কানাডা ইমিগ্রেশনের মনগড়া তথ্য দিয়ে প্রতারণা, সতর্কতার পরামর্শ

অনলাইন ডেস্ক

কানাডা ইমিগ্রেশনের মনগড়া তথ্য দিয়ে প্রতারণা, সতর্কতার পরামর্শ

মনগড়া, ভূয়া তথ্য দিয়ে কানাডায় ইমিগ্রেশনের নামে সাধারণ মানুষকে প্রতারিত করছে একটি চক্র। ওয়ার্ক পারমিট, স্টুডেন্ট ভিসা, চাকুরি পাইয়ে দেয়া বা ইমিগ্রেশন করিয়ে দেয়ার কথা বলে এরা সাধারণ মানুষকে প্রলুব্দ করে বলে চাঞ্চল্যকর তথ্য দিয়েছেন কানাডার ইমিগ্রেশন বিষয়ক তিন বিশেষজ্ঞ।

তারা জনসাধারণকে প্রতারণার হাত থেকে বাঁচাতে ইমিগ্রেশন বিষয়ে সঠিত তথ্য তুলে ধরার তাগিদ দিয়ে বলেন, ইমিগ্রেশনের সুযোগ সুবিধা সংক্রান্ত সংবাদ পরিবেশনের ক্ষেত্রে গণমাধ্যমের আরো সতর্কতা অবলম্বন করা দরকার।

কানাডার বাংলা পত্রিকা ’নতুনদেশ’ এর প্রধান সম্পাদক ‘শওগাত আলী সাগরের সঞ্চালানায় সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে সম্প্রচারিত ‘শওগাত আলী সাগর লাইভে’ তারা এই মত দেন। স্থানীয় সময় বুধবার রাতে ‘কানাডা ইমিগ্রেশনের মিথগুলো’ শিরোনামে এই আলোচনা অনুষ্ঠিত হয়।
  
ভুল তথ্য কিংবা বিকৃত তথ্যের মাধ্যমে কানাডায় ইমিগ্রেশনের নামে প্রতারণার নানা চিত্র তুলে ধরে আলোচনা করেন এডুকেশন কনসাল্টিং এজেন্ট কায়েসুর রহমান, ইউটিউব ভিডিও কন্টেন্ট ক্রিয়েটর ও সোশ্যাল মিডিয়া মার্কেটিং বিশেষজ্ঞ  সিদ্দিকুর রহমান এবং ইমিগ্রেশন নিউজ২৪ ডটকম এর সম্পাদক ও প্রকাশক উজ্জল দাশ।

আলোচনাকালে বক্তারা কানাডায় ইমিগ্রেশনের যে কোনো তথ্যের জন্য কানাডা সরকারের  অফিসিয়াল ওয়েবসাইটের  (https://www.canada.ca/en/services/immigration-citizenship.html) উপর  নির্ভর করার পরামর্শ দেন। একই সঙ্গে তারা কানাডা সরকারের অনুমোদিত বা লাইসেন্সপ্রাপ্ত  নয় এমন ব্যক্তি বা প্রতিষ্ঠানের কাছ থেকে ইমিগ্রেশন বিষয়ক কোনো সেবা না নেয়ার পরামর্শ দেন।

আলোচনায় অংশ নিয়ে এডুকেশন কনসাল্টিং এজেন্ট কায়েসুর রহমান বলেন, সন্তানদের কানাডায় ভর্তি করা হলেই বাবা মা কানাডায় চলে এসে কাজ শুরু করতে পারেন এমনকি ইমিগ্রেশন পেয়ে যাবেন- এমন একটি কথা বাংলাদেশের প্রচার পেয়েছে। এটি মিথ্যা তথ্য। বিদেশি শিক্ষার্থীরা কানাডায় পড়াশোনা শেষ করে নির্দিষ্ট শর্তাবলী পূরণ করা সাপেক্ষে ইমিগ্রেশনের জন্য আবেদন করতে পারেন। কিন্তু কোনো শিক্ষার্থীর বাবা মা এসে কাজ করার জন্য ওয়ার্ক পারমিট পান না।

