মাদক মামলা থেকেও ইরফান সেলিমকে অব্যহতি

অনলাইন ডেস্ক

মাদক মামলা থেকেও ইরফান সেলিমকে অব্যহতি

ঢাকা-৭ আসনের সংসদ সদস্য হাজী সেলিমের ছেলে ইরফান সেলিমকে চকবাজার থানায় দায়েরকৃত মাদক মামলা থেকেও অব্যাহতি দিয়েছেন আদালত। সোমবার (১ মার্চ) শুনানি শেষে ঢাকার মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট শাহিনুর রহমান এ আদেশ দেন।

গত ৪ জানুয়ারি মামলার তদন্ত কর্মকর্তা চকবাজার থানার পরিদর্শক (অপারেশন) মুহাম্মদ দেলোয়ার হোসেন এরফান সেলিমের অব্যাহতির সুপারিশ করে প্রতিবেদন দাখিল করেন।


ইয়াবার টাকা না পেয়ে কাঁচি দিয়ে মাকে হত্যা

৯৯৯ এ ফোন এক ঘন্টায় চোরাই মোটরসাইকেল উদ্ধার

ঠাকুরগাঁওয়ে ব্যাংক থেকে বয়স্ক ভাতার টাকা উধাও

আল্লাহর কাছে যে তিনটি কাজ বেশি প্রিয়


এর আগে রাজধানীর চকবাজার থানার অস্ত্র মামলায়ও ইরফান সেলিমকে অব্যাহতি দেয় আদালত। ১৮ ফেব্রুয়ারি ঢাকার মহানগর দায়রা জজ কে এম ইমরুল কায়েশ পুলিশের দেওয়া চূড়ান্ত প্রতিবেদন গ্রহণ করে তাকে অব্যাহতি দেন।

উলেখ্য, গত ২৫ অক্টোবর নৌবাহিনীর লেফটেন্যান্ট ওয়াসিফ আহমদ খান মোটরসাইকেলে করে যাচ্ছিলেন। এ সময় এমপি হাজী সেলিমের ছেলে ওয়ার্ড কাউন্সিলর এরফান সেলিমের গাড়িটি তাকে ধাক্কা মারে। এরপর তিনি সড়কের পাশে মোটরসাইকেলটি থামিয়ে গাড়ির সামনে দাঁড়ান এবং নিজের পরিচয় দেন। তখন গাড়ি থেকে এরফানের সঙ্গে থাকা অন্যরা একসঙ্গে তাকে মারধর করে। 

ওই ঘটনায় ২৬ অক্টোবর সকালে ইরফান সেলিম, তার বডিগার্ড মো. জাহিদ, এ বি সিদ্দিক দিপু এবং গাড়িচালক মিজানুর রহমানসহ অজ্ঞাত ২-৩ জনকে আসামি করে ওয়াসিফ আহমদ খান বাদী হয়ে ধানমন্ডি থানায় একটি মামলা করেন। বর্তমানে আসামিরা কারাগারে রয়েছে।

news24bd.tv / কামরুল 

মন্তব্য

পরবর্তী খবর

মেঝো ও ছোট স্ত্রীর সঙ্গে বিয়ের কোনো কাবিননামা হয়নি মামুনুলের

অনলাইন ডেস্ক

মেঝো ও ছোট স্ত্রীর সঙ্গে বিয়ের কোনো কাবিননামা হয়নি মামুনুলের

হেফাজতে ইসলামের কেন্দ্রীয় যুগ্ম মহাসচিব মাওলানা মামুনুল হক তিনটি বিয়ের কথা স্বীকার করে মাত্র ১টিতে কাবিন করেছেন বলে জানিয়েছেন পুলিশ।

সোমবার (১৯ এপ্রিল) রিমান্ডের প্রথম দিনেই তিনি এ কথা বলেন বলে জানিয়েছেন মামলার তদন্ত কর্মকর্তা পুলিশের তেজগাঁও বিভাগের উপ-কমিশনার (ডিসি) হারুন অর রশিদ।

