২১ আগস্ট গ্রেনেড হামলার যাবজ্জীবন দন্ডপ্রাপ্ত আসামি গ্রেপ্তার
২১ আগস্ট গ্রেনেড হামলার যাবজ্জীবন দন্ডপ্রাপ্ত আসামি গ্রেপ্তার

২১ আগস্ট গ্রেনেড হামলার যাবজ্জীবন দন্ডপ্রাপ্ত আসামি গ্রেপ্তার

নিজস্ব প্রতিবেদক

২০০৪ সালে রাজধানীর বঙ্গবন্ধু অ্যাভিনিউতে আওয়ামী লীগের সমাবেশে গ্রেনেড হামলার ঘটনায় যাবজ্জীবন দণ্ডপ্রাপ্ত আসামি জঙ্গি ইকবাল হোসেন, ওরফে ইকবাল ওরফে জাহাঙ্গীর ওরফে সেলিমকে গ্রেপ্তার করেছে র‍্যাপিড অ্যাকশান ব্যাটালিয়ন (র‍্যাব)।

সোমবার দিবাগত রাতে রাজধানীর দিয়াবাড়ি এলাকায় অভিযান চালিয়ে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়।

র‍্যাব মহাপরিচালক চৌধুরী আব্দুল্লাহ আল মামুন জানান, সোমবার রাতে দিয়াবাড়ি এলাকা থেকে ২১ আগস্ট গ্রেনেড হামলা মামলার যাবজ্জীবন দণ্ডপ্রাপ্ত এক আসামিকে গ্রেফতার করা হয়েছে। এ পর্যন্ত এই মামলার ১৫ আসামিকে গ্রেপ্তার করা হল।

প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে জানায়, সে এইচএসসি পাস। স্কুল ও কলেজে পড়ার সময় ছাত্র দলের রাজনীতির সাথে যুক্ত হন। ইকবাল ১৯৯৫ থেকে ১৯৯৮ পর্যন্ত মালয়েশিয়ায় প্রবাসী হিসেবে কাজ করতেন। দেশে ফিরে বিভিন্ন কাজ করতেন। ২০০১ সালে তার চিন্তা চেতনা ও মনস্তাত্ত্বিক পরিবর্তন আসে।

আরও পড়ুন:


স্বামী রণবীরের ছবিতে স্ত্রী দীপিকা আইটেম গার্ল

দেশেই যুদ্ধ বিমান তৈরি করতে চাই: প্রধানমন্ত্রী

বিএনপির সঙ্গে বৈঠকে বসতে সময় দিয়েছেন আইজিপি

রপ্তানি বাড়ছে না পোশাক খাতে, বিপাকে ব্যবসায়ীরা


ঝিনাইদহের স্থানীয় এক জঙ্গি সদস্যের মাধ্যমে হরকাতুল জিহাদ বাংলাদেশ হুজিতে যোগ দেন। ২০০৩ সালে মুফতি হান্নান ও অন্যান্য নেতাদের সাথে সরাসরি যোগাযোগ হয়। ২১ আগস্ট গ্রেনেড হামলায় সে সরাসরি অংশ নেয়ার করা কথা স্বীকার করে, এর আগে র‌্যাব একাধিক বার গ্রেপ্তারের চেষ্টা করে তাকে। সে রিকশাচালক, শ্রমিক পরিচয়ে আত্মগোপনে থাকে।

২০০৮ সাল থেকে সে বিদেশে আত্মগোপনে ছিলো মালয়েশিয়ায়। অবৈধ অভিবাসী হিসাবে তাকে 2020 সালে দেশে ফেরত পাঠানো হয়। সে একুশে আগস্ট সে মঞ্চকে উদ্দেশ্য করে গ্রেনেড ছুড়েছিলো, বলে জানায়। ধারণা করা হচ্ছে, নাম বদলে সে বিদেশে আত্মগোপনে ছিলো।

news24bd.tv আহমেদ