অস্ত্রের মুখে ছাত্রীকে বিবস্ত্র করে ভিডিও ধারণের পর দফায় দফায় ধর্ষণ

আকবর হোসেন সোহাগ, নোয়াখালী

অস্ত্রের মুখে ছাত্রীকে বিবস্ত্র করে ভিডিও ধারণের পর দফায় দফায় ধর্ষণ

কোমলপানীয়র সঙ্গে ঘুমের ওষুধ খাইয়ে মাকে অচেতন করে অস্ত্রের মুখে মেয়েকে বিবস্ত্র করে ধর্ষণ করে ভিডিও ধারণের অভিযোগ উঠেছে। নোয়াখালীর বেগমগঞ্জের এ ঘটনা এখন টপ অফ দ্যা কান্টি। ওই ছাত্রী প্রায় দুই মাস ধরে নিখোঁজ রয়েছে।

এ ঘটনায় নোয়াখালী বেগমগঞ্জ মডেল থানায় বৃহস্পতিবার রাতে মামলা করা হয়েছে।

আসামিরা হলো- বেগমগঞ্জে উপজেলার আলাইয়ারপুরে হীরাপুর গ্রামের  রাসেল (২৫), জোবায়ের (২৪), সাইফুল ইসলাম ইমন (২২) এবং ফয়সাল নামের ৪ জনের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করেছেন ভুক্তভোগীর মা।

বৃহস্পতিবার রাতে বেগমগঞ্জ পুলিশ অভিযান চালিয়ে সাইফুল ইসলাম ইমন ও ফয়সালকে গ্রেপ্তার করেছে।

ওই ছাত্রীর মা সাংবাদিকদের বলেন, ২০১৮ সাল থেকে একই এলাকার ইমন, রাসেল আমার মেয়েকে উত্ত্যক্ত করে। একদিন রাসেল ও ইমন আমাদের বাড়িতে এসে আমাকে কৌশলে কোমলপানীয়র সঙ্গে ঘুমের ওষুধ খাইয়ে আমাকে অচেতন করে অস্ত্রের মুখে মেয়েকে বিবস্ত্র করে ধর্ষণ করে ভিডিও ধারণ করে। পরে এক দোকানিকে ডেকে এনে জোর করে মেয়ের সঙ্গে দাঁড় করিয়ে উভয়কে বিবস্ত্র করে ভিডিও ধারণ করে তারা।

‘পরে ওই ভিডিও ভাইরাল করার ভয় দেখিয়ে টাকা, স্বর্ণালংকার নিয়ে যায় এবং একাধিকবার তার মেয়েকে ধর্ষণ করে। বাধ্য হয়ে মেয়েকে বিয়ে দিয়েও রেহাই পাইনি। বিয়ের পরে মেয়ে বেড়াতে আসলে তাকে  তুলে নিয়ে যায়। এ সময় তারা ঘর থেকে ৫০ হাজার টাকা, ১ ভরি স্বর্ণালংকারও নিয়ে যায়। এরপর থেকেই ভিডিও ছড়িয়ে দেওয়ার ভয় দেখিয়ে নিয়মিত চাঁদা নিতে থাকে।’

তিনি বলেন, দীর্ঘ তিন বছরেরও বেশি সময় সন্ত্রাসীদের ভয়ে মুখ খোলেননি। এবার থানায় অভিযোগ দিয়েও কোনো সুফল পাননি। বর্তমানে তারা অসহায় হয়ে গণমাধ্যমকর্মীদের সাহায্যে পুনরায় আইনের আশ্রয় নিয়েছেন।


