বিরল প্রজাতির সাপ ‘রেড কোরাল’র সন্ধান

অনলাইন ডেস্ক

বিরল প্রজাতির সাপ ‘রেড কোরাল’র সন্ধান

বিরল প্রজাতির সাপ ‘রেড কোরাল’ উদ্ধার হয়েছে দেশের উত্তরের জেলা পঞ্চগড় থেকে। এর নাম রেড কোরাল কুকরি হলেও স্থানীয়ভাবে তার নাম দেওয়া হয়েছে ‘কমলবতি’।

বিরল প্রজাতির এই সাপটি ভারতের উত্তর প্রদেশ রাজ্যে কদাচিৎ দেখা মিললেও দেশে এবারই প্রথম এমন সাপের দেখা পেয়েছেন গবেষকরা।

তারা বলছেন, যেহেতু সাপটি বিরল প্রজাতির তাই এটি নিয়ে গবেষণা খুব একটা বেশি হয়নি। স্বল্প মাত্রার বিষাক্ত বলা হলেও এ নিয়ে বিশদ গবেষণার প্রয়োজন আছে বলেও জানান বিশেষজ্ঞরা। 

পঞ্চগড়ের বোদা উপজেলার ঝালইশালসিরি ইউনিয়নের কালিয়াগঞ্জ বাজারের পাশে গত সোমবার (৮ ফেব্রুয়ারি) যন্ত্র দিয়ে নির্মাণাধীন একটি বাড়ির মাটি খোঁড়ার সময় নিচ থেকে বেরিয়ে আসে বেশ কয়েকটি সাপ।

তখনও কারও ধারণা ছিল না এখানেই মিলবে সারা বিশ্বের বিরল প্রজাতির গবেষণাময় প্রাণী রেড কোরাল কুকরি সাপ।

মাটির নিচ থেকে উদ্ধারের পর দেখা যায় সাপটি যন্ত্রের আঘাতে মারাত্মক আহত হয়েছে। এ অবস্থায় সেটিকে চিকিৎসা ও নিবিড় পর্যবেক্ষণের জন্য রাজশাহী পাঠানো হয়েছে।

আরও ‍পড়ুন:


কোভিডে টরন্টোয় বন্দুক সন্ত্রাস বেড়েছে, বাংলাদেশিদের সতর্কতার পরামর্শ

ইসলামে নাম ব্যঙ্গ করার পরিণাম কী?

সূরা তাওবায় কেন ‘বিসমিল্লাহ’ নেই, কি বিষয়ে সূরাটি নাযিল

কুরআন শরিফ ছিড়ে গেলে ইসলামের নির্দেশনা কি?

যে কারণে দোয়া কবুল হয় না


সাপটি বর্তমানে রাজশাহীর পবা উপজেলার সাপ উদ্ধার ও সংরক্ষণ কেন্দ্রে নিয়ে আসা হয়েছে। সেখানেই রেখে চলছে চিকিৎসা ও সেবা শুশ্রুষা।

চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের ভেনম রিসার্চ সেন্টারের প্রধান প্রশিক্ষক রাজশাহীর বোরহান বিশ্বাস জানান, এ যাবৎকালে দেশের শুধু পঞ্চগড় জেলাতেই গবেষকরা মাত্র দু’টি এ প্রজাতির সাপের দেখা পেয়েছেন। ফলে সাপের তালিকায় নতুন একটি নাম যুক্ত হবে এতে। গবেষণাতেও আসবে নতুন মোড়। এই সাপটির নাম হচ্ছে রেড কোরাল কুকরি। বাংলায় এর কোনো নাম নেই। 

তবে গবেষক হিসেবে তিনি এর নাম দিয়েছেন ‘কমলাবতি’। স্থানীয়রা সাপটিকে এই নামেই এখন ডাকছেন। ১৯৩৬ সালে প্রথম ভারতের উতরখণ্ডে দেখা যায়। এর পর থেকে এখন পর্যন্ত উদ্ধার হওয়া এই সাপটি হলো ২২তম। এর আগে আর কোথাও এমন সাপ দেখা যায়নি। এখান থেকেই বোঝা যায় এই প্রজাতির সাপ কতটা বিরল।

