নাসির প্রেমিক না আমার বন্ধু : মডেল মিম

অনলাইন ডেস্ক

নাসির প্রেমিক না আমার বন্ধু :  মডেল মিম

জাতীয় দলের একসময়ের ‘ব্যাডবয়’ খ্যাত খেলোয়াড় নাসির হোসেন বিয়ে করেছেন গত ১৪ ফেব্রুয়ারি। কিন্তু  বিয়ের পরও তার প্রেম ও নারী সংক্রান্ত নানা বিতর্কিত গল্প যেন শেষই হচ্ছে না। নাসিরের সদ্য বিবাহিত স্ত্রীর স্বামী কয়জন যখন সেটা নিয়ে আলোচনা চলছে। তখনই সামনে এলো মডেল-অভিনেত্রী মারিয়া মিম!

শোনা যাচ্ছে, ক্রিকেটার নাসির হোসেনের সঙ্গে প্রেমের সম্পর্ক রয়েছে মিমের। আবার কেউ কেউ বলছেন নাসির তার প্রাক্তন প্রেমিক। আর এ নিয়ে নানাভাবেই বিব্রত হচ্ছেন মারিয়া মিম।

 

তিনি বললেন, 'বিভিন্নজন ফোন দিয়ে নাসির সম্পর্কে নানা কথা জিজ্ঞেস করছে। আমি অবাক হয়ে যাচ্ছি আমাকে এসব জিজ্ঞেস করছে কেন?'


কষ্টার্জিত জয়ে অ্যাটলেটিকোর ঘাড়ে নিঃশ্বাস ফেলছে রিয়াল

জেনে নিন এইচএসসি পরীক্ষার্থীদের রেজিস্ট্রেশন কার্ড বিতরণের তথ্য

অ্যাপে ইয়াবা বিক্রি!

স্কয়ার ফুড অ্যান্ড বেভারেজে নিয়োগ


ফেসবুকে একটি পোস্টে মারিয়া মিম লিখেছেন, 'নাসির নাসির করে আমাকে মেসেজ দেওয়া বন্ধ করেন। কারো পার্সোনাল লাইফ নিয়ে পড়ে থাকি না। ওর ওয়াইফ এর কাহিনি সত্য না মিথ্যা নিউজ এটা তো জানতে পারছেন। আমার কাছে জানার কি আছে?'

নাসিরের সঙ্গে আপনার সম্পৃক্ততার কথা কেন আসছে, এমন প্রশ্নের জবাবে মিম বলেন, নাসিরের বিয়ের অনুষ্ঠানে দাওয়াত ছিল। অল্প কিছু মানুষ অবশ্য সেই আকদ অনুষ্ঠানে আমন্ত্রণ পেয়েছিল। সেখানে গিয়েছি। নাসিরের সঙ্গে বেশ কয়েকটি ছবিও তুলেছিলাম। ওসব ফেসবুকে পোস্ট করার পর থেকেই যন্ত্রণায় পড়েছি। মানুষ ক'দিন থেকে অতিষ্ঠ করে তুলছিল। আর শনিবার নাসিরকে নিয়ে নতুন খবর প্রকাশ হওয়ার পর আরো শুরু হয়েছে- আমি নাকি নাসিরের প্রেমিকা ছিলাম।'

নাসিরের সঙ্গে নিজের সম্পর্কের জায়গা স্পষ্ট করে মিম বলেন, নাসির আমার বন্ধু। সেই হিসেবে আমাকে আমন্ত্রণ জানিয়েছে। এর বাইরে কিছু না। বন্ধুর সঙ্গে কিছু ছবি তুলেছি এই যা, এর বাইরে কিছু নয়।

প্রসঙ্গত, গত  ১৪ ফেব্রুয়ারি উত্তরায় একটি রেস্তোঁরায় দুই পরিবারের উপস্থিতিতে আকদ হয় নাসিরের। ১৭ ফেব্রুয়ারি তাদের হলুদে উপস্থিত হয়েছিলেন জাতীয় দলের হয়ে খেলা অনেকেই। শনিবার রাতেই রাজধানীর গুলশানের লেকশোর হোটেলে আলোচিত নাসির-তামিমা জুটির বিবাহোত্তর সংবর্ধনা অনুষ্ঠিত হয়।

news24bd.tv/আলী

মন্তব্য

পরবর্তী খবর

মুম্বাই নিয়ে বিপাকে আইপিএল

অনলাইন ডেস্ক

মুম্বাই নিয়ে বিপাকে আইপিএল

করোনা মহামারির কারণে আসন্ন ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগের (আইপিএল) ম্যাচগুলো অনুষ্ঠিত হবার কথা ছিল মুম্বাইয়ের ওয়াংখেড়ে, ব্র্যাবোর্ন, ডি ওয়াই পাতিল ও রিলায়েন্স স্টেডিয়ামে স্টেডিয়ামে। কিন্তু এটি নিয়ে এখন ভাবতে হচ্ছে আইপিএল গভর্নিং কাউন্সিলকে।

