‘মধ্যপ্রাচ্যে ইরানের প্রভাব প্রতিহত করতে চায় আমেরিকা’

‘মধ্যপ্রাচ্যে ইরানের প্রভাব প্রতিহত করতে চায় আমেরিকা’

অনলাইন ডেস্ক

ইরানের সর্বোচ্চ নেতার সামরিক উপদেষ্টা ব্রিগেডিয়ার জেনারেল হোসেইন দেহকান বলেছেন, মধ্যপ্রাচ্যে গোলযোগ ও সহিংসতা জিইয়ে রাখা আমেরিকার দীর্ঘমেয়াদি পরিকল্পনার অংশ এবং যুদ্ধ চালু থাকলেই এ অঞ্চলে আমেরিকার স্বার্থ রক্ষিত হয়।

বার্তা সংস্থা ইরানপ্রেস’কে দেয়া এক সাক্ষাৎকারে এ মন্তব্য করেন তিনি। ইরানের সাবেক প্রতিরক্ষামন্ত্রী দেহকান বলেন, মার্কিনীরা পশ্চিম এশিয়ার ভূ-রাজনীতি ওলট-পালট করে দিতে চায়। তারা গোলযোগকে উপলক্ষ করে এ অঞ্চলে নিজেদের সামরিক উপস্থিতিকে বৈধতা দেয়ার লক্ষ্যে এখানে পরিকল্পিতভাবে  সহিংসতা বাধিয়ে রাখতে চায়।

সেইসঙ্গে মধ্যপ্রাচ্যের তাবেদার শাসকদেরকে পতনের হাত থেকে রক্ষা করাও আমেরিকার আরেকটি উদ্দেশ্য।

জেনারেল দেহকান আরো বলেন, আর আমেরিকার এসব জঘন্য কাজের অন্যতম লক্ষ্য হচ্ছে মধ্যপ্রাচ্যে ইরানের ক্রমবর্ধমান প্রভাব প্রতিহত করা। তিনি বলেন, আজ ইরান-সমর্থিত প্রতিরোধ অক্ষ মধ্য এশিয়ায় আমেরিকা ও তার তাবেদার বাহিনীর মোকাবিলায় শক্ত প্রতিরোধ গড়ে তুলেছে।

আরও পড়ুন


দেশের বেশ কয়েক জেলায় বজ্রসহ শিলাবৃষ্টির আভাস

ট্রেনের টিকিট কাটতে হবে নতুন নিয়মে

বিএনপির ঢাকা সমাবেশের স্থান পরিবর্তন

টিকা নেয়ার ২৭ দিন পর করোনায় আক্রান্ত ডিএমপি কমিশনার


ইরানের সর্বোচ্চ নেতার সামরিক উপদেষ্টা বলেন, আমেরিকা ও মধ্যপ্রাচ্যের কিছু তাবেদার শাসক এ অঞ্চলে উগ্র জঙ্গি গোষ্ঠী আইএস সৃষ্টি করেছিল।

এই জঙ্গি গোষ্ঠী এ অঞ্চলের কয়েকটি মুসলিম দেশকে টার্গেট করে ধ্বংসলীলা শুরু করেছিল। আর সে সময় ইসলামি প্রজাতন্ত্র ইরান এই জঙ্গি গোষ্ঠীর বিরুদ্ধে অস্ত্র ধরে তাকে ধ্বংস করে।

তিনি বলেন, কাজেই ইরান মধ্যপ্রাচ্যে শান্তি ও নিরাপত্তা প্রতিষ্ঠায় নিজের ভূমিকা প্রমাণ করেছে। ইরান যেমন এ অঞ্চলে সহিংসতা চায় না তেমনি অন্য কোনো দেশের ওপর আগ্রাসন চালানোর অভিপ্রায়ও তেহরানের নেই বলে তিনি মন্তব্য করেন।

news24bd.tv আহমেদ

পাঠকপ্রিয়