ডিসি বলেন, ‘কাগজপত্র ও কাবিন না থাকা সত্ত্বেও বিয়ে কিভাবে বৈধ হলো? এমন প্রশ্নের জবাবে তিনি (মামুনুল হক) বিভিন্ন কুযুক্তি ও অপব্যাখা দেন। জিজ্ঞাসাবাদের শুরুতেই মামুনুলের কাছে তার কথিত বিয়ের বিষয়ে জানতে চাওয়া হয়। বিয়ের ব্যাপারে তিনি নিজের মতো ব্যাখা দেন। তবে, তিনি এটা স্বীকার করেছেন যে, তার শেষ দুই বিয়ের কোনো আইনি ডকুমেন্ট তার কাছে নেই।’


পুলিশের হাতে চিকিৎসক হয়রানি, প্রতিবাদ এফডিএসআরের

সুরা আরাফ ও সুরা আনফালের বাংলা অনুবাদ

নারী ফুটবল দলে করোনার হানা

নিখোঁজের ১১২ দিন পর সেপটিক ট্যাঙ্কে মিলল নারীর লাশ

‘মামুনুলকে গ্রেপ্তারে সরকারের লকডাউন’ যারা বলছেন, তাদের বলছি


তদন্ত সংশ্নিষ্ট একজন কর্মকর্তা জানান, ‘জান্নাতুল ফেরদৌস লিপি মামুনুলের কথিত ছোট স্ত্রী। জান্নাত আরা ঝর্ণাকে দ্বিতীয় স্ত্রী হিসেবে দাবি করছেন তিনি। মামুনুলের প্রথম স্ত্রীর নাম আমেনা তৈয়্যেবা। কথিত মেঝো ও ছোট স্ত্রীর সঙ্গে বিয়ের কোনো কাবিননামা হয়নি বলে সাফ সাফ মামুনুল হক পুলিশকে জানান।’

মামুনুল হক পুলিশকে আরও জানিয়েছেন, ‘যে দু'টি বিয়ে নিয়ে প্রশ্ন উঠেছে তাদের সঙ্গে অনেক দিন ধরেই স্বামী-স্ত্রী হিসেবে বসবাস করে আসছেন। তবে বিয়ে সংক্রান্ত কোনো বৈধ কাগজপত্র তার কাছে নেই। কাবিনামাও নেই। ওই দুই নারীর ডিভোর্স হওয়ায় তাদের প্রতি মানবিক দৃষ্টিভঙ্গি থেকেই এগিয়ে যান তিনি। একজনকে তার নিজস্ব একটি মাদরাসায় চাকরিও দিয়েছেন তিনি।’

গত রোববার (১৮ এপ্রিল) দুপুরে মোহাম্মদপুরের জামিয়া রাহমানিয়া আরাবিয়া মাদরাসা থেকে মামুনুল হককে গ্রেপ্তার করে ঢাকা মহানগর পুলিশের তেজগাঁও বিভাগ। মারধর, হুমকি ও ধর্মীয় কাজে ইচ্ছাকৃত গোলযোগ সৃষ্টি, চুরির অভিযোগে মোহাম্মদপুর থানায় ২০২০ সালের ৭ মার্চ দায়ের করা মামলায় তাকে আজ সোমবার (১৯ এপ্রিল) ৭ দিনের রিমান্ডে পায় পুলিশ।

মোহাম্মদপুর থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) সাজেদুল হক মামুনুল হককে আদালতে হাজির করে ৭ দিনের রিমান্ডের আবেদন করেছিলেন। সেই আবেদনের প্রেক্ষিতে ঢাকার মুখ্য মহানগর হাকিম (সিএমএম) আদালতের বিচারক দেবদাস চন্দ্র অধিকারী রিমান্ড আবেদন মঞ্জুর করেন।

