তামিমার পাসপোর্ট ও ডিভোর্সের ঠিকানার অস্তিত্ব নেই !

অনলাইন ডেস্ক

তামিমার পাসপোর্ট ও ডিভোর্সের  ঠিকানার অস্তিত্ব নেই !

ক্রিকেটার নাসির ও তামিমার বিয়ে বর্তমান সময়ে আলোচিত বিষয়।  তবে তামিমা সুলতানার পাসপোর্ট ও আগের স্বামী রাকিবকে দেওয়া ডিভোর্সের কাগজে লেখা পোস্ট অফিস ও যে গ্রামের নাম লেখা রয়েছে টাঙ্গাইল সদরে ওই ঠিকানার কোনও অস্তিত্ব নেই।

জানা যায়, তামিমার বাড়ি টাঙ্গাইলের ঘাটাইল উপজেলার লোকেরপাড়া গ্রামে। ঘাটাইল উপজেলা সদর থেকে প্রায় ১৫ কিলোমিটার পশ্চিম দক্ষিণে লোকেরপাড়া গ্রামের অবস্থান। 

তামিমার চাচা জাহিদুর রহমান বিপ্লব জানান, তারা চার ভাই। তামিমার বাবা সহিদুর রহমান স্বপন সবার বড়। তিনি ঢাকায় একটি প্রাইভেট কোম্পানিতে চাকরি করতেন। মা সুমী আক্তার। এলাকাবাসী তামিমাকে চিনেন শবনম নামে। এটা তার ডাক নাম।

চাচা বিপ্লব আরও জানান, গ্রামে তামিমার খুব একটা আসা-যাওয়া নেই। বছর দুয়েক আগে একবার এসেছিল তামিমা। তবে ওর বাবা মাঝে মাঝেই আসেন। বড় হয়েছে টাঙ্গাইল শহরে। লেখাপড়া, টাঙ্গাইল বিন্দুবাসিনী সরকারি বালিকা বিদ্যালয় থেকে এসএসসি ও কুমুদিনী সরকারি কলেজ থেকে এইচএসসি পাস করেছেন।

একই কলেজে ভূগোল বিষয়ে অনার্স অধ্যয়নরত আছে। সম্রাট (২৫) ও অভি (১৭) নামে তার ছোট দুই ভাই রয়েছে। রাকিব তামিমার প্রেমের বিয়ের শুরুতে ওর মা বাবা মেনে না নিলেও পরে মেনে নেন।


কারাবন্দি অবস্থায় লেখক মুশতাক মৃত্যুতে যা বললেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

সংবাদ সম্মেলনে আসছেন প্রধানমন্ত্রী

বগুড়ায় সকাল ও দুপুরের সড়ক দুর্ঘটনায় ঝরল ৬ প্রাণ

যা দেখে নাসিরকে ভালোবেসেছিলেন তামিমা


ডিভোর্স এর বিষয় তিনি জানান, আমরা জানি পারিবারিকভাবেই তামিমা রাকিবকে তালাক দিয়েছে। পরে নাসিরকে বিয়ে করেছে। নাসির তামিমার বিয়ে নিয়ে এতো কিছু হয়ে গেলেও এখনও তেমন কিছুই জানেন না তার নিজ গ্রামের মানুষ।

এদিকে তামিমা তার পাসপোর্টে ঠিকানা দিয়েছেন গ্রাম লোকেরপাড়া, পোস্ট অফিস সিঙ্গুরিয়া টাঙ্গাইল সদর। প্রকৃতপক্ষে এই ঠিকানার কোনো অস্তিত্ব নেই টাঙ্গাইল সদরে। ওই ঠিকানাটি ঘাটাইল উপজেলায়।

পাসপোর্ট ও ডিভোর্স কাগজে ভুল ঠিকানা ব্যবহারের বিষয়ে মোবাইল ফোনে তামিমার বাবা সহিদুর রহমান স্বপন বলেন, যখন তামিমার এয়ারলাইনসে চাকরি হয় তখন জরুরি ভিত্তিতে পাসপোর্ট করতে হয়। সে সময় হয়তো ভুল হয়ে থাকতে পারে।

