আবারও ইসলামবিরোধী আইন ফ্রান্সে

অনলাইন ডেস্ক

আবারও ইসলামবিরোধী আইন ফ্রান্সে

ফ্রান্সে সাম্প্রতিক বছরগুলোতে ইসলাম-বিদ্বেষ এবং মুসলমানদের ওপর ক্রমবর্ধমান চাপ তীব্রতর হয়েছে। প্রেসিডেন্ট ইমানুয়েল ম্যাকরনের ইসলাম বিদ্বেষি চিন্তাভাবনার সমর্থনে ফ্রান্সের সংসদ সম্প্রতি নতুন একটি পদক্ষেপ নিয়েছে।

ফরাসী সংসদ মঙ্গলবার ইসলাম ও মুসলমান বিরোধী একটি আইন পাস করেছে। "প্রজাতন্ত্রের মূল্যবোধের প্রতি শ্রদ্ধাবোধ বৃদ্ধি" সম্পর্কিত ওই আইনটির পক্ষে ভোট পড়েছে তিন শ সাতচল্লিশটি আর বিপক্ষে পড়েছে একশ’ একান্নটি। বিলটি এখন চূড়ান্ত অনুমোদনের জন্য সিনেটে পাঠাতে হবে।

সত্তর অনুচ্ছেদের এই আইনের প্রয়োগ করে ফরাসি সরকার মসজিদসহ সকল ইসলামি কেন্দ্র বন্ধ করে দিতে পারবে। সেইসঙ্গে ফরাসি সরকার চরমপন্থি বলে তাদের কাছে বিবেচিত সকল বক্তৃতার আয়োজনও বন্ধ করতে পারবে। ধর্মীয় গোষ্ঠীগুলোকে অবশ্যই বিদেশ থেকে প্রাপ্ত অনুদানের ঘোষণা দিতে হবে এবং তাদের ব্যাংক অ্যাকাউন্টগুলোরও অনুমোদন নিতে হবে। এই আইনের ভিত্তিতে আঠারো বছরের কম বয়সী মুসলিম মেয়েদের প্রকাশ্যে হিজাব পরা নিষিদ্ধ করা যাবে। এই আইনটি মূলত ফরাসি প্রেসিডেন্ট ইমানুয়েল ম্যাকরনের তথাকথিত "ধর্মনিরপেক্ষ মূল্যবোধের" সমর্থনে গৃহীত ধারাবাহিক পদক্ষেপগুলোর অংশ।

ম্যাক্রনের "আগ্রাসী ধর্মনিরপেক্ষতা" চিন্তার ওপর ভিত্তি করে গৃহীত হয়েছে এই আইন। ইম্যানুয়েল ম্যাক্রনের ইসলাম বিদ্বেষী এই আইনের সমালোচকরা মনে করেন যে আইনটি কেবলমাত্র ইসলামকে টার্গেট করেই করা হয়েছে। গত রোববার ফ্রান্সের মুসলমানরা তাই এই আইনের বিরুদ্ধে বিক্ষোভ করেছে।


ডার্ক চকলেটের পুষ্টিগুণ

অবশেষে জনসম্মুখে কিম জং উনের স্ত্রী

মরুভূমিতে পথ হারিয়ে একই পরিবারের ৮ সদস্যের মৃত্যু

শূকর ব্যবসায় অর্জিত অর্থ খেয়ে গেল উইপোকায়!


ইম্যানুয়েল ম্যাকরন ইসলাম বিদ্বেষী কর্মকাণ্ডকে সমর্থন করেন এবং ইসলামী পবিত্র স্থানকে অপমান করার ক্ষেত্রেও একগুঁয়ে ও অযৌক্তিক মনোভাব পোষণ করেন। কিছুদিন আগেও মতপ্রকাশের স্বাধীনতার অজুহাতে তিনি কার্টুন ম্যাগাজিন শার্লি আবদো-তে ইসলামের মহান নবীর অবমাননাকর কার্টুন প্রকাশের পক্ষে সমর্থন ব্যক্ত করেছেন।

সুতরাং "প্রজাতন্ত্রের মূল্যবোধের প্রতি শ্রদ্ধাবোধ বৃদ্ধি" সম্পর্কিত আইন পাস করার পর তা বাস্তবায়িত হলে ফ্রান্সের মুসলমানরা আরও বেশি কোনঠাসা হয়ে পড়বে বলে বিশেষজ্ঞরা মনে করছেন।