গণধর্ষণের চেষ্টায় ব্যর্থ হয়ে কলেজছাত্রীর গায়ে আগুন

বাবার সঙ্গে দেখা করতে গিয়ে রাতধর ধর্ষণের শিকার মেয়ে

৩০-৩২ গার্লফ্রেন্ড থাকার পরও আমাকে ভালোবাসত নাসির: তামিমা

আমার সব প্রশ্নের জবাব ইসলামে পেয়েছি: কানাডিয়ান নারী


ছাত্রী মা বলেন, ‘বিয়ের পরে মেয়ে বেড়াতে আসলে তাকে তুলে নিয়ে যায়। উঠিয়ে নেওয়ার তিন মাস পরে রাসেলকে ৫০ হাজার টাকা দিয়ে মিরপুরের একটি বাসা থেকে তাকে উদ্ধার করে আনি। এ ঘটনার ১৫ দিন পর রাসেল পুনরায় মেয়েকে বাড়ি থেকে নিয়ে যায়। ১০ দিন পর আবারও ১০ হাজার টাকা দিয়ে মেয়ে নিয়ে আসি।’

তিনি বলেন, ‘সর্বশেষ গত ২৪ ডিসেম্বর রাসেল আবার আমার মেয়েকে নিয়ে যায়। এখনো সে কোথায় আছে, কীভাবে আছে জানি না। গত সপ্তাহে রাসেল প্রস্তাব দিয়েছে এবার ১ লাখ টাকা দিতে। টাকা না দিলে আমাকে মেরে ফেলার হুমকি দিচ্ছে।’

ভুক্তভোগীর মা বলেন, ‘মেয়ের সন্ধান চাইলে ইমন আমাকে তার সঙ্গে এক রাত কাটানোর প্রস্তাব দেয়। সে বলে তার সঙ্গে রাত কাটালে আমাকে মেয়ের সন্ধান দেবে।’

আলাইয়ারপুর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান আনিসুর রহমান বলেন, ‘এরা সবাই এলাকার চিহ্নিত সন্ত্রাসী। এদের নামে একাধিক মামলা রয়েছে। বর্তমানে ওই মেয়ের বিষয়ে আমি কিছুই শুনিনি।

ঘটনার ব্যাপারে বেগমগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) কামরুজ্জামান শিকদার জানান, রাতেই ইমন ও ফয়সালকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। বাকি আসামিদের গ্রেপ্তারের চেষ্টা চলছে। ওই মাদ্রাসাছাত্রীকে উদ্ধারে অভিযান অব্যাহত রয়েছে।

news24bd.tv তৌহিদ

মন্তব্য

পরবর্তী খবর

এবার ময়মনসিংহে সাবেক ভিপি নুরের বিরুদ্ধে মামলা

সৈয়দ নোমান, ময়মনসিংহ

এবার ময়মনসিংহে সাবেক ভিপি নুরের বিরুদ্ধে মামলা

ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের কেন্দ্রীয় ছাত্র সংসদের (ডাকসু) সাবেক ভিপি নুরুল হক নুরের বিরুদ্ধে এবার ময়মনসিংহে মামলা হয়েছে। জেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক মো. সোহেল গনি বাদী হয়ে মামলাটি দায়ের করেন।

বৃহস্পতিবার বিকালে ময়মনসিংহের কোতোয়ালী মডেল থানায় তিনি এ মামলা দায়ের করেন।

কোতোয়ালী মডেল থানার ওসি ফিরোজ তালুকদার বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। তিনি বলেন, অভিযোগের সত্যতা পাওয়ায় মামলাটি নথিভুক্ত করা হয়েছে।


