মাদক সম্রাট ‘এল চাপো’র স্ত্রী গ্রেপ্তার

অনলাইন ডেস্ক

মাদক সম্রাট ‘এল চাপো’র স্ত্রী গ্রেপ্তার

আন্তর্জাতিক মাদক পাচার চক্রের সঙ্গে জড়িত থাকার অভিযোগে গ্রেফতার হলেন মেক্সিকোর কুখ্যাত মাদক মাফিয়া ‘এল চাপো’-র স্ত্রী এমা কোরোনেল আইপুরো। সোমবার ভার্জিনিয়ার ডালেস আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর থেকে তাকে গ্রেফতার করা হয়।

মঙ্গলবার এমাকে আদালতে তোলা হতে পারে বলে পুলিশ সূত্রে খবর।

আদালতে মামলার বিবরণীতে বলা হয়, ৩১ বছর বয়সী ইমা কোরোনাল আইজপুরোর বিরুদ্ধে যুক্তরাষ্ট্রে আমদানির জন্য কোকেন, হেরোইন ও মারিজুয়ানা পাচারের ষড়যন্ত্রের অভিযোগ রয়েছে। তিনি যুক্তরাষ্ট্রে শত শত টন মাদক সরবরাহ পরিচালনা করেন এবং নিজ পক্ষ ত্যাগ করা ব্যক্তিদের হত্যায় তার হাত রয়েছে।


আমার বয়ফ্রেন্ড নিয়ে আমিও মজায় আছি : নাসিরের সাবেক প্রেমিকা

নাসির প্রেমিক না আমার বন্ধু : মডেল মিম

পুরুষ নিষিদ্ধ গ্রামেও যেভাবে গর্ভবতী হন নারীরা!

বউ যেন এদিক-ওদিক ভাইগা না যায় : নাসিরের সাবেক প্রেমিকা (ভিডিও)


 

বিচারের কাঠগড়ায় দাঁড় করাতে ২০১৭ সালে গুজম্যানকে যুক্তরাষ্ট্রের কাছে হস্তান্তর করা হয় এবং বিচারে দোষী সাব্যস্ত করে তাকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দেওয়া হয়। এই মাদক সম্রাটকে মার্কিন কর্তৃপক্ষের কাছে হস্তান্তরের দু’বছর পর সাজা ঘোষণা করা হয়।

আমেরিকার গোয়েন্দা সংস্থা এফবিআই মনে করছে, মেক্সিকোর জেলে থাকাকালীন ‘এল চাপো’-র কাছ থেকে সমস্ত রকম তথ্য নিয়ে মাদক পাচার করতেন এমা। 

সরকারি আইনজীবীদের দাবি, ২০১৫-য় এল চাপো-কে মেক্সিকোর জেল থেকে পালাতে সাহায্য করেছিলেন এমা। ২০১৬-তে যখন তিনি ফের যখন গ্রেফতার হন, তখন এমার বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্রের অভিযোগ উঠেছিল। এল চাপো-কে নিয়ে এমা পালানোর ছক কষেছিলেন বলে জানিয়েছে এফবিআই। তার পরই তাকে নিউ ইয়র্কের জেলে নিয়ে আসা হয় এল চাপো-কে। তাকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দেওয়া হয়েছে।

news24bd.tv/আলী

মন্তব্য

পরবর্তী খবর

মে মাসের মধ্যেই সবাইকে টিকা দেয়া সম্ভব হবে: বাইডেন

অনলাইন ডেস্ক

মে মাসের মধ্যেই সবাইকে টিকা দেয়া সম্ভব হবে: বাইডেন

আগামী মে মাসের মধ্যেই যুক্তরাষ্ট্রের সব প্রাপ্তবয়স্ক নাগরিককে করোনাভাইরাসের টিকা দেয়া সম্ভব হবে বলেছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন।

মার্কিন ওষুধ প্রশাসন গত সপ্তাহে ওষুধ প্রস্তুতকারক প্রতিষ্ঠান জনসন অ্যান্ড জনসনের নতুন টিকার অনুমোদন দিয়েছে বলে জানানো হয়েছে ব্রিটিশ গণমাধ্যম দ্য গার্ডিয়ানের প্রতিবেদনে। সেই সাথে আরেক প্রতিষ্ঠান মার্ককে টিকা তৈরিতে একসাথে কাজ করার অনুমতিও দিয়েছে তারা।