তিনি বলেন, অল্পবয়সী শিক্ষার্থীদের বাবা- মা একজনকে ভিসা দেয়া হয় সন্তানের সঙ্গে থাকার জন্য এবং তিনি এখানে ভিজিটর হিসেবেই অবস্থান করেন। কানাডায় শিক্ষার্থী হিসেবে আসতে আগ্রহীদের আগেভাগে প্রয়োজনীয় হোম ওয়ার্ক করার পরামর্শ দিয়ে কায়েসুর রহমান বলেন, বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের ছাত্রভর্তির বিভিন্ন নিয়মাবলী আছে, ভিসার জন্য আলাদা শর্তাবলী আছে। এগুলো সম্পর্কে যথাযথ উৎস থেকে তথ্য সংগ্রহ না করলে প্রতারিত হওয়ার আশংকা থাকবে।

ইউটিউব ভিডিও কন্টেন্ট ক্রিয়েটর ও সোশ্যাল মিডিয়া মার্কেটিং বিশেষজ্ঞ  সিদ্দিকুর রহমান ওয়ার্ক পারমিট এবং কানাডায় কাজ পাইয়ে দেয়ার নামে প্রতারণার নানা চিত্র তুলে ধরে বলেন, কোনো কোম্পানি বা প্রতিষ্ঠান চাইলেই বিদেশ থেকে কর্মী নিয়ে আসতে পারে না। ‘কানাডায় পাওয়া যাচ্ছে না’- এটি প্রমাণ করতে পারার পরই সরকার বিদেশ থেকে লোক আনার অনুমতি দেয়। কাজেই যারা ওয়ার্ক পারমিট দেয়ার কথা বলে বা ওয়ার্ক পারমিট পাইয়ে  দেয়- তারা আসলে ভূয়া কাগজ দিয়ে প্রতারণা করে। তাদের ব্যাপারে সতর্ক থাকতে হবে। নিজের ইউটিউব চ্যানেলের অভিজ্ঞতার কথা তুলে ধরে সিদ্দিকুর রহমান বলেন, বাংলাদেশসহ দক্ষিণ এশিয়ার দেশগুলোয়ই এই ওয়ার্ক পারমিটের কথা শোনা যায়।

কানাডায় ইমিগ্রেশনের অনেকগুলো খাত আছে বলে উল্লেখ করে সিদ্দিকুর রহমান বলেন, ইমিগ্রেশনের শর্তাবলী এবং নিজের যোগ্যতা মিলিয়েই ইমিগ্রেশনের চেষ্টা করা উচিৎ।

ইমিগ্রেশননিউজ ২৪ ডটকমের সম্পাদক ও প্রকাশক  উজ্জল দাশ বলেন,  মধ্যপ্রাচ্যের দেশগুলোতে কাজ করতে যাওয়ার সাথে অনেকে কানাডায় ইমিগ্রেশনকে মিলিয়ে ফেলেন। কোনো দালাল বা আইনজীবী, ইমিগ্রেশন কনসালট্যান্ট কাউকে কানাডায় ভিসা বা ইমিগ্রেশন করিয়ে দিতে পারেনা- এটি অনেকেই বিবেচনায় রাখেন না। ফলে প্রতারণার সুযোগ তৈরি হয়।

আরও পড়ুন:


চিরযুবক শাহিদ, সাবেক প্রেমিকার শুভেচ্ছাবার্তা

বগুড়ায় বাস-ট্রাক-টেম্পুর ত্রিমুখী সংঘর্ষে নিহত ৪

চট্টগ্রামে সূর্যমুখী ফুলের হাসি দেখতে ভীড় করছেন দর্শনার্থীরা

দীর্ঘ সময় পর রং তুলির আঁচরে ১১ বন্ধুর চিত্র প্রদর্শনী


গণমাধ্যম, সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম এবং ইউটিউবে কানাডা ইমিগ্রেশনের খবর বা তথ্য পরিবেশনে অনেক সময় মূল তথ্য পাশ কাটিয়ে বাড়তি তথ্য বা ভুল ব্যাখ্যা যোগ করে দেয়া হয়। এতে মানুষের মনে বিভ্রান্তি তৈরি হয় এবং প্রতারকরা এই সুযোগটি কাজে লাগায়।

