নাইজেরিয়ায় হিজাব বিতর্ক: মুসলিম ছাত্রীদের পক্ষে রায়

অনলাইন ডেস্ক

নাইজেরিয়ায় হিজাব বিতর্ক: মুসলিম ছাত্রীদের পক্ষে রায়

হিজাব পরার অনুমতি পেয়েছে নাইজেরিয়ার কাভারা প্রদেশের ছাত্রীরা। প্রদেশটির গভর্নরের নির্দেশে এখন থেকেই শিক্ষার্থীরা হিজাব ব্যবহার করে ক্লাসে উপস্থিত হতে পারবেন।

ব্রিটিশ গণমাধ্যম দ্যা গার্ডিয়ান এসব তথ্য জানিয়েছে। সংবাদ মাধ্যটির তথ্য মতে, নাইজেরিয়ার পশ্চিমাঞ্চলীয় কাভারা প্রদেশে রাজধানী ইলুরিনে মুসলিম শিক্ষার্থীদের হিজাব পরা নিয়ে বিতর্কের সৃষ্টি হয়। এরপরই গভর্নর এক বিবৃতিতে, স্কুলগুলোতে ধর্মীয় স্বাধীনতার ওপর গুরুত্বারোপ করে সব ধর্মকে স্বাধীনতা ভোগ করে শান্তিপূর্ণভাবে বসবাস করতে বলেন।

আরও পড়ুন:


‘জন্মের সময় মা-বাবা খুশি ছিলেন না, সুন্দরী বলেই মেনে নিয়েছে’

ভাঙা লেবানন বিএনপি আবারও জোড়া লাগলো

উচ্চ বেতনে পাওয়ার গ্রিড কোম্পানিতে চাকরির সুযোগ

প্রেমের প্রস্তাবে রাজি না হওয়ায় কলেজ ছাত্রীকে হত্যা


বিবৃতিতে বলা হয়, হিজাব ইস্যুতে কোনো বিজয়ী বা পরাজয়কারী নেই। রাজ্য গভর্নর উভয় ধর্মকে (খ্রিস্টান ও মুসলমান), বিশেষত নেতা, বিশেষজ্ঞ এবং মিডিয়া ব্যক্তিত্বকে তাদের কর্ম ও বক্তব্যের দায়বদ্ধতার সঙ্গে একত্রে শান্তিপূর্ণভাবে বাস করতে উৎসাহিত  করছে।

এদিকে কাভারার ইসলামী অধিকার রক্ষাকারী সংগঠনের পক্ষ থেকে ঘোষণা করা হয়েছিল, নারী মুসলিম শিক্ষার্থীরা যাতে তাদের হিজাব ব্যবহার করে তা নিশ্চিত করার জন্য প্রয়োজনীয় সব সাংবিধানিক পদক্ষেপ গ্রহণ করবে।

news24bd.tv আহমেদ

মন্তব্য

পরবর্তী খবর

চলন্ত ট্রেনের সামনে শিশুকে বাঁচানোর ভিডিও ভাইরাল

অনলাইন ডেস্ক

চলন্ত ট্রেনের সামনে শিশুকে বাঁচানোর ভিডিও ভাইরাল

জীবনের ঝুঁকি নিয়ে সাক্ষাৎ মৃত্যুর দুয়ার থেকে এক শিশুকে বাঁচালেন জনৈক ব্যক্তি। দু-এক সেকেন্ড দেরি হলেই শিশুসহ লোকটি কাটা পড়তেন ট্রেনে এমনই একটি ভিডিও ভাইরাল হয়েছে ভারতের সোশ্যাল মিডিয়ায়। 

ভিডিওটি নিজেদের টাইমলাইনে শেয়ার করে সেই ব্যক্তিকে প্রশংসায় ভাসাচ্ছেন ভারতীয় নেটিজেনরা। তাকে বাস্তবের ‘সুপারম্যান’বলে আখ্যা দিচ্ছেন কেউ কেউ।

সাক্ষাৎ মৃত্যুর হাত থেকে বেঁচে ফেরা সন্তানকে পেয়ে বুকে জড়িয়ে ধরে অঝোরে কাঁদতে থাকেন মা।

