স্বামীর দেওয়া আগুনে দগ্ধ স্ত্রীর মৃত্যু

শেখ সফিউদ্দিন জিন্নাহ্, গাজীপুর

স্বামীর দেওয়া আগুনে দগ্ধ স্ত্রীর মৃত্যু

গাজীপুরে স্বামীর দেওয়া আগুনে দগ্ধ স্ত্রী ১১দিন হাসপাতালে থেকে মারা গেছেন। এ ঘটনায় নিহতের স্বামীকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

নিহত মর্জিনা (৪০) টাঙ্গাইল দেলদুয়ার থানা ইয়াসিন গ্রামের বাদশা মিয়ার মেয়ে। তিনি সিরাজগঞ্জ জেলা সদরের জয়নগর এলাকার মৃত হরফ আলীর ছেলে স্বাধীন আলীর(৫০) স্ত্রী।

জিএমপি কোনাবাড়ী থানার পরিদর্শক তদন্ত  মালেক খসরু জানায়, গাজীপুর মহানগরীর কোনাবাড়ি থানাধীন সেলিম নগর এলাকার মমতাজের বাড়ির ভাড়া বাসায় স্বপরিবারে থাকেন স্বাধীন। দাম্পত্য কলহের জেরে গত ৭ ফেব্রুয়ারি দুপুরে মর্জিনার পড়নের কাপড়ে অগ্নি সংযোগ করে স্বামী স্বাধীন। প্রতিবেশীরা তাকে উদ্ধার করে প্রথমে স্থানীয় হাসপাতালে পরে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের শেখ হাসিনা বার্ন ইউনিটে নিয়ে ভর্তি করেন।


১৪ বছরের গরুর বিশ্বরেকর্ড!

মিয়ানমারে গাড়ি নষ্টের অজুহাতে সড়ক অবরোধ

অবশেষে জনসম্মুখে কিম জং উনের স্ত্রী

শূকর ব্যবসায় অর্জিত অর্থ খেয়ে গেল উইপোকায়!


সেখানে ১১ দিন চিকিৎসাধীন থাকার পর বুধবার রাতে তিনি মারা যান। পুলিশ ঘাতক স্বাধীন আলীকে গ্রেফতার করেছে। এ ব্যাপারে নিহতের ছেলে মনিরুল ইসলাম বাদী হয়ে থানায় মামলা দায়ের করেছে।

news24bd.tv / নকিব

মন্তব্য

পরবর্তী খবর

ঝিনাইদহের ২ কাউন্সিলর প্রার্থীর সমর্থকদের মধ্যে ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়া, আহত-৪

অনলাইন ডেস্ক

ঝিনাইদহের ২ কাউন্সিলর প্রার্থীর সমর্থকদের মধ্যে ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়া, আহত-৪

ঝিনাইদহের কালীগঞ্জ পৌরসভা নির্বাচনে ২ কাউন্সিলর প্রার্থীর সমর্থকদের মাঝে ধাওয়া পাল্টা ধাওয়ার ঘটনা ঘটেছে। এতে আহত হয়েছে উভয় পক্ষের ৪জন।

সকাল ১০ টার দিকে কালীগঞ্জের ৮ নং ওয়ার্ডের কাশীপুর সরকারি প্রাথমিক ভোটকেন্দ্রের বাইরে এ ঘটনা ঘটে।

বিজিবি জানায়, সকাল ১০ টার দিকে কাউন্সিলর প্রার্থী মেহেদী হাসান সজল ও আরিফুল ইসলাম সমর্থকদের মধ্যে ধাওয়া পাল্টা ধাওয়া শুরু হয়। খবর য়ে বিজিবির স্টাইকিং ফোর্স সেখানেয়ে  গিপরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে আনতে লাঠিচার্জ করে। পরিস্থিতি স্বাভাবিক রাখতে সেখানে অতিরিক্ত পুলিশপে মোতায়েন করা হয়েছে।

মন্তব্য

পরবর্তী খবর

টাঙ্গাইলে রেল লাইনে ফাটল, ট্রেনের গতিসীমা ১০ কিলোমিটার

টাঙ্গাইল প্রতিনিধি

টাঙ্গাইলে রেল লাইনে ফাটল,  ট্রেনের গতিসীমা ১০ কিলোমিটার

টাঙ্গালের কালিহাতীর মসিন্দা এলাকায় রেল লাইনে ফাটল দেখা দিয়েছে। সকাল ৭ থেকে সাড়ে ৮ টা পর্যন্ত দেড় ঘন্টা ঐ লাইন দিয়ে ঢাকার সাথে উত্তর-পশ্চিমাঞ্চলের ট্রেন চলাচল বন্ধ থাকে। ক্ষতিগ্রস্ত রেললাইনের মেরামত কাজ চলমান থাকলেও ঐ স্থান দিয়ে ঘন্টায় সর্বোচ্চ ১০ কিলোমিটার গতিতে ট্রেন চলাচলের নির্দেশ দিয়েছে কর্তৃপক্ষ। বর্তমানে ১০ কিলোমিটার গতিতে ট্রেন চলাচল করছে। 

