ধর্ষণের পর গলায় ও যৌনাঙ্গের চারপাশে ১০ কোপ, আসামির যাবজ্জীবন

অনলাইন ডেস্ক

ধর্ষণের পর গলায় ও যৌনাঙ্গের চারপাশে ১০ কোপ, আসামির যাবজ্জীবন

বরগুনায় ২১ বছরের এক তরুণীকে  ধর্ষণের দায়ে এক ব্যক্তিকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড ও এক লাখ টাকা অর্থদণ্ড দিয়েছেন আদালত। রোববার (২৮ ফেব্রুয়ারি) দুপুরে বরগুনা নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালের বিচারক মো. হাফিজুর রহমান এই রায় দেন। আসামির নাম শাহিন (২৫)। বরগুনা পৌর শহরের উকিল পট্টির বাসিন্দা মৃত সফিজ উদ্দিন আহমেদের ছেলে শাহিন।

আসামিকে দণ্ডবিধির ৩২৬ ধারায় ১০ বছর কারাদণ্ড ও ২০ হাজার টাকা অর্থদণ্ড , অনাদায়ে এক বছরের সশ্রম কারাদণ্ড এবং ৩০৭ ধারায় ১০ বছরের কারাদণ্ড ও ২০ হাজার টাকা অর্থদণ্ড, অনাদায়ে এক বছরের সশ্রম কারাদণ্ড দিয়েছেন আদালত।

নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালের বিশেষ সরকারি কৌঁসুলি (পিপি) মোস্তাফিজুর রহমান বলেন, রায় ঘোষণার সময় আসামি আদালতে উপস্থিত ছিলেন। আমরা এই রায়ে সন্তষ্ট হয়েছি।


গুলি ছুড়ে ইয়েমেনের ক্ষেপণাস্ত্র আকাশেই ধ্বংস করেছে সৌদি

জানা গেল আসল রহস্য, ১৩-১৪ বছরের দুই বোনের সঙ্গেই শরীরিক মেলামেশা ছিল তার

আবাহনীকে ৪-১ গোলে উড়িয়ে দিল বসুন্ধরা কিংস

৬৬ নারীকে ধর্ষণ


আদালত সূত্রে জানা গেছে, আসামি শাহিনের সঙ্গে বরগুনা সদর উপজেলার কেওড়াবুনিয়া এলাকার এক তরুণীর প্রেমের সম্পর্ক ছিলো। বিষয়টি পরিবার জানতে পরে ওই তরণীকে শাহিনের সঙ্গে মেলামেশা করতে নিষেধ করেন। এই ঘটনার পর তরুণী প্রথমে তার এক স্বজনের বাড়ি বেড়াতে যান এবং পরে সেখান থেকে কুয়াকাটায় যান। পরের দিন সেখান থেকে ফিরে বরগুনা শহরের টাউনহল এলাকায় শাহিনের সঙ্গে দেখা হয়। সেখানে অনেকক্ষণ কাথাবার্তা শেষে শাহীন তাকে নিয়ে ঢাকা যেতে চাইলে তরুণী রাজি হন। পরে রাত আনুমানিক ৯টার দিকে শাহীন একটি বটিসহ মোটরসাইকেল নিয়ে বের হন।

শাহীন ওই তরুণীকে বরগুনা সদর উপজেলার গৌরিচন্না ইউনিয়নের পশ্চিম ধুপতি এলাকার ইটভাটায় নিয়ে ধর্ষণ করেন। ধর্ষণ শেষে সঙ্গে থাকা বঁটি দিয়ে তরুণীর গলার ডানপাশে দুইটি কোপ দেন। এছাড়া যৌনাঙ্গের চারপাশে ৮টি কোপ দেন। তরুণী মারা গেছে ভেবে নদীর পাড়ে ফেলে চলে যান শাহীন। অনেক খোঁজাখুঁজির পর ঘটনার পরের দিন সকালে রক্তাক্ত অবস্থায় ঘটনাস্থল থেকে তরুণীকে উদ্ধার করা হয়।

এ ঘটনায় তরুণীর বাবা বাদী হয়ে ২০০৮ সালে বরগুনা সদর থানায় শাহিনের বিরুদ্ধে মামলা করেন। মামলার তদন্ত শেষে পুলিশ ২০০৮ সালের ১৪ সেপ্টেম্বর আদালতে অভিযোগপত্র জমা দেয়।

