সেবা বৈষম্য নিয়ে ক্ষুব্ধ নতুন যুক্ত ওয়ার্ডের বাসিন্দারা
সেবা বৈষম্য নিয়ে ক্ষুব্ধ নতুন যুক্ত ওয়ার্ডের বাসিন্দারা

সেবা বৈষম্য নিয়ে ক্ষুব্ধ নতুন যুক্ত ওয়ার্ডের বাসিন্দারা

Other

নতুন করে যুক্ত হওয়া ১৮টি ওয়ার্ডের বৈষম্য নিয়ে ক্ষুদ্ধ ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশনের নাগরিকরা। তাদের অভিযোগ প্রায় ২০ মাস কর্পোরেশনে থেকেও এখনো নাগরিক সেবা থেকে বঞ্চিত তারা।

অন্যদিকে ঢাকা দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশনে যোগ হওয়া ১৮ ওয়ার্ডের কিছু ওয়ার্ডে উন্নয়নের ছোঁয়া লাগলেও, নাগরিক সুবিধায় পিছিয়ে তারাও। তবে নতুন সম্প্রসারিত ওয়ার্ডগুলোতে সিটি কর্পোরেশনের সেবা নিশ্চতে নানা প্রকল্প হাতে নেয়া হয়েছে বলে জানায় ঢাকা উত্তর ও দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশনের  কর্তা ব্যক্তিরা।

২০১৭ সালে ঢাকার দুই সিটি কর্পোরেশনের সঙ্গে যুক্ত হয় পার্শবর্তী ১৬টি ইউনিয়ন। এর মধ্যে ঢাকা উত্তরের সঙ্গে ৮ টি ও দক্ষিণের সঙ্গে ৮টি ইউনিয়ন নিয়ে ঢাকা উত্তর ও দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশনে মোট ওয়ার্ডের সংখ্যা হয় ১২৯টি। কিন্তু নতুন সম্প্রসারিত ওয়ার্ডগুলো সিটি কর্পোরেশনের আওতাভুক্ত হলেও এখনো নাগরিক সেবা থেকে বঞ্চিত ওয়ার্ডের বাসিন্দারা।

ঢাকা উত্তর সিটি কপোরেশনের সম্প্রসারিত ওয়ার্ডগুলোর মতোই বাড্ডা, ভাটারা ও সাতারকুল - ৩৭, ৩৮ ও ৪১ নাম্বার ওয়ার্ড। বিভিন্ন শ্রেণি-পেশার এই জনপদে কাঙ্খিত উন্নয়নের ছোঁয়া লাগেনি গেলো প্রায় দুই বছরেও।

আরও পড়ুন:


কমলাপুর স্টেশন অক্ষত রেখেই মেট্রোরেলের পরিকল্পনা

ধাতব ইউরেনিয়াম উৎপাদনের কাজ শুরু করেছে ইরান

টানা পঞ্চম বারের মতো সেরা করদাতার পুরস্কার জিতল ইস্ট ওয়েস্ট মিডিয়া গ্রুপ

৫ বছর ধরে পরকীয়া, যে কারণে প্রেমিক ৫ খণ্ড


তবে উত্তরের মেয়র আতিকুল ইসলাম বলছেন এসব ওয়ার্ড হবে আধুনিক এবং পরিকল্পিত। বাস্তবায়নের অপেক্ষায় ৪ হাজার ২৫ কোটি ৬২ লাখ টাকার উন্নয়ন প্রকল্প। এই প্রকল্প বাস্তবায়ন হলেই ওয়ার্ডগুলোর উন্নয়নে কাজ শুরু করা হবে।

অন্যদিকে দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশনে নতুন ১৮ ওয়ার্ডের যোগাযোগ ব্যবস্থায় কিছু উন্নয়ন হয়েছে। কিন্তু মশকনিধন, রাস্তাঘাটের পরিচ্ছন্নতা আর জনপ্রতিধিদের জনবিচ্ছিন্ন থাকার অভিযোগ রয়েছে এসব ওয়ার্ডগুলোতে।
 
তবে ১৮টি ওয়ার্ডের নাগরিক সেবা নিশ্চিতে বৃহত্তর পরিকল্পনা হাতে নেয়া হয়েছে বলে জানায় ঢাকা দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশনের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা এ বি এম আমিন উল্লাহ নুরী।

ঢাকা দুই সিটির সম্প্রসারিত ৩৬টি ওয়ার্ডে বাস করেন লক্ষ লক্ষ পরিবার। প্রত্যাশা পূরণের পরিকল্পনাগুলো দ্রুত বাস্তবায়ন হবে এমন আশা সবার।

news24bd.tv আহমেদ

;