টাঙ্গাইলের সহকারী স্টেশন মাস্টার মো.শাহীন মিয়া জানান, কালিহাতীর মসিন্দা এলাকায় রেল লাইনে ৬ ইঞ্চি ফাটল দেখা দিয়েছে। দুর্ঘটনা এড়ানোর লক্ষ্যে ঐ স্থান দিয়ে ১০ কিলোমিটার গতিতে ট্রেন চলাচল করছে।  


ঋণ থেকে মুক্তির দু’টি দোয়া

মেসি ম্যাজিকে সহজেই জিতল বার্সা

দোয়া কবুলের উত্তম সময়

রোনালদোর গোলেও হোঁচট খেল জুভেন্টাস


মসিন্দা রেলক্রসিংয়ের গেটম্যান রুবেল রানা জানায়, সকাল ৬ টায় ডিউটিতে আসার পর সে বিষয়টি দেখতে পায় এবং পরে তা কর্তৃপক্ষকে অবগত করে।

news24bd.tv/আলী

মন্তব্য

পরবর্তী খবর

নরসিংদী পৌরসভা নির্বাচন

অনলাইন ডেস্ক

নরসিংদী পৌরসভা নির্বাচন

নরসিংদী পৌরসভা নির্বাচনে ইউএমসি কেন্দ্র থেকে ২ হাজার পিস মারবেল ও গোলাই সহ স্বতন্ত্র প্রার্থীর (মোবাইল প্রতীকের) দুই সমর্থককে আটক করেছে পুলিশ।

বিস্তারিত আসছে...

news24bd.tv/আয়শা

মন্তব্য

পরবর্তী খবর

আজ দেবিদ্বার উপজেলা পরিষদের উপ-নির্বাচন

অনলাইন ডেস্ক

আজ দেবিদ্বার উপজেলা পরিষদের উপ-নির্বাচন

কুমিল্লার জেলার দেবিদ্বার উপজেলা গোমতী নদী সংলগ্ন একটি উপজেলা। ১টি পৌরসভা, ১৫ টি ইউনিয়ন নিয়ে দেবিদ্বার উপজেলা গঠিত। কুমিল্লার দেবীদ্বার উপজেলা পরিষদ’র শূন্য হওয়া চেয়ারম্যান পদে উপ-নির্বাচন আজ ২৮ফেব্রুয়ারি রোববার অনুষ্ঠিত হচ্ছে । নির্বাচনী পরিবেশ অবাধ ও সুষ্ঠ করতে এবং ভোটারদের নিরাপদ করতে নিরাপত্তা বলয় তৈরী করেছে স্থানীয় প্রশাসন। পাশাপাশি র‌্যাব, পুলিশ, বিজিবি, ষ্ট্রাইকিং ফোর্স সহ প্রায় সহ সহস্রাধিক আইনশৃংখলা বাহিনীর সদস্য মোতায়েন করা হয়েছে।

দেবীদ্বার উপজেলা পরিষদ’র উপ-নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে প্রতিদ্বদ্বী প্রার্থী মোট ৪ জন। এরা হলেন, আ’লীগ মনোনীত নৌকা প্রতীকের প্রার্থী মোঃ আবুল কালাম আজাদ, বিএনপি মনোনীত ধানেরশীষ প্রতীকের প্রার্থী এ.এফ.এম তারেক মূন্সী, জাতীয় পার্টির লাঙ্গল প্রতীকের আব্দুল আউয়াল সরকার এবং স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে আনারস প্রতীক নিয়ে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন আব্দুল হক খোকন।