এ ব্যাপারে আসামিপক্ষের আইনজীবীর কোনো বক্তব্য পাওয়া যায়নি।

news24bd.tv তৌহিদ

মন্তব্য

পরবর্তী খবর

হত্যার দেড়মাস পর রহস্য উদঘাটন

মাদক বিক্রির টাকা না দেওয়ায় খুন

সৈয়দ নোমান, ময়মনসিংহ

মাদক বিক্রির টাকা না দেওয়ায় খুন

ময়মনসিংহ নগরীর চর জেলখানা বেড়িবাঁধ থেকে দিদারুল ইসলাম রুবেল (৩০) নামে এক যুবকের মরদেহ উদ্ধারের দেড় মাস পর হত্যার রহস্য উদঘাটন করেছে জেলা গোয়েন্দা পুলিশ (ডিবি)। এ ঘটনায় সুমন মিয়া (২৫) ও মো. খোকন (২৫) নামে দুজনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।

শুক্রবার বিকেলে এসব তথ্য নিশ্চিত করেছেন ডিবি ওসি শাহ কামাল আকন্দ।

তারা দুজনই হত্যাকাণ্ডের বর্ণনা দিয়ে আদালতে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিয়েছে বলেও জানান ওসি।

তিনি বলেন, গত ৩ মার্চ রাতে রুবেল নামে ওই যুবকের রক্তাক্ত লাশ উদ্ধারের পর ৪ মার্চ কোতোয়ালি মডেল থানার মামলা দায়ের হয়। এরপর ১৩ মার্চ হত্যার রহস্য উদঘাটনের জন্য মামলাটি জেলা গোয়েন্দা শাখায় ন্যস্ত করা হয়। পরে পুলিশ সুপারের দিক নির্দেশনায় তদন্ত কার্যক্রম শুরু করে ডিবি।


লকডাউনে শপিংমলে যেতে লাগবে মুভমেন্ট পাস

মালয়েশিয়ায় অবৈধ অভিবাসীদের বৈধ হওয়ার সুযোগ

করোনায় মৃত্যু ও শনাক্ত কমল চট্টগ্রামে

হিরো আলম বললেন, এইটা মরুভূমি না, যমুনা নদীর চর


ওসি আরও বলেন, দীর্ঘ তদন্তের পর অভিযান চালিয়ে বৃহস্পতিবার রাত ৮ টার দিকে আসামি সুমন মিয়াকে ভালুকা উপজেলার ড্রাইভারপাড়া এলাকা থেকে এবং রাত সাড়ে ১০ টার দিকে সদরের চরভবানীপুর কোনাপাড়া এলাকা থেকে আরেক আসামি খোকনকে গ্রেপ্তার করা হয়।

জিজ্ঞাসাবাদের বরাত দিয়ে ডিবির ওসি শাহ কামাল আকন্দ জানান, গ্রেপ্তার দুই আসামিই এ হত্যার জড়িত থাকার কথা স্বীকার করেছে।

তারা জানায়, নিহত রুবেলের কাছে মাদক বিক্রির টাকা পাওনা নিয়ে বাকবিতণ্ডা হয়। এক পর্যায়ে ছুরিকাঘাত করে তাকে হত্যা করে লাশ বেড়িবাঁধে ফেলে চলে যায় হত্যাকারীরা।

এ ঘটনায় শুক্রবার দুপুরে গ্রেপ্তার দুই আসামিকে সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আরিফুল ইসলামের ১ নং আমলি আদালতে হাজির করা হয়। পরে তারা হত্যাকাণ্ডের বর্ণনা দিয়ে ১৬৪ ধারায় স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দেন বলেও জানান ওসি।

news24bd.tv তৌহিদ

মন্তব্য

পরবর্তী খবর

ফেসবুকে সরকারবিরোধী পোস্ট, হেফাজত নেতা ধরা

অনলাইন ডেস্ক

ফেসবুকে সরকারবিরোধী পোস্ট, হেফাজত নেতা ধরা

ফেসবুকে সরকারবিরোধী পোস্ট দেওয়ার অভিযোগে হেফাজত ইসলামের এক নেতাকে গ্রেপ্তার করেছে গোয়েন্দা পুলিশ। গ্রেপ্তার ব্যক্তির নাম মাওলানা ইমরান নোমানী।