মার্কিন প্রেসিডেন্ট বাইডেন আশা করছেন, এর ফলে পূর্ব ঘোষিত সময়ের আগেই তারা সবার জন্য টিকা নিশ্চিত করতে পারবেন।


আমাকে ‘বলির পাঁঠা’ বানানো হয়েছে: সামিয়া রহমান

পরবর্তী নির্বাচনে আবারও অংশ নিবেন ডোনাল্ড ট্রাম্প

ইরানের সমঝোতা প্রস্তাব প্রত্যাখ্যানে হতাশ যুক্তরাষ্ট্র

খাশোগি হত্যাকান্ড: রহস্যজনকভাবে বদলে গেল প্রতিবেদনে অভিযুক্তের নাম


এর আগে মার্কিন প্রেসিডেন্ট জানিয়েছিলেন, আগামী জুনের মধ্যে সবার জন্য টিকা নিশ্চিত করতে তার সরকার কাজ করে যাচ্ছে। তবে নতুন এই টিকার অনুমোদনের ফলে সেই সময় কমিয়ে আনার আশা দেখছে বাইডেন প্রশাসন।

এদিকে, বাইডেন দেশটির সব রাজ্যের ফেডারেল সরকারকে সময় বেঁধে দিয়েছেন যাতে চলতি মাসের মধ্যেই স্থানীয় সব শিক্ষককে অন্তত প্রথম ডোজ টিকা দেয়া যায়। এর ফলে স্কুল খোলার সম্ভাবনা দ্রুততর হবে বলে জানিয়েছেন তিনি।

news24bd.tv / নকিব

মন্তব্য

পরবর্তী খবর

আফগানিস্তানে তিন নারী সাংবাদিককে গুলি করে হত্যা করা হয়েছে

অনলাইন ডেস্ক

আফগানিস্তানে তিন নারী সাংবাদিককে গুলি করে হত্যা করা হয়েছে

আফগানিস্তানে তিন নারী সাংবাদিককে গুলি করে হত্যা করা হয়েছে। আফগানিস্তানের জালালাবাদ শহরে একটি টিভি স্টেশনে এই কর্মরত ছিলেন তারা। তাদেরকে আগেই টার্গেট করা হয়েছিল বলে ধারণা করা হচ্ছে। খবর বিবিসির। 

এক প্রতিবেদনে জানানো হয়েছে, ওই নারীদের বয়স ১৮ থেকে ২০। দু’টি পৃথক ঘটনায় ওই নারীদের হত্যা করা হয়েছে তবে এসব হত্যাকাণ্ডের মধ্যে সমন্বয় ছিল বলে ধারণা করা হচ্ছে। এদিকে হামলার পর চতুর্থ আরও এক নারী গুরুতর আহত হয়েছেন।

এই হত্যাকান্ডে জড়িত প্রধান হামলাকারীকে পুলিশ গ্রেফতার করেছে। হামলাকারীর সঙ্গে তালেবানের সম্পৃক্ততা রয়েছে। যদিও তালেবান এই হামলার দায় অস্বীকার করেছে। 

দীর্ঘদিন ধরেই দেশটির সাংবাদিক, সমাজকর্মী এবং রাজনৈতিক ব্যক্তিবর্গ তালেবানের হামলার শিকার হচ্ছেন। যে তিনজন নারীকে হত্যা করা হয়েছে তারা বেসরকারিভাবে পরিচালিত ইনিকাস টিভি স্টেশনের ডাবিং বিভাগে কর্মরত ছিলেন। ইনিকাস টিভির প্রধান জালমাই লাতিফি এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।


কাশ্মীর ইস্যুতে পাকিস্তানকে সমর্থন তুরস্কের, ভারতের ক্ষোভ

আবারও ইকো ট্রেন চলবে ইরান-তুরস্ক-পাকিস্তানে

সাতছড়ি জাতীয় উদ্যানে বিজিবির অভিযান, বিপুল গোলাবারুদ উদ্ধার

দেনমোহর পরিশোধ না করে স্ত্রীকে স্পর্শ করা যাবে কি না?