সূত্রঃ পার্সটুডে

news24bd.tv / নকিব

মন্তব্য

পরবর্তী খবর

কলকাতায় বাম-কংগ্রেস নজিরবিহীন সমাবেশে মোদি-মমতাকে উৎখাতের ডাক

অনলাইন ডেস্ক

কলকাতায় বাম-কংগ্রেস নজিরবিহীন সমাবেশে মোদি-মমতাকে উৎখাতের ডাক

পশ্চিমবঙ্গে আসন্ন বিধানসভা নির্বাচনে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে উৎখাতের ডাক দিয়েছেন ইন্ডিয়ান সেক্যুলার ফ্রন্ট (আইএসএফ)-এর প্রতিষ্ঠাতা ও ফুরফুরা শরীফের পীরজাদা আব্বাস সিদ্দিকী। বলেছেন, এজন্য বাম শরীক দলের প্রার্থীদের জয়ী করার আহ্বান জানিয়েছেন তিনি।

রোববার কলকাতার ঐতিহাসিক ব্রিগেড ময়দানে পশ্চিমবঙ্গের বাম-কংগ্রেস জোট ও ইন্ডিয়ান সেক্যুলার ফ্রন্ট (আইএসএফ) যৌথ আয়োজনে আব্বাস সিদ্দিকী বলেন, এবার এ বাংলা থেকে মমতাকে উৎখাত করে ছাড়ব। বিজেপির বি-টিম এই মমতা। তাদের বাংলা থেকে তাড়াতেই হবে। এই বাংলা নেতাজি, নজরুল, রবীন্দ্রনাথের। এখানে সাম্প্রদায়িকতার স্থান নেই।


গুলি ছুড়ে ইয়েমেনের ক্ষেপণাস্ত্র আকাশেই ধ্বংস করেছে সৌদি

জানা গেল আসল রহস্য, ১৩-১৪ বছরের দুই বোনের সঙ্গেই শরীরিক মেলামেশা ছিল তার

আবাহনীকে ৪-১ গোলে উড়িয়ে দিল বসুন্ধরা কিংস

৬৬ নারীকে ধর্ষণ


বাম ফ্রন্টের চেয়ারম্যান বিমান বসুর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত এ বিশাল সমাবেশে কংগ্রেস, বাম দল এবং আইএসএফের নেতারা ভাষণ দেন। সবার বক্তব্যেই মোদি-মমতার ‘অপশাসনের’ কথা উঠে আসে।

কংগ্রেসের পশ্চিমবঙ্গ শাখার সভাপতি ও সংসদ সদস্য অধীর চৌধুরী বলেন, এই রাজ্যে আগামী দিনে তৃণমূল ও বিজেপি থাকবে না। থাকবে সংযুক্ত মোর্চা। আমাদের লড়াই থাকবে এই তৃণমূল ও বিজেপির বিরুদ্ধে।

news24bd.tv তৌহিদ

মন্তব্য

পরবর্তী খবর

নতুন ইতিহাস গড়ল ভারতের মহাকাশ গবেষণা সংস্থা

অনলাইন ডেস্ক

নতুন ইতিহাস গড়ল ভারতের মহাকাশ গবেষণা সংস্থা ইসরো। রোববার ১৯টি স্যাটেলাইট নিয়ে মহাকাশে পাড়ি জমায় PSLV-C51 রকেট। স্যাটেলাইটের মধ্যে পাঠানো হয়েছে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির ছবিও। আর এটিই ছিল  ইসরোর প্রথম বাণিজ্যিক অভিযান। 

২০২১ সালে প্রথম মহাকাশ অভিযান ইসরোর। রোববার সকালে শ্রীহরিকোটা মহাকাশ গবেষণা কেন্দ্র থেকে এই রকেট উৎক্ষেপণ হয়। ১৯টি স্যাটেলাইটের মধ্যে রয়েছে ব্রাজিলের অ্যামাজোনিয়া ১। এই প্রথম ভারতের মাধ্যমে ব্রাজিলের প্রধম স্যাটেলাইট লঞ্চ করা হল। আর  এটিই  ইসরোর প্রথম বাণিজ্যিক অভিযান। 


জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের মূল ফটক আটকে শিক্ষার্থীদের বিক্ষোভ

শিক্ষা জাতির উন্নয়নের মূল চাবিকাঠি: প্রধানমন্ত্রী

অসুস্থ মাকে বাঁচাতে ক্রিকেটে ফিরতে চান শাহাদাত

প্রেমিকের আশ্বাসে স্বামীকে তালাক, বিয়ের দাবিতে অনশন!