এদিকে মাওলানা মামুনুল হকসহ হেফাজতে ইসলামের অন্যান্য নেতাকর্মীদের বিরুদ্ধে দায়ের করা ২৩টি মামলার তদন্তের দায়িত্ব পেয়েছে পুলিশের অপরাধ তদন্ত বিভাগ (সিআইডি)। যে মামলাগুলো ঢাকা, নারায়ণগঞ্জ, মুন্সিগঞ্জ, কিশোরগঞ্জ, ব্রাহ্মণবাড়িয়া ও চট্টগ্রামসহ দেশের বিভিন্ন থানায় দায়ের করা হয়েছে।

আজ সোমবার (১৯ এপ্রিল) সন্ধ্যায় সিআইডি প্রধান, অতিরিক্ত পুলিশ মহাপরিদর্শক ব্যারিস্টার মাহবুবুর রহমান এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

তিনি বলেছেন, ২০১৬ সালের ৫টি মামলা ও সাম্প্রতিক সময়ের ১৮টি মামলাসহ মোট ২৩টি মামলার তদন্ত করবে সিআইডি। আমরা আশা করছি খুব দ্রুততম সময়ের মধ্যেই তদন্ত শেষ করব এবং যারা এখনও আইনের আওতায় আসেনি তাদের আইনের আওতায় আনার চেষ্টা করব।

তিনি আরও বলেন, হামলা, ভাঙচুর ও সহিংসতার ঘটনায় যারা উপস্থিত ছিল, মদত দিয়েছে, উসকানি দিয়েছে, জ্বালাও-পোড়াও করেছে তাদের ফুটেজ ফরেনসিক করা হবে। ফরেনসিক করে যাদের পাওয়া যাবে তাদের সবাইকেই আমরা আইনের আওতায় আনব।

ইতোমধ্যে যেসব হেফাজত নেতা পুলিশের কাছে গ্রেপ্তার হয়েছেন প্রয়োজনে তাদেরও জিজ্ঞাসাবাদ করবে সিআইডি।

news24bd.tv তৌহিদ

মন্তব্য

পরবর্তী খবর

হেফাজতের ২৫ নেতা গোয়েন্দাদের নজরদারিতে

অনলাইন ডেস্ক

হেফাজতের ২৫ নেতা গোয়েন্দাদের নজরদারিতে

হেফাজতে ইসলামের যুগ্ম মহাসচিব মাওলানা মামুনুল হককে রোববার দুপুরে গ্রেপ্তারের পর এখনো সক্রিয় রয়েছেন- এমন প্রায় ৩০ জনের একটি তালিকা তৈরি করা হয়েছে। যারা সবাই এখন গোয়েন্দা নজরদারিতে রয়েছেন। এর মধ্যে পাঁচজন ইতোমধ্যে গ্রেপ্তার হয়েছেন। বাকি ২৫ জন নজরদারিতে আছেন। এসব নেতার প্রায় সবাই ২০১৩ সালের শাপলা চত্বরের ঘটনার কোনো না কোনো মামলার আসামি। পর্যায়ক্রমে তাদের গ্রেপ্তার হবে। 

সোমবার (১৯ এপ্রিল) তাকে আদালতে তোলা হলে মোহাম্মদপুরে ভাঙচুরের মামলায় সাত দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেছেন ঢাকার চিফ মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট আদালত।


পুলিশের হাতে চিকিৎসক হয়রানি, প্রতিবাদ এফডিএসআরের

সুরা আরাফ ও সুরা আনফালের বাংলা অনুবাদ

নারী ফুটবল দলে করোনার হানা

নিখোঁজের ১১২ দিন পর সেপটিক ট্যাঙ্কে মিলল নারীর লাশ

‘মামুনুলকে গ্রেপ্তারে সরকারের লকডাউন’ যারা বলছেন, তাদের বলছি


এছাড়া, ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির সফরকে কেন্দ্র করে সারাদেশে সহিংসতার ঘটনায় ৭৭টি মামলা হয়েছে। এসব মামলায়ও নজরদারির মধ্যে থাকা অনেককে আসামি করা হয়েছে।

