অতিরিক্ত ব্যায়ামের স্বাস্থ্যঝুঁকি
অতিরিক্ত ব্যায়ামের স্বাস্থ্যঝুঁকি

অতিরিক্ত ব্যায়ামের স্বাস্থ্যঝুঁকি

অনলাইন ডেস্ক

ব্যায়াম করলে শরীর সুস্থ থাকে, কর্মক্ষমতা বাড়ে। হাঁটাচলায় অসুবিধা হয় না, বরং ভালো থাকে শরীরের পেশি। কিন্তু বেশি ব্যায়াম যে শরীরের ক্ষতি ছাড়া উপকার হয় না।

যুক্তরাষ্ট্রের দুইটি ইউনিভার্সিটিতে কিছু সাম্প্রতিক সমীক্ষায় দেখা গেছে বেশি ব্যায়ামের ফল মারাত্মক।

এমনকি তা হয়ে উঠতেও পারে মৃত্যুর কারণও।

ভারতের স্বাস্থ্যবিষয়ক ওয়েবসাইট জানিয়েছে বেশি ব্যায়ামের বেশ কিছু অপকারিতা-

কার্ডিওভাসকুলার সমস্যা: অত্যাধিক ব্যায়ামের কারণে আর্টারি বা ধমনীর আকার বৃদ্ধি পেতে পারে। এমনকি ছন্দপতন হতে পারে হৃৎপিণ্ডের গতিরও। সাধারণ হার্টরেট বদলে গেলে রক্তসঞ্চালনে সমস্যাও দেখা দিতে পারে। বেশি ব্যায়ামের জন্যই অনেক অ্যাথলিটের হৃৎপিণ্ডের উর্দ্ধমুখী ধমনীতে সমস্যা দেখা দেয়।

অত্যাধিক স্ট্রেস ও নার্ভ প্রবলেম: অত্যাধিক ব্যায়ামে আমাদের শরীরে থাকা কর্টিসল নামক হরমোনের মাত্রা বৃদ্ধি পায়। এটি আসলে একটি স্ট্রেস হরমোন যা বাড়লে আমাদের নার্ভে খুব চাপ পড়ে। এই স্ট্রেস হরমোনের অত্যাধিক ক্ষরণ মোটেই ভালো নয়।

এতে অ্যাংজাইটি থেকে শুরু করে অনেকরকম নার্ভাস প্রবলেম হতে থাকে‌। চিন্তার উপর আরও চিন্তা, সহজে মুষড়ে পড়া বা কথায় কথায় ডিপ্রেসড্ হওয়া তখন রুটিন হয়ে দাঁড়ায়। তাই বিজ্ঞানীদের পরামর্শ একটি নির্দিষ্ট সময়ের বেশি ব্যায়াম না করাই ভালো।

ইমিউনিটি লেভেল: অত্যাধিক ব্যায়াম করার পর প্রায় তিনদিন কিন্তু আমাদের শরীর নাজুক হয়ে পড়ে। ফলে বাইরের ভাইরাস ব্যাকটেরিয়া সবার জন্য উন্মুক্ত হয়ে পড়ে শরীর। এতে সহজেই কোনও সংক্রামক রোগে আক্রান্ত হতে পারেন।

আঘাতের সম্ভাবনা: অত্যাধিক ব্যায়াম শরীরের বিভিন্ন পেশিতে আঘাত পাওয়ার সম্ভাবনাও বাড়িয়ে দেয়। টেনডন, লিগামেন্ট, হাড় এগুলো ব্যায়ামের সময় খুব গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে।


বস্তিবাসীকে না জানিয়েই ভ্যাকসিনের ট্রায়াল

গাড়িতে অগ্নিকান্ড, রেকর্ড সংখ্যক গাড়ি উঠিয়ে নিচ্ছে হুন্দাই

সানি লিওনের জায়গা নিলেন আবিরা! (ভিডিও)

৭ সন্তান নিতে স্বেচ্ছায় দেড় লাখ ডলার জরিমানা গুনলেন চীনা দম্পতি


ফিটনেস বিশেষজ্ঞদের মতে দিনে একঘন্টা নিয়মিত ব্যায়ামই যথেষ্ট। তাই শরীরের অবস্থা অনুযায়ী আপনার ব্যয়ামের পরিমাণটা ঠিক করে নিতে হবে নিজেকেই। কারণ এর সুফল যেমন আছে কুফলও কম নয়।

news24bd.tv / নকিব