ঋণ থেকে মুক্তির দু’টি দোয়া

মেসি ম্যাজিকে সহজেই জিতল বার্সা

দোয়া কবুলের উত্তম সময়

রোনালদোর গোলেও হোঁচট খেল জুভেন্টাস


এ ব্যাপারে দেবীদ্বার উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা রাকিব হাসান বলেন, উপজেলার প্রায় ৩ লক্ষ ৩৭ হাজার ভোটারের জন্য ১শত ১৪টি ভোট কেন্দ্রে অবাধ ও সুষ্ঠ নির্বাচন সম্পন্ন করতে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহনে আমরা প্রস্তুত। আইনশৃংখলা পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে প্রতিটি এলাকায় দ্রুততার সাথে ব্যবস্থা গ্রহনে নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেটের নেতৃত্বে ষ্ট্রাইকিং ফোর্স সহ বিপুলসংখ্যক র‌্যাব, পুলিশ, বিজিবি,আনসার মোতায়েনের ব্যবস্থা রাখা হয়েছে।

আ.লীগ, বিএনপি, জাতীয় পার্টি এবং স্বতন্ত্র নিয়ে মোট ৪ জন প্রাথী এবারের উপ-নির্বাচনে লড়াই করছেন।

news24bd.tv/আয়শা

মন্তব্য

পরবর্তী খবর

প্রবাসী স্বামীকে তালাক দিয়ে প্রেমিকের বাড়িতে প্রেমিকার অনশন!

অনলাইন ডেস্ক

প্রবাসী স্বামীকে তালাক দিয়ে প্রেমিকের বাড়িতে প্রেমিকার অনশন!

মোবাইল ফোনে প্রেমের জেরে গ্রিস প্রবাসী স্বামীকে তালাক দিয়ে বিয়ের দাবিতে ইতালি প্রবাসী প্রেমিকের বাড়িতে অনশন করছেন এক গৃহবধূ। শুক্রবার সকাল থেকে ওই নারী যুবকের বাড়ির সামনে বসে অবস্থান নিয়ে অনশন করছিলেন। ওই প্রবাসী যুবকের নাম নুরুল হক ব্যাপারী (২৭)। তার বাড়ি সদর উপজেলার আংগারিয়া ইউনিয়নের দাঁতপুর উত্তরভাষান চর গ্রামে। এর আগেও ওই নারী তিনবার নুরুল হকের বাড়িতে আসেন। 

নুরুল হকের পরিবারের সদস্যরা জানায়, নুরুল হক ২০১০ সালে কাজের সন্ধানে জর্ডান যান। পরে সেখান থেকে লিবিয়া যান। লিবিয়া থেকে ২০২০ সালের জুন মাসে ইতালি পাড়ি জমান। বর্তমানে তিনি ইতালি রয়েছেন।

বিয়ের দাবিতে অনশনকারী ওই নারী জানায়, জেলার নড়িয়া পৌরসভার শালাল বাজার এলাকায় নুরুল হকের বোন সাবিনার শ্বশুরবাড়ি। একই এলাকায় ভাড়া থাকতেন তিনি। পাশাপাশি বসবাস করায় তার সঙ্গে সম্পর্ক গড়ে ওঠে নুরুল হকের বোন সাবিনার। 

২০১৯ সালের সেপ্টেম্বর মাসে নুরুল হক লিবিয়া থাকাকালীন ওই নারীর মুঠোফোনের ইমোতে ভিডিও কলে নুরুল হকের সঙ্গে কথা বলতেন বোন সাবিনা।  কথা বলতে বলতে তাদের মধ্যে প্রথমে বন্ধুত্ব, পরে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে ওঠে। 

তিনি আরও বলেন, ২০১১ সালে ১৭ জুলাই নড়িয়া বিঝারি কান্দাপাড়া গ্রামে আমার বিয়ে হয়। স্বামী গ্রিসে থাকেন। তাদের নয় বছরের একটি ছেলে আছে। স্বামীর আচার আচরণ খারাপ হওয়ায় স্বামীর প্রতি আমার ধীরে ধীরে আগ্রহ কমতে থাকে। নুরুল হক দেখতে সুন্দর, সুন্দর করে কথা বলে। তাই আমার আর নুরুল হকের মধ্যে ভালোবাসা গভীর হতে থাকে। 

তিনি বলেন, ‘নুরুল হক মোবাইলে বলেছে আমাকে ছাড়া সে বাঁচবে না। স্বামীকে তালাক দিলে নুরুল হক আমাকে বিয়ে করবে। আমি ওর কথা মতো নিজের স্বামীকে তালাক দিয়েছি। হঠাৎ একদিন আমাকে ফোনে বিয়ের কথা বলে নুরুল হক। আর তার গ্রামের ঠিকানা দেয়। আমি তাদের বাড়িতে যাই, পরিবারের সকলের সঙ্গে আমার পরিচয়ও হয়। আমাকে ফোনে বিয়ে করবে বলে জন্ম নিবন্ধন, দুই কপি ছবি ও পাঁচ হাজার টাকা নিয়ে তার ভাই আমিনুল হক ব্যাপারীর কাছে যেতে বলেন।’