উজ্জল দাস ইমিগ্রেশন সংক্রান্ত সংবাদ এবং বিজ্ঞাপন  প্রচার বা প্রকাশের ক্ষেত্রে বাড়তি সতর্কতা অবলম্বনের  জন্য গণমাধ্যমের প্রতি আহ্বান জানান।

নতুনদেশ এর প্রধান সম্পাদক শওগাত আলী সাগর বলেন,কানাডয় ইমিগ্রেশনের ব্যাপারে বাংলাদেশের মানুষের মধ্যে আগ্রহ বাড়ছে।এটিকে কাজে লাগিয়ে প্রতারক চক্র সক্রিয় হয়ে উঠেছে। তিনি বলেন, কানাডার প্রতি বাংলাদেশের মানুষের আগ্রহকে  আমরা ইতিবাচক হিসেবে দেখি। আমরা চাই বাংলাদেশ থেকে আরো বেশি ইমিগ্র্যান্ট এবং শিক্ষার্থী কানাডায় আসুক। সেই কারনেই প্রতারনা এবং ভুল প্রচারনার বিরুদ্ধে আমাদের কথা বলতে হবে।  

সাংবাদিক শওগাত আলী সাগর বলেন, বিশ্বায়নের এই যুগে তথ্য যাচাই বাচাই করা মোটেও কঠিন কোনো কাজ না। গণমাধ্যমের জন্য সেটি আরো সহজ। পত্রিকাগুলো এখন প্রবাস থেকে অনেক ফ্রিল্যান্সারদের লেখা প্রকাশ করে। সেই সব লেখার তথ্যের বিশেষ করে ইমিগ্রেশন সংক্রান্ত লেখার তথ্যের যথার্থতা সম্পর্কে  বাড়তি  মনোযোগ না দিলে ইমিগ্রেশনকে ঘিরে গড়ে ওঠা প্রতারক চক্র সুবিধা নিতে পারে বলে তিনি সতর্ক করে দেন।

news24bd.tv আহমেদ

মন্তব্য

পরবর্তী খবর

বিদেশ ফেরত যাত্রীদের চাপ, কোয়ারেন্টিনের সময় কমেছে ৯ দিন

অনলাইন ডেস্ক

বিদেশ ফেরত যাত্রীদের চাপ, কোয়ারেন্টিনের সময় কমেছে ৯ দিন

কোয়ারেন্টিনের সময় কমিয়ে পাঁচদিন করা হয়েছে। বিদেশ ফেরত যাত্রীদের চাপ সামলাতে না পেরে বৃহস্পতিবার (২২ এপ্রিল) রাতে আন্তঃমন্ত্রণালয় সভায় এ সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। এ নিয়ে বিদেশফেরত যাত্রীদের কোয়ারেন্টিনের সময় কমলো ৯ দিন। এরআগে বিদেশফেরত যাত্রীদের বাধ্যতামূলক ১৪ দিনের কোয়ারেন্টিন থাকতে হত।

আরও পড়ুন:


ওবায়দুল কাদেরকে পদত্যাগের আহ্বান ভাগ্নে মঞ্জুর

২৫ এপ্রিল থেকে দোকানপাট ও শপিংমল খোলা

দেশে গত ২৪ ঘণ্টায় করোনায় মৃত্যু ৮৮

বাগেরহাটে শিশু ধর্ষণের অভিযোগে গ্রেপ্তার ২


আন্তঃমন্ত্রণালয় সভা সূত্রে জানা যায়, যাদের করোনার দুটি ভ্যাকসিন নেওয়া আছে এবং করোনা নেগেটিভ সার্টিফিকেট আছে, তাদের প্রাতিষ্ঠানিক কোয়ারেন্টিনে থাকা লাগবে না। তারা বাড়িতে গিয়ে ১৪ দিন কোয়ারেন্টিনে থাকবেন। স্থানীয় প্রশাসন তা নিশ্চিত করবে।

