঘন দুধের মতো একই কাজ করবে দইও। যাদের মিষ্টিতে আপত্তি নেই, তারা মিষ্টি দই ব্যবহার করতে পারেন। নাহলে টক দইও খুব ভালো কাজ করবে এক্ষেত্রে। তবে দই দেয়ার আগে ভালোভাবে ফেটিয়ে নিতে হবে। 

পেঁয়াজ: আস্ত পেঁয়াজের খোসা ছাড়িয়ে দুই টুকরা করে তরকারিতে ছেড়ে দিলে তা অতিরিক্ত লবণ শুষে নেয়। পরিবেশনের আগে তা ফেলে দিলেই হলো। এক্ষেত্রে ব্যবহার করতে পারেন ভাজা পেঁয়াজও। সেক্ষেত্রে তরকারিতে আসবে অন্যরকম এক মসলাদার স্বাদ! 

ভিনেগার ও চিনি: এক টেবিল চামচ ভিনেগারে দুই চা চামচ চিনি মিশিয়ে তা ঢেলে দিন তরকারিতে। ভিনেগারের টক স্বাদ, আর চিনির মিষ্টি একত্রে মিলে তরকারির অতিরিক্ত লবণাক্ত স্বাদকে দুর করবে সহজেই।

news24bd.tv তৌহিদ

পরবর্তী খবর

মজাদার সবজি মাসালা খিচুড়ি

অনলাইন ডেস্ক

মজাদার সবজি মাসালা খিচুড়ি

বৃষ্টির দিনে ঝটপট তৈরি করে নেওয়া যায় এই পদটি। খেতেও যেমস সুস্বাদু, স্বাস্থ্যকরও বটে। ভাত, ডাল, সবজি ও মশলার মিশেলে দুর্দান্ত এক পদ তৈরি হয়।

ঘরে থাকা বিভিন্ন সবজি উপকরণ দিয়েই তৈরি করে নিতে পারেন মাসালা সবজি খিচুড়ি। জেনে নিন সুস্বাদু এই খিচুড়ি তৈরির সহজ উপায়-

উপকরণ

১. পোলাও চাল ৫০০ গ্রাম
২. সবজি পছন্দমতো ১ কেজি (গাজর, বরবটি, পেঁপে, চিচিঙ্গা, পটল, আলু ইত্যাদি)
৩. আদা-রসুন বাটা ২ টেবিল চামচ
৪. পেঁয়াজ কুচি ১ কাপ
৫. তেল আধা কাপ
৬. ঘি ১ টেবিল চামচ
৭. কাঁচা মরিচ ৮-৯টি
৮. তেজপাতা ২-৩টি
৯. পোস্তদানা-জয়ফল বাটা ১ চা চামচ
১০. টকদই আধা কাপ

প্রণালী

প্রথমে একটি প্যানে তেল গরম করে পেঁয়াজ কুচি, আদা-রসুন ও পোস্তদানা-জয়ফল বাটা দিয়ে কিছুক্ষণ ভেজে নিন। তারপর সামান্য পানি মিশিয়ে মিশ্রণটি কষিয়ে নিন।

মশলা কষানো হয়ে গেলে কেটে রাখা সবজিগুলো দিয়ে দিন। তারপর ভালো করে কিছুক্ষণ নেড়েচেড়ে দিন। ভালো করে সবজিগুলো মশলার মিশ্রণে ভেজে নিন।

এবার আরেকটি প্যানে ঘি গরম করে তার মধ্যে তেজপাতা ও চাল দিয়ে কিছুক্ষণ ভাজুন। এবার এর মধ্যে পরিমাণমতো পানি মেপে দিয়ে কিছুক্ষণ ঢেকে রান্না করুন মাঝারি আঁচে।

যখন দেখবেন পানি শুকিয়ে আসছে; তখন সবজিগুলো ঢেলে দিয়ে ভালো করে নাড়ুন। তারপর একটি তাওয়া চুলায় বসিয়ে উপরে খিচুরির পাত্রটি ঢেকে দমে বসিয়ে রাখুন ১০ মিনিট।

