কালীগঞ্জের নতুন মেয়র এসএম রবীন
কালীগঞ্জের নতুন মেয়র এসএম রবীন

কালীগঞ্জের নতুন মেয়র এসএম রবীন

Other

গাজীপুরের কালীগঞ্জ পৌরসভা নির্বাচনে মেয়র পদে আওয়ামী লীগ সমর্থিত প্রার্থী এস.এম রবীন হোসেন নৌকা প্রতীক নিয়ে প্রথমবারের মতো জয়লাভ করেছেন।

বেসরকারি ফলাফলে নৌকা প্রতীক নিয়ে রবিন হোসেন পেয়েছেন ১৩ হাজার ৭৮৪ ভোট। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী সতন্ত্র নারিকেল গাছ প্রতীকের প্রার্থী মো. লুৎফুর রহমান পেয়েছেন ১০ হাজার ২২৫টি ভোট।

এছাড়া বিএনপি মনোনীত ধানের শীষ প্রতীকের প্রার্থী ফরিদ আহমেদ পেয়েছেন ১ হাজার ২৯৭ ভোট এবং ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ হাতপাখা প্রতীকের প্রার্থী মো. চাঁন মিয়া পেয়েছেন ৫২৪ ভোট।

৩ হাজার ৫৫৯ ভোটের ব্যবধানে রবীন হোসেন মেয়র নির্বাচিত হন।


গুলি ছুড়ে ইয়েমেনের ক্ষেপণাস্ত্র আকাশেই ধ্বংস করেছে সৌদি

জানা গেল আসল রহস্য, ১৩-১৪ বছরের দুই বোনের সঙ্গেই শরীরিক মেলামেশা ছিল তার

আবাহনীকে ৪-১ গোলে উড়িয়ে দিল বসুন্ধরা কিংস

৬৬ নারীকে ধর্ষণ


রোববার (২৮ ফেরুয়ারি) সন্ধ্যা সাড়ে ৭টার দিকে উপজেলা শহীদ ময়েজ উদ্দিন অডিটোরিয়ামে ফলাফল সংগ্রহ ও পরিবেশন কেন্দ্র থেকে কালীগঞ্জ পৌরসভা নির্বাচন রিটার্নিং কর্মকর্তা ও জেলা নির্বাচন কর্মকর্তা কাজী মো. ইস্তাফিজুল হক আকন্দ এ ফলাফল ঘোষণা করেন।

এ সময় সহকারী রিটার্নিং কর্মকর্তা ও উপজেলা নির্বাচন কর্মকর্তা ফারিজা নূর, কালীগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ একেএম মিজানুল ঘশ উপস্থিত ছিলেন।  

এদিকে, ৯টি সাধারণ ওয়ার্ডে বেসরকারিভাবে বিজয়ী কাউন্সিলররা হলেন- ১ নম্বর ওয়ার্ডে মোফাজ্জল হোসেন আকন্দ (উটপাখি), ২ নম্বর ওয়ার্ডে মু. আফসার হোসেন (উটপাখি), ৩ নম্বর ওয়ার্ডে মো. আশরাফউজ্জামান (পাঞ্জাবী), ৪ নম্বর ওয়ার্ডে মোহাম্মদ বাদল মিয়া (পানির বোতল), ৫ নম্বর ওয়ার্ডে আশরাফুল আলম (পানির বোতল), ৬ নম্বর ওয়ার্ডে আবদুস সালাম (উটপাখি), ৭ নম্বর ওয়ার্ডে মো. নূরে আলম শেখ (উটপাখি), ৮ নম্বর ওয়ার্ডে মো. আমির হোসেন (উটপাখি) ও ৯ নম্বর ওয়ার্ডে মোহাম্মদ শাখাওয়াত হোসেন (উটপাখি)।

এ ছাড়া সংরক্ষিত নারী কাউন্সিল হিসেবে বিজয়ী হয়েছেন- ১, ২, ৩ ওয়ার্ডে আমিরুন নেছা (জবা ফুল); ৪, ৫, ৬ ওয়ার্ডে নার্গিস বেগম (আনারস); ৭, ৮, ৯ নম্বর ওয়ার্ডে কাস্তা (আনারস)।

নির্বাচনে আওয়ামী লীগ, বিএনপি, ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ ও সতস্ত্রসহ ৪ জন মেয়র প্রার্থী এবং ৩৩ জন সাধারণ কাউন্সিলর ও ১০ জন সংরক্ষিত মহিলা কাউন্সিলর প্রার্থী প্রতিদ্বন্ধিতা করেছেন।

পৌরসভার ৯টি ওয়ার্ডের ১৭টি কেন্দ্র ও ১২০টি কক্ষে ইলেকট্রনিক ভোটিং মেশিনে (ইভিএম) ভোটাররা ভোটাধীকার প্রয়োগ করেন।

মোট ভোটার সংখ্যা ৩৬ হাজার ৬৪০ জন। এর মধ্যে ১৮ হাজার ৩২১ জন পুরুষ ও ১৮ হাজার ৩১৯ জন মহিলা ভোটার। মোট ভোট প্রয়োগ হয় ২৫ হাজার ৮৯০টি। এরমধ্যে ৬০টি ভোট নষ্ট হয়।

news24bd.tv তৌহিদ