এদিন স্যাটেলাইট লঞ্চের সময় ভারতের মহাকাশ কেন্দ্রে উপস্থিত ছিল ব্রাজিলের প্রতিনিধি দল। এছাড়াও ছিলেন ইসরোর প্রধান কে শিবনও। মহাকাশ থেকে পৃথিবীর বায়ুমণ্ডল, জলবায়ুর তারতম্যের তথ্য-চিত্র মহাকাশ গবেষণা কেন্দ্রে পাঠাবে এই উপগ্রহ।

অন্য যে ১৮টি স্যাটেলাইট লঞ্চ হয়েছে তার মধ্যে একটিতে  রয়েছে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর ছবি। মোদীর পাশাপাশি ভগবত গীতারও ছবি রয়েছে। শুধুমাত্র প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর ছবি এবং ভগবত গীতাই নয়, সেইসঙ্গে ওই উপগ্রহে থাকছে আরও ২৫০০০ জন মানুষের নাম। 

news24bd.tv নাজিম

মন্তব্য

পরবর্তী খবর

বিক্ষোভে উত্তাল মিয়ানমার, একদিনে নিহত ১০

চন্দ্রানী চন্দ্রা, আসমা তুলি

ফের বিক্ষোভে উত্তাল হয়ে উঠেছে মিয়ানমার। সেইসঙ্গে বেড়েছে জান্তা সরকারের দমনপীড়ন। পুলিশ-বিক্ষোভকারীদের সংঘর্ষে রোববারও ১০ জন নিহত হয়েছেন। আহত হয়েছেন আরও বেশ কয়েকজন। 

এদিকে, সেনা বিরোধী বক্তব্যের জেরে বরখাস্ত হয়েছেন জাতিসংঘে মিয়ানমারের স্থায়ী রাষ্ট্রদূত কিয়াও মোয়ে তুন। 

তিন সপ্তাহেরও বেশি সময় পেরিয়ে গেছে মিয়ানমারে সামরিক অভ্যুত্থানের। তবুও এখনও সমানভাবে ক্ষোভে ফুঁসছে গোটা দেশ। রোববারও দাওয়েই শহরে অভ্যুত্থানবিরোধী মিছিলে পুলিশের গুলিতে ৩ জন নিহত এবং বেশ কয়েকজন আহত হয়েছেন।

গ্রেফতার করা হয় অর্ধশতাধিক বিক্ষোভকারীকে। স্থানীয় সংবাদ মাধ্যম এই তথ্য জানিয়েছে বলে প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে এপি। একইদিন পুলিশ পড়াও হন ইয়াঙ্গুণে বিক্ষোভকারীদের উপর। বিভিন্ন স্থানে পুলিশ ব্যারিক্যাড দিলে আন্দোলনকারীরা সেখানেই অবস্থান নেন।

শনিবারও গণতন্ত্র পুনঃপ্রতিষ্ঠার দাবিতে বিভিন্ন স্থানে বিক্ষোভ অব্যাহত ছিল। দাওয়েই শহরে বিক্ষোভকারীদের সঙ্গে পুলিশের সংঘর্ষে এক নারী গুলিবিদ্ধ হন। এছাড়াও দ্বিতীয় বৃহত্তম শহর ম্যান্দালেতে অভ্যুত্থানবিরোধী বিক্ষোভে হয়। সেখানে যোগ দেন বৌদ্ধ ভিক্ষুরাও।


জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের মূল ফটক আটকে শিক্ষার্থীদের বিক্ষোভ

শিক্ষা জাতির উন্নয়নের মূল চাবিকাঠি: প্রধানমন্ত্রী

অসুস্থ মাকে বাঁচাতে ক্রিকেটে ফিরতে চান শাহাদাত

প্রেমিকের আশ্বাসে স্বামীকে তালাক, বিয়ের দাবিতে অনশন!


শুক্রবার জাতিসংঘ সাধারণ পরিষদের মিয়ানমারে গণতন্ত্র প্রতিষ্ঠায় আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়ের হস্তক্ষেপ কামনা করেন সংস্থাটিতে নিযুক্ত মিয়ানমারের স্থায়ী প্রতিনিধি কিয়াও মো।

পাশাপাশি সেনা সরকারকে কোন ধরনের সহায়তা না করতে বিশ্ব সম্প্রদায়ের প্রতি আহ্বান জানান। এ ঘটনায় জান্তা সরকারের রোষানলে পড়েন কিয়াও মো। শনিবার  তাকে বরখাস্ত করে সেনা শাসক।  

news24bd.tv নাজিম

মন্তব্য

পরবর্তী খবর

ইরানের ‌‘কনিষ্ঠা আঙুলের’ আঘাতেই ভূগর্ভে লুকায় মার্কিন সেনারা

অনলাইন ডেস্ক

ইরানের ‌‘কনিষ্ঠা আঙুলের’ আঘাতেই ভূগর্ভে লুকায় মার্কিন সেনারা

ইরাকে মার্কিন ঘাঁটি আইন আল আসাদে যে ক্ষেপণাস্ত্র হামলা করা হয়েছে তা ইরানের কনিষ্ঠা আঙুলের আঘাত বলে মন্তব্য করেছে তেহরান।

ইরানের স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন বাসিজের শিক্ষক শাখার উপ-প্রধান ব্রিগেডিয়ার মেহরান তাহমাসেবি এমন মন্তব্য করেন।