তামিমার ভাই সম্রাট জানান, ২০১৬ সালে রাকিবকে তামিমা তালাক দিয়েছেন এবং পাসপোর্টটা রি-ইস্যু করা হয়েছে ২০১৮ সালে। তালাকের প্রমাণপত্রও রয়েছে আমাদের কাছে। তারপরও তাকে হেনস্তা করা হচ্ছে।

আরও জানা যায়, তামিমা সুলতানা ঢাকা থেকে পাসপোর্ট গ্রহণ করেছেন। পাসপোর্টটি ইস্যু হয়েছে পাসপোর্ট অধিদপ্তরের ডেপুটি ডিরেক্টর নাদিরা আক্তারের স্বাক্ষরে।

news24bd.tv / কামরুল 

মন্তব্য

পরবর্তী খবর

রানের পাহাড়ে উঠে টাইগারদের ইনিংস ঘোষণা

অনলাইন ডেস্ক

রানের পাহাড়ে উঠে টাইগারদের ইনিংস ঘোষণা

কোচের চাওয়ার চেয়েও ২১ রান বেশি করেই ইনিংস ঘোষণা করলো টাইগাররা। আগেরদিন সংবাদ সম্মেলনে ৫২০ রানের কথা বলেছিলেন বাংলাদেশ দলের হেড কোচ রাসেল ডোমিঙ্গো। ৭ উইকেটের ৫৪১ রান করে ইনিংস ঘোষণা করেছেন অধিনায়ক মুমিনুল হক।

শ্রীলঙ্কার বোলার-ফিল্ডারদের কঠিন পরীক্ষা নিয়ে ১৭৩ ওভারে এই রান সংগ্রহ করেছে মুমিনুল বাহিনী।

আজ (শুক্রবার) সকালে ৪ উইকেটে ৪৭৪ রান নিয়ে খেলা শুরু করেছিল বাংলাদেশ। দিনের ১৮ ওভার ব্যাটিং করে ৩ উইকেট হারিয়ে আরও ৬৭ রান যোগ করতে পেরেছে সফরকারী। আজ ফিফটি করেছেন মুশফিকুর রহীম ও লিটন দাস।


আরও পড়ুনঃ


বাঙ্গি: বিনা দোষে রোষের শিকার যে ফল

৫৩ জন নাবিকসহ নিখোঁজ ইন্দোনেশিয়ার সাবমেরিন

ভিক্ষা করে হলেও অক্সিজেন সরবরাহের নির্দেশ ভারতে

১৫ বছর ধরে কাজে যান না, বেতন তুললেন সাড়ে ৫ কোটি টাকা!


দ্রুত রান তোলার লক্ষ্যে খেলতে নেমে দিনের শুরুতেই একে একে সাজঘরে ফিরেছেন লিটন দাস, মেহেদী হাসান মিরাজ ও তাইজুল ইসলাম। লিটন ফিফটি করলেও বাকিরা হতাশ করেছেন।

মেহেদী ৩ ও তাইজুল ২ রানে করে আউট হয়েছেন। অপরপ্রান্তের মুশফিককে হাত খুলে খেলার সুযোগ করে দেননি তারা। শেষ পর্যন্ত ১৫৬ বলে ৬৮ রানে অপরাজিত ছিলেন মি. ডিপেন্ডেবল মুশফিক।

শেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত ব্যাটিংয়ে নেমেছে শ্রীলংকা।

news24bd.tv / নকিব

মন্তব্য

পরবর্তী খবর

স্বপ্নময় আরো একটি দিনের দিনের প্রত্যাশায় ​ব্যাটিংয়ে নেমেছে টাইগাররা

অনলাইন ডেস্ক

স্বপ্নময় আরো একটি দিনের দিনের প্রত্যাশায় ​ব্যাটিংয়ে নেমেছে টাইগাররা

স্বাগতিক শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে দুই ম্যাচ টেস্ট সিরিজের প্রথমটির তৃতীয় দিনে ব্যাট করতে নেমেছে বাংলাদেশ। শুক্রবার (২৩ এপ্রিল) সকাল ১০টায় খেলা শুরু হয়।

এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত মুশফিকুর রহিম ৫৫ ও লিটন দাস ৪৯ রানে ব্যাট করছিলেন। দলের সংগ্রহ ছিলো ৪ উইকেটে ৫১১ রান। লঙ্কান বোলারদের শাসন করেছে গত দুই দিন।  গতকাল বৃহস্পতিবার চার উইকেটে ৪৭৪ রানে দ্বিতীয় দিন শেষ করেছিল বাংলাদেশ।

গতকাল দ্বিতীয় দিনের খেলা শেষে বাংলাদেশ দলের কোচ রাসেল ডমিঙ্গো বলেছেন, ‘কাল (আজ শুক্রবার) সকালে দ্রুত কিছু রান করতে হবে আমাদের। ৫২০-এর বেশি রান করে তাদের ব্যাটিংয়ে পাঠিয়ে চাপে ফেলা আমাদের লক্ষ্য। উইকেট খুবই ভালো। তবে বড় রানের পর ব্যাটিং করাটা সব সময়ই চাপের। ওদের ব্যাটসম্যানেরা ক্লান্ত থাকবে, রানের চাপ থাকবে তাদের ওপর। আমাদের ভালো সুযোগ থাকবে ২০ উইকেট নেওয়ার। কাজটা কঠিন, তবে আমাদের চেষ্টা থাকবে সাফল্য পাওয়া।’


করোনার ভয়ে ভারত ছাড়লো শাহরুখের পরিবার

রাহমানিয়া মাদ্রাসায় রাজনীতি ঢোকান বাবা আজিজুল, দখল করে রাখেন ছেলে মাওলানা মামুনুল, অভিযোগ শিক্ষকদের

ফর্মুলা দেবে রাশিয়া, করোনার টিকা উৎপাদন করবে বাংলাদেশ

আরমানিটোলায় কেমিক্যাল গোডাউনের আগুনে বাড়লো নিহতের সংখ্যা


এদিকে নাজমুল হোসেন শান্ত ও মুমিনুল হকের অসাধারণ দুটি সেঞ্চুরিতে সাড়ে চার শতাধিক রান করে বাংলাদেশ। শান্ত ১৬৩ ও মুমিনুল ১২৭ রান করেন।

অপরাজিত আছেন মুশফিকুর রহিম (৪৩) ও লিটন দাস (২৫)। গতকাল দিনের খেলা ২৫ ওভারের মতো বাকি ছিল। তাই আজ শুক্রবার নির্ধারিত সময়ের কিছুক্ষণ আগে মাঠে গড়াবে টেস্টের তৃতীয় দিন।

news24bd.tv নাজিম

মন্তব্য

পরবর্তী খবর

টি-টোয়েন্টি সিরিজের প্রথম ম্যাচে

জিম্বাবুয়েকে ১১ রানে হারিয়েছে পাকিস্তান

অনলাইন ডেস্ক

তিন ম্যাচ সিরিজের প্রথম টি-টোয়েন্টিতে জিম্বাবুয়েকে ১১ রানে হারিয়েচে পাকিস্তান। পাকিস্তানের দেয়া ১৫০ রানের লক্ষ্য তাড়া করতে নেমে জিম্বাবুয়ে থামে ১৩৮ রানে।

হারারেতে টস হেরে ব্যাট করতে নেমে উইকেটে খুব একটা সুবিধা করতে পারেনি পাকিস্তানি ব্যাটসম্যানরা। উইকেটের একপ্রান্তে চলতে থাকে বাবর আজম, ফখর জামান, হাফিজদের যাওয়া আসার মিছিল। তবে, অপরপ্রান্ত আগলে ব্যাট চালিয়ে যান ওপেনার রিজওয়ান। তার ৬১ বলে ৮২ রানের ইনিংসে ভর করে নির্ধারিত ওভারে ৭ উইকেটে হারিয়ে ১৪৯ রান করে পাকিস্তান।