সভায় আরও সিদ্ধান্ত হয়, যাদের করোনা ভ্যাকসিনের একটি ডোজ নেওয়া আছে এবং করোনা নেগেটিভ সার্টিফিকট রয়েছে তাদের ৩ দিনের বাধ্যতামূলক প্রাতিষ্ঠানিক কোয়ারেন্টিনে পাঠানো হবে। তাদের দেশে প্রবেশের পর করোনা টেস্ট করানো হবে। তাতে নেগেটিভ রিপোর্ট এলে বাকি ১১ দিন বাড়িতে গিয়ে কোয়ারেন্টিনে থাকবেন।

news24bd.tv / কামরুল 

মন্তব্য

পরবর্তী খবর

মালয়েশিয়ায় অবৈধ অভিবাসীদের বৈধ হওয়ার সুযোগ

শাহাদাত হোসেন, মালয়েশিয়া থেকে

মালয়েশিয়ায় অবৈধ অভিবাসীদের বৈধ হওয়ার সুযোগ

মালয়েশিয়ায় বৈধ হওয়ার সুযোগ পাচ্ছে সকল অবৈধ অভিবাসীরা। করোনাভাইরাসের মধ্য দিয়ে প্রবাসীদের মাঝে একটি স্বস্তির খবর যেসব অভিবাসী ২০১১ সালে ৬ পিতে এবং ২০১৬ সালে রি-হায়ারিং প্রোগ্রামে নাম নিবন্ধন করেও ভিসা পায়নি তারা এখন বৈধতা গ্রহণের জন্য নিবন্ধিত হতে পারবেন রিক্যালিব্রেশন প্রোগ্রামের মাধ্যমে। এবার সার্ভিস সেক্টরেও বৈধতা নিতে পারবেন মালয়েশিয়ায় বসবাসরত অবৈধ অভিবাসীরা।

অবৈধ অভিবাসী শ্রমিকদের বৈধতার জন্য গত বছরের ১৬ নভেম্বর রিক্যালিব্রেশন প্রোগ্রাম নামে দুটি পরিকল্পনা শুরু করে মালয়েশিয়া সরকার।


সকাল থেকে মার্কেট খুলেছেন রাজশাহীর ব্যবসায়ীরা

অনেকে মনে করে স্বামী-স্ত্রীর মধ্যে ৫/৬ বছরের গ্যাপ ভালো

৪ দিনের পর আবারও ৭ দিনের রিমান্ডে রফিকুল মাদানী


তার মধ্যে একটি অবৈধ অভিবাসীদের বৈধতার সুযোগ এবং অন্যটি স্বেচ্ছায় নিজ দেশে ফেরত যাওয়া। আর এই রিক্যালিব্রেশন প্রোগ্রামের শেষ সময় বেধে দেওয়া হয় চলতি বছরের ৩০ জুন পর্যন্ত।

অবৈধ অভিবাসীদের বৈধতার জন্য নিয়োগদাতা প্রতিষ্ঠান ও যারা স্বেচ্ছায় দেশে ফেরত যেতে চাই তাদেরকে সরাসরি ইমিগ্রেশন ডিপার্টমেন্ট ও পেনিনসুলার মালয়েশিয়া লেবার ডিপার্টমেন্টের সঙ্গে সরাসরি যোগাযোগ করতে হবে।

স্থানীয় সময় বৃহস্পতিবার (২২ এপ্রিল) এক বিবৃতিতে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী হামজাহ জয়নুদিন সাংবাদিকদের এ তথ্য জানান।

এ সময় তিনি আরও বলেন, অবৈধ কর্মীদের শুধু নির্মাণ, উৎপাদন, চাষ ও কৃষি এ চারটি খাতে বাংলাদেশসহ ১৫টি দেশের অবৈধ অভিবাসী কর্মীদের বৈধতার জন্য অনলাইনে আবেদন করার কথা থাকলেও এখন থেকে সার্ভিস সেক্টরের চারটি সাব সেক্টরে যেমন হোলসেল ও রিটেইল, রেস্তোরাঁ, কার্গো এবং পরিষেবার জন্য আবেদন করতে পারবে তাদের নিয়োগকর্তারা। একই সঙ্গে মালয়েশিয়ায় বসবাসরত অবৈধ অভিবাসীরা চাইলে শর্তসাপেক্ষে নিজ দেশে ফিরে যেতে পারবে।