এরপর পরিবেশন করুন গরম গরম সবজি মাসালা খিচুড়ি।

news24bd.tv/এমিজান্নাত 

পরবর্তী খবর

তৈরি করুন মজাদার আচারি আলু

অনলাইন ডেস্ক

তৈরি করুন মজাদার আচারি আলু

আলুর কত রকম পদ তো খেয়েছেন। আচারি আলু খেয়ে দেখেছেন কী? চলুন দেখে নেই আচারি আলুর রেসিপি তৈরির পদ্ধতি--

উপকরণ : ২টি মাঝারি আলু সেদ্ধ, ১/৪ কাপ আচারি মশলা, ২ টেবিল চামচ আতপ চালের গুঁড়া, ১ টেবিল চামচ ভোজ্য তেল, ১/৪ চামচ মেথি, ১/২ চা চামচ কালিজিরা, ১ টেবিল-চামচ রসুন কুচি, ১ ইঞ্চি আদা কুচি, ১টি মাঝারি পেঁয়াজ কুচি, ২ টেবিল চামচ ধনেপাতা কুচি এবং লবণ স্বাদ মতো।

প্রণালী:

আলু দুটি প্রথমে সিদ্ধ করে নিন। এবার এর সঙ্গে চালের গুঁড়ো, লবণ এবং কিছুটা পানি মিশিয়ে নিন। চুলায় একটি কড়াইতে তেল গরম করতে দিন। তেল গরম হলে আলুগুলো দিয়ে দিন। বাদামী রং ধারন করলে আলুগুলো নামিয়ে ফেলুন। এবার নন-স্টিক প্যানে তেল গরম করতে দিন। এরপর জিরা, সরিষা, কালিজিরা মিশিয়ে ভালো করে ভেজে নিন। ভাজা হলে আদা কুচি, পেঁয়াজ কুচি ও রসুন কুচি দিয়ে আরও কিছুক্ষণ ভাজুন। কিছুক্ষণ পর তাতে আচারের মসলা, ভাজা আলু, গরম মসলা এবং লবণ দিয়ে রান্না করুন।  তৈরি হয়ে গেল মজাদার আচারি আলুর ডিশ।

news24bd.tv/এমিজান্নাত

পরবর্তী খবর

আজই বানিয়ে ফেলুন ডিমের মালাইকারি

অনলাইন ডেস্ক

আজই বানিয়ে ফেলুন ডিমের মালাইকারি

রেস্তরাঁ হোক কিংবা বাড়ি, মালাইকারি শুনলেই যেন বাঙালির জিভে জল। এই মালাইকারি যদি ডিমে মিশে যায়, ক্ষতি কী? আজই ডিমের মালাইকারির রেসিপি বানিয়ে চমকে দিন বাড়ির সকলকে। চলুন জেনে নেই কীভাবে বানাবেন ডিমের মালাইকারি।

উপকরণ:

ডিম ৬টি

টক দই ২ টেবিল চামচ

পেঁয়াজ কুচি আধ কাপ

টোম্যাটো কুচি আধ কাপ

কাজু বাদাম ২০ গ্রাম

রসুন বাটা ৩ টেবিল চামচ

আদা বাটা ১ টেবিল চামচ

হলুদ গুঁড়ো ১ টেবিল চামচ

শুকনো মরিচ গুঁড়ো ১ টেবিল চামচ

ধনে গুঁড়ো হাফ টেবিল চামচ

গরম মশলা গুঁড়ো ১ চা চামচ

নারকেলের দুধ আধ কাপ

লবণ স্বাদ অনুযায়ী

চিনি স্বাদ অনুযায়ী

ফ্রেশ ক্রিম পরিমাণ মতো

সর্ষের তেল পরিমাণ মতো

প্রণালী:

প্রথমে ডিমগুলি সেদ্ধ করে নিতে হবে। একটি পাত্রে তাতে টক দই, ধনে গুঁড়ো, মরিচ গুঁড়ো আর সামান্য সাদা তেল দিয়ে আধ ঘণ্টা মাখিয়ে রাখুন ডিম সেদ্ধগুলিকে। চাইলে দু ভাগ করে নিতে পারেন ডিম সেদ্ধগুলি। সে ক্ষেত্রে খেয়াল রাখতে হবে যেন ডিম সেদ্ধগুলি ভেঙে না যায়। কড়াইয়ে তেল গরম করে ডিমগুলি হালকা ভেজে তুলে রাখুন। এ বার ওই কড়াইয়ে আরও খানিকটা তেল দিয়ে তাতে পেঁয়াজ, টোম্যাটো, কাঁচালঙ্কা, কাজুবাদাম দিয়ে ভাল করে ভেজে নিন। মিশ্রণটি ঠান্ডা করে মিক্সিতে বেটে নিতে হবে।

এ বার পুনরায় কড়াইয়ে তেল গরম করে তাতে আদা-রসুন বাটা ও একে একে সব গুঁড়ো মশলা দিয়ে ভাল করে কষিয়ে নিন। মশলা থেকে তেল ছেড়ে এলে ভেজে বেটে রাখা মিশ্রণ যোগ করুন। আর একটু কষিয়ে নিন। এর পর নারকেলের দুধ যোগ করুন, ভাল করে মিশিয়ে ভেজে রাখা ডিম গুলি দিয়ে দিন। গ্রেভি মাখা মাখা হয়ে এলে ফ্রেশ ক্রিম আর গরম মশলা গুঁড়ো ছড়িয়ে গ্যাস বন্ধ করে দিন। গরম ভাত কিংবা পোলাওয়ের সঙ্গে পরিবেশন করুন ডিমের মালাইকারি।

সূত্র: আনন্দবাজার

news24bd.tv/এমিজান্নাত

পরবর্তী খবর

মজাদার চিংড়ি খিচুড়ি

অনলাইন ডেস্ক

মজাদার চিংড়ি খিচুড়ি

খিচুড়ি খেতে কে না পছন্দ করেন! আর বৃষ্টি এলে তো কথাই নেই। বর্ষার এই মৌসুমে গরম গরম খিচুরি খেতে ইচ্ছে হলে, ভিন্ন স্বাদে তৈরি করে নিতে পারেন চিংড়ি খিচুড়ি। এটি তৈরিতে বেশিক্ষণ লাগবে না। চলুন জেনে নেই রেসিপি-


উপকরণ

১. মাঝারি বাগদা চিংড়ি ৫০০ গ্রাম-মাঝারি
২. পোলাও বা বাসমতি চাল ১ কাপ
৩. মুগ ডাল ১ কাপ
৪. পেঁয়াজ বাটা আধা কাপ
৫. আদা বাটা ২ টেবিল চামচ
৬. রসুন বাটা ১ চা চামচ
৭. জিরে গুঁড়ো ৩ চা চামচ
৮. ধনে গুঁড়ো ৩ চা চামচ
৯. কাঁচা মরিচের ফালি ৪টি
১০. লবণ, চিনি, হলুদ গুঁড়ো ১ চা চামচ করে
১১. গোটা গরম মশলা
১২. তেজপাতা ২টি
১৩. শাহী গরম মশলার গুঁড়ো দেড় চা চামচ
১৪. তেল পরিমাণমতো
১৫. ঘি ২ চা চামচ
১৬. মরিচের গুঁড়ো ১/৪ চা চামচ
১৭. ধনেপাতা কুচি

প্রণালী:

প্রথমে চাল ধুয়ে পানি ঝরিয়ে শুকিয়ে নিন। ডাল ভেজে তারপরে ধুয়ে নিন। এবার একটি পাত্রে পানিতে লবণ ও হলুদ দিয়ে ডাল সেদ্ধ হতে দিন। ফুটে উঠলে ধনে ও জিরে গুঁড়ো দিয়ে দিন।