জবাবে ব্যাট করতে নেমে নিয়মিত বিরতিতে উইকেট হারাতে থাকে জিম্বাবুয়েও। ক্রেগ আর্ভিানের ৩৪ রানের পর, লুক জংওয়ে ৩০ রানের ইনিংস কিছুটা জয়ের আশা দেখালেও, শেষ পর্যন্ত জয়ের বন্দরে পৌছাতে পারেনি স্বাগতিকদের তরী। নির্ধারিত ওভারে ৭ উইকেট হারিয়ে ৭ উইকেটে ১৩৮ রান করে জিম্বাবুয়ে।

মন্তব্য

পরবর্তী খবর

প্রথম টেস্টে চালকের আসনে বাংলাদেশ

অনলাইন ডেস্ক

প্রথম টেস্টে  চালকের আসনে বাংলাদেশ

শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে সিরিজের প্রথম টেস্টে চালকের আসনে রয়েছে বাংলাদেশ। বৃহস্পতিবার (২২ এপ্রিল) ক্যান্ডির পাল্লেকেলেতে ম্যাচের দ্বিতীয় দিনেও দুর্দান্ত ব্যাটিং করেছে মুমিনুলরা। শতক হাঁকিয়েছেন নাজমুল হোসেন শান্ত ও মুমিনুল হক। নাজমুল হোসেন ও মুমিনুল হকের সেঞ্চুরিতে ৪ উইকেটে ৪৭৪ রান নিয়ে আজ পাল্লেকেলে টেস্টের দ্বিতীয় দিন শেষ করেছে বাংলাদেশ দল। আলোক স্বল্পতায় এক ঘণ্টা আগে খেলা শেষ না হলে দলের রান এ দিনই ৫০০ ছাড়াতে পারত। কাল সকালে সেদিকেই চোখ থাকবে দুই অপরাজিত ব্যাটসম্যান মুশফিকুর রহিম ও লিটন দাসের। 

পাল্লেকেলেতে আজ দ্বিতীয় দিনের খেলা শেষে এক অনলাইন সংবাদ সম্মেলনে ডমিঙ্গো বলেছেন, ‘আমাদের কাল সকালে দ্রুত কিছু রান করতে হবে। আমরা চাই ৫২০-এর আশপাশে রান করে ওদের ব্যাটিংয়ে পাঠিয়ে চাপে ফেলতে।’

বুধবার (২১ এপ্রিল) টেস্টের প্রথম দিন শেষে শান্ত ও মুমিনুলের অবিচ্ছিন্ন জুটি ছিল ১৫০ রানের। বৃহস্পতিবার ম্যাচের দ্বিতীয় দিনও লঙ্কানদের হতাশ করে বাংলাদেশকে এগিয়ে নেন তারা। দুজনে গড়েন তৃতীয় উইকেটে দেশের হয়ে রেকর্ড জুটি।

শেষ পর্যন্ত শান্তর বিদায়ে থামে এই জুটি। ১৬৩ রান করে বাঁহাতি ব্যাটসম্যান ফিরতি ক্যাচ দেন লাহিরু কুমারাকে। দুজনের জুটি শেষ হয় ২৪২ রানে। এরপর উইকেটে আসেন মুশফিকুর রহীম। কিন্তু মুমিনু্লের সঙ্গে তার জুটিটা জমেনি। 

চতুর্থ উইকেটে ৩০ রান যোগ হতেই সাজঘরের পথ ধরেন মুমিনুল। ধনঞ্জয়া ডি সিলভার আলগা ডেলিভারিটি শরীরের বাইরে থেকেই খেলতে চেয়েছিলেন টাইগার অধিনায়ক, বল ব্যাটে লেগে যায় চলে যায় প্রথম স্লিপে।

