অবরুদ্ধ খুলনায় নৌপথেও পারাপার বন্ধ, ভোগান্তি চরমে

সামছুজ্জামান শাহীন, খুলনা

অবরুদ্ধ খুলনায় নৌপথেও পারাপার বন্ধ, ভোগান্তি চরমে

শুক্রবার সন্ধ্যা ৬টা থেকে খুলনায় সড়ক পথে ১৮টি রুটে বাস চলাচল বন্ধ রাখা হয়েছে। একইভাবে আজ শনিবার সকাল থেকে খুলনা শহরের সঙ্গে সকল নদী পারাপার ঘাট বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে।

এতে রূপসা, তেরখাদা ও দিঘলিয়া উপজেলা থেকে কোন মানুষ নৌকা বা ট্রলারে করে খুলনা শহরে প্রবেশ বা বের হতে পারছেন না। প্রতিটি ঘাট এলাকায় অপেক্ষমান মানুষের মধ্যে ভোগান্তি বাড়ছে। অনেকে চিকিৎসা বা চাকরির কারনে খুলনা শহরে এসেও ফিরে যেতে পারেননি। ঘাট এলাকায় অসুস্থ অনেক মানুষকে হতাশা নিয়ে ঘন্টার পর ঘন্টা বসে থাকতে দেখা গেছে। নদী ঘাটগুলোতে আড়াআড়ি বাঁশ দিয়ে চলাচল বন্ধ করা হয়েছে।

আরও পড়ুন:


ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনকে ‘বৃদ্ধাঙ্গুলি’ ছাত্র ফেডারেশনের

ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন বাতিলের দাবিতে আল্টিমেটাম

শাকিবের হয়ে পুরস্কার গ্রহণ করলেন বুবলি, জল্পনা তুঙ্গে

মহাসমাবেশে যোগ দিতে খুলনায় ইশরাক, পথে বাধার অভিযোগ


ছয়টি সিটি করপোরেশনে ধারাবাহিকভাবে এ সমাবেশ অনুষ্ঠিত হচ্ছে। মহানগর বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম সম্পাদক অধ্যক্ষ তারিকুল ইসলাম বলেন, খুলনায় এ সমাবেশ যেন সফল না হয় এ লক্ষ্যে বাস চলাচল বন্ধের পাশাপাশি নৌকা ও ট্রলারে মানুষ পারাপার বন্ধ করা হয়েছে। 

তবে খুলনা জেলা মটর শ্রমিক ইউনিয়নের সভাপতি মো. নুরুল ইসলাম বেবি জানান, বিএনপির কর্মসূচির সাথে তাদের কর্মবিরতীর কোন সম্পর্ক নেই। দীর্ঘদিন টানা কাজ করার পর বাস শ্রমিকদের বিশ্রাম দেওয়ার জন্য এ কর্মবিরতী দেওয়া হয়েছে। আর নদী পথে ঘাট মালিকরা নৌকা ট্রলার বন্ধের বিষয়ে কিছু জানাতে রাজি হয়নি।

news24bd.tv আহমেদ

মন্তব্য

পরবর্তী খবর

খালেদা জিয়াকে জাপানের রাষ্ট্রদূত ও পাকিস্তান হাইকমিশনারের চিঠি

অনলাইন ডেস্ক

খালেদা জিয়াকে জাপানের রাষ্ট্রদূত ও পাকিস্তান হাইকমিশনারের চিঠি

প্রাণঘাতী করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত বিএনপি চেয়ারপরসন বেগম খালেদা জিয়ার সুস্থতা কামনা করে পত্র পাঠিয়েছেন জাপানের রাষ্ট্রদূত ইতো নাওকি এবং পাকিস্তানের হাইকমিশনার ইমরান আহমেদ সিদ্দিকী।

মঙ্গলবার (১৩ এপ্রিল) জাপানের রাষ্ট্রদূত এবং বুধবার (১৪ এপ্রিল) পাকিস্তানের হাইকমিশনার এ পত্র পাঠান।