বাংলাদেশের পঞ্চগড়ের বোদা এবং তেঁতুলিয়ায় এই সাপটি দেখা গেছে। এটি বাংলাদেশের সাপের তালিকায় যুক্ত হবে এবং গবেষণাময় হবে। এটা অবশ্যই একটা ভালো খবর। এই সাপটিকে অল্প বিষধর বলা হয়। তবে এটা থেকে যদি আমরা ভেনম সংগ্রহ করতে পারি তাহলে গবেষণা করে বুঝতে পারবো এটা কতটা বিষধর। যোগ করেন রাজশাহীর বোরহান বিশ্বাস।

বোরহান বিশ্বাস বলেন, এই সাপটা দেখতেও যেমন সুন্দর তেমন এর জীবন প্রাণালীও চমৎকার এবং অন্য সাপের চেয়ে সম্পূর্ণ আলাদা। এটা মাটির নিচে থাকতে পছন্দ করে। দিনের বেলায় একদমই বের হয় না। যেখান থেকে সাপটি উদ্ধার করা হয়েছে সেখানকার মানুষরা জানিয়েছেন এটিকে দেখা যেত কিন্তু খুবই কম।

news24bd.tv তৌহিদ

মন্তব্য

পরবর্তী খবর

দেশের তিন অঞ্চলে বজ্রসহ বৃষ্টির আভাস

অনলাইন ডেস্ক

দেশের তিন অঞ্চলে বজ্রসহ বৃষ্টির আভাস

দেশের তিন অঞ্চলে বজ্রসহ বৃষ্টি হতে পারে বলে এক পূর্বাভাসে জানিয়েছে আবহাওয়া অধিদপ্তর। শনিবার অধিদপ্তরের পক্ষ থেকে এ তথ্য জানানো হয়।

আবহাওয়া অধিদপ্তরের পূর্বাভাসে বলা হয়েছে, পশ্চিমা লঘুচাপের বর্ধিতাংশ হিমালয়ের পাদদেশীয় পশ্চিমবঙ্গ ও তৎসংলগ্ন এলাকায় অবস্থান করছে। মৌসুমের স্বাভাবিক লঘুচাপ দক্ষিণ বঙ্গোপসাগরে অবস্থান করছে। এই কারণে কুমিল্লা অঞ্চলসহ সিলেট ও ময়মনসিংহ বিভাগের দু-এক জায়গায় অস্থায়ী দমকা হাওয়া ও বজ্রসহ বৃষ্টি হতে পারে। এ ছাড়া দেশের অন্যত্র অস্থায়ীভাবে আংশিক মেঘলা আকাশসহ আবহাওয়া প্রধানত শুষ্ক থাকতে পারে।

পূর্বাভাসে আরও বলা হয়েছে, শেষরাত থেকে সকাল পর্যন্ত দেশের সারা দেশের নদী অববাহিকার কোথাও কোথাও হালকা কুয়াশা পড়তে পারে।

সারা দেশে দিনের তাপমাত্রা সামান্য বৃদ্ধি পেতে পারে এবং রাতের তাপমাত্রা সামান্য গ্রাস পেতে পারে। এছাড়া আগামী তিন দিন তাপমাত্রা বৃদ্ধি পেতে পারে।

আরও পড়ুন:


নারীর সঙ্গে সময় কাটানো সেই তুষার এখনো কাশিমপুর কারাগারেই

জিয়ার খেতাব বাতিলের বিষয়ে যা বললেন মুক্তিযুদ্ধবিষয়ক মন্ত্রী

পরমাণু সমঝোতায় আমেরিকার অবস্থান জানতে জরুরী বৈঠকে বসার আহ্বান

মিয়ানমারে গণতন্ত্র ফেরাতে নিরাপত্তা পরিষদকে দ্রুত ব্যবস্থা নেয়ার আহ্বান


গত ২৪ ঘণ্টায় রাজশাহীতে দেশের সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ৩৫ ডিগ্রি সেলসিয়াস এবং সর্বনিম্ন তেঁতুলিয়ায় ১৬ দশমিক ২ ডিগ্রি সেলসিয়াস তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয়েছে। 