তিনি বলেছেন, মুসলিম বিশ্বের মহাবীর জেনারেল কাসেম সোলাইমানির জানাজা অনুষ্ঠানে জনগণ কঠোর প্রতিশোধের যে দাবি জানিয়েছিল তারই কিয়দংশ ক্ষেপণাস্ত্রের আঘাতের মাধ্যমে বাস্তবায়ন করা হয়েছে, এটা ছিল ইরানের কনিষ্ঠা আঙুলের আঘাত।


গুলি ছুড়ে ইয়েমেনের ক্ষেপণাস্ত্র আকাশেই ধ্বংস করেছে সৌদি

জানা গেল আসল রহস্য, ১৩-১৪ বছরের দুই বোনের সঙ্গেই শরীরিক মেলামেশা ছিল তার

আবাহনীকে ৪-১ গোলে উড়িয়ে দিল বসুন্ধরা কিংস

৬৬ নারীকে ধর্ষণ


ইরানের বাসিজের এই কর্মকর্তা বলেন, মার্কিন ঘাঁটিতে ক্ষেপণাস্ত্রের সাহায্যে যে আঘাত হানা হয়েছিল তাতে মার্কিন সেনারা ভূগর্ভস্থ আশ্রয়কেন্দ্রে লুকাতে বাধ্য হয়। তারা প্রথমে বলেছিল কিছুই হয়নি, কিন্তু পরবর্তীতে ক্ষয়ক্ষতির কথা স্বীকার করেছে।

২০২০ সালের ৩ জানুয়ারি ইরানের জেনারেল কাসেম সোলাইমানি ও তার ৯ সহযোগী ইরাকে মার্কিন কাপুরুষোচিত হামলায় নিহত হন।

জেনারেল সোলাইমানিকে কবর দেওয়ার আগেই মার্কিন ঘাঁটিতে ক্ষেপণাস্ত্র হামলা চালায় ইরানের ইসলামী বিপ্লবী গার্ড বাহিনী আইআরজিসি।

মার্কিন ঘাঁটি আইন আল আসাদে ১১টি ক্ষেপণাস্ত্র নিক্ষেপ করে ইরান, এর প্রতিটি ক্ষেপণাস্ত্রের ওজন ছিল এক হাজার পাউন্ডের বেশি।

news24bd.tv তৌহিদ

মন্তব্য

পরবর্তী খবর

এবার এক ডোজের ভ্যাকসিন অনুমোদন দিয়েছে যুক্তরাষ্ট্র

অনলাইন ডেস্ক

এবার এক ডোজের ভ্যাকসিন ​মার্কিন কোম্পানি জনসন এন্ড জনসনের ভ্যাকসিনের অনুমোদন দিয়েছে যুক্তরাষ্ট্র। শনিবার মার্কিন খাদ্য ও ঔষধ প্রশাসন-এফডিএ এই টিকার অনুমোদন দেয়।

এছাড়া মহামারীতে বিপাকে পড়া মার্কিনীদের সাহায্যে প্রেসিডেন্ট জো বাইডেনের ১ দশমিক ৯ ট্রিলিয়ন ডলারের ত্রাণ পরিকল্পনায় অনুমোদন দিয়েছে যুক্তরাষ্ট্রের প্রতিনিধি পরিষদ। 


জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের মূল ফটক আটকে শিক্ষার্থীদের বিক্ষোভ

শিক্ষা জাতির উন্নয়নের মূল চাবিকাঠি: প্রধানমন্ত্রী

অসুস্থ মাকে বাঁচাতে ক্রিকেটে ফিরতে চান শাহাদাত

প্রেমিকের আশ্বাসে স্বামীকে তালাক, বিয়ের দাবিতে অনশন!


শনিবার সকালে হওয়া ওই ভোটে বিলটি ২১৯-২১২ ব্যবধানে অনুমোদন পায়। বিলটি এখন অনুমোদনের জন্য উচ্চকক্ষ সেনেটে পাঠানো হবে। এদিকে গেলো সপ্তাহে করোনাভাইরাসের প্রাদুর্ভাব কিছুটা কমে আসলেও চলতি সপ্তাহের শুরুতেই আবারো কিছুটা বেড়েছে সংক্রমণের মাত্রা। 

এ পরিস্থিতিতে ভারতে করোনা সংক্রমণের দ্বিতীয় ঢেউয়ের আশঙ্কা করছেন বিশেষজ্ঞরা। এরইমধ্যে দেশটিতে মোট সংক্রমণ ছাড়িয়ে গেছে এক কোটি ১০ লাখ। এদিকে বিশ্বজুড়ে মোট শনাক্ত হয়েছে ১১ কোটি ৪৩ লাখ এবং মৃত্যু ছাড়িয়েছে ২৫ লাখ ৩৬ হাজার।

news24bd.tv নাজিম

মন্তব্য

পরবর্তী খবর