বিএনপি চেয়ারপারসনের একান্ত সচিব এ বি এম আব্দুর সাত্তারের বরাত দিয়ে চেয়ারপারসনের প্রেস উইং সদস্য শায়রুল কবির খান বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

তিনি জানান, খালেদা জিয়ার কোভিড-১৯ সংবাদ পেয়ে তার শারীরিক সুস্থতা কামনা করে জাপানের রাষ্ট্রদূত এবং পাকিস্তানের হাইকমিশনার পত্র পাঠিয়েছেন।

গত শনিবার খালেদা জিয়ার নমুনা পরীক্ষা শেষে রোববার তার করোনা পজেটিভ শনাক্ত হয়। চিকিৎসক এফএম সিদ্দিকীর নেতৃত্বে তার ব্যক্তিগত চিকিৎসক টিম বিএনপি চেয়ারপারসনের চিকিৎসা শুরু করে।  লন্ডন থেকে চিকিৎসক পূত্রবধূ জোবাইদা রহমানও চিকিৎসার বিষয়ে পরামর্শ দিচ্ছেন।

লন্ডনে থেকেই পুত্রবধূ ডা. জোবায়দা রহমান দেশে-বিদেশে বিভিন্ন চিকিৎসকদের সঙ্গে আলাপ-আলোচনা করে বেগম জিয়ার সুচিকিৎসার তদারকি করছেন। এছাড়া তার চিকিৎসায় গঠিত মেডিকেল বোর্ডের সমন্বয়ও করছেন ডা. জোবায়দা রহমান।

৭৫ বছল বয়সী সাবেক প্রধানমন্ত্রী খালেদা জিয়া দুর্নীতির দুই মামলায় দণ্ডিত। দণ্ড নিয়ে তিন বছর আগে তাকে কারাগারে যেতে হয়। 

দেশে করোনাভাইরাসের সংক্রমণ শুরুর পর পরিবারের আবেদনে সরকার গত বছরের ২৫ মার্চ ‘মানবিক বিবেচনায়; শর্তসাপেক্ষে তাকে সাময়িক মুক্তি দেয়। তখন থেকে তিনি গুলশানে নিজের ভাড়া বাসা ফিরোজায় থেকে ব্যক্তিগত চিকিৎসকদের তত্ত্বাবধায়নে চিকিৎসা নিচ্ছেন। তার সঙ্গে বাইরের কারও যোগাযোগ সীমিত।

news24bd.tv/আলী

মন্তব্য

পরবর্তী খবর

লকডাউনে ৭ ঘণ্টা গ্যাস থাকবে না যেসব এলাকায়

অনলাইন ডেস্ক

লকডাউনে ৭ ঘণ্টা গ্যাস থাকবে না যেসব এলাকায়

লকডাউনের মধ্যেই শুক্রবার (১৬ এপ্রিল) ভোর থেকে সাড়ে ৭ ঘণ্টার জন্য গ্যাস সরবরাহ বন্ধ থাকবে নারায়ণগঞ্জ ও মুন্সিগঞ্জের বড় একটি অংশে। একই সময়ে গ্যাসের চাপ কম থাকবে ঢাকার বেশকিছু এলাকায়।

বুধবার (১৪ এপ্রিল) সন্ধ্যায় বিদ্যুৎ, জ্বালানি ও খনিজ সম্পদ মন্ত্রণালয়ের উপ-প্রধান তথ্য অফিসার মীর মোহাম্মদ আসলাম উদ্দিনের পাঠানো সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়। 

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে, নারায়ণগঞ্জের হরিপুরে ভালভ প্রতিস্থাপনের কাজ করবে গ্যাস সঞ্চালন কোম্পানি জিটিসিএল ও বিতরণ কোম্পানি তিতাস গ্যাস। আর এ কারণে শুক্রবার ভোর সাড়ে ৪টা থেকে দুপুর ১২টা পর্যন্ত নারায়ণগঞ্জ ও মুন্সিগঞ্জের বড় একটি এলাকায় গ্যাস সরবরাহ করতে পারবে না তিতাস।