মুম্বাইয়ে হঠাত করেই করোনা আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে যাওয়ায় ভাবাচ্ছে ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ডকেও। আইপিএল শুরুর বাকি আরও দেড় মাসের মতো। অর্থাৎ এপ্রিলের দ্বিতীয় সপ্তায় আইপিএল আয়োজন হবার সম্ভাবনা রয়েছে।

কিন্তু মহারাষ্ট্রে এরই মধ্যে করোনা পরিস্থিতির অবনতি হয়েছে বেশ। গতকাল বৃহস্পতিবারেই আক্রান্ত হয়েছে প্রায় নয় হাজার মানুষ।

তে ওর মা বাবা মেনে না নিলেও পরে মেনে নেন।


কারাবন্দি অবস্থায় লেখক মুশতাক মৃত্যুতে যা বললেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

সংবাদ সম্মেলনে আসছেন প্রধানমন্ত্রী

বগুড়ায় সকাল ও দুপুরের সড়ক দুর্ঘটনায় ঝরল ৬ প্রাণ

যা দেখে নাসিরকে ভালোবেসেছিলেন তামিমা


যে কারণে মুম্বাইয়ের বিকল্প ভেন্যুও ভেবে রেখেছে বিসিসিআই। সে হিসেবে মুম্বাইতে আয়োজন করা সম্ভব না হলে হায়দরাবাদ, বেঙ্গালুর কিংবা কলকাতায় সরিয়ে নেয়া হবে বলে সংবাদ সংস্থা পিটিআই-কে জানিয়েছেন নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক এক বোর্ড কর্মকর্তা।

‘আইপিএল শুরু হতে এখনও দেড় মাসের মতো বাকি। মুম্বাইতে গ্রুপ পর্বের ম্যাচগুলো আয়োজনের সিদ্ধান্ত হলেও এখন ঘটছে উল্টোটা। এখানে যেভাবে করোনা রোগী বৃদ্ধি পাচ্ছে সেটা ধারাবাহিকভাবে চলতে থাকলে মুম্বাইতে ম্যাচ আয়োজন অসম্ভব হয়ে দাঁড়াবে। তবে বিকল্প ভেন্যু কলকাতা, হায়দরাবাদ ও বেঙ্গালুরুকে রাখা হয়েছে। এছাড়া আহমেদাবাদে প্লে অফ ও ফাইনাল ম্যাচ অনুষ্ঠিত হতে পারে।’

গ্রুপ পর্বের ম্যাচগুলো মুম্বাইয়ের ৪টি ভেন্যুতে না হতে পারলে বিকল্প ভেন্যু ভেবে রাখলেও এখনও নিশ্চিত করেনি প্লে-অফ বা ফাইনাল ম্যাচের ভেন্যুর নাম।

news24bd.tv / কামরুল 

মন্তব্য

পরবর্তী খবর

নিউজিল্যান্ডে যেমন কাটছে টাইগারদের সময়

অনলাইন ডেস্ক

ওয়ানডে আর টি-টোয়েন্টি সিরিজ খেলতে এখন নিউজিল্যান্ডে বাংলাদেশ ক্রিকেট দল। কোয়ারেন্টিনের মাঝে ৪৮ ঘণ্টা পর প্রথমবারের মতো বাইরে বের হওয়ার সুযোগ মিলল টাইগারদের। নিরাপদ দূরত্ব বজায় রেখে মাত্র আধা ঘণ্টার জন্য হাঁটার সুযোগ পেয়েছিল তামিম, মুশফিকরা ।

এর আগে প্রথম দফায় করা করোনা পরীক্ষায় ক্রিকেটার ও কোচিং স্টাফসহ সবার ফলাফল আসে নেগেটিভ। আরো ৪দিন এভাবেই হোটেল রুমে কাটাতে হাবে বাংলাদেশ ক্রিকেট দলকে। 