এ ঘটনার ভিডিও টুইটারে শেয়ার করেছেন ভারতের রেলমন্ত্রী পীযূষ গোয়েলও। 

ভিডিওটি শেয়ার করে অকুতোভয় সেই ব্যক্তির পরিচয় প্রকাশ করেছে ভারতের রেলমন্ত্রণালয়। তারা জানিয়েছে, ভারতের সেন্ট্রাল রেলওয়ের মুম্বাই ডিভিশনের ভাগাগানি রেলস্টেশনে সম্প্রতি ঘটে যাওয়া ঘটনা এটি। আর বাস্তবের ‘সুপারম্যান’খ্যাত ব্যক্তিটির নাম ময়ূর শেলকে। তিনি ওই স্টেশনের একজন রেলকর্মী (পয়েন্টম্যান)। 

ভিডিওতে দেখা গেছে, প্রতিদিনের মতো ঘটনার দিন ডিউটি পালন করছিলেন ময়ূর। অদূরে দাঁড়িয়ে তিনি দেখতে পান একটি শিশু রেল লাইনে পড়ে গিয়েছে। আর ওই লাইন দিয়েই ছুটে আসছে ট্রেন। তখন কনো সময় নষ্ট না করে ওই রেলকর্মী ছুটে যান। নিজের জীবন বাজি রেখে ঝাঁপিয়ে পড়েন রেললাইনে। শিশুটিকে প্লাটফর্মে তুলে নিজেও লাফিয়ে উঠে পড়েন। মাত্র সেকেন্ডের ব্যবধানে দুটি জীবন রক্ষা পায়।

চলন্ত ট্রেনের সামনে ‘সুপারম্যান’ হয়ে শিশুকে বাঁচালেন রেলকর্মী

news24bd.tv/আলী

মন্তব্য

পরবর্তী খবর

ভারত থেকে ফিরে নেপালের রাজা-রাণী করোনায় আক্রান্ত

অনলাইন ডেস্ক

ভারত থেকে ফিরে নেপালের রাজা-রাণী করোনায় আক্রান্ত

ভারতে করোনার দ্বিতীয় ঢেউয়ের মধ্যেই কিছু সতর্কতামূলক ব্যবস্থা নিয়ে ১ এপ্রিল থেকে শুরু হয়েছে কুম্ভমেলা। যদিও দেশটিতে সংক্রমণ বাড়ার মধ্যে এভাবে কুম্ভমেলার আয়োজন নিয়ে শুরু থেকেই সমালোচনা হয়। 

কুম্ভমেলায় একের পর এক আখড়ায় করোনা ধরা পড়ে। কুম্ভমেলায় যোগ গিয়েছিলেন নেপালের সাবেক রাজা জ্ঞানেন্দ্র শাহ এবং রাণী কোমল। মঙ্গলবার তাদের করোনা রিপোর্ট পজিটিভ আসে। 

আরও পড়ুন


স্বাস্থ্যবিধি মেনে বিয়ে করলেন শামীম-সারিকা!

দেশে গত ২৪ ঘণ্টায় করোনায় মারা গেল ৯৫ জন

দেশে গত ২৪ ঘণ্টায় করোনা শনাক্ত ৪২৮০

‘শিশুবক্তা’ রফিকুল ইসলাম এক দিনের রিমান্ডে


ভারত থেকে দেশে ফেরার পর বিমানবন্দরে তাদের স্বাগত জানাতে উপস্থিত ছিলেন কয়েকশ’ মানুষ। রাজা-রাণীর করোনা ধরা পড়ার পর ওই ব্যক্তিদেরও পরীক্ষা করা হচ্ছে। এমনকি কুম্ভ থেকে ফিরলেই বাধ্যতামূলকভাবে করোনা পরীক্ষার কথাও বলেছে কয়েকটি রাজ্য।