উল্লিখিত সময়ে শীতলক্ষ্যা নদীর পশ্চিম পাশে নারায়ণগঞ্জ শহর, সিদ্ধিরগঞ্জ, আদমজী ইপিজেড, গোদনাইল, পাগলা, ফতুল্লা, নারায়ণগঞ্জ বিসিক, পঞ্চবটি থেকে মুক্তারপুর পর্যন্ত, মুন্সিগঞ্জ সদর, মুন্সিগঞ্জ বিসিক, রেকাবী বাজার ও আশেপাশের এলাকায় সব শ্রেণির গ্রাহকদের গ্যাস সরবরাহ বন্ধ থাকবে।

এছাড়া শীতলক্ষ্যা নদীর পূর্ব পাশে গ্যাস থাকবে না কাঁচপুর, হরিপুর, কুতুবপুর, মদনপুর, বন্দর, কেওডালা, নাঙ্গলবন্দ ও আশপাশের এলাকায়।

একই সময়ে গ্যাসের চাপ কম থাকবে ঢাকার কেরানীগঞ্জ ও শ্যামপুর এলাকায়।

গ্রাহকদের 'সাময়িক অসুবিধার' জন্য 'আন্তরিকভাবে' দুঃখ প্রকাশ করেছে ঢাকা ও আশপাশের এলাকায় গ্যাস বিতরণ প্রতিষ্ঠান তিতাস গ্যাস কোম্পানি।

news24bd.tv/আলী

মন্তব্য

পরবর্তী খবর

নতুন কৌশলে হেফজাত, আইনি সহায়তা সেল

অনলাইন ডেস্ক

নতুন কৌশলে হেফজাত, আইনি সহায়তা সেল

হেফাজতের যুগ্ম মহাসচিব মামুনুল হকের রিসোর্ট কাণ্ডের পর থেকেই গ্রেফতার হচ্ছেন শীর্ষ স্থানীয় নেতারা। নতুন নতুন মামলায় গ্রেফতার হচ্ছেন  সংগঠনটির সকল স্তরের নেতাকর্মী। গ্রেফতার আতঙ্কে ভুগছেন অনেকেই।  এমতাবস্থায় সাংগঠনিক স্থবিরতা কাটাতে উদ্যোগী হয়েছে হেফাজত। ধরপাকড়, মামলা, গ্রেফতার ও সরকারের চাপ মোকাবিলায় নানা তৎপরতা শুরু করেছে হেফাজতে ইসলাম বাংলাদেশ। তারা দেশের প্রতিটি ওয়ার্ডে কমিটি গঠন, জেলায় জেলায় আইনি সহায়তা সেল গঠন এবং বিভিন্ন দূতাবাসে স্মারকলিপি দেওয়াসহ বিভিন্ন সিদ্ধান্ত নিয়েছে। এছাড়া সমমনা ইসলামী দলগুলোর সঙ্গে যোগাযোগ করবে হেফাজত।

রবিবার হাটহাজারী মাদ্রাসায় হেফাজতে ইসলামের কেন্দ্রীয় কমিটির রুদ্ধদ্বার বৈঠক সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।

হেফাজতের সহকারী মহাসচিব মুফতী শাখাওয়াত হোসাইন রাজী জানান, সরকার চাইলে তো গ্রেফতার এড়ানো যাবে না। তবে সবকিছু আইনীভাবে মোকাবিলার সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে। প্রতিটি জেলা ও উপজেলায় দুই থেকে তিন সদস্যের আইনি সহায়তা সেল গঠন করা হবে আইনজীবীদের নিয়ে। হেফাজতের কার্যক্রম, মামলা ও গ্রেফতারের বিষয়ে তারা কাজ করবেন।

ঢাকা, চট্টগ্রামসহ দেশের বিভিন্ন জেলা ও মহানগরে হেফাজতের কমিটি রয়েছে। এর বাইরে সারাদেশে ওয়ার্ড পর্যায়ে কমিটি গঠন করাসহ সংগঠনকে এগিয়ে নিতে ‘সাংগঠনিক সেল’ গঠিত হয়। এই সেলের দায়িত্ব দেওয়া হয় যুগ্ম-মহাসচিব জুনায়েদ আল হাবিব, সাংগঠনিক সম্পাদক আজিজুল হক ইসলামাবাদী ও সহকারী মহাসচিব মুফতি শাখাওয়াত হোসেনকে। তাদের মধ্যে ইসলামাবাদী বৈঠক শেষে বাড়ি ফেরার পর গ্রেফতার হন।