বার্তা সংস্থা এপির এক প্রতিবেদনে জানানো হয়েছে, মুরসাল ওয়াহিদি নামের এক নারী কর্মী বাড়ি ফেরার পথে বন্দুকধারীরা তাকে গুলি করে হত্যা করে। বাকি দু’জন হলেন শাহনাজ এবং সাদিয়া। তারা পৃথক হামলায় নিহত হয়েছেন। ওই নারী কর্মীরাও বাড়ি ফেরার পথেই তাদের ওপর হামলা চালানো হয়।

এএফপিকে জালমাই লাতিফি বলেন, ‘তাদের সবার মৃত্যু হয়েছে। তারা কাজ শেষে পায়ে হেঁটে বাড়ি ফিরছিলেন।’ এক মুখপাত্র জানিয়েছেন, হামলার ঘটনায় আহত এক নারীকে স্থানীয় একটি হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। তিনি মৃত্যুর সঙ্গে লড়াই করছেন।

ইনিকাস টিভির ১০ জন নারী কর্মী আছে। এর আগেও মালালাই মাইওয়ান্দ নামে এক সংবাদ উপস্থাপিকা নিহত হন। তাদের এ পর্যন্ত ৪জন নারী কর্মী নিহত হয়েছে বলে জানায় জালমাই লাতিফি। গত মাসেও সুপ্রিম কোর্টের দুই নারী বিচারককে হত্যা করা হয়েছে। 

news24bd.tv আয়শা

মন্তব্য

পরবর্তী খবর

ক্ষেপণাস্ত্রের পরীক্ষা চালিয়েছে আমেরিকা, রাশিয়ারটাও প্রস্তুত

অনলাইন ডেস্ক

ক্ষেপণাস্ত্রের পরীক্ষা চালিয়েছে আমেরিকা, রাশিয়ারটাও প্রস্তুত

ক্যালিফোর্নিয়া অঙ্গরাজ্যের একটি ঘাঁটি থেকে আন্তঃমহাদেশীয় ক্ষেপণাস্ত্রের সফল পরীক্ষা চালিয়েছে মার্কিন বিমান বাহিনী।

ব্রিটিশ গণমাধ্যম মিরর জানিয়েছে, গত ২৩ ফেব্রুয়ারি ক্যালিফোর্নিয়ার ‘ভ্যানডেনবার্গ’  বিমানঘাঁটি থেকে ক্ষেপণাস্ত্রটি নিক্ষেপ করা হয়। মিন্টম্যান-৩ নামের ক্ষেপণাস্ত্রটিতে কোনো ওয়ারহেড ছিল না এবং এটি নির্ধারিত লক্ষ্যবস্তুতে আঘাত হানে। আমেরিকা এর আগে ২০২০ সালের নভেম্বরেও আন্তঃমহাদেশীয় ক্ষেপণাস্ত্র মিন্টম্যানের পরীক্ষা চালিয়েছিল।

এদিকে রাশিয়া শিগগিরই ‘সারমাত আরসি-২৮’ নামের একটি আন্তঃমহাদেশীয় ক্ষেপণাস্ত্রের পরীক্ষা চালাবে বলে ডেইলি মিররের এই খবরে বলা হয়েছে। রুশ ক্ষেপণাস্ত্রটির ওজন প্রায় ২০৮ টন এবং এটি ৬,২০০ মাইল বা প্রায় সাড়ে ১২ হাজার কিলোমিটার দূরের লক্ষ্যবস্তুতে আঘাত হানতে পারে। রাশিয়ার ক্ষেপণাস্ত্রটি বিশ্বের কোনো আকাশ প্রতিরক্ষা ব্যবস্থা দিয়ে শনাক্ত বা ধ্বংস করা সম্ভব নয়।

আরও পড়ুন:


বুধবার রাজধানীর যেসব এলাকার মার্কেট বন্ধ থাকবে

পরমাণু সমঝোতা নিয়ে আর কোনো আলোচনা হবে না: ম্যাকরনকে রুহানি

কাশ্মীর ইস্যুতে পাকিস্তানকে সমর্থন তুরস্কের, ভারতের ক্ষোভ

আবারও ইকো ট্রেন চলবে ইরান-তুরস্ক-পাকিস্তানে


এ ছাড়া, এটি একসঙ্গে ১৬টি ওয়ারহেড বহন করতে এবং আমেরিকার টেক্সাস অঙ্গরাজ্য বা গোটা ফ্রান্সের সমান একটি দেশকে ধ্বংস করে দিতে সক্ষম।  

রাশিয়ার উপ প্রতিরক্ষামন্ত্রী আলেক্সান্ডার ক্রিভোরচেক দাবি করেছেন, সর্বাধুনিক আকাশ প্রতিরক্ষা ব্যবস্থা ব্যবহার করেও তাদের এই আন্তঃমহাদেশীয় ক্ষেপণাস্ত্রের গতিরোধ করা সম্ভব নয়।

সারমাত হচ্ছে রাশিয়ার সর্বাধুনিক একটি যুদ্ধাস্ত্র যার কথা রুশ প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির প্রতিনিধি ২০১৮ সালে উল্লেখ করেছিলেন।

news24bd.tv আহমেদ

মন্তব্য

পরবর্তী খবর

পরমাণু সমঝোতা নিয়ে আর কোনো আলোচনা হবে না: ম্যাকরনকে রুহানি

অনলাইন ডেস্ক

পরমাণু সমঝোতা নিয়ে আর কোনো আলোচনা হবে না: ম্যাকরনকে রুহানি

বায়ে ফ্রান্সের প্রেসিডেন্ট ইমানুয়েল ম্যাক্রোঁ ডানে ইরানি প্রেসিডেন্ট হাসান রুহানি

পরমাণু সমঝোতা নিয়ে আর কোনো আলোচনা হবে না এবং এটিকে পুনরুজ্জীবিত করার একমাত্র উপায় আমেরিকার পক্ষ থেকে নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহার করা বলে পরিস্কার জানিয়ে দিয়েছেন ইরানের প্রেসিডেন্ট হাসান রুহানি। 

মঙ্গলবার রাতে ফরাসি প্রেসিডেন্ট ইমানুয়েল ম্যাকরনের সঙ্গে এক টেলিফোলাপে এ মন্তব্য করেন তিনি। 

এসময় তিনি আরও বলেন, পরমাণু সমঝোতাকে একটি বহুজাতিক চুক্তি। যা জাতিসংঘ নিরাপত্তা পরিষদের ২২৩১ নম্বর প্রস্তাবের মাধ্যমে আন্তর্জাতিক আইনে পরিণত হয়েছে। পরমাণু সমঝোতা পুনরুজ্জীবনের সুযোগ হাতছাড়া না করতে পাশ্চাত্যের প্রতি আহ্বান জানিয়ে রুহানি বলেন, একবার সুযোগ হাতছাড়া হয়ে গেলে পরিস্থিতি আরো জটিল রূপ নেবে।

ইরানের প্রেসিডেন্ট বলেন, আমেরিকার পরমাণু সমঝোতা থেকে বেরিয়ে যাওয়া এবং তিন ইউরোপীয় দেশ তাদের প্রতিশ্রুতি বাস্তবায়ন করতে না পারার পর ইরান পর্যায়ক্রমে নিজের প্রতিশ্রুতি বাস্তবায়নের গতি কমিয়ে দিয়েছে। আমেরিকা ও তিন ইউরোপীয় দেশ তাদের প্রতিশ্রুতিতে ফিরে এলে ইরানও পূর্ণ মাত্রায় এই সমঝোতা বাস্তবায়নে ফিরে যাবে।

আরও পড়ুন:


কাশ্মীর ইস্যুতে পাকিস্তানকে সমর্থন তুরস্কের, ভারতের ক্ষোভ

আবারও ইকো ট্রেন চলবে ইরান-তুরস্ক-পাকিস্তানে

সাতছড়ি জাতীয় উদ্যানে বিজিবির অভিযান, বিপুল গোলাবারুদ উদ্ধার

দেনমোহর পরিশোধ না করে স্ত্রীকে স্পর্শ করা যাবে কি না?