তিনি আরো বলেন, যারা তাদের কোম্পানি থেকে পালিয়ে অন্যাত্র চলে গেছেন তাদের বিরুদ্ধে যদি কোনো রিপোর্ট না থাকে তাহলে তারাও এই রিক্যালিব্রেশন কর্মসূচিতে নিবন্ধন গ্রহণ করতে পারবেন।

news24bd.tv তৌহিদ

মন্তব্য

পরবর্তী খবর

যুক্তরাষ্ট্রে বাংলাদেশি সেই যুবক আকায়েদ উল্লাহর যাবজ্জীবন

অনলাইন ডেস্ক

যুক্তরাষ্ট্রে বাংলাদেশি সেই যুবক আকায়েদ উল্লাহর যাবজ্জীবন

যুক্তরাষ্ট্রের নিউইয়র্কে একটি সাবওয়ে স্টেশনে পাইপ বোমার বিস্ফোরণ ঘটানোর চেষ্টা করা বাংলাদেশি অভিবাসী আকায়েদ উল্লাহর যাবজ্জীবন কারাদণ্ড হয়েছে। 

গতকাল বৃহস্পতিবার (২২ এপ্রিল) ম্যানহাটন ফেডারেল আদালত তাকে এ দণ্ড দেন।

মার্কিন সংবাদমাধ্যম এনবিসি এ খবর জানিয়েছে।

খবরে বলা হয়, সাজা ঘোষণার সময় বিচারক রিচার্ড জে সুলিভান বলেন, ‘তার যাবজ্জীবন সাজা হওয়াই যথার্থ। তার অপরাধ প্রকৃতপক্ষেই বর্বরোচিত ও জঘন্য।’


রাহমানিয়া মাদ্রাসায় রাজনীতি ঢোকান বাবা আজিজুল, দখল করে রাখেন ছেলে মাওলানা মামুনুল, অভিযোগ শিক্ষকদের

ফর্মুলা দেবে রাশিয়া, করোনার টিকা উৎপাদন করবে বাংলাদেশ

আরমানিটোলায় কেমিক্যাল গোডাউনের আগুনে বাড়লো নিহতের সংখ্যা

নিয়োগ দেবে আজকের ডিল ডটকম


তবে সাজা ঘোষণার আগে নিজের অপরাধের জন্য ক্ষমা প্রার্থনা করেন আকায়েদ। তিনি বলেন, ‘আমি যা করেছি, তা ভুল ছিল। আমি আমার অন্তরের অন্তস্থল থেকে বলছি, আমি অত্যন্ত দুঃখিত। আমি নিরপরাধ মানুষের ক্ষতি করাকে সমর্থন করি না।’

২০১৭ সালের ১১ ডিসেম্বর সকালে আকায়েদ উল্লাহ ঘরে তৈরি পাইপ বোমা নিয়ে নিউইয়র্কের এইটিনথ অ্যাভিনিউ সাবওয়ে স্টেশনে বিস্ফোরণের চেষ্টা চালান। কিন্তু বোমাটি পুরোপুরি না ফাটায় ওই ঘটনায় চারজন আহত হন। পরের বছর গণবিধ্বংসী অস্ত্র ব্যবহার, গণপরিবহন ব্যবস্থায় বোমা বিস্ফোরণ এবং জঙ্গিগোষ্ঠী আইএসকে সহযোগিতার দায়ে তাকে এই শাস্তি দেওয়া হয়েছে।

news24bd.tv নাজিম

মন্তব্য

পরবর্তী খবর

স্পেনে আরও সহজ হল বৈধভাবে বসবাসের উপায়

ইসমাইল হোসাইন রায়হান, স্পেন প্রতিনিধি

স্পেনে আরও সহজ হল বৈধভাবে বসবাসের উপায়

ইউরোপের দ্বিতীয় বৃহত্তম দেশ স্পেন বরাবরই অদিবাসীদের কাছে পছন্দের একটি দেশ। বিশেষ করে সহজ শর্তে বৈধ হওয়ার সুযোগ থাকায় দেশটিতে অভিবাসীরা ভিড় জমান। অভিবাসীদের স্বাধীনভাবে স্পেনে প্রবেশের অনুমতি দান করার ক্ষেত্রে ইউরোপিয়ান দেশগুলোর মধ্যে স্পেন প্রথম।