মুহাম্মাদ (স.) এর জীবনের ঘটনাগুলো আমাকে আলোড়িত করে 

সকাল থেকে মার্কেট খুলেছেন রাজশাহীর ব্যবসায়ীরা

অনেকে মনে করে স্বামী-স্ত্রীর মধ্যে ৫/৬ বছরের গ্যাপ ভালো

৪ দিনের পর আবারও ৭ দিনের রিমান্ডে রফিকুল মাদানী

এ মামালার বরাত দিয়ে ওসি জানান, গত ১৪ এপ্রিল প্রথম রমজানে নুরুল হক নুর তার নিজ নামীয় ফেসবুক আইডি থেকে লাইভে বলেন ‘কোনো মুসলমান আওয়ামী লীগ করতে পারে না, যারা আওয়ামী লীগ করে তারা ধান্দাবাজ, চাঁদাবাজ, মাদক ব্যবসায়ী, চিটার বাটপার, প্রকৃত কোনো মুসলমান আওয়ামী লীগ করতে পারে না, এদের কোনো ঈমান নাই, শুক্রবার একদিন নামাজ পড়তে যাবে, আর পাঁচ ওয়াক্ত নামাজের কোনো খবর নাই, আওয়ামী উগ্রবাদীরা আলেম ওলামাদের চরিত্র হরণ করে, আওয়ামী উগ্রবাদীরা আলেম ওলামাদের নিয়ে যে বিদ্বেষ ছড়াচ্ছে, ফেসবুকে লেখালেখি করছে, তারা কখনও মুসলমান হতে পারে না, এদের কোনো ঈমান নেই।’

মামলার বাদী সোহেল গনি বলেন, ‘এমন বক্তব্য ধর্মীয় অনুভূতিতে আঘাত এবং বিভিন্ন শ্রেণি পেশা সম্প্রাদায়ের মধ্যে শত্রুতা, ঘৃণা, বিক্ষোভ সৃষ্টি করছে। মানহানিকর এ বক্তব্য প্রকাশ ও প্রচার করায় আমি মর্মাহত ও মনে আঘাতপ্রাপ্ত। তাই ময়মনসিংহ কোতোয়ালী মডেল থানায় তার বিরুদ্ধে ডি‌জিটাল নিরাপত্তা আইনে মামলাটি করেছি।’

news24bd.tv তৌহিদ

মন্তব্য

পরবর্তী খবর

এবার রাজশাহীতে ডিজিটাল আইনে নুরের বিরুদ্ধে মামলা

অনলাইন ডেস্ক

এবার রাজশাহীতে ডিজিটাল আইনে নুরের বিরুদ্ধে মামলা

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্র সংসদ (ডাকসু)-এর সাবেক ভিপি নুরুল হক নুরের বিরুদ্ধে ঢাকা, সিলেট ও চট্রগ্রামের পর এবার রাজশাহীতে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে মামলা হয়েছে। ফেসবুক লাইভে এসে  ধর্মীয় মূল্যবোধে আঘাত করে উসকানিমূলক বক্তব্য দেওয়ার অভিযোগে এই মামলা করা হয়।

রাজশাহী মহানগর যুবলীগের যুগ্ম সম্পাদক তোরিদ আল মাসুদ রনি বুধবার দুপুরে বাদী হয়ে আরএমপির বোয়ালিয়া মডেল থানায় মামলাটি করেন।

বোয়ালিয়া থানার ওসি নিবারণ চন্দ্র বর্মণ বলেন, আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীদের ধর্মীয় মূল্যবোধে আঘাত করে উসকানিমূলক বক্তব্য দেওয়ার অভিযোগে মামলাটি করা হয়েছে। তদন্ত  করে পরে আইনানুগ ব্যবস্থা নেয়া হবে।

মামলার এজাহারে বাদী বলেন, ১৪ এপ্রিল ফেসবুক লাইভে এসে ডাকসুর সাবেক ভিপি নূরুল হক নূর যে বক্তব্য দিয়েছিলেন সেটা আওয়ামী লীগ নেতাকর্মীসহ দেশের মানুষের ধর্মীয় মূল্যবোধে আঘাত দিয়েছে। তিনি আক্রমণাত্মক ও মানহানিকর বক্তব্য দিয়েছেন।

গত ১৪ এপ্রিল বিকেলে ফেইসবুক লাইভে এসে নূর বলেন, ‘কোনো মুসলমান আওয়ামী লীগ করতে পারে না। যারা এই আওয়ামী লীগ করে তারা চাঁদাবাজ, ধান্ধাবাজ, মাদক ব্যবসায়ী, চিটার-বাটপার এই ধরনের মুসলমান।’