এদিকে ঢাকা ও পার্শ্ববর্তী এলাকার পূর্বাভাসে বলা হয়েছে, আকাশ অস্থায়ীভাবে আংশিক মেঘলা থাকতে পারে এবং আবহাওয়া প্রধানত শুষ্ক থাকতে পারে। এ ছাড়া দিনের তাপমাত্রা সামান্য বৃদ্ধি থাকতে পারে।

news24bd.tv আহমেদ

মন্তব্য

পরবর্তী খবর

নরসিংদীতে সূর্যমূখী পার্ক

মো. হৃদয় খান

নরসিংদীতে সূর্যমূখী পার্ক

সবুজের মাঝে হলুদের সাম্রাজ্য। ফসলের এমন দৃশ্য টানছে সৌন্দর্য পিপাসুদের। প্রতিদিন হাজার হাজার দর্শনার্থীদের ভীড়ে মুখরীত নরসিংদীর সূর্যমুখী পার্ক। কৃষকদের সূর্যমুখী চাষে আগ্রহ বাড়াতে মাঠপর্যায়ে কাজ করে যাচ্ছে কৃষি বিভাগ।

ভোর হলেই সোনা রোদে চোখ মেলে ঝলমলে সূর্যমুখী। সূর্য মামার সঙ্গে নরসিংদীর কামারগাও এলাকার সূর্যমুখীর বাগানও জেগে উঠেছে। এখানে ১৫ বিঘা জমিতে বাগান করে সূর্যমুখী পার্ক তৈরি করেছেন স্কুল শিক্ষক শিমুল।

এই পার্কের প্রবেশমূল্য ধরা হয়েছে ২০ টাকা। ফলে একদিকে বাম্বার ফলন এবং অপরদিকে প্রতিদিন হাজার হাজার দর্শনার্থীদের আগমনে নিজেকে স্বাবলম্বী করে তুলতে পারছেন এই কৃষক।


‘চুম্বন বা অন্তরঙ্গ দৃশ্যয়নের আগে একান্তে সময় কাটাই’

শেবাগ-শচিনের জুটিই হারিয়ে দিল বাংলাদেশকে

মন্ত্রী ও বিধায়ককে বাদ দিয়ে প্রার্থী চূড়ান্তে মমতার চমক!

শনিবার ঢাকার যে এলাকায় যাবেন না


ইতোমধ্যে নরসিংদীর ভ্রমণপিপাসু মানুষের পছন্দের স্থানে পরিণত হয়েছে এই সূর্যমুখী পার্কটি। মনোমুগ্ধকর এ পরিবেশে একটু সময় কাটানোর জন্য নরসিংদীসহ বিভিন্ন স্থান থেকে এসে ভিড় করছেন পর্যটকরা।

স্থানীয় কৃষি বিভাগের সহায়তায় অল্প খরচে লাভ বেশি হওয়ায় দ্বিতীয়বারের মতো সূর্যমুখী চাষের কথা জানালেন কৃষক। সামনের বছর যেন আরো বেশি করে এই পুষ্টিসমৃদ্ধ ফসল চাষ করা যায় সেজন্য কৃষকদের উদ্ভুদ্ধ করতে মাঠ পর্যায়ে কাজ করার কথা জানালেন উপজেলা কৃষি অফিসার।

এ বছর নরসিংদী জেলায় মোট ১২ হেক্টর জমিতে সূর্যমুখী চাষ করা হয়েছে।

news24bd.tv/আয়শা

 

মন্তব্য

পরবর্তী খবর

আগামী ২ দিন বজ্রবৃষ্টির আশঙ্কা, বড়তে পারে তাপমাত্রা

অনলাইন ডেস্ক

আগামী ২ দিন বজ্রবৃষ্টির আশঙ্কা, বড়তে পারে তাপমাত্রা

সারাদেশে দিন ও রাতের তাপমাত্রা সামান্য বাড়তে পারে আজ শুক্রবার। তারপর দুই দিনে বজ্র ও বজ্রসহ বৃষ্টিপাত হতে পারে। তার পরের পাঁচ দিনে তাপমাত্রা আরও বাড়তে পারে।

আজ শুক্রবার সকালে এসব তথ্য জানিয়েছে আবহাওয়া অধিদপ্তর।


আবাসিক হোটেলে অনৈতিক কর্মকাণ্ড, ধরা ২০ নারী

চুমু দিয়ে নারীদের সব রোগ সারিয়ে দেন ‘চুমুবাবা’