এরই মধ্যে হরিদ্বারে কুম্ভমেলায় যোগ দিয়ে গঙ্গাস্নান সারেন ৭৩ বছর বয়সী জ্ঞানেন্দ্র এবং ৭০ বছর বয়সী কোমল। দেশে ফিরতেই নেপালের সাবেক রাজা-রাণীকে স্বাগত জানানো হয়। কিন্তু এখন তাদের করোনা ধরা পড়ায় সেখানে উপস্থিতদের মধ্যে আতঙ্ক ছড়িয়েছে।

news24bd.tv / কামরুল 

মন্তব্য

পরবর্তী খবর

অক্সিজেন না পেয়ে ভারতে ২২ মৃত্যু

অনলাইন ডেস্ক

অক্সিজেন না পেয়ে ভারতে ২২ মৃত্যু

ভারতের মহারাষ্ট্রের নাশিক জেলায় একটি অক্সিজেন ট্যাঙ্কার লিক হয়ে অক্সিজেনের অভাবে ২২ জন করোনা রোগীর মৃত্যু হয়েছে। জেলার কালেক্টর এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন। মহারাষ্ট্রের একটি হাসপাতালের বাইরে অক্সিজেন ট্যাঙ্কার লিক হয়ে ওই দুর্ঘটনা ঘটে। এতে প্রায় ৩০ মিনিট ধরে অক্সিজেন সরবরাহ বন্ধ ছিল। ফলে অক্সিজেনের তীব্র সঙ্কটে ২২ করোনা রোগী প্রাণ হারান।

জাকির হুসেন হাসপাতালের এই  ঘটনার সময় অন্তত ১৭১ জন রোগীর চিকিৎসা চলছিল।এরমধ্যে ৩১ জন রোগীকে অন্য হাসপাতালে সরিয়ে নিয়ে যাওয়া সম্ভব হলেও বাকিরা হাসপাতালেই ছিলেন।

হাসপাতাল সূত্রে খবর, মৃত রোগীদের মধ্যে ১০ জন ঘটনার সময় ভেন্টিলেশনে ছিলেন। তারা প্রত্যেকেই এই ঘটনায় মারা গেছেন।

এ দিকে মহারাষ্ট্রের স্বাস্থ্যমন্ত্রী রাজেস তোপ জানিয়েছেন সরকার এই ঘটনা তদন্ত করবে। তিনি বলেন, আমাদের কাছে আসা তথ্য অনুযায়ী, যেসব রোগীরা ভেন্টিলেটর সাপোর্টে ছিলেন তাদের মৃত্যু হয়েছে। নাসিকের ওই হাসপাতালে করোনা রোগীদের চিকিৎসা চলছিল। ভেন্টিলেশনেও ছিলেন ১০ জন রোগী। অক্সিজেনে ঘাটতির কারণেই তাদের মৃত্যু হয়েছে বলে মনে করা হচ্ছে।

কমিশনার কৈলাস যাদব বলেছেন, হাসপাতালে অক্সিজেন লিকের কারণে প্রায় ৩০ মিনিট বন্ধ রাখতে হয়েছিল অক্সিজেন সরবরাহ। তার ফলে অক্সিজেন না পেয়েই ভেন্টিলেশনে থাকা রোগীদের মৃত্যু হতে পারে।

news24bd.tv/আলী

মন্তব্য

পরবর্তী খবর

ফের আল আকসা মসজিদের ইমামের ওপর ৪ মাসের নিষেধাজ্ঞা

অনলাইন ডেস্ক

ফের আল আকসা মসজিদের ইমামের ওপর ৪ মাসের নিষেধাজ্ঞা

২৬ মার্চে নিষেধাজ্ঞার পর পবিত্র মসজিদ আল-আকসার ইমাম শেখ ইকরিমা সাবরির ওপর ফের চার মাসের নিষেধাজ্ঞা দিয়েছে ইসরায়েল সরকার।

সোমবার (১৯ এপ্রিল) এ সংক্রান্ত একটি চিঠি ইমাম শেখ ইকরিমা সাবরির কাছে পাঠানো হয়েছে।

চিঠিটি ইসরায়েলের স্বারাষ্ট্রমন্ত্রী এরিয়ে ডেরির স্বাক্ষরিত ছিল বলে জানা গেছে। তবে কেনো এই নিষেধাজ্ঞা দেওয়া হয়েছে তার কোনো জবাব বা মন্তব্য পাওয়া যায় নি। 