উল্লেখ্য, গত ১৪ এপ্রিল নিজের ফেসবুক পেজে লাইভে এসে ডাকসুর সাবেক ভিপি নুরুল হক নুর ‘আওয়ামী লীগের কেউ প্রকৃত মুসলমান না’ বলে মন্তব্য করেন। একই ঘটনায় ঢাকা, সিলেট ও চট্রগ্রামের পর  রাজশাহীতে মামলা হলো নুরের বিরুদ্ধে। 

news24bd.tv/আলী

মন্তব্য

পরবর্তী খবর

ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনের মামলায় কারাগারে সাংবাদিক তৈয়ব

অনলাইন ডেস্ক

ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনের মামলায় কারাগারে সাংবাদিক তৈয়ব

খুলনায় ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে করা মামলায় আবু তৈয়ব নামের এক সাংবাদিককে গ্রেপ্তারের পর কারাগারে পাঠানো হয়েছে। তিনি টিভি চ্যানেল এনটিভির খুলনা ব্যুরোপ্রধান হিসেবে কর্মরত আছেন। গতকাল মঙ্গলবার রাত ১০টার দিকে খুলনা নগরের নূরনগর এলাকায় অবস্থিত তার বাসা থেকে তাকে গ্রেপ্তার করে সদর থানা পুলিশ।

আবু তৈয়বকে বুধবার (২১ এপ্রিল) সকালে আদালতে হাজির করা হয়। পরে শুনানি শেষে ম্যাজিস্ট্রেট তরিকুল ইসলাম তাকে জেলহাজতে পাঠান। মামলার তদন্ত কর্মকর্তা এস আই আবু সাইদ এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

খুলনা থানা পুলিশ জানায়, সকাল সাড়ে ১০টার দিকে সাংবাদিক আবু তৈয়বকে মহানগর হাকিম আদালতে নিয়ে যাওয়া হয়। এরপর আদালতের নির্দেশে তাকে কারাগারে পাঠানো হয়।

খুলনা মেট্রোপলিটন পুলিশের (কেএমপি) সহকারী কমিশনার (খুলনা জোন) বায়েজিত ইবনে আকবর জানান, সাংবাদিক আবু তৈয়বকে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনের মামলায় আটক করে থানায় আনা হয়। বুধবার সকালে তাকে ওই মামলায় আদালতে হাজির করা হয়। এরপর ম্যাজিস্ট্রেট তাকে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দেন।

খুলনা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আশরাফুল আলম  জানান, মঙ্গলবার (২০ এপ্রিল) রাত সাড়ে ১০টার দিকে খুলনার নূরনগর এলাকার বাসা থেকে সাংবাদিক আবু তৈয়বকে গ্রেফতার করা হয়। তার বিরুদ্ধে খুলনা সিটি করপোরেশনের মেয়র ও মহানগর আওয়ামী লীগের সভাপতি তালুকদার আবদুল খালেক বাদী হয়ে মঙ্গলবার বিকেলে খুলনা থানায় ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে মামলা দায়ের করেন।

তিনি জানান, সাংবাদিক আবু তৈয়ব সম্প্রতি খুলনা সিটি মেয়র তালুকদার আবদুল খালেকের বিরুদ্ধে ফেসবুকে একটি পোস্ট দেন। ওই পোস্টে তার বিরুদ্ধে মোংলা কাস্টমসের শুল্ক ফাঁকি দেওয়ার অভিযোগ উত্থাপন করা হয়।

news24bd.tv/আলী

মন্তব্য

পরবর্তী খবর

তিন মামলায় ২১ দিনের রিমান্ডে মুফতি সাখাওয়াত ও মাওলানা মঞ্জুরুল

অনলাইন ডেস্ক

তিন মামলায় ২১ দিনের রিমান্ডে মুফতি সাখাওয়াত ও মাওলানা মঞ্জুরুল

হেফাজতে ইসলাম বাংলাদেশের কেন্দ্রীয় সহকারী মহাসচিব মুফতি সাখাওয়াত হোসাইন রাজী ও মাওলানা মঞ্জুরুল ইসলাম আফেন্দির ২১ দিন করে রিমান্ড মঞ্জুর করেছেন আদালত।