এরপর মুশফিকুর রহীমের সঙ্গে জুটি গড়ার চেষ্টায় নামেন লিটন দাস।

আগের দিন উইকেটে সবুজ ঘাসের আধিক্য থাকলেও, টস জিতে আগে ব্যাটিংয়ের সিদ্ধান্ত নিয়েছিলেন বাংলাদেশ অধিনায়ক মুমিনুল। এদিন শূন্য রানে সাজঘরে ফিরে যান ডানহাতি ওপেনার সাইফ হাসান। এমন পরিস্থিতিতে বিপদ আর বাড়তে দেননি তামিম ইকবাল ও নাজমুল হোসেন শান্ত।

লঙ্কানদের একের পর এক বোলিং আক্রমণেও ভাঙা যাচ্ছিল না জুটি। উল্টো যখনই রানের সুযোগ এসেছে তার পূর্ণ ফায়দা নিয়েছেন শান্ত ও তামিম। দারুণ ব্যাটিং করতে থাকা তামিম দ্বিতীয় সেশনে কাঁটা পড়েন নড়বড়ে নব্বইয়ে পা রেখেই। ব্যাক অব লেন্থে পড়া ডেলিভারিতে কী করবেন তা ঠিক করতে পারেননি তামিম। অদ্ভুত এক অবস্থায় পড়ে ক্যাচ তুলে দেন স্লিপ কর্ডনে দাঁড়ান লাহিরু থিরিমান্নের হাতে। প্রথম দিনের শেষ সেশনে আর কোনো উইকেট হারায়নি মুমিনুলরা।

সংক্ষিপ্ত স্কোর (দ্বিতীয় দিন শেষে)

টস : বাংলাদেশ

বাংলাদেশ ১ম ইনিংস : ৪৭৪/৪ (১৫৫ ওভার)
শান্ত ১৬৩, মুমিনুল ১২৭, তামিম ৯০, মুশফিক ৪৩*, লিটন ২৫*
বিশ্ব ৭৫/২, কুমারা ৮৮/১

news24bd.tv/আলী

মন্তব্য

পরবর্তী খবর

দেড়শ ছাড়িয়ে শান্ত, মুমিনুলের সেঞ্চুরি

নিজস্ব প্রতিবেদক

দেড়শ ছাড়িয়ে শান্ত, মুমিনুলের সেঞ্চুরি

বাংলাদেশের দাপট পাল্লেকেলেতে প্রথম দিন দাপট দেখায় বাংলাদেশ। ২ উইকেট হারিয়ে জমা করে ৩০২ রান। দ্বিতীয় দিনের শুরুটাও ভালো করেছেন শান্ত-মুমিনুল। ৬৪ রানে অপরাজিত থেকে দিন শুরু করেছিলেন মুমিনুল হক।

দেশের সর্বোচ্চ সেঞ্চুরিয়ান সংখ্যাটা নিয়ে গেলেন ১১ তে। ২২৪তম বলে ধনঞ্জয়া ডি সিলভার বলে নবম চার মেরে এই স্বস্তির শতক উদযাপন করেন বাংলাদেশ অধিনায়ক। দেশের বাইরে এটাই তার প্রথম সেঞ্চুরি।

এদিকে দ্বিতীয় দিনেও দুর্দান্ত ব্যাটিং বাংলাদেশ। প্রথম  ইনিংসে বড় সংগ্রহের দিকেই এগোচ্ছে টাইগাররা। গতকালের মতো আজও  অসাধারণ ব্যাটিং করছে নাজমুল হোসেন শান্ত। ব্যক্তিগত দেড়শ রানে পৌঁছে গেছেন তিনি।

news24bd.tv আহমেদ

আরও পড়ুন


প্রয়াত সাংসদ আবদুল মতিন খসরুর আসন শূন্য ঘোষণা

বৈরী সময়েও ধান কাটার উৎসব, শ্রমিক ও পরিবহন সংকট

আমেরিকার রেকর্ড ভেঙে ভারতে একদিনে সর্বোচ্চ আক্রান্ত

এবার কক্সবাজারে ভিপি নুরের বিরুদ্ধে মামলা


 

মন্তব্য

পরবর্তী খবর