এতে ৩ কাপ পানি গরম করে ডাল ও চাল যোগ করে আঁচ কমিয়ে ঢেকে দিন। অন্য পাত্রে তেল গরম করে তেজপাতা, গোটা গরম মশলা ও কাঁচা মরিচ ফোড়ন দিতে হবে। সব বাটা দিয়ে কষিয়ে নিতে হবে কয়েক মিনিট। শাহী গরম মশলা বাদে বাকি গুঁড়ো মশলা, স্বাদমতো লবণ-চিনি যোগ করুন। তারপর আধা কাপ পানি দিয়ে মিনিট দুয়েক ঢেকে রাখুন।

ডাল ও চাল সেদ্ধ হয়ে এলে মশলাসহ চিংড়ি মাছ দিয়ে দিন। মৃদু আঁচে ঢেকে আরও কিছুক্ষণ রান্না হতে দিন। সব উপকরণ সেদ্ধ হয়ে শুকিয়ে গেলে শাহী গরম মশলা গুঁড়ো মিশিয়ে নিন।

এবার পরিবেশন করুন গরম গরম মজাদার চিংড়ি খিচুড়ি।

news24bd.tv/এমিজান্নাত

পরবর্তী খবর

বর্ষায় ইলিশের দই-পোস্ত

অনলাইন ডেস্ক

বর্ষায় ইলিশের দই-পোস্ত

বর্ষায় যেন ইলিশ খাওয়ার ধুম পড়ে যায়। এ সময় বাজারেও সহজলভ্য হয়ে ওঠে এই মাছ। ইলিশের বিভিন্ন পদ যেমন ভাপা ইলিশ, সর্ষে ইলিশ, দই ইলিশ তো অনেক খেলেন। এবার না হয় রুচি বদলে তৈরি করুন দই-পোস্ত ইলিশ।

সামান্য কয়েকটি উপাদান দিয়েই সহজেই তৈরি করে নেওয়া যায় ইলিশের এই বিশেষ পদ। চলুন জেনে নেওয়া যাক রেসিপিটি-

উপকরণ

১. ইলিশ মাছের টুকরো ৪টি
২. টকদই ১ কাপ
৩. পোস্ত বাটা সামান্য
৪. পাতিলেবু ১টি
৫. ক্রিম ২ চামচ
৬. লবণ-চিনি পরিমাণ মতো
৭. কাঁচামরিচের ফালি ৬টি ও
৮. সরিষার তেল

প্রণালী:

প্রথমে ইলিশ মাছ ভালোভাবে ধুয়ে একটা আস্ত পাতিলেবুর রস, হলুদ আর লবণ দিয়ে ২ ঘণ্টা ম্যারিনেট করে রাখুন।

এবার পোস্ত, কাজুবাদাম একসঙ্গে বেটে নিন। এর সঙ্গে ক্রিম আর ১ চামচ দুধ মিশিয়ে ভালো করে ফেটিয়ে নিতে হবে। টকদইও ভালো করে লবণ ও চিনি দিয়ে ফেটিয়ে নিন।

এবার ইলিশ মাছ ভালো করেই ভেজে নিতে হবে। তারপর কড়াইতে কালোজিরা ও কাঁচা মরিচ ফোড়ন দিয়ে পোস্ত বাটা ঢেলে দিন। একটু কষা হয়ে এলে দইয়ের মিশ্রণ দিন।

ভালোভাবে মিশে তেল ছেড়ে আসলে অল্প পানি মিশিয়ে দিন। এরপর মসলার মিশ্রণে মাছ দিয়ে দিন। বেশ মাখা মাখা হয়ে এলে কাঁচামরিচের ফালি ছড়িয়ে দিন।

এবার গরম ভাতের সঙ্গে পরিবেশ করুন ইলিশের দই-পোস্ত।

news24bd.tv/এমিজান্নাত

পরবর্তী খবর