এর মধ্যে হেফাজতের যুগ্ম মহাসচিব ও ঢাকা মহানগর সভাপতি মাওলানা জুনায়েদ আল হাবীবকে রোববার আদালতে হাজির করে পল্টন থানায় ২০১৩ সালের একটি মামলায় রিমান্ড আবেদন করলে আদালত সাত দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেছেন।

এদিকে রোববারই সাত দিনের রিমান্ড শেষ হয়েছে সংগঠনটির কেন্দ্রীয় সাংগঠনিক সম্পাদক আজিজুল হক ইসলামাবাদীর। তাকে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দিয়েছেন আদালত।

ঢাকা মহানগর গোয়েন্দা পুলিশের একাধিক কর্মকর্তার কথায় এ গ্রেপ্তার অভিযান অব্যহত থাকার ইঙ্গিত পাওয়া গেছে।

যুগ্ম কমিশনার মো. মাহবুব আলম বলেছেন, হেফাজতের আরও অনেক নেতা টার্গেটে আছেন। পর্যায়ক্রমে তাদের গ্রেপ্তার করা হবে।

news24bd.tv তৌহিদ

মন্তব্য

পরবর্তী খবর

ডিজিটাল আইনে ঢাকার পর সিলেটেও নুরের বিরুদ্ধে মামলা

অনলাইন ডেস্ক

ডিজিটাল আইনে ঢাকার পর সিলেটেও নুরের বিরুদ্ধে মামলা

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্র সংসদ (ডাকসু)-এর সাবেক ভিপি নুরুল হক নুরের বিরুদ্ধে ঢাকার পর এবার  সিলেটেও ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে মামলা হয়েছে। আওয়ামী লীগের কেউ প্রকৃত মুসলমান না,প্রকৃত মুসলমানরা আ.লীগ করতে পারে না- ফেসবুক লাইভে এসে এমন মন্তব্য করার অভিযোগে এই মামলা করা হয়।

সোমবার সিলেট মহানগর পুলিশের কোতোয়ালি মডেল থানায় মহানগর ছাত্রলীগ নেতা কিশোর জাহার সৌরভ বাদী হয়ে এ মামলা দায়ের করেছেন। 

মামলার বাদি সৌরভ জানান, নুরুল হক নুর সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুক একটি লাইভে এসে আওয়ামী লীগের কেউ প্রকৃত মুসলমান না এবং প্রকৃত মুসলমানেরা আওয়ামী লীগ করতে পারেন না এমন মন্তব্য করে আমাদের ধর্মীয় অনুভূতিতে আঘাত এনেছেন। এ ধরণের উসকানিমূলক ও বিভ্রান্তিমূলক বক্তব্য দিয়ে সমাজে বিদ্বেষ ছড়ানোর অভিযোগে তার বিরুদ্ধে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে মামলা করেছি।

কোতোয়ালি থানার ওসি এস এম আবু ফরহাদ মামলা দায়েরের বিষয়ে নিশ্চিত করে জানান, নুরের বিরুদ্ধে একটি এজাহার দেওয়া হয়েছে। তা আমলে নেয়া হয়েছে। অভিযোগ তদন্ত করে দেখা হবে।

উল্লেখ্য, গত ১৪ এপ্রিল নিজের ফেসবুক পেজে লাইভে এসে ডাকসুর সাবেক ভিপি নুরুল হক নুর ‘আওয়ামী লীগের কেউ প্রকৃত মুসলমান না’ বলে মন্তব্য করেন। একই ঘটনায় শনিবার ঢাকার শাহবাগ থানায় নুরের বিরুদ্ধে আরেকটি মামলা করেন এক যুবলীগ নেতা।

news24bd.tv/আলী

মন্তব্য

পরবর্তী খবর

নুরের বিরুদ্ধে শাহবাগের মামলার তদন্ত প্রতিবেদন দেওয়ার নির্দেশ আদালতের

অনলাইন ডেস্ক

নুরের বিরুদ্ধে শাহবাগের মামলার তদন্ত প্রতিবেদন দেওয়ার নির্দেশ আদালতের

শাহবাগ থানায় ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে ঢাকসুর সাবেক ভিপি নুরুল হক নুরের বিরুদ্ধে দায়ের করা মামলাটি তদন্ত করে আগামী ২ জুনের মধ্যে প্রতিবেদন দাখিলের নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