সুরা আরাফ ও সুরা আনফালের বাংলা অনুবাদ

নারী ফুটবল দলে করোনার হানা

নিখোঁজের ১১২ দিন পর সেপটিক ট্যাঙ্কে মিলল নারীর লাশ


নিষেধাজ্ঞা প্রসঙ্গে আল-আকসার ইমাম বলেন, ইসরায়েলের এই আদেশ অন্যায়। জেরুজালেম ফিলিস্তিনিদের। এটা ইসরাইল নিয়ন্ত্রণ করতে পারে না।

এর আগে গত ২৬ মার্চও শেখ ইকরিমার ওপর একমাসের নিষেধাজ্ঞা আরোপ করা হয়েছিল। সে মেয়াদ শেষ হবার আগেই এবার আরও ৪ মাসের নিষেধাজ্ঞা জারি করা হলো।

news24bd.tv তৌহিদ

মন্তব্য

পরবর্তী খবর

পাকিস্তানের জ্বালানি চাহিদা পূরণ করবে ইরান: রুহানি

অনলাইন ডেস্ক

পাকিস্তানের জ্বালানি চাহিদা পূরণ করবে ইরান: রুহানি

নিরাপত্তা ইস্যুতে তেহরান ও ইসলামাবাদ অভিন্ন দৃষ্টিভঙ্গির অধিকারী। দুই দেশই সীমান্তে নিরাপত্তা জোরদারসহ আঞ্চলিক নিরাপত্তা ও স্থিতিশীলতা চায়। এমন কথা বলেছেন ইরানের প্রেসিডেন্ট ড. হাসান রুহানি।

তিনি আজ (বুধবার) পাকিস্তানের পররাষ্ট্রমন্ত্রী শাহ মাহমুদ কোরেইশি'র সঙ্গে বৈঠকে আরও বলেছেন, পাকিস্তান হচ্ছে আমাদের মুসলিম প্রতিবেশী দেশ। আর্থ-বাণিজ্যিক সম্পর্কসহ সব ক্ষেত্রে দ্বিপক্ষীয় সহযোগিতা আরও বাড়াতে হবে। সীমান্ত বাজারের সংখ্যা ও পরিধিও বাড়ানোর প্রয়োজনীয়তা রয়েছে।


ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় তাণ্ডবের ঘটনায় ২৪ ঘণ্টায় গ্রেপ্তার ১১

ভিপি নুরের নামে আরও এক মামলা

নাটোরের বড়াইগ্রামে দুই ট্রাকের মুখোমুখি সংঘর্ষে চালক নিহত

ইরানের প্রেসিডেন্ট এ সময় আফগানিস্তান থেকে মার্কিন সেনা প্রত্যাহারের সিদ্ধান্তের প্রতি ইঙ্গিত করে বলেন, এই অঞ্চলে মার্কিন সেনা উপস্থিতি কখনোই এই অঞ্চলের নিরাপত্তা ও স্থিতিশীলতার জন্য কল্যাণকর ছিল না। আফগানিস্তানের সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ দুই প্রতিবেশী হচ্ছে ইরান ও পাকিস্তান। কাজেই ওই দেশের শান্তি প্রক্রিয়া এগিয়ে নিতে তেহরান ও ইসলামাবাদের মধ্যে সহযোগিতা জোরদার করতে হবে।

এ সময় ইরানের প্রেসিডেন্ট রুহানি পাকিস্তানের জ্বালানি চাহিদা পূরণ করতে তেহরানের প্রস্তুতির কথা ঘোষণা করেন।

ইরানের প্রেসিডেন্ট ড. হাসান রুহানির সঙ্গে বৈঠকে পাকিস্তানের পররাষ্ট্রমন্ত্রী শাহ মাহমুদ কোরেইশি বলেন, তার দেশ ইরানের সঙ্গে সম্পর্ক জোরদারকে অত্যন্ত গুরুত্ব দেয়।

অদূর ভবিষ্যতেই দুই দেশের সম্পর্কে নয়া অধ্যায়ের সূচনা হবে বলে তিনি আশা প্রকাশ করেন।

news24bd.tv তৌহিদ

মন্তব্য

পরবর্তী খবর