নাসিরের স্ত্রীকে ‘জাতীয় ভাবী’ আখ্যা দিয়ে সুবাহ'র স্ট্যাটাস

বিএনপির সমাবেশ ঘিরে খুলনায় পরিবহন চলাচল বন্ধ

১৩৮ বছরের পুরনো পরিত্যক্ত আদালত ভবনে চলে বিচার কাজ

নাইজেরিয়ায় হোস্টেল থেকে কয়েকশ ছাত্রীকে অপহরণ


এরপর আরো দুইবার পরীক্ষা করা হবে করোনা টেস্ট। তারপর সবাই এক সাথে সুযোগ পাবে অনুশীলনের। পেসার তাসকিন জানিয়েছেন, এই অভিজ্ঞতা নতুন হলেও মানিয়ে নিচ্ছেন টাইগাররা। হোটেল রুমেই জিম আর পরিবারের সাথে কথা বলেই সময় কাটছে তাসকিনদের।

news24bd.tv নাজিম

মন্তব্য

পরবর্তী খবর

তামিমার পাসপোর্ট ও ডিভোর্স পেপারের ঠিকানা ভুয়া!

অনলাইন ডেস্ক

তামিমার পাসপোর্ট ও ডিভোর্স পেপারের ঠিকানা ভুয়া!

ক্রিকেটার নাসির ও তামিমার বিয়ে বর্তমান সময়ে আলোচিত বিষয় হলেও এর তেমন কিছুই জানেন না তামিমার নিজ গ্রামের মানুষ। তামিমা সুলতানার পাসপোর্ট ও আগের স্বামী রাকিবকে দেওয়া ডিভোর্সের কাগজে লেখা পোস্ট অফিস ও যে গ্রামের নাম লেখা রয়েছে টাঙ্গাইল সদরে ওই ঠিকানার কোনও অস্তিত্ব নেই।

খোঁজ নিয়ে জানা যায়, তামিমার বাড়ি টাঙ্গাইলের ঘাটাইল উপজেলার লোকেরপাড়া গ্রামে। ঘাটাইল উপজেলা সদর থেকে প্রায় ১৫ কিলোমিটার পশ্চিম দক্ষিণে লোকেরপাড়া গ্রামের অবস্থান। সেখানে গিয়ে দেখা মিলে তামিমার চাচা জাহিদুর রহমান বিপ্লবের। কথা হয় তার সঙ্গে। তিনি জানান, তারা চার ভাই। তামিমার বাবা সহিদুর রহমান স্বপন সবার বড়। তিনি ঢাকায় একটি প্রাইভেট কোম্পানিতে চাকরি করতেন। মা সুমী আক্তার। এলাকাবাসী তামিমাকে চিনেন শবনম নামে। এটা তার ডাক নাম।

চাচা বিপ্লব আরও জানান, গ্রামে তামিমার খুব একটা আসা-যাওয়া নেই। বছর দুয়েক আগে একবার এসেছিল তামিমা। তবে ওর বাবা মাঝে মাঝেই আসেন। বড় হয়েছে টাঙ্গাইল শহরে। লেখাপড়া, টাঙ্গাইল বিন্দুবাসিনী সরকারি বালিকা বিদ্যালয় থেকে এসএসসি ও কুমুদিনী সরকারি কলেজ থেকে এইচএসসি পাস করেছেন। একই কলেজে ভূগোল বিষয়ে অনার্স অধ্যয়নরত আছে। সম্রাট (২৫) ও অভি (১৭) নামে তার ছোট দুই ভাই রয়েছে। রাকিব তামিমার প্রেমের বিয়ের শুরুতে ওর মা বাবা মেনে না নিলেও পরে মেনে নেন।


কারাবন্দি অবস্থায় লেখক মুশতাক মৃত্যুতে যা বললেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

সংবাদ সম্মেলনে আসছেন প্রধানমন্ত্রী

বগুড়ায় সকাল ও দুপুরের সড়ক দুর্ঘটনায় ঝরল ৬ প্রাণ

যা দেখে নাসিরকে ভালোবেসেছিলেন তামিমা


ডিভোর্সের বিষয়ে তিনি বলেন, আমরা জানি পারিবারিকভাবেই তামিমা রাকিবকে তালাক দিয়েছে। পরে নাসিরকে বিয়ে করেছে। নাসির তামিমার বিয়ে নিয়ে এতো কিছু হয়ে গেলেও এখনও তেমন কিছুই জানেন না তার নিজ গ্রামের মানুষ।