বুবলিকে ধাক্কা দেওয়া গাড়িটি ছিল ব্ল্যাক পেপারে মোড়ানো, ছিল না নম্বর প্লেট

অস্ত্রের মুখে ছাত্রীকে বিবস্ত্র করে ভিডিও ধারণের পর দফায় দফায় ধর্ষণ


সকাল ৯টা থেকে পরবর্তী ২৪ ঘণ্টার পূর্বাভাসে বলা হয়েছে, অস্থায়ীভাবে আংশিক মেঘলা আকাশসহ সারাদেশের আবহাওয়া শুষ্ক থাকতে পারে। শেষরাত থেকে সকাল পর্যন্ত সারাদেশে নদী অববাহিকার কোথাও কোথাও হালকা কুয়াশা পড়তে পারে।

লঘুচাপের বর্ধিতাংশ হিমালয়ের পাদদেশীয় পশ্চিমবঙ্গ ও তৎসংলগ্ন এলাকায় অবস্থান করছে। মৌসুমের স্বাভাবিক লঘুচাপ দক্ষিণ বঙ্গোপসাগরে অবস্থান করছে।

news24bd.tv তৌহিদ

মন্তব্য

পরবর্তী খবর

সুন্দরবনে একটি বিলুপ্ত প্রজাতির কচ্ছপ ডিম পেড়েছে

শেখ আহসানুল করিম, বাগেরহাট

সুন্দরবনে একটি বিলুপ্ত প্রজাতির কচ্ছপ ডিম পেড়েছে

                      

বাগেরহাটের পূর্ব সুন্দরবন বিভাগের চাঁদপাই রেঞ্জের করমজল বন্যপ্রাণী প্রজনন কেন্দ্রে চার দিনের মধ্যে আরো একটি বিলুপ্ত প্রজাতির কচ্ছপ ‘বাটাগুর বাসকা’ ২৩টি ডিম পেড়েছে। বুধবার রাত ১০টায় প্রজনন কেন্দ্রে পুকুর পাড়ে বালুর মধ্যে একটি বাটাগুর বাসকা কচ্ছপ ডিম পেড়েছে। 

ডিমগুলো প্রাকৃতিক উপায়ে বালুর মধ্যে রাখা হয়েছে। ৬৫ থেকে ৬৭ দিনের মধ্যে এসব ডিম থেকে বাচ্চা ফুটবে বলে জানিয়েছে সুন্দরবন বিভাগ। 

সুন্দরবনের করমজলের বন্যপ্রাণী প্রজনন কেন্দ্রের ভারপ্রাাপ্ত কর্মকর্তা আজাদ কবির মোবাইলে জানান, ২০০০ থেকে পৃথিবীতে খুঁজে না পাওয়া বিলুপ্ত প্রজাতির ৮টি বাটাগুর বাসকা কচ্চপ খুঁজতে খুঁজতে ২০০৮ সালে আমাদের দেশের নোয়াখালী ও বরিশালের বিভিন্ন জলাশয়ে সন্ধান মেলে।


আইটেম গার্ল জেরিন খান এখন ড. জেরিন খান

রাজধানীর খিলক্ষেতে সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত ১

সিরাজগঞ্জে এইচ টি ইমামের প্রথম জানাজা সম্পন্ন

মা হচ্ছেন শ্রেয়া ঘোষাল, বেবি বাম্পের ছবি ভাইরাল


এই ৮টি বাটাগুর বাসকার মধ্যে ছিল ৪টি পুরুষ ও ৪টি স্ত্রী। ওই বছরই প্রজননের জন্য ৮টি বাটাগুর বাসকা গাজীপুরে নিয়ে যায় বন বিভাগ। কয়েক বছরে ৯৪টি বাচ্চা দিয়েছিল ৮টি মা কচ্ছপ বাটাগুল বাসকা। সেখানে ভালো সারা না পাওয়ায় ২০১৪ সালে মূল ৮টি বাটাগুর বাসকা ও তাদের জন্ম দেওয়া ৯৪টি ছানাসহ করমজল বন্যপ্রাণী প্রজনন কেন্দ্রে নিয়ে আসা হয়।

এই কেন্দ্রে  ২০১৭ সালে দু’টি বাটাগুর বাসকা কচ্ছপের ৬৩টি ডিম থেকে ৫৭টি বাচ্চা জন্ম নেয়। এবপর ২০১৮ সালে দু’টি কচ্ছপের ৪৬ ডিম থেকে ২১টি বাচ্চা, ২০১৯ সালে একটি কচ্ছপের ৩২টি ডিম থেকে ৩২টি বাচ্চা, ২০২০ সালের ১০ মে একটি কচ্ছপের ৩৫টি ডিম থেকে ৩৪টি বাচ্চা জন্ম নেয়। 