বর্তমানে স্পেনে অভিবাসীদের জন্য নাগরিকত্ব আইন আরো সহজ হল। টানা দুই বছর স্পেনে বসবাসের ডকুমেন্টেসহ ছয় মাস বৈধভাবে কাজ করার প্রয়জনীয় কাগজপত্র জমা দিলে মিলবে এই বৈধতা। সম্প্রতি স্পেনের একটি আদালত নাগরিকত্ব আইন সংশোধন করে নীতিগত অনুমোদন দেয়া হয়েছে। গত ২৫ মার্চ স্পেনের গ্রানাডার একটি আদালত একজন অভিবাসী মহিলার আবেদনের প্রেক্ষিতে এই রায় দেন।

ইউরোপের একমাত্র দেশ স্পেন যেখানে ইউরোপের বাইরের তৃতীয় দেশের ক্ষেত্রে মাইগ্রেশন প্রক্রিয়াটা খুবই সহজ এবং নমনীয় যে কেউই খুব সহজেই এখানে থাকার ইচ্ছা পোষণ করলে ন্যূনতম শর্তে বসবাস করার সুযোগ পায়।

এখানে বিদেশিরা ১০ বছর নিয়মিত থাকার পর নাগরিকত্বের জন্য আবেদন করতে পারে এবং তিন বছর নিয়মিত থাকার পর যদি তাদের সন্তান জন্মগ্রহণ করে তাহলে সে স্প্যানিশ নাগরিকত্ব পায়।

এই আইন অনুযায়ী এখন অনিয়মিতভাবে বসবাসকারী পিতা মাতার সন্তান জন্ম হলেও সে স্প্যানিশ নাগরিকত্ব পাবে বা দুজনের মধ্যে একজন স্পেনে নিয়মিতভাবে বসবাস করলে তাদের সন্তান ও স্প্যানিশ নাগরিকত্ব পাবে।

নতুন আইন অনুযায়ী এক সাথে টানা দুই বছর স্পেনে বসবাসের ডকুমেন্টের সাথে ৬ মাস বৈধভাবে কাজ করার প্রয়জনীয় কাগজপত্র জমা দিয়ে বৈধ হওয়া যাবে। এজন্য কোনো কোম্পানির কিংবা শপের অনুমতি পেপারও লাগবে না, আগে যা প্রযোজ্য ছিল।

আবেদনের নতুন নিয়ম

স্পেন দুইবছর থেকে বসবাস করছেন এবং বিভিন্ন এসাইলাম নিয়ে কাজের পারমিশন পেয়ে কমপক্ষে ছয়মাস কাজ করেছেন এবং তার বিরুদ্ধে কোনো ক্রাইমে জড়িত থাকার প্রমাণ না থাকে। শুধুমাত্র তারাই এই আবেদন করতে পারবেন। এছাড়া যাদের পূর্বে স্পেনের রেসিডেন্স কার্ড ছিলো কোনো কারণে তাদের কার্ড বাতিল হয়ে গিয়াছে। এরকম যারা আছেন তাদের কর্মসংস্থান রেকর্ড প্রতিবেদন (বিদালাবোরাল) ছয় মাসের যদি থাকে তারা এ সুবিধার আওতায় পড়বেন।

এই জন্য কোনো কাজের কন্ট্রাকের প্রয়োজন হবে না বা আরাইগো সার্টিফিকেটের প্রয়োজন হবে না। শুধু বিদালাবেরালের কপি এবং বাংলাদেশের পুলিশ ক্লিয়ারেন্স সার্টিফিকেট হলেই স্পেনে বৈধতা পেতে পারে'। এ জন্য যে কেউ চাইলে সরাসরি বৈধতার জন্য আবেদন করতে পারবেন। এই নিয়মের বাইরে অন্যানরা এই নিয়মে বৈধতার জন্য আবেদন করতে পারবেন না। তবে আবার যারা এসাইলাম কিংবা কাজের পারমিশন ছাড়া স্পেনে বসবাস করছেন তারাও স্পেনের অভিবাসী হওয়ার জন্য আবেদন করতে পারবেন। তবে এই ক্ষেত্রে সময় একটু বেশি লাগবে। এ ছাড়া এশিয়ার বিভিন্ন দেশের অধিবাসীদের জন্যও একইরকম সুযোগ রয়েছে।