এদিকে তামিমা তার পাসপোর্টে ঠিকানা দিয়েছেন গ্রাম লোকেরপাড়া, পোস্ট অফিস সিঙ্গুরিয়া টাঙ্গাইল সদর। প্রকৃতপক্ষে এই ঠিকানার কোনো অস্তিত্ব নেই টাঙ্গাইল সদরে। ওই ঠিকানাটি ঘাটাইল উপজেলায়।

পাসপোর্ট ও ডিভোর্স কাগজে ভুল ঠিকানা ব্যবহারের বিষয়ে মোবাইল ফোনে তামিমার বাবা সহিদুর রহমান স্বপন বলেন, যখন তামিমার এয়ারলাইনসে চাকরি হয় তখন জরুরি ভিত্তিতে পাসপোর্ট করতে হয়। সে সময় হয়তো ভুল হয়ে থাকতে পারে।

তামিমার ভাই সম্রাট বলেন, ২০১৬ সালে রাকিবকে তামিমা তালাক দিয়েছেন এবং পাসপোর্টটা রি-ইস্যু করা হয়েছে ২০১৮ সালে। তালাকের প্রমাণপত্রও রয়েছে আমাদের কাছে। তারপরও তাকে হেনস্তা করা হচ্ছে।

জানা গেছে, তামিমা সুলতানা ঢাকা থেকে পাসপোর্ট গ্রহণ করেছেন। পাসপোর্টটি ইস্যু হয়েছে পাসপোর্ট অধিদপ্তরের ডেপুটি ডিরেক্টর নাদিরা আক্তারের স্বাক্ষরে।

news24bd.tv / কামরুল 

মন্তব্য

পরবর্তী খবর

ফেসবুকে নাসিরের সতর্ক বার্তা

অনলাইন ডেস্ক

ফেসবুকে নাসিরের সতর্ক বার্তা

গত ১৪ ফেব্রুয়ারি, বিশ্ব ভালোবাসা দিবসে কেবিন ক্রু তামিমা তাম্মিকে বিয়ে করেন জাতীয় দলের সাবেক ক্রিকেটার নাসির হোসেন। এরপর থেকেই শুরু হয় নানা বিতর্ক।

বিষয়টি খোলাসা করতে গত ২৬ ফেব্রুয়ারি রাজধানীর একটি হোটেলে সংবাদ সম্মেলন করেন নাসির-তামিমা। সংবাদ সম্মেলনে তাদের আইনজীবীও উপস্থিত ছিলেন।

এবার নিজের ও স্ত্রীর ফেসবুক প্রোফাইল নিয়ে ভক্তদের সতর্ক করে নিজের ভেরিফাইড ফেসবুকে একটি স্ট্যাটাস দিয়েছেন নাসির।

নিউজ টোয়েন্টিফোর বিডি ডট টিভি-এর পাঠকদের জন্য সেই স্ট্যাটাসটি হুবহু তুলে ধরা হলো। 

তিনি লিখেছেন- আমার প্রিয় শুভাকাঙ্ক্ষী, শুভার্থী ও ভক্তবৃন্দ, আপনাদের  সদয় অবগতির জন্য আমি পুনরায় বিশেষভাবে জানাচ্ছি যে, আমার  এই ফেসবুক পেইজ ব্যতীত অন্য কোন ফেসবুক অ্যাকাউন্ট/ প্রোফাইল/ পেইজ নেই।  আমার স্ত্রী তামিমা সুলতানারও কোন  ফেসবুক অ্যাকাউন্ট/ প্রোফাইল/ পেইজ নেই।  অত্র  ফেসবুক পেইজটিই  আমার অফিশিয়াল এবং একমাত্র  ফেসবুক পেইজ।  এই ফেসবুক  পেইজ ব্যতীত অন্য যে সমস্ত  ফেসবুক অ্যাকাউন্ট/ প্রোফাইল/ পেইজ  নকলভাবে/ জালিয়াতির মাধ্যমে আমার অথবা আমার স্ত্রীর নামে তৈরি করা হয়েছে বা বর্তমানে বিদ্যমান আছে সেইগুলি সমস্তই নকল/জাল, যার  প্রকৃত উদ্দেশ্য হচ্ছে প্রতারণার মাধ্যমে আমাদের লাঞ্ছিত ও অপদস্ত করা।  আমাদের  নামে  সৃজিত  সেই সমস্ত  ফেসবুক অ্যাকাউন্ট/ প্রোফাইল/ পেইজ থেকে যেসমস্ত  বিভ্রান্তিকর  তথ্য/ স্ট্যাটাস  আপনাদের কাছে প্রকাশ/শেয়ার করা হচ্ছে  তার সমস্তই  মিথ্যা, বানোয়াট এবং ভিত্তিহীন। 