শুক্রবার (২৩ এপ্রিল) দুপুরে তাকে বিচারিক আদালতে পাঠানো হয়।

গ্রেপ্তার মাওলানা ইমরান নোমানী নোয়াখালী জেলা হেফাজতের আহ্বায়ক কমিটির সদস্য।

নোয়াখালী ডিবি পুলিশের ইন্সপেক্টর সাইফুল ইসলাম করে বলেন, বৃহস্পতিবার গভীর রাতে অভিযান চালিয়ে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।

ঘটনায় তার বিরুদ্ধে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে মামলা দায়ের করা হয়েছে।

এর আগে তিনি নিজের ব্যবহৃত ফেসবুক আইডি থেকে গত তিন চারদিন ধরে সরকারবিরোধী বিভিন্ন স্ট্যাটাস দিয়ে আসছিল।

লকডাউনে শপিংমলে যেতে লাগবে মুভমেন্ট পাস

মালয়েশিয়ায় অবৈধ অভিবাসীদের বৈধ হওয়ার সুযোগ

করোনায় মৃত্যু ও শনাক্ত কমল চট্টগ্রামে

হিরো আলম বললেন, এইটা মরুভূমি না, যমুনা নদীর চর

news24bd.tv তৌহিদ

মন্তব্য

পরবর্তী খবর

ভার্চুয়াল কোর্টের মাধ্যমে ১৬৭ কিশোরের জামিন

অনলাইন ডেস্ক

ভার্চুয়াল কোর্টের মাধ্যমে ১৬৭ কিশোরের জামিন

করোনার কারণে চলমান ‘লকডাউনে’ ভার্চুয়াল কোর্টের গত আট কর্মদিবসে বিভিন্ন ফৌজদারি মামলায় অভিযুক্ত ১৬৭ কিশোর জামিনে কারামুক্ত হয়েছে।

এই সময়ে দেশে কিশোরসহ মোট ১৫ হাজার ২১৭ হাজতি জামিনে মুক্তি পেয়েছেন। সুপ্রিম কোর্টের মুখপাত্র মো. সাইফুর রহমান আজ শুক্রবার এক বিবৃতিতে এ সব তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

কারামুক্ত ১৫ হাজার ২১৭ হাজতির মধ্যে বৃহস্পতিবার অধস্তন আদালত ও ট্রাইব্যুনাল থেকে জামিন পেয়েছেন এক হাজার ৫৯২ জন। বিচারিক আদালতে মোট তিন হাজার ৩২টি ফৌজদারি মামলা নিষ্পত্তি হয়েছে। আট কর্মদিবসে ভার্চুয়াল কোর্টে ২৬ হাজার ৮৪৮টি জামিন আবেদনের ওপর শুনানি হয়েছে।

আরও পড়ুন:


ওবায়দুল কাদেরকে পদত্যাগের আহ্বান ভাগ্নে মঞ্জুর

২৫ এপ্রিল থেকে দোকানপাট ও শপিংমল খোলা

দেশে গত ২৪ ঘণ্টায় করোনায় মৃত্যু ৮৮

বাগেরহাটে শিশু ধর্ষণের অভিযোগে গ্রেপ্তার ২


করোনা সংক্রমণ বেড়ে যাওয়ায় সুপ্রিম কোর্টের হাইকোর্ট ও আপিল বিভাগ, সারা দেশে অধস্তন আদালত এবং ট্রাইব্যুনালে শারীরিক উপস্থিতি বর্জন করে ভার্চুয়াল পদ্ধতিতে জামিন ও জরুরি ফৌজদারি মামলার শুনানি হচ্ছে।

news24bd.tv / কামরুল 

মন্তব্য

পরবর্তী খবর

হেফাজতের যুগ্ম-মহাসচিব খালেদ সাইফুল্লাহ ৫ দিনের রিমান্ডে

নিজস্ব প্রতিবেদক

হেফাজতের যুগ্ম-মহাসচিব খালেদ সাইফুল্লাহ ৫ দিনের রিমান্ডে

হেফাজতে ইসলামের কেন্দ্রীয় যুগ্ম-মহাসচিব খালেদ সাইফুল্লাহ আইয়ূবী ৫ দিনের রিমান্ডে। গতকাল বৃহস্পতিবার ভোররাতে তাকে মানিকগঞ্জের সিংগাইর থেকে গ্রেপ্তার করা হয়।

বিস্তারিত আসছে...