জুনায়েদ আল হাবিব বৈঠকের বিষয়ে গণমাধ্যমকে বলেন, সাংগঠনিক সেলের মাধ্যমে এক থেকে দেড় মাসের মধ্যে সারা দেশের কমিটিগুলোর কার্যক্রমকে আরও শক্তিশালী করা হবে। এ জন্য রোববারের সভায় তিনজনকে দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে।

news24bd.tv/আলী

মন্তব্য

পরবর্তী খবর

ইবাদতে দিন কাটাচ্ছেন করোনা আক্রান্ত খালেদা জিয়া

অনলাইন ডেস্ক

ইবাদতে দিন কাটাচ্ছেন করোনা আক্রান্ত খালেদা জিয়া

প্রাণঘাতী করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত বিএনপি চেয়ারপরসন বেগম খালেদা জিয়া পবিত্র রমজান মাসের প্রথম দিন ইবাদত করে কাটিয়েছেন জানিয়ে তার বোন সেলিমা ইসলাম  বলেছেন, খালেদা জিয়ার শারীরিক অবস্থা স্থিতিশীল রয়েছে।

তিনি বলেন, বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকদের সার্বিক তত্ত্বাবধায়নে তার চিকিৎসা চলছে। এইটুকু বলতে পারি যে, তার অবস্থা স্থিতিশীল, ভালো ইমপ্রুভ করছে। আপনারা উনার জন্য দোয়া করবেন।

সেলিমা ইসলাম  আরও বলেন, রমজান মাস বুঝতেই পারেন। এখন কোরআন তেলওয়াত, তাসবিহ তাহরিমা, দোয়া দরুদ, নামাজ পড়ে সময় কাটছে তার। টেলিফোনে আমরা কথা-বার্তা বলছি নিয়মিত।

গত শনিবার খালেদা জিয়ার নমুনা পরীক্ষা শেষে রোববার তার করোনা পজেটিভ শনাক্ত হয়।  মেডিসিনের বিশেষ চিকিৎসক এফএম সিদ্দিকীর নেতৃত্বে তার ব্যক্তিগত চিকিৎসক টিম বিএনপি চেয়ারপারসনের চিকিৎসা শুরু করে।   লন্ডন থেকে চিকিৎসক পূত্রবধূ জোবাইদা রহমানও চিকিৎসার বিষয়ে পরামর্শ দিচ্ছেন।

লন্ডনে থেকেই পুত্রবধূ ডা. জোবায়দা রহমান দেশে-বিদেশে বিভিন্ন চিকিৎসকদের সঙ্গে আলাপ-আলোচনা করে বেগম জিয়ার সুচিকিৎসার তদারকি করছেন। এছাড়া তার চিকিৎসায় গঠিত মেডিকেল বোর্ডের সমন্বয়ও করছেন ডা. জোবায়দা রহমান।

৭৫ বছল বয়সী সাবেক প্রধানমন্ত্রী খালেদা জিয়া দুর্নীতির দুই মামলায় দণ্ডিত। দণ্ড নিয়ে তিন বছর আগে তাকে কারাগারে যেতে হয়। 

দেশে করোনাভাইরাসের সংক্রমণ শুরুর পর পরিবারের আবেদনে সরকার গত বছরের ২৫ মার্চ ‘মানবিক বিবেচনায়; শর্তসাপেক্ষে তাকে সাময়িক মুক্তি দেয়। তখন থেকে তিনি গুলশানে নিজের ভাড়া বাসা ফিরোজায় থেকে ব্যক্তিগত চিকিৎসকদের তত্ত্বাবধায়নে চিকিৎসা নিচ্ছেন। তার সঙ্গে বাইরের কারও যোগাযোগ সীমিত।