এমতাবস্থায় আমি আমার সকল বন্ধু, ভক্ত এবং শুভাকাঙ্ক্ষীদের  অনুরোধ  জানাচ্ছি যে আপনারা  অনুগ্রহপূর্বক  সেই সমস্ত নকল/জাল ফেসবুক অ্যাকাউন্ট/ প্রোফাইল/ পেইজ থেকে প্রদানকৃত  বিভ্রান্তিকর তথ্য/ স্ট্যাটাস  বিশ্বাস করবেন না এবং  উক্ত বিভ্রান্তিকর তথ্য/ স্ট্যাটাস  শেয়ার করবেন না। 


বিএনপির সমাবেশ ঘিরে খুলনায় পরিবহন চলাচল বন্ধ

১৩৮ বছরের পুরনো পরিত্যক্ত আদালত ভবনে চলে বিচার কাজ

নাইজেরিয়ায় হোস্টেল থেকে কয়েকশ ছাত্রীকে অপহরণ

কুয়েটে শর্টপিচ ক্রিকেট টুর্নামেন্ট শুরু


এই ফেসবুক পেইজ  ব্যতীত আমাদের  নামে সৃজিত সেই সমস্ত নকল/জাল ফেসবুক অ্যাকাউন্ট/ প্রোফাইল/ পেইজ থেকে প্রকাশকৃত/পরিবেশনকৃত কোন বিভ্রান্তিকর, মিথ্যা, বানোয়াট এবং ভিত্তিহীন তথ্যের জন্য আমি অথবা আমার স্ত্রী দায়ী নই। আমি অথবা আমার স্ত্রী যদি কোন তথ্য/সংবাদ আপনাদের নিকট প্রকাশ/পরিবেশন করতে  চাই তবে আমরা এই ফেসবুক পেইজ এর মাধ্যমে অথবা গণমাধ্যমে সাক্ষাৎকার প্রদানের মাধ্যমে তা প্রকাশ করবো। 

এই  সময়ে আমাদের পাশে থাকার জন্য এবং আমাদের সহায়তা করার জন্য আমি আমার সকল ভক্ত, বন্ধু, শুভাকাঙ্ক্ষীদের নিকট আন্তরিকভাবে কৃতজ্ঞ। আমি আশা করি আপনারা   সবাই আমাদের পাশে থাকবেন  এবং  আমাদের প্রতি আপনাদের ভালবাসা এবং সমর্থন অব্যাহত রাখবেন।  সবাইকে আন্তরিক ভাবে ধন্যবাদ।

news24bd.tv নাজিম

মন্তব্য

পরবর্তী খবর

ক্রিকেটকে বিদায় জানালেন ইউসুফ পাঠান

অনলাইন ডেস্ক

ক্রিকেটকে বিদায় জানালেন ইউসুফ পাঠান

সব ধরনের ক্রিকেটকে বিদায় জানিয়ে দিলেন ৩৮ বছর বয়সী অলরাউন্ডার ইউসুফ পাঠান। ২০০৭ টি-টোয়েন্টি এবং ২০১১ সালে ৫০ ওভারের বিশ্বকাপজয়ী দলের সদস্য ছিলেন ইউসুফ। তিনি সম্পর্কে প্রাক্তন ভারতীয় ক্রিকেটার ইরফান পাঠানের দাদা।

শুক্রবার (২৬ ফেব্রুয়ারি) সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে অবসরের ঘোষণা দেন তিনি।
 
ইউসুফ পাঠান নিজের অফিসিয়াল টুইটার পেজে লেখেন, ‘আমি সব ধরনের ক্রিকেট থেকে অবসরের ঘোষণা দিচ্ছি। আমাকে সমর্থন ও ভালোবাসার জন্য আমার পরিবার, বন্ধু, সমর্থক, দল এবং পুরো দেশবাসীকে ধন্যবাদ জানায়। আামি নিশ্চিত, ভবিষ্যতেও আমাকে চলার পথে আপনারা সাহস যোগাবেন। ’ 

মন্তব্য

পরবর্তী খবর