আরও পড়ুন:


ওবায়দুল কাদেরকে পদত্যাগের আহ্বান ভাগ্নে মঞ্জুর

২৫ এপ্রিল থেকে দোকানপাট ও শপিংমল খোলা

বান্দরবান সীমান্তে বিজিবির সঙ্গে 'বন্দুকযুদ্ধে' রোহিঙ্গা নিহত

বাগেরহাটে শিশু ধর্ষণের অভিযোগে গ্রেপ্তার ২


news24bd.tv / কামরুল 

মন্তব্য

পরবর্তী খবর

এবার ময়মনসিংহে সাবেক ভিপি নুরের বিরুদ্ধে মামলা

সৈয়দ নোমান, ময়মনসিংহ

এবার ময়মনসিংহে সাবেক ভিপি নুরের বিরুদ্ধে মামলা

ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের কেন্দ্রীয় ছাত্র সংসদের (ডাকসু) সাবেক ভিপি নুরুল হক নুরের বিরুদ্ধে এবার ময়মনসিংহে মামলা হয়েছে। জেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক মো. সোহেল গনি বাদী হয়ে মামলাটি দায়ের করেন।

বৃহস্পতিবার বিকালে ময়মনসিংহের কোতোয়ালী মডেল থানায় তিনি এ মামলা দায়ের করেন।

কোতোয়ালী মডেল থানার ওসি ফিরোজ তালুকদার বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। তিনি বলেন, অভিযোগের সত্যতা পাওয়ায় মামলাটি নথিভুক্ত করা হয়েছে।


মুহাম্মাদ (স.) এর জীবনের ঘটনাগুলো আমাকে আলোড়িত করে 

সকাল থেকে মার্কেট খুলেছেন রাজশাহীর ব্যবসায়ীরা

অনেকে মনে করে স্বামী-স্ত্রীর মধ্যে ৫/৬ বছরের গ্যাপ ভালো

৪ দিনের পর আবারও ৭ দিনের রিমান্ডে রফিকুল মাদানী

এ মামালার বরাত দিয়ে ওসি জানান, গত ১৪ এপ্রিল প্রথম রমজানে নুরুল হক নুর তার নিজ নামীয় ফেসবুক আইডি থেকে লাইভে বলেন ‘কোনো মুসলমান আওয়ামী লীগ করতে পারে না, যারা আওয়ামী লীগ করে তারা ধান্দাবাজ, চাঁদাবাজ, মাদক ব্যবসায়ী, চিটার বাটপার, প্রকৃত কোনো মুসলমান আওয়ামী লীগ করতে পারে না, এদের কোনো ঈমান নাই, শুক্রবার একদিন নামাজ পড়তে যাবে, আর পাঁচ ওয়াক্ত নামাজের কোনো খবর নাই, আওয়ামী উগ্রবাদীরা আলেম ওলামাদের চরিত্র হরণ করে, আওয়ামী উগ্রবাদীরা আলেম ওলামাদের নিয়ে যে বিদ্বেষ ছড়াচ্ছে, ফেসবুকে লেখালেখি করছে, তারা কখনও মুসলমান হতে পারে না, এদের কোনো ঈমান নেই।’

মামলার বাদী সোহেল গনি বলেন, ‘এমন বক্তব্য ধর্মীয় অনুভূতিতে আঘাত এবং বিভিন্ন শ্রেণি পেশা সম্প্রাদায়ের মধ্যে শত্রুতা, ঘৃণা, বিক্ষোভ সৃষ্টি করছে। মানহানিকর এ বক্তব্য প্রকাশ ও প্রচার করায় আমি মর্মাহত ও মনে আঘাতপ্রাপ্ত। তাই ময়মনসিংহ কোতোয়ালী মডেল থানায় তার বিরুদ্ধে ডি‌জিটাল নিরাপত্তা আইনে মামলাটি করেছি।’

news24bd.tv তৌহিদ

মন্তব্য

পরবর্তী খবর