নোয়াখালীতে ধর্ষণের লজ্জা সইতে না পেরে স্কুলছাত্রীর আত্মহত্যা
Breaking News
নোয়াখালীতে ধর্ষণের লজ্জা সইতে না পেরে স্কুলছাত্রীর আত্মহত্যা

নোয়াখালীতে ধর্ষণের লজ্জা সইতে না পেরে স্কুলছাত্রীর আত্মহত্যা

Other

নোয়াখালীর সূবর্ণচরে ধর্ষণের অপমান সইতে না পেরে আত্মহত্যা করেছে এক স্কুলছাত্রী। এমন অভিযোগ করেছেন নিহত ছাত্রীর পরিবার। নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যায় ওই ছাত্রী।

মঙ্গলবার দুপুরে সুধারাম পুলিশ তার লাশ ময়নাতদন্তের জন্য মর্গে পাঠিয়েছে।

নিহত স্কুলছাত্রী সূবর্ণচর উপজেলার চরজব্বর থানার চর জুবলী ইউনিয়নের শহীদ জয়নাল আবেদীন মডেল সরকারি উচ্চ বিদ্যালয় থেকে এবার এসএসসি পরীক্ষার্থী ছিলো। সে ওই ইউনিয়নের চর জিয়া উদ্দিনের মো. আলমগীরের মেয়ে।


সবইতো চলছে, শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান কেন ঈদের পরে খুলবে: নুর

আইন চলে ক্ষমতাসীনদের ইচ্ছেমত: ভিপি নুর

রাঙামাটিতে বিজিবি-বিএসএফের পতাকা বৈঠক

৭৫০ মে.টন কয়লা নিয়ে জাহাজ ডুবি, শুরু হয়নি উদ্ধার কাজ


নিহতের চাচা ফিরোজ শাহ জানান, ফজলে রাব্বি রুবেল (১৯) নামে এক বখাটে রোববার (২৮ ফেব্রুয়ারি) তিনটায় তার ভাতিজিকে বাড়িতে একা পেয়ে ধর্ষণ করে। ওই অপমান সইতে না পেরে ওই দিন সন্ধ্যা ৭ টার দিকে সে বিষপান করে। তাকে সূবর্ণচর স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিলে সেখান থেকে তাকে নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতালে পাঠায়। নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতালে সোমবার রাত সাড়ে ১২ টায় চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মুত্যু হয়। বখাটের বিরুদ্ধে মামলা করবেন বলে জানান নিহতের চাচা।

স্কুল ছাত্রীর বাবা মো. আলমগীর হোসেন জানান, তিনি গাজীপুর একটি পোষাক কারখানায় চাকরি করেন। তার তিন মেয়ে দুই ছেলে। রোববার তার স্ত্রী বড় মেয়েকে নিয়ে তার কাছে (গাজীপুর) যান।

ছোট মেয়ের কাছে তার নানীকে রেখে গেলেও তিনি (নানী) ওই দিন দুপুরে একটি কাজে পার্শ্ববর্তী মান্নান নগরে গেলে বখাটে রুবেল তাকে একা পেয়ে ধর্ষণ করে। অভিযুক্ত রুবেল জেলার সদর উপজেলার পাক কিশোরগঞ্জের শল্লা গ্রামের জাহাঙ্গীর আলমের ছেলে। তিনি (আলমগীর) একজন দোকানদার থাকাকালে সে কিছুদিন তার দোকানের কর্মচারী ছিলো। সে সুবাদে পরিবারের সদস্যদের কাছে পরিচিত ছিল রুবেল।

সুধারাম থানার ওসি শাহেদ উদ্দিন বলেন, লাশ ময়নাতদন্তের জন্য পাঠানো হয়েছে। এ বিষয়ে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়ার জন্য চরজব্বর থানায় বলা হয়েছে।

চরজব্বর থানার ওসি মো. জিয়াউল হক বলেন, আমি ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছি। পরিবারের লোকজন ধষর্ণের বিষয়টি মৌখিকভাবে জানিয়েছে। এখনো কোনো লিখিত অভিযোগ পাইনি। অভিযোগ পেলে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

news24bd.tv তৌহিদ

;