গত ২৮ ফেব্রুয়ারি রাতে একটি বাটাগুর বাসকা কচ্ছপ প্রজনন কেন্দ্রে পুকুর পাড়ে ২৭টি ডিম পাড়ার মাত্র চার দিনের মধ্যে আরো বুধবার মধ্যরাতে আরো একটি বিলুপ্ত প্রজাতির ২৩টি ডিম পেড়েছে। 

দুটি কচ্ছপের পাড়া ৫০টি ডিম প্রাকৃতিক উপায়ে বালুর মধ্যে রাখা হয়েছে। ৬৫ দিন থেকে ৬৭ দিনের মধ্যে এসব ডিম থেকে বাচ্চা ফুটবে। করমজল বন্যপ্রাণী প্রজনন কেন্দ্র থেকে ২০১৭ সালে ২টি, ২০১৮ সালে ৫টি, ২০১৯ সালে ৫টি বাটাগুল বাসকা কচ্ছপ সুন্দরবনের বিভিন্ন নদীতে অবমুক্ত হয়েছে বলে জানান এই কর্মকর্তা।


news24bd.tv আয়শা

মন্তব্য

পরবর্তী খবর

শকুন রক্ষা ও বংশবৃদ্ধির লক্ষ্যে বীরগঞ্জে শকুন পরিচর্যা কেন্দ্র

ফখরুল হাসান পলাশ, দিনাজপুর

শকুন রক্ষা ও বংশবৃদ্ধির লক্ষ্যে বীরগঞ্জে শকুন পরিচর্যা কেন্দ্র

শকুন রক্ষা ও বংশবৃদ্ধির লক্ষ্যে দিনাজপুরের বীরগঞ্জ উপজেলার সিংড়া জাতীয় উদ্যানে গড়ে তোলা হয়েছে শকুন পরিচর্যা কেন্দ্র। এই কেন্দ্রে বিভিন্ন জেলা থেকে শকুন সংগ্রহ করে নিবিড় পরিচর্যায় রাখা হয়। পরে সবল ও সুস্থ্য হলে তাকে আবার প্রকৃতিতে অবমুক্ত করা হয়। আর  বিলুপ্ত এই পাখি দেখতে  প্রতিদিনই দুর দুরান্ত থেকে আসছেন শতশত দর্শনার্থী।

উত্তরবঙ্গের একমাত্র শকুন উদ্ধার ও পরিচর্যা কেন্দ্র গড়ে তোলা হয়েছে দিনাজপুর বীরগঞ্জ উপজেলার সিংড়া জাতীয় উদ্যানে। শকুন রক্ষা এবং বংশ বিস্তারের লক্ষ্যে ৬ বছর আগে বন বিভাগ ও আইইউসিএন বাংলাদেশের যৌথ উদ্যোগে এই কেন্দ্রটি চালু করা হয়।


ঝিনাইদহের বাস দুর্ঘটনায় নিহতের সংখ্যা বেড়ে ১২

দেশে বিদেশে অর্থপাচারকারীদের বয়কটের আহ্বান

বৃদ্ধা মাকে ঘরে তুলেন না ছেলে, ভরণপোষণের ভার নিলেন ইউএনও

কন্যাসন্তান জন্ম দেয়ায় ৩ তালাক দিলেন স্বামী


বিলুপ্ত প্রায় এই শকুন প্রতিবছর শীতের সময় অন্য এলাকা থেকে দিনাজপুরসহ এ অঞ্চলে অসুস্থ বা খাদ্যাভাবে ক্লান্ত অবস্থায় আসে। ঠিকমতো উড়তে না পারায় সেসব শকুনকে উদ্ধার করে এই কেন্দ্রে আনা হয়। আর এসব শকুন দেখতে প্রতিদিনই দুর-দুরান্ত থেকে আসছেন অনেকে। 

সংশ্লিস্টরা জানান, প্রতি বছরের মার্চ-এপ্রিলের দিকে এসব শকুন ছেড়ে দেওয়া হয়। এ বছর ২১টি শকুন ছেড়ে দেওয়া হবে। গত বছরের এপ্রিলে ১৩টি শকুন সুস্থ অবস্থায় প্রকৃতিতে ফিরিয়ে দেওয়া হয়।

news24bd.tv আয়শা

মন্তব্য

পরবর্তী খবর