তাছাড়া বৈবাহিক সূত্রে স্পেনের নাগরিকত্ব পেতে হলে পূর্বে তিন বছর সময় লাগতো। কিন্তু বর্তমান আইনে তা দুই বছর করা হয়েছে এবং আরও বিভিন্ন অনুচ্ছেদে সময় উপযোগী কিছু সংশোধন করা হয়েছে।


আরও পড়ুনঃ


বাঙ্গি: বিনা দোষে রোষের শিকার যে ফল

৫৩ জন নাবিকসহ নিখোঁজ ইন্দোনেশিয়ার সাবমেরিন

ভিক্ষা করে হলেও অক্সিজেন সরবরাহের নির্দেশ ভারতে

১৫ বছর ধরে কাজে যান না, বেতন তুললেন সাড়ে ৫ কোটি টাকা!


এ প্রসঙ্গে বাংলাদেশ দূতাবাসের প্রথম সচিব (শ্রম) মুতাসিমুল ইসলাম বলেন, ‘নতুন এই আইনে বাংলাদেশিদের বৈধ হওয়ার সুযোগ তৈরি হলে বাংলাদেশের পুলিশ ক্লিয়ারেন্স সার্টিফিকেটসহ দূতাবাসের পক্ষ থেকে সর্বাত্মক সহযোগিতা করা হবে।’

এ ব্যাপারে মানবাধিকার সংগঠন ভালিয়েন্তে বাংলার সভাপতি মো. ফজলে এলাহী বলেন, ‘স্পেনে বিভিন্ন এসাইলাম নিয়ে স্পেনে প্রায় ৫ হাজার বাংলাদেশি অভিবাসী রয়েছেন। তারা অধিকাংশ এর আওতায় বৈধ হওয়ার সুযোগ রয়েছে। তিনি এজন্য কাউকে কোনো দালাল কিংবা উকিলের শরণাপন্ন হয়ে সর্বস্বান্ত না হওয়ার আহ্বান জানান।’

ইউরোপের অন্যান্য দেশ যেমন ইতালি, গ্রিস, ফ্রান্স, বেলজিয়াম, জার্মানিসহ অন্যান্য দেশে যেহেতু নাগরিকত্ব পাওয়াটা অনেক জটিল এবং অনেক দীর্ঘ প্রক্রিয়া কাজেই যারা ইউরোপে স্থায়ীভাবে বসবাস করতে চায় তারা সাধারণত স্পেনকেই বেছে নেয়'। স্প্যানিশ পাসপোর্টধারী বাঙালিদের সংখ্যা অনেক যারা এখন পরিবার নিয়ে যুক্তরাজ্য, সুইজারল্যান্ড, নরওয়ে, সুইডেনসহ ইউরোপের বিভিন্ন দেশে বসবাস করছেন। তা ছাড়া ব্যবসা বাণিজ্য করাটা ও এখানে অনেক সহজ বিধায় বাংলাদেশিরা এখানে সহজেই নাগরিকত্ব পাওয়ার আগ পর্যন্ত থাকতে পারে আর এই কারণেই মূলত এখানে বাংলাদেশিরা অভিবাসী হয়।

news24bd.tv / নকিব

মন্তব্য

পরবর্তী খবর

সিঙ্গাপুর প্রবাসী ছেলের মৃত্যুর খবর এখনও জানেন না মা

অনলাইন ডেস্ক

সিঙ্গাপুর প্রবাসী ছেলের মৃত্যুর খবর এখনও জানেন না মা

সিঙ্গাপুর প্রবাসী বাংলাদেশি শ্রমিক তোফাজ্জল হোসেন সড়ক দুর্ঘটনায় মারা গেছেন। তার বাড়ি লক্ষ্মীপুর জেলায়। বয়স কেবল ৩৩ পেরিয়েছে। তোফাজ্জলের উপার্জনেই সংসার চলতো। বাড়িতে তার দুই বছরের ছেলে, বিধবা স্ত্রী এবং মাসহ আরও কয়েকজন সদস্য রয়েছে।