ওই নারী আরো বলেন, আমি সদরের আংগারিয়া বাজার গিয়ে আমিনুলের দোকানে এগুলো দিয়ে নুরুল হকের সঙ্গে মোবাইলে কথা বলে একটি ফর্মে স্বাক্ষর দিই। কিছুদিন পর নুরুল হকের কাছে কাবিন নামা চাইলে তিন মাস পরে পাব বলে জানায়। এছাড়া জমি কিনবে বলে নুরুল আমার কাছ থেকে ৬ লাখ টাকা চায়। আমি দুই দফায় ৩ লাখ ৭৫ হাজার টাকা দিই। টাকাটা আমিনুলের দোকানে গিয়ে দিয়ে আসি। আবারও কাবিননামা চাইলে এখন নুরুল হকসহ তার পরিবার বলছে, আমাকে তারা চেনে না। ইতালি থেকে নুরুল হকও সমস্ত যোগাযোগ বন্ধ করে দিয়েছে। আমি বাধ্য হয়েই আমার অধিকার প্রতিষ্ঠার জন্য ওর বাড়িতে উঠেছি।


ঋণ থেকে মুক্তির দু’টি দোয়া

মেসি ম্যাজিকে সহজেই জিতল বার্সা

দোয়া কবুলের উত্তম সময়

রোনালদোর গোলেও হোঁচট খেল জুভেন্টাস


তিনি বলেন, এর আগে গত ১৮ ফেব্রুয়ারি আমি নুরুল হকের বাড়িতে আসি। তখন তার ভাই আমিনুল, বোন তানজিলাসহ বেশ কয়েকজন আমাকে মারধর করে। আমি শরীয়তপুর সদর হাসপাতালে ভর্তি হই। পরে সদরের পালং মডেল থাকায় একটি অভিযোগ করি।

ওই নারী আরও বলেন, নুরুল হক আমাকে বিয়ে করবে বলে তার ওয়াদা রাখতে আমার স্বামীকে তালাক দিয়েছি। এখন নিজের বাড়িতে উঠতেও দিচ্ছে না। আমি সব হারিয়েছি। নুরুল হক বিয়ে না করলে, আমি এ জীবন রাখব না। যদি নুরুল হকের পরিবার আমাকে মেনে না নেয় তাহলে আমি এই বাড়িতেই আত্মহত্যা করবো। 

তবে নুরুল হকের বোন তানজিলা বলেন, আমার ভাইয়ের সঙ্গে মুঠোফোনে কথা বলতো ওই নারী। ভাইকে বলেছে তার বিয়ে হয়নি। এখন জানতে পারি তার বিয়ে হয়েছে। একটি ছেলেও আছে। ওই নারী আমার ভাইয়ের সঙ্গে প্রতারণা করেছে। এখন আমাদের বাড়িতে এসেছে। সে কোন টাকা পয়সা আমাদের দেয়নি। 

আংগারিয়া ইউনিয়ন পরিষদের (ইউপি) চেয়ারম্যান আনোয়ার হোসেন হাওলাদার বলেন, এ ব্যাপারে আমাকে কেউ কিছু জানায়নি। কেউ অভিযোগ করলে, আমাদের ইউনিয়ন পরিষদ গ্রাম আদালতের মাধ্যমে বিষয়টি সমাধানের চেষ্টা করা যেত।

শরীয়তপুর সদরের পালং মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. আসলাম উদ্দিন বলেন, বিয়ের দাবিতে অনশনে বসে আত্মহত্যা করবে বলে হুমকি দেওয়ায় নুরুল হকের বাড়ি থেকে নারীকে আটক করে থানায় এনে তার বাবাকে খবর দিয়ে তুলে দিতে চাইলে সে তাকে নিতে অসম্মতি জানায়।

এর আগে মেয়েটি থানায় একটি অভিযোগ করে যে বিয়ের প্রলোভনে নুরুল হক তার স্বামীকে তালাক করিয়ে তার কাছ থেকে টাকা নিয়েছে। কিন্তু তদন্ত করে বা সাক্ষ্য প্রমাণ না থাকায় কোনও আইনগত ব্যবস্থা নেয়া সম্ভব হয়নি।

news24bd.tv/আলী

মন্তব্য

পরবর্তী খবর