আমার বিচ্ছেদ নিয়ে এত আগ্রহ কেন আপনাদের : শবনম ফারিয়া
আমার বিচ্ছেদ নিয়ে এত আগ্রহ কেন আপনাদের : শবনম ফারিয়া

আমার বিচ্ছেদ নিয়ে এত আগ্রহ কেন আপনাদের : শবনম ফারিয়া

অনলাইন ডেস্ক

ছোট পর্দার অভিনেত্রী শবনম ফারিয়ার বিয়ের ঠিক এক বছর নয় মাসের মাথায় সংসার জীবন থেকে ছুটি নেন। এরপর থেকেই সিঙ্গেল আছেন জনপ্রিয় ধারাবাহিক ‘ফ্যামিলি ক্রাইসিস’এর জনপ্রিয় এই অভিনেত্রী। গত বছর ২৮ নভেম্বর ফেসবুকে স্ট্যাটাস দিয়ে তা জানান দিয়েছিলেন এ অভিনেত্রী।

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে ছবি স্ট্যাটাস দিয়ে ভক্তদের নিজের আপডেট জানান দেন শবনম ফারিয়া।

সচরাচর নিজের নিত্য নতুন লুকের ছবি প্রকাশ করেন এই অভিনেত্রী। গত শনিবার (১৩ ফেব্রুয়ারি) নিজের ফেসবুকে লম্বা একটি স্ট্যাটাস দিয়েছেন শবনম ফারিয়া।  

news24bd.tv

স্ট্যাটাসে নেটিজেনদের উদ্দেশে ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন তিনি। অভিনেত্রীর দেয়া স্ট্যাটাসটিপাঠকদের জন্য তুলে ধরা হলো-

অপুর কমেন্ট সেকশনে মানুষের কমেন্ট পড়ে আমি নির্বাক তাকিয়ে থাকি! অপুর প্রতি মন থেকে আমার কৃতজ্ঞতা তার এই সহনশীলতার জন্য! তার এই ধৈর্যের জন্য তার প্রতি আমার সম্মান অনেক অংশে বেড়ে গেল।


আমার বয়ফ্রেন্ড নিয়ে আমিও মজায় আছি : নাসিরের সাবেক প্রেমিকা

সুশান্তের দেখানো পথে তারই সহ-অভিনেতার আত্মহনন!

তিন মাসের ছুটি নিয়ে দেড় বছর যাবত যুক্তরাষ্ট্রে শিক্ষিকা

এআরও পদে নিয়োগ দেবে ব্যাংক এশিয়া


ভাই, আমাদের বিবাহবিচ্ছেদ কেন হয়েছে আপনি জেনে কি করবেন? আমরা যদি আলাদা হয়ে ভালো থাকি, আপনার কি কোনো সমস্যা হচ্ছে? নাকি গিফট পাঠাবেন কোনো? আর যদি খারাপও থাকি আপনি কি আজকে রাতে না খেয়ে থাকবেন? আমি পাবলিক ফিগার তাই আপনারা অনেকেই ভেবে নেন, আমাকে যা খুশি বলা যাবে! ফাইন! আমি মেনে নিয়েছি! যা তা বলেন! সব ঠিক আছে!

কিন্তু এই ছেলেটাকে কেন? কি মজা অন্যকে ছোট করে? কেন একটা মানুষ যে বিবাহ বিচ্ছেদের মতো একটা বিষয়ের মধ্য দিয়ে গেছে ৩ মাসও হয়নি তাকে অপ্রয়োজনীয় কমেন্টস করে হ্যারাস করা? এটা কেমন ধরনের ফান?

অন্যের কস্ট দেখে একটা মানুষের কীভাবে আনন্দ লাগতে পারে! এইটা তো অসুস্থতা! দেশে এত অসুস্থ মানুষ! বিশ্বাস করেন, বিবাহবিচ্ছেদের চেয়ে কষ্টের কিছু একটা মানুষের জীবনে ঘটতে পারে না! প্রিয় মানুষের মৃত্যু অনেক কষ্টের কিন্তু জীবিত প্রিয় মানুষের সঙ্গে বিচ্ছেদ কত কষ্টের, যে তার মধ্য দিয়ে না যায় সে বুঝবে না!\

news24bd.tv

দয়া করে এবার ক্ষমা করেন। আমরা আলাদা হয়ে ভালো আছি, আমাদের ভালো থাকতে দেন। আমাদের নিয়ে আপনাদের চিন্তিত হতে হবে না! চিন্তিত হবার জন্যে আমাদের পরিবার, আত্মীয়স্বজন এবং বন্ধুবান্ধব আছে। আপনারা নিজের চরিত্র, পরিবার এবং সংসারের দিকে মন দেন। যাতে আপনাদের সংসার টিকে যায়! আপনারা সম্ভবত নিজেদের জীবনেও সুখী না, তাই অন্যের কষ্টে এত আনন্দ হয়।

প্রসঙ্গত, গত বছর ১ ফেব্রুয়ারি জমকালো আয়োজনের মাধ্যমে বিয়ে বন্ধনে আবদ্ধ হন অভিনেত্রী শবনম ফারিয়া ও বেসরকারি চাকুরীজীবী হারুন অর রশীদ অপু। এদিন নৌকায় ভেসে ভেসে পরীর বেশে বিয়ের আসরে হাজির হলেন নববধূ শবনম ফারিয়া! অন্যদিকে একই সময়ে লেকের পাড় ধরে ঘোড়ার গাড়িতে চেপে এলেন বর হারুন অর রশিদ অপু। এমন নান্দনিক বিয়ের আয়োজন এর আগে কোনো শিল্পীকে ঘিরে হয়নি আগে।   কিন্তু সেই সংসার ভাঙ্গে গত বছরের ২৭ নভেম্বর ।

নিজের চরিত্র ও সংসারের মন দেন : শবনম ফারিয়া

news24bd.tv/আলী

;