তোফাজ্জলের ভাই আব্দুল হাজিজ বলেন, তোফাজ্জল ভাই মায়ের খুব আদরের ছিল। ২৭ বছর বয়সী হাজিজ বলেন, মাকে এখনও ভাইয়ের মৃত্যুর খবর জানাইনি। কারণ ভাইয়ের মৃত্যুর খবর শুনলে মা হয়তো বাঁচবে না। তোফাজ্জলের ৫৭ বয়সী মায়ের কিছুদিন আগে হার্টের সার্জারি হয়েছিল।

হাজাজ আরও জানান, মাকে আমরা শুধু বলেছি যে, ভাইয়ের অ্যাক্সিডেন্ট হয়েছে। তোফাজ্জল ২০০৯ সাল থেকে সিঙ্গাপুরে কাজ করেন। গত মঙ্গলবার সকালে তোফাজ্জলসহ আরও ১৭ জনকে বহনকারী একটি লরি একটি স্টেশনারি টিপার ট্রাককে ধাক্কা দেয়। এ ঘটনায় তোফাজ্জলের মৃত্যু হয়।

পুলিশ জানিয়েছে, তারা দুর্ঘটনার খরব পেয়ে ঘটনাস্থলে যান। এসময় লরি ড্রাইভারকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। এ ঘটনার তদন্ত করা হচ্ছে বলে জানিয়েছে পুলিশ। মাইগ্রান্ট ওয়ার্কার্স সেন্টার (এমডব্লিউসি) এক ফেসবুক পোস্টে জানায়, আহত হওয়া ৯ জন কর্মী হাসপাতাল থেকে ছাড়া পেয়েছে। আর সাতজন হাসপাতালে রয়েছে। তাদের মধ্যে দুইজন আইসিইউতে রয়েছে।

আরও পড়ুন


অস্ত্র-গুলিসহ শাহজালাল বিমানবন্দরে চিকিৎসক দম্পতি আটক

ভ্যাকসিনের জন্য ভারত-বাংলাদেশ সুসম্পর্ক নষ্ট হবে না: দোরাইস্বামী

হরিণের ১৫ কেজি মাংসসহ ২ পাচারকারী আটক

প্রেমের প্রস্তাবে সাড়া না দিয়ে অন্যত্র বিয়ে, যুবকের গোপনাঙ্গ কর্তন


তোফাজ্জলের ৬৩ বছর বয়সী বাবা ছেলের মৃত্যুর খবর জানেন। তিনি বলেন, আমার ছেলে খুব ভালো ছিল। ওর মন অনেক ভালো ছিল। তিনি বলেন, সবকিছু শেষ হয়ে গেছে। দয়া করে আমাদের সাহায্য করুন। হাজাজ জানান, তার বাবার ডায়বেটিস রয়েছে। সম্প্রতি তিনি করোনা থেকে সেরে উঠেছেন। এক মাস আগে তার দাদা করোনায় মারা গেছে বলেও জানান হাজাজ।

হাজাজ জানান, সবশেষ ২০১৮ সালে দেশে এসেছিল তার ভাই। ওই বছরই সে বিয়ে করে। তিনি জানান, মৃত্যুর দুই আগেও তার সঙ্গে আমাদের কথা হয়েছে। তবে তার ছেলের সঙ্গে কথা বলতে পারেননি তোফাজ্জল। রমজানের জন্য পরিবারকে ৩৫ হাজার টাকা দিয়েছিল তোফাজ্জল। এছাড়া মায়ের অপারেশনের জন্য ২ লাখ টাকাও পাঠিয়েছিলেন তিনি।

news24bd.tv আহমেদ

মন্তব্য

পরবর্তী খবর