প্রেসিডেন্ট রুহানি বলেন, তার দেশ আন্তর্জাতিক পরমাণু শক্তি সংস্থা বা আইএইএ’কে সহযোগিতা করে যাচ্ছে। কাজেই এ সংস্থার নির্বাহী বোর্ডে ইরানবিরোধী প্রস্তাব পাস হলে তা কূটনৈতিক প্রচেষ্টার অপূরণীয় ক্ষতি করবে।

টেলিফোনালাপে ফরাসি প্রেসিডেন্ট পরমাণু সমঝোতাকে বিশ্ব শান্তির জন্য অতি জরুরি উল্লেখ করে বলেন, সকল পক্ষকে এই সমঝোতায় পূর্ণ মাত্রায় ফিরিয়ে আনার জন্য সংলাপ চালিয়ে যেতে হবে। এজন্য তিনি দু’পক্ষকেই এগিয়ে আসার আহ্বান জানিয়ে বলেন, আগামী কয়েক সপ্তাহের মধ্যে পরমাণু সমঝোতাকে পুনরুজ্জীবিত করার জন্য আরো বেশি প্রচেষ্টা চালাতে ইউরোপ প্রস্তুত রয়েছে।

news24bd.tv আহমেদ

মন্তব্য

পরবর্তী খবর

কাশ্মীর ইস্যুতে পাকিস্তানকে সমর্থন তুরস্কের, ভারতের ক্ষোভ

অনলাইন ডেস্ক

কাশ্মীর ইস্যুতে পাকিস্তানকে সমর্থন তুরস্কের, ভারতের ক্ষোভ

এবার কাশ্মীর ইস্যুতে তুরস্কের উপর ক্ষোভ ঝাড়লো ভারত। ১৯৭৪ সাল থেকে সাইপ্রাসের উত্তারাঞ্চল তুরস্ক তাদের নিজেদের দখলে রেখেছে। সেই তুরস্কই আবার কাশ্মীর ইস্যুতে ভারতের বিরুদ্ধে পাকিস্তানকে সমর্থন দিয়ে আসছে। এ নিয়ে তুরস্কের কড়া সমালোচনা করলেন জাতিসংঘের ভারতের প্রতিনিধি সীমা পুজানি।

কাশ্মীর ইস্যুতে জাতিসংঘে ভারতের প্রতিনিধি সীমা পুজানি বলেন, নিরাপত্তা কাউন্সিলের রেজ্যুলেশন অনুযায়ী, আমরা তুরস্ককে পরামর্শ দিতে চাই যা তারা মেনে চলে। 

১৯৭৪ সালে গ্রিসের সামরিক শাসকরা সাইপ্রাসে অভ্যুত্থান ঘটায়। তার প্রতিক্রিয়ায় উত্তর সাইপ্রাস অভিযান করে তুরস্ক। জাতিসংঘ তাকে বেআইনি আখ্যা দিয়েছে। কারণ এটি সম্পূর্ণ জাতিসংঘের নিরাপত্তা কাউন্সিলের রেজ্যুলেশনের পরিপন্থী।

আরও পড়ুন:


আবারও ইকো ট্রেন চলবে ইরান-তুরস্ক-পাকিস্তানে

সাতছড়ি জাতীয় উদ্যানে বিজিবির অভিযান, বিপুল গোলাবারুদ উদ্ধার

দেনমোহর পরিশোধ না করে স্ত্রীকে স্পর্শ করা যাবে কি না?

নামাজের ভিতরের ৭টি ফরজ কাজ জেনে নিন


১৯৮৩ সালের ১৫ নভেম্বর টার্কিশ রিপাবলিক অফ নর্দান সাইপ্রাস (টিআরএনসি) গঠিত হয়। তারপরই ভারোশার ভোলবদল হয়। একদা যে সমুদ্রসৈকত ছিল বড়লোক ও বিখ্যাত লোকদের অন্যতম পছন্দের জায়গা, তা ভুতুড়ে শহরে পরিণত হয়। বড় বড় বিলাসবহুল রিসোর্ট, হোটেল এখন ভেঙে পড়েছে। গত বছরের ৮ অক্টোবর তুরস্কের সেনা ভারোশাকে আংশিকভাবে খুলে দেয়।

news24bd.tv আহমেদ

মন্তব্য

পরবর্তী খবর