news24bd.tv/আলী

মন্তব্য

পরবর্তী খবর

লকডাউনের প্রথম দিনে দুই লাখ ৫০ হাজার মুভমেন্ট পাস ইস্যু

নিজস্ব প্রতিবেদক

লকডাউনের প্রথম দিনে দুই লাখ ৫০ হাজার মুভমেন্ট পাস ইস্যু

করোনাভাইরাসের সংক্রমণ রোধে আজ থেকে শুরু হয়েছে সপ্তাহব্যাপী কঠোর লকডাউন। যেখানে ‘মুভমেন্ট পাস’ ছাড়া বাইরে বের হতে পারবে না কেউ। মুদি দোকানে কেনাকাটা, কাঁচা বাজার, ওষুধপত্র, চিকিৎসা কাজে নিয়োজিত, কৃষিকাজ, পণ্য পরিবহন ও সরবরাহ, ত্রাণ বিতরণ, পাইকারি বা খুচরা ক্রয়, পর্যটন, মৃতদেহ সৎকার, ব্যবসা ইত্যাদি ক্যাটাগরিতে দেওয়া হচ্ছে এই ‘মুভমেন্ট পাস’।

এদিকে লকডাউনের প্রথম দিনে জরুরি প্রয়োজনে বাইরে বের হতে বাংলাদেশ পুলিশের মুভমেন্ট পাস ওয়েবসাইটে আজ বুধবার সন্ধ্যা সাতটা পর্যন্ত হিট হয়েছে প্রায় আট কোটি বার। যা প্রতি মিনিটে ২১ হাজারেরও বেশি।

পুলিশ সদর দপ্তরের দেওয়া তথ্যে জানানো হয়, গতকাল মঙ্গলবার সকাল ১১টা থেকে আজ বুধবার সন্ধ্যা ৭টা পর্যন্ত ৭ কোটি ৮১ লাখ হিট হয়েছে। প্রতি মিনিটে হিট হয়েছে ২১ হাজার ৩৩৭টি।

এ পর্যন্ত অ্যাপে রেজিস্ট্রেশন করেছেন ৩ লাখ ১০ হাজার জন। যাদের মধ্যে দুই লাখ ৫০ হাজার মুভমেন্ট পাস ইস্যু করা হয়েছে।

দেশে করোনা সংক্রমণ নিয়ন্ত্রণে কঠোর নিষেধাজ্ঞা চলাকালীন জরুরি প্রয়োজনে চলাচলের জন্য ‘মুভমেন্ট পাস’ দিচ্ছে পুলিশ।

পুলিশ সদর দফতরের এক কর্মকর্তা জানান, মুভমেন্ট পাস নেওয়ার জন্য মানুষজন অনেক অহেতুক কারণ দেখিয়ে আবেদন করছেন। অযৌক্তিক কারণ গুলো বাদ দিয়ে একেবারেই জরুরি ও যৌক্তিক কারণে যারা আবেদন করছেন তাদের মুভমেন্ট পাস দেওয়া হচ্ছে।

মুভমেন্ট পাস যেভাবে পাওয়া যাবে

movementpass.police.gov.bd এর ওয়েবসাইটে গিয়ে প্রয়োজনীয় তথ্য প্রদান করে নির্দিষ্ট সময়ের জন্য পাস সংগ্রহ করতে পারবেন যে কেউ। তবে প্রতিটি পাস একবারই ব্যবহার করা যাবে। অর্থাৎ যাওয়া-আসার জন্য আলাদা আলাদা পাস সংগ্রহ করতে হবে।

এক্ষেত্রে যার জন্য পাসটি দরকার সেই ব্যক্তির নাম, মোবাইল ফোন নম্বর, জাতীয় পরিচয়পত্র বা ড্রাইভিং লাইসেন্স, যে স্থানে যাচ্ছেন সে জায়গার নাম, যেখান থেকে যাবেন সেই স্থানের নাম ও যাত্রার কারণ ইত্যাদি তথ্য পূরণ করে উল্লেখিত লিংকে আবেদনের পর পুলিশ অনলাইনে কিউআর কোড স্ক্যানারসহ একটি পাস ইস্যু করবে।

news24bd.tv/আলী

মন্তব্য

পরবর্তী খবর