বুধবার পৃথক তিন মামলার শুনানি শেষে ঢাকা মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট মামুনুর রশিদ এ আদেশ দেন। 

মতিঝিল থানার দুটি ও পল্টন থানার একটি মামলায় তদন্ত কর্মকর্তা ১০ দিন করে রিমান্ড চেয়ে তাদের আদালতে হাজির করেন। আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে বিচারক প্রত্যেক মামলায় সাত দিন করে মোট ২১ দিনের রিমান্ডের আদেশ দেন।

গত ১৪ এপ্রিল রাজধানীর লালবাগ এলাকা থেকে ডিবির একটি টিম সাখাওয়াত হোসাইন রাজীকে গ্রেফতার করে। একই দিন রাত ১০টা ৫০ মিনিটে হাতিরপুলের নিজ বাসা থেকে মাওলানা মঞ্জুরুল ইসলাম আফেন্দিকে গ্রেফতার করা হয়।

পরদিন পল্টন থানার নাশকতার এক মামলায় এই দুই নেতাকে পাঁচ দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন আদালত। রিমান্ড শেষে বুধবার তাদের আদালতে হাজির করে পুলিশ।

গত ২৬ মার্চ ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির বাংলাদেশ সফর ঘিরে দেশের বিভিন্ন স্থানে বিক্ষোভ করেন হেফাজতে ইসলামের নেতাকর্মীরা। সেই বিক্ষোভ সহিংসতায় রূপ নেয়। ওই সংঘাতে প্রাণ হারান অন্তত ১৮ জন। সেসব ঘটনায় একাধিক মামলা হয়। মামলার আসামিদের ধরতে অভিযান শুরু করে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী।

news24bd.tv/আলী

মন্তব্য

পরবর্তী খবর

‘শিশুবক্তা’ রফিকুল ইসলাম এক দিনের রিমান্ডে

অনলাইন ডেস্ক

‘শিশুবক্তা’ রফিকুল ইসলাম এক দিনের রিমান্ডে

‘শিশুবক্তা’ নামে পরিচিত মাওলানা রফিকুল ইসলাম মাদানীকে একদিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেছেন চীপ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালত। অতিরিক্ত চীপ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট মোহাম্মদ আব্দুল হাই আজ বুধবার (২১ এপ্রিল) সকালে ভার্চুয়ালী শুনানী শেষে একদিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন।

কোর্ট সাব ইন্সপেক্টর মো. আব্দুল হাই বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। তিনি জানান, গত ২৮ মার্চ হরতালের নামে নাশকতা, নগরীর চড়পাড়া মোড়ে পুলিশ বক্স ভাংচুর, বাসে আগুন সহ পুলিশের উপর হামলা ঘটনায় পুলিশের দায়ের করা মামলায় ভার্চুয়ালী হাজির হয়ে কোতেয়ালী থানা পুলিশ সাত দিনের রিমান্ড চাইলে আদালত একদিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন।

আরও পড়ুন


আল্লামা বাবুনগরীর বক্তব্য দেখে হতাশ মাওলানা মামুনুল

লকডাউনেও ঢাকায় রাস্তায় যানজট, চলাচল বেড়েছে মানুষের

দরিদ্রদের সহায়তায় প্রধানমন্ত্রীর সাড়ে ১০ কোটি টাকা বরাদ্দ

তীব্র দাবদাহে দেশ, ৪ বিভাগে বৃষ্টির আভাস


রফিকুল ইসলাম নেত্রকোনা জেলার পশ্চিম বিলাশপুর সাওতুল হেরা মাদ্রাসার পরিচালক।’ সরকার বিরোধী ও উস্কানিমূলক বক্তব্যের অভিযেগে গত (৭ এপ্রিল) দ্বিবাগত রাতে নেত্রকোনা থেকে তাকে আটক করে র‌্যাব। তারপর থেকে তিনি কারাগারে রয়েছেন।

news24bd.tv / কামরুল 

মন্তব্য

পরবর্তী খবর