আজ সোমবার (১৯ এপ্রিল) আদালতে মামলাটির এজাহার গ্রহণ করেন ঢাকা মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট আশেক ইমাম।

এরপর মামলাটি তদন্ত করে তিনি আগামী ২ জুন প্রতিবেদন জমা দেওয়ার নির্দেশ দেন।

আদালতের সংশ্লিষ্ট থানার সাধারণ নিবন্ধন শাখা থেকে এ তথ্য জানা গেছে।

রোববার (১৮ এপ্রিল) আওয়ামী যুবলীগের কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য ব্যারিস্টার মো. আশরাফুল ইসলাম সজীব বাদী হয়ে রাজধানীর শাহবাগ থানায় মামলাটি দায়ের করেন।


সুরা আরাফ ও সুরা আনফালের বাংলা অনুবাদ

নারী ফুটবল দলে করোনার হানা

নিখোঁজের ১১২ দিন পর সেপটিক ট্যাঙ্কে মিলল নারীর লাশ


‘যারা আওয়ামী লীগ করে, তারা কেউ মুসলমান নয়’- সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুকে লাইভে এসে এমন বক্তব্যের অভিযোগে মামলাটি দায়ের করা হয়।

মামলার এজাহারে বলা হয়েছে, গত বুধবার নুর তার নিজস্ব ফেসবুক লাইভে এসে বলেন, ‘আওয়ামী লীগের নেতৃবৃন্দ ও সমর্থকরা প্রকৃত মুসলমান নয়। প্রকৃত কোনো মুসলমান আওয়ামী লীগ করতে পারে না।’ এমন বক্তব্য আওয়ামী সমর্থন করা মুসলমানদের ধর্মীয় মূল্যবোধে আঘাত হেনেছে। তাই মামলাটি রুজু করার আবেদন করা হয়েছে।

ওই লাইভে আওয়ামী লীগ ও দলটির নেতাকর্মীদের সমালোচনা করে নুর বলেন, তারা (আওয়ামী লীগ) মুসলমান না। তাদের কোনো বিশ্বাস নেই। একটু খোঁজ নিয়ে দেখেন, তাদের কেউ পাঁচ ওয়াক্ত নামাজ পড়েন কি-না। তারা শরিয়াহ ও সুন্নাহ অনুসারে নিজেদের জীবনযাপন করছে না।

লাইভে তিনি আরও বলেন, তারা ঘুষ নেয়, চাঁদাবাজি করে, মাদক চোরাচালান এবং টেন্ডার ব্যবসা করেন। আবার নিজেদের মুসলমানও দাবি করেন। কোনো মুসলমান আওয়ামী লীগের সমর্থন করতে পারেন না। যারা আওয়ামী লীগ সমর্থন করেন, তারা প্রকৃত মুসলমান নয়।

এ সময় তিনি বলেন, আওয়ামী লীগ সমর্থকদের চাঁদাবাজ, মাদক চোরাকারবারি, ধোঁকাবাজ, বাটপার বলেছেন। তারা (আওয়ামী লীগ) সপ্তাহে একদিন নামাজ পড়েন, কিন্তু কখনও পাঁচ ওয়াক্ত নামাজ পড়েন না।

news24bd.tv তৌহিদ

মন্তব্য

পরবর্তী খবর

হেফাজতে ইসলাম বাংলাদেশের ২৩ মামলার তদন্তে সিআইডি

অনলাইন ডেস্ক

হেফাজতে ইসলাম বাংলাদেশের ২৩ মামলার তদন্তে সিআইডি

হেফাজতে ইসলাম বাংলাদেশের বিরুদ্ধে করা ২৩ মামলার তদন্তের দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে সিআইডিকে।

বিস্তারিত আসছে...

 

মন